Entertainment Image

থমকে আছেন আলিশা



গত ছয় মাস ধরে কোন খোঁজ নেই ঢাকাই চলচ্চিত্রে নবাগতা আলিশার‌। একসঙ্গে অনেকগুলো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ঘোষণা দিয়ে ডুব মেরেছেন। সদ্য প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলামের ‘অন্তরঙ্গ’ চলচ্চিত্রে আগামী মাসেই অভিষেক ঘটতে যাচ্ছে তার।
কিন্তু আলিশার কি হয়েছে? কেন তিনি কোথাও নেই? জানতে হলে গল্পটা আরেকটু দীর্ঘায়িত হবে...
নায়িকা হতে এসে সবাই যখন পরিচালক প্রযোজকের পেছনে ছুটছেন তখন নিজেই প্রযোজক বনে গেছেন এমন নায়িকা কি কেউ আছে? আছেন। তিনিই গ্ল্যামার গার্ল আলিশা প্রধান। বিত্তবান পরিবারের এ কন্যা নিজের প্রযোজনাতেই নায়িকা হতে চান। নির্মাণ করতে চান ভালো কিছু চলচ্চিত্র। তেমন আগ্রহ থেকেই শুরু করেছিলেন পথ চলা।
প্রযোজনা কার্নিভাল মোশন পিকচার থেকে আলিশা শুরু করেছিলেন প্রখ্যাত পরিচালক চাষী নজরুল ইসলাম সহ চার সফল পরিচালক শাহিন-সুমন, সোহানুর রহমান সোহান, জাকির হোসেন রাজু ও ইফতেখার চৌধুরীকে নিয়ে। চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘অন্তরঙ্গ’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে এপ্রিলেই। কিন্তু বাকি চলচ্চিত্রগুলোর কাজ থমকে আছে। থমকে আছেন আলিশাও। গত ছয়মাস তিনি মিডিয়া থেকে দূরে। কেউ তার কোন খোঁজ পাচ্ছেন না। তিনিও মিডিয়া থেকে দুরত্বে রেখেছেন নিজেকে।

কারন জানতে চাইলে আলিশা প্রিয়.কমকে বলেন, পারিবারিক কাজে খুব ব্যস্ততা যাচ্ছে আমার। প্রতিদিন বাবার অফিস, মায়ের অফিস আর নিজের প্রোডাকশান হাউজে ঘুরতে ঘুরতে টায়ার্ড। সিনেমার ব্যপারে সিদ্ধান্ত নিয়েছি একটি সিনেমা মুক্তি না পেলে আরেকটি সিনেমার কাজে হাত দিবো না। তাই প্রথমত চাষী নজরুল ইসলামের ‘অন্তরঙ্গ’ চলচ্চিত্রটির মুক্তির অপেক্ষায় আছি ।’

সম্প্রতি বরেণ্য নির্মাতা চাষী নজরুল ইসলাম এর প্রয়াণের পর চলচ্চিত্রটির কাজ থমকে যায়। আলিশা জানান, প্রায় ৯৫ ভাগ কাজ শেষ করে যেতে পেরেছিলেন তিনি। বাকি অংশের কাজ শেষ করে কিছুদিনের মধ্যেই চলচ্চিত্রটি সেন্সরে পাঠাবেন আলিশা।
তারপর তার অভিষেক। নায়িকা হিসেবে নিজেকে কোন অবস্থানে দেখতে চান? জানতে চাইলে আলিশা বলেন, ‘আমার মিডিয়ায় আসাটা আসলে অনেকটা শখের বশে। পারিবারিক কাজের সঙ্গেই জড়িত ছিলো মিডিয়ার কাজ। কিন্তু সিনেমায় সত্যিই আমি ভালো কিছু করতে চাই। অন্তত দশ বারোটা চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে চাই আমি যার কারনে আমাকে অনেকদিন মনে রাখবে দর্শক।’

মিডিয়ায় কিছুদিন গ্ল্যামারের ঝলক দেখিয়ে আলিশা এখন সন্তর্পণে এগুচ্ছেন। এখন পথ আলিশার গন্তব্যকে নির্দেশ করে না বরং আলিশাই তার গন্তবের দিকে নিজের পথ তৈরী করেন।