Entertainment Image
Entertainment Image

‘জাজবা’

জাজবা’ সিনেমার মধ্য দিয়ে আবারও রূপালি পর্দায় আসছেন বলিউডের রানী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। আর কিছুদিন অপেক্ষা মাত্র এপ্রিলেই মুক্তি পাচ্ছে সঞ্জয় গুপ্তা পরিচালিত অ্যাকশন থ্রিলার ‘জাজবা’ সিনেমার ফার্স্ট লুক। এক টুইট বার্তায় এমটিই জানিয়েছেন তিনি। সঞ্জয় গুপ্তা তার টুইটে লিখেছেন, এপ্রিলেই ‘জাজবা’র ফার্স্ট লুক প্রকাশ করা হবে। টুইটে পরিচালক আরও জানান, তিনি তার সমস্ত ফোকাস সিনেমায় দিয়েছেন। এই সিনেমায় প্রচারমূলক গান অন্তর্ভুক্ত না করার সিদ্ধান্তও নিয়েছেন।
দীর্ঘ পাঁচ বছর পর আবারও চলচ্চিত্রের রূপালি পর্দায় ফিরছেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। এই সিনেমায় ঐশ্বরিয়ার বিপরীতে অভিনয় করবেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা জন আব্রাহাম। এ সিনেমায় গ্যাংস্টার আবু সালেমের ভূমিকায় অভিনয় করবেন জন। এতে আরও অভিনয় করেছেন ইরফান খান, শাবানা আজমি, অনুপম খের প্রমূখ। ‘জাজবা’ সিনেমার পাশাপাশি আরও কিছু সিনেমায় কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ঐশ্বরিয়া।
ফ্রান্সের কান চলচ্চিত্র উৎসবে সিনেমাটির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন সিনেমার প্রযোজক ও পরিচালক সঞ্জয় গুপ্তা। এর আগে সঞ্জয় গুপ্তা তার টুইটার একাউন্টে ঐশ্বরিয়ার শুটিংয়ের একটি ছবি পোস্ট করেন। ঐশ্বরিয়া ‘জাজবা’ সিনেমার শুটিং করছেন লিখে ছবি পোস্ট করে উচ্ছসিত সঞ্জয় লেখেন, ‘সি ইজ ব্যাক’ অর্থাৎ ফিরেছেন ঐশ্বরিয়া। ছবিতে ঐশ্বরিয়াকে কালো জ্যাকেট পরিহিত অবস্থায় কম্পিউটার ল্যাবরেটরিতে কাজ করতে দেখা গেছে। ঐশ্বরিয়ার এ ছবি দেখে স্বামী অভিষেক বচ্চন লিখেছেন ‘লাভ ইট’।
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

থমকে আছেন আলিশা

গত ছয় মাস ধরে কোন খোঁজ নেই ঢাকাই চলচ্চিত্রে নবাগতা আলিশার‌। একসঙ্গে অনেকগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ঘোষণা দিয়ে ডুব মেরেছেন। সদ্য প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলামের ‘অন্তরঙ্গ’ চলচ্চিত্রে আগামী মাসেই অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে তার।
কিন্তু আলিশার কি হয়েছে? কেন তিনি কোথাও নেই? জানতে হলে গল্পটা আরেকটু দীর্ঘায়িত হবে...
নায়িকা হতে এসে সবাই যখন পরিচালক প্রযোজকের পেছনে ছুটছেন তখন নিজেই প্রযোজক বনে গেছেন এমন নায়িকা কি কেউ আছে? আছেন। তিনিই গ্ল্যামার গার্ল আলিশা প্রধান। বিত্তবান পরিবারের এ কন্যা নিজের প্রযোজনাতেই নায়িকা হতে চান। নির্মাণ করতে চান ভালো কিছু চলচ্চিত্র। তেমন আগ্রহ থেকেই শুরু করেছিলেন পথ চলা।
প্রযোজনা কার্নিভাল মোশন পিকচার থেকে আলিশা শুরু করেছিলেন প্রখ্যাত পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম সহ চার সফল পরিচালক শাহিন-সুমন, সোহানুর রহমান সোহান, জাকির হোসেন রাজু ও ইফতেখার চৌধুরীকে নিয়ে। চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘অন্তরঙ্গ’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে এপ্রিলেই। কিন্তু বাকি চলচ্চিত্রগুলোর কাজ থমকে আছে। থমকে আছেন আলিশাও। গত ছয়মাস তিনি মিডিয়া থেকে দূরে। কেউ তার কোন খোঁজ পাচ্ছেন না। তিনিও মিডিয়া থেকে দুরত্বে রেখেছেন নিজেকে।
কারন জানতে চাইলে আলিশা প্রিয়.কমকে বলেন, পারিবারিক কাজে খুব ব্যস্ততা যাচ্ছে আমার। প্রতিদিন বাবার অফিস, মায়ের অফিস আর নিজের প্রোডাকশান হাউজে ঘুরতে ঘুরতে টায়ার্ড। সিনেমার ব্যপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছি একটি সিনেমা মুক্তি না পেলে আরেকটি সিনেমার কাজে হাত দিবো না। তাই প্রথমত চাষী নজরুল ইসলামের ‘অন্তরঙ্গ’ চলচ্চিত্রটির মুক্তির অপেক্ষায় আছি ।’
সম্প্রতি বরেণ্য নির্মাতা চাষী নজরুল ইসলাম এর প্রয়াণের পর চলচ্চিত্রটির কাজ থমকে যায়। আলিশা জানান, প্রায় ৯৫ ভাগ কাজ শেষ করে যেতে পেরেছিলেন তিনি। বাকি অংশের কাজ শেষ করে কিছুদিনের মধ্যেই চলচ্চিত্রটি সেন্সরে পাঠাবেন আলিশা।
তারপর তার অভিষেক। নায়িকা হিসেবে নিজেকে কোন অবস্থানে দেখতে চান? জানতে...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

ফেসবুক থেকে ফিল্মে

তানহা তাসনিয়া। ফেসবুক পাগল এক মেয়ে। সেলফির পর সেলফি দিয়ে ভরিয়ে রাখেন নিজের ফেসবুকের দেয়াল। টুকটাক মডেলিং আর পড়াশোনাতেই বেশ চলছিল তানহার। এমন সময়েই একদিন ফেসবুকে দেখা হয়ে যায় মডেল ও চিত্রনায়ক নিরবের সঙ্গে।
কে আগে ফ্রেন্ড রিকুয়েস্ট পাঠিয়েছিলো তা মনে না করতে পারলেও জমে ওঠে নিরবের সঙ্গে তানহার বন্ধুত্ব। এভাবে চলতে চলতেই একদিন তানহাকে চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়ে বসলেন নিরব। তানহার তো তখন আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়ার মতো অবস্থা। গল্পও পছন্দ হয়ে গেল তার। এভাবেই তানহার অভিষেক হয় সিনেমায়। রফিক শিকদার পরিচালিত 'ভোলা তো যায় না তারে' ছবিটির কাজও এখন শেষের পথে।
এদিকে ছবির কাজ শেষ হতে না হতেই তার হাতে চলে এসেছে 'শফিক হাসান পরিচালিত 'ধুমকেতু' ছবির কাজ। এ ছবিতে তার নায়ক শাকিব খান। সঙ্গে আছেন আরেক নায়িকা পরী মনি। তাতে কি! শাকিব খানের মতো বড় তারকার সঙ্গে কাজ করতে পেরেই আনন্দিত তানহা।
শাকিব খানের মতো বড় একজন তারকার সঙ্গে কাজ করার অভিজ্ঞতাটা এখনো তার কাছে স্বপ্নের মতোই মনে হচ্ছে। তানহা বলেন, 'কখনো ভাবিনি এত তাড়াতাড়ি শাকিব খানের মতো একজন বড় তারকার বিপরীতে কাজ করবো।'
তিনি আরও বলেন, ‘প্রথম দিকে শাকিব খানের সঙ্গে কাজ করার সময় আমার নার্ভাসনেসটাই বেশি কাজ করতো, যদিও একই সঙ্গে এক্সাইটেডও হতাম। আর এখন নার্ভাসনেসটা কমে গেছে। এ ছাড়া শাকিব ভাই ও আমাকে যথেষ্ট হেল্প করছেন।'
তানহার জন্ম ব্রাহ্মণ বাড়িয়া হলেও বেড়ে ওঠেছেন ঢাকাতেই। ঢাকার মিরপুরেই কেটেছে শৈশব কৈশোরের রঙিন সময়। দুই বোন এক ভাইয়ের সংসারে তানহা সবার বড়।
ও আরেকটা খবর দিতে ভুলেই গেছি! গত (২৬মার্চ) কিন্তু তানহা তাসনিয়ার জন্মদিন। কততম জন্মদিন জানতে চাইলে বললেন মেয়েদের বয়স বলতে নেই। কেমন কাটলো নিজের জন্মদিন?
তানহা বললেন,...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

বাংলাদেশকে ‘নতুন পাকিস্তান’ বললেন কলকাতার শিল্পী রূপম

বাংলাদেশের মানুষকে উদ্দেশ্য করে চরম বিষোদগার করেছেন কলকাতা বাংলা ব্যান্ড ফসিলসের জনপ্রিয় ভোকাল রূপম ইসলাম। তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বাঙ্গালিদের উদ্দেশ্য করে এমন কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত করেন।
বাংলাদেশ ভারতের মধ্যকার কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ পরবর্তী সময়ে বিতর্ক, আর বাংলাদেশিদের প্রতিক্রিয়াতে ক্ষুব্ধ হয়ে ‘নতুন পাকিস্তান’ -এর অভ্যূদ্বয় ঘটেছে বলেও স্ট্যাটাসে বলেন এই শিল্পী। রূপম ইসলাম বলেন, ‘অনেক ম্যাচ জিতেছি, তার থেকে অনেক অনেক বেশী ম্যাচ হেরেছি। তথাকথিত ভারত-পাকিস্তান বিদ্বেষের গল্প শুনেছি, কিন্তু আমার পরিবেশে কখনো ছায়া ফেলেনি। অত্যন্ত লজ্জার সঙ্গে গত কয়েক দিন ধরে এক নতুন পাকিস্তানের অভ্যূদ্বয় সহ্য করছি, আমার অভিজ্ঞতায় যা বিরলতম’।
বাংলাদেশিরা ছোটলোক, তারা মানুষ হয়ে উঠেনি বলেও মন্তব্য করেন ফসিলসের এই শিল্পী। রূপম ইসলাম কবি গুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি চরণকে খানিক পরিবর্তন করে বলেন, ‘আর যায় করি এইসব ছোট লোকদের আর কখনোই আমি মানুষের মর্যাদা দিবো না। রেখেছো ‘ছোট লোক’ করে, মানুষ করোনি…’।
বাংলাদেশিদের বাঙ্গালি বলতেও তিনি নারাজ, বাংলাদেশিদের বাঙ্গালি বললে তিনি অস্তিত্বের সংকটে পড়ে যাবেন বলেও মন্তব্য করেন এই শিল্পী। রূপম বলেন, ‘সরি! এদেরকে যদি বাঙ্গালি বলি তাহলে আমি অস্বিত্বের সংকটে পড়ে যাবো। হয় আমি বাঙ্গালি, বুকের পাটাওয়ালা, ‘হেরে গিয়ে একে ওকে দোষ দিয়ে প্যানপ্যানানি গাওয়া’ না, সৌরভ গাঙ্গুলির মতো শতো অবিচার সহ্য করে নিয়ে মাঠে জবাব দেয়ার মতো বাঙ্গালি; অথবা এরা। এই ধরণের ছোটলোকামির কোনো দরকার ছিলো কি’?
উল্লেখ্য, কোলকাতার এই শিল্পী বাংলাদেশেও মোটামুটি জনপ্রিয় ছিলো। বাংলাদেশিদের এইরকম সরাসরি আঘাতের পর এখন দেখার বিষয়, তাকে কতোটা ভালো চোখে নেয় তার বাংলাদেশি ভক্ত অনুরাগীরা। যদিও এইরকম গুরুত্বপূর্ণ একজন শিল্পীর কাছ থেকে এইরকম মনবৈকল্যমূলক মন্তব্য কখনোই কাম্য নয়।
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

ভুলে ভুলেই কাটছে দিন

সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে দ্বিধা-দ্বন্দ্বে ভোগেন না এমন মানুষ খুব কমই পাওয়া যাবে। তবে কেউ বেশি দ্বিধায় ভোগেন আবার কেউ কম। হালের নবাগত নায়িকা অমৃতা খান নাকি এ ক্ষেত্রে এক কাঠি সরেশ। বেশিরভাগ সময়েই থাকেন দ্বিধার ভেতর। ব্যক্তিগত জীবন থেকে শুরু করে অভিনয় জীবনেও বার বার দ্বিধা-দ্বন্দ্বের কারণে মাশুল গুনেছেন এই অভিনেত্রী।
অমৃতা বলেন, 'কি করব, না করব- এটা ঠিকমতো বুঝে উঠতে পারি না। ফলে হুট-হাট সিদ্ধান্ত নিতে গেলেই ভুল করে ফেলি। এর ফলে পড়তে হয় ঝামেলাতেও।’
ঝামেলায় পড়লে অমৃতা অবশ্য আশ্রয় খোঁজেন মা-বাবার কাছেই। এ প্রসঙ্গে অমৃতা বলেন, ‘প্রথম প্রথম ভাবি যে কিছুই হবে না, সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর যখন ঝামেলাই পড়ি তখন মাকে গিয়ে বলি। তখন মা’র ঝাড়ি খেয়ে তওবা করি যে আর ভুল করবো না। কিন্তু তারপরও ভুল করে বসি।’
অমৃতার কাছে এসব নিয়ে সবচেয়ে বাজে অভিজ্ঞতা হচ্ছে ‘মিশন দক্ষিণ আফ্রিকা’র শুটিংয়ে গিয়ে সেখানকার বিমান বন্দরে আটকে যাওয়ার ঘটনা। অমৃতা বলেন, ‘আমার জীবনের সবচেয়ে বড় ভুল ছিল, কোনো রকমের যাচাই বাছাই না করেই ‘মিশন দক্ষিণ আফ্রিকা’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়া। কী করবো নিরবের কথায় বিশ্বাস করেই এই বড় ভুল করেছি। আর এর সমাধান করতে হয়েছে বাবা-মাকেই।‘
এ ছাড়া স্কুল-কলেজ আর পড়ালেখা করার ক্ষেত্রেও তার ভুল সিদ্ধান্তের কারণে নানা বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়েছে তাকে। তবে এসব নিয়ে নিজের চেয়ে নিজের বয়সকেই বেশি দোষ দেন এই অভিনেত্রী। তিনি বলেন, ‘আমি এখনো অনেক ছোট। নিজে সিদ্ধান্ত নেওয়ার মতো পরিপূর্ণতা এখনো আমার আসে নি।’
তাহলে অমৃতার উপায় কী! ভুলে ভুলেই কি কাটবে অমৃতার দিন? সমাধানও জানালেন নিজ মুখেই, ‘ভেবেছি এখন থেকে আর নিজে নিজে কোনো সিদ্ধান্ত নিবো না। কোনো কিছু করার আগে মাকে বলবো। কারণ মা-ছাড়া অন্য কেউ ভাল সিদ্ধান্ত...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

ববির এপার-ওপার

একসময় ওপার বাংলার তারকারা তাকিয়ে থাকতেন এপার বাংলায় অভিনয় করার জন্য কিন্তু দিন যতই গড়াচ্ছে ততই এর উল্টোচিত্র প্রকট হয়ে উঠছে। এখন এপার বাংলার নায়িকারা ওপারে সুযোগ পেলে যেন বর্তে যান।
জয়া আহসান, কুসুম শিকদার, সোহানা সাবা, নিপুণ, রুহি, মাহিয়া মাহি’র পর এবার ববিও অভিনয় করতে যাচ্ছেন ওপার বাংলার ছবিতে। ছবির নাম রংবেরং। বিক্রম চোপড়া পরিচালিত এ ছবিতে ববির নায়ক আসিফ আজিম এবং ইন্দ্রনীল। এপ্রিল থেকে ছবিটির শুটিং শুরু হবার কথা।
এদিকে এ মাসেই শুরু হওয়ার কথা ছিল ববির নিজের পরিচালনায় ছবি ‘রক্ষা’। কিন্তু তা আর হচ্ছে না। কারণ আর কিছুই নয়, ছবিটির পরিচালক ইফতেখার চৌধুরী ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন অন্য একটি ছবির শুটিং নিয়ে। জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত ‘অগ্নি-২’ নিয়ে তিনি এখন ব্যস্ত সময় পার করছেন ব্যাংককে। আর এরপরপরই ইফতেখার চৌধুরী জাজের পরবর্তী ছবি ‘পিকনিক’ এর কাজ শুরু করবেন। পিকনিক ছবির মাধ্যমেই জাজের ছবিতে প্রথমবারের মতো যুক্ত হলেন এই নায়িকা। তার বিপরীতে আছেন কলকাতার নায়ক ওম। ফলে নিজের ছবি পিছিয়ে গেলেও আফসোস থাকছে না ববির।
এদিকে ২৭ মার্চ মুক্তি পেল তার অভিনীত ‘অ্যাকশন জেসমিন’। ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত ছবিটিতে তাকে প্রথমবারের মত দ্বৈত চরিত্রে দেখা যাবে।
ববি বলেন, ‘সবমিলিয়ে বেশ ভাল সময়ই বলবো আমি। তবে এই মুহূর্তে বেশি ভাবছি অ্যাকশন জেসমিন নিয়ে। জানিনা দর্শক ছবিটি কীভাবে নিবে। তবে আমার অভিনীত ছবিগুলোর ভেতরে এই ছবিটির গল্প আমার সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে। বলতে পারেন আমার পছন্দের একটি ছবি হতে যাচ্ছে।’
শুধু তাই নয়, ববির হাতে আছে ওয়ানওয়ে নামের আরও একটি ছবি। ইফতেখার চৌধুরী পরিচালিত এ ছবিটির গল্পও গড়ে ওঠেছে ববিকে ঘিরেই।
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

বিশ্বকাপ শেষে বাংলাদেশ হাসে

গত দেড়মাস ক্রিকেটজ্বরে আক্রান্ত ছিলো বিশ্ব। থাকবেই বা না কেনো! বিশ্বকাপ বলে কথা! বিশ্বকাপ ক্রিকেটের দাপটে সরব ছিলো আমাদের বিনোদন জগৎও। বলতে গেলে বিনোদন তারকাদের থেকে এবারের মতো সুরগোল আর কখনই দেখেনি বাংলাদেশ। আমাদের বিনোদন জগতের তারকারা এবার এমনই ক্রিকেটে মজে ছিলেন যে, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হওয়া ক্রিকেট বিশ্বকাপের ২৯ মার্চ ফাইনাল পর্যন্ত তারা যেনো ক্রিকেটের ক্রিটিকস বনে গিয়েছিলেন! বাংলাদেশের প্রত্যেকটি ম্যাচ নিয়ে তারকাদের মধ্যে ছিলো এবার দারুন উত্তেজনা, ছিলো বাড়তি উচ্ছ্বাস, ছিলো তর্ক-বিতর্কও! ক্রিকেট আর বিনোদন জগৎ মিলেমিশে যেনো একাকার হয়ে গিয়েছিলো গত দেড় মাসে। গত দেড়মাসে ঘটে যাওয়া সব কিছুই জানাচ্ছি।
এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দল ঘোষণার পরই বিনোদন আর ক্রিকেট জগৎ সরব হয় ‘নাজনীন আক্তার হ্যাপী’ নামের একজন মডেল ও অভিনেত্রীকে নিয়ে। কারণ তিনি বাংলাদেশের অন্যতম পেসার রুবেল হুসেইনের নামে ধর্ষণ ও প্রতারণা মামলা করেছিলেন। পেসার রুবেলকেও ক’দিন হাজত খাটতে হয়। যদিও তিনি জামিনে মুক্ত হয়ে বাংলাদেশ দলের হয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বিশ্বকাপ খেলতে গিয়েছিলেন। হ্যাপীর এমন ঘটনার পর ক্রিকেট ও বিনোদন জগতে তোলপাড় শুরু হয়। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়েও হ্যাপী-রুবেলকে জড়িয়ে ঘটে নানা বিতর্ক!
বিশ্বকাপে বিশেষ করে বাংলাদেশের ম্যাচের দিন স্যোশাল মিডিয়ায় আর আর সবার মতোই বিনোদন জগতের তারকা অভিনেতা,অভিনেত্রী ও নির্মাতারাও সরব ছিলেন। তারা নিজের দলকে প্রতিপক্ষের সাথে লড়াইয়ে অনুপ্রেরণা ‍যুগিয়েছেন প্রতিনিয়ত। প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের মতো বড় আসরে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে বাংলাদেশ কোয়ার্টার ফাইনালে যাওয়ায় তারকাদের মধ্যে ছিলো বাঁধভাঙ্গা উচ্ছ্বাস! ফেসবুক, টুইটার, ব্লগ আর সামাজিক যোগাযোগের নানান মাধ্যম স্বাক্ষী হয় সেই আবেগঘন আনন্দ মুহূর্তের! ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সবার মধ্যে তৈরি হয় এক অজানা আত্মবিশ্বাসের। বাংলাদেশের মানুষ স্বপ্ন দেখতে থাকে কোয়ার্টার ফাইনাল উতরে যাওয়ার! স্বপ্ন দেখবেই বা না কেনো! প্রতিপক্ষ যখন হয় ভারত!...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

যে ১০টি দেশের নারীরা সৌন্দর্যের জন্য বিশ্বজুড়ে বিখ্যাত

নারীর সৌন্দর্যের চাইতে আলোচিত বিষয় বোধহয় গোটা বিশ্বে আর কিছুই নেই। সুন্দরী নারী আছেন পৃথিবীর সর্বত্র। তবে হ্যাঁ, এমন কিছু দেশ আছে যেখানকার সুন্দরীরা খ্যাত তাঁদের অসম্ভব সুন্দর চেহারা, আবেদনময়ী ফিগার, আকর্ষণীয় ব্যক্তিত্ব ও চমৎকার ফ্যাশন সেন্সের জন্য। চলুন, দেখে নিই এই ১০ দেশের সুন্দরীদের এবং জানি কেন তাঁরা পৃথিবী জুড়ে এতটা বিখ্যাত!
ব্রাজিল
তালিকার শুরুতে বলাই বাহুল্য যে আছে ব্রাজিলিয়ান সুন্দরীরা। অসংখ্য ফিটনেস মডেল এই দেশটি থেকেই এসেছে। ধারালো চেহারা, সাথে দারুণ মানানসই ফিগার, উজ্জ্বল তামাটে সোনালি ত্বক আর ব্লনড বা ব্রুনেট চুলের অধিকারী ব্রাজিলিয়ান সুন্দরীরা মিশুকও বটে। সবমিলিয়ে সেরা আবেদনময়ী তাঁরাই।
রাশিয়া
রাশিয়ান সুন্দরীরাও পৃথিবী বিখ্যাত। তাঁদের সাগর নীল চোখ, নিখুঁত সুন্দর ত্বক, দারুণ ফিগার ও চমৎকার উচ্চতার কারণে সমাদৃত তারা পৃথিবী জুড়ে।
ভেনিজুয়েলা
ভেনিজুয়েলার মেয়েরা কতটা সুন্দরী সেটা মিস ওয়ার্ল্ড বা মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতা জেতার সংখ্যাটা গুনলেই বুঝতে পারবেন। বেশিরভাগ নারীই এদেশে একহারা ছিপছিপে গড়নের ও সাথে ছিমছাম মিষ্টি চেহারা অধিকারী। এর ছিমছাম ব্যাপারটিই তাঁদের আবেদন বাড়িয়ে তোলে বহুগুণে।
ভারত
ভারতীয় রূপসীদের কদর যে এখন পৃথিবী জুড়েই, সেটা বলিউডের দিকে তাকালেই বেশ বোঝা যায়। তামাটে রঙ, একটু ভারী ও দারুণ আকর্ষণীয় ফিগার, সাথে মায়াকাড়া চেহারা ও কালো চুল- সবমিলিয়ে ভারতীয় নারীদের আবেদন অমোঘ।
আর্জেন্টিনা
আর্জেন্টিনার সুন্দরীরা বিখ্যাত তাঁদের সৌন্দর্য সচেতনতার জন্য। নিজেদের ভারি খেয়াল রাখেন তাঁরা, ত্বক ও চুলের করে ভীষণ যত্ন। একই সাথে ফ্যাশন সচেতন এই নারীরা সব সময়েই নিজেদের সাজাতে ভালোবাসেন হাল ফ্যাশনের পোশাকে। নিজেদের উজ্জ্বল চুলের জন্যও বিখ্যাত তাঁরা।
সারবিয়া
প্রায় ৯৯ ভাগ সারবিয়ান নারীই দারুণ উচ্চতা ও অসাধারণ ফিগারের অধিকারী। সাথে মানানসই হাল ফ্যাশনের পোশাক তাঁদেরকে করে তোলে আরও আকর্ষণীয়। তাঁদের ভীষণ সপ্রতিভ দৃষ্টি তাঁদেরকে করে তোলে...
[…]