Entertainment Image
Entertainment Image

সৎ মায়ের সঙ্গে বলিউড তারকাদের সম্পর্ক কেমন

বলিউডের অনেক জনপ্রিয় অভিনেত্রী ‘সৎ’ মার বিশেষণ নিয়ে সংসার করছেন। আর তাদের সন্তানদের মধ্যে এখন অনেকেই তারকাও হয়ে গেছেন। বলিউডের মধুবালা থেকে কারিনা কাপুরের ঘরে রয়েছে ‘সৎ’ সন্তান। এদের মধ্যে অনেক সৎ মা আছেন যাদের সৎ ছেলেদের সম্পর্ক ভালো না আবার অনেকেই আছেন যারা দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন এবং সুখে সংসার করছেন স্বামী এবং সৎ সন্তানদের সঙ্গে।
সুপ্রিয়া পাঠক-শহীদ কাপুর
সৎ মা হলেও সুপ্রিয়াকে যথেষ্ট সম্মান করেন শহীদ। আর সৎ মা সুপ্রিয়া নিজের ছেলের মতোই দেখেন। যদিও শহীদের বাবা পঙ্কজ কাপুর তিনটি বিয়ে করেছেন। শহীদের বিয়েতে তার তিন মা উপস্থিত ছিলেন।
শ্রীদেবী-অর্জুন কাপুর
অর্জুন কাপুর মনে হয় তার আসল মায়ের জায়গা দিতে পারেনি। তাই তো কিছুদিন আগে কফি উইথ করণ-অনুষ্ঠানে তাকে বলতে শোনা গিয়েছে, তার কাছে শ্রীদেবী শুধুই তার বাবার স্ত্রী, তার বেশি কিছু নন। তবে নিজের মা মোনা কাপুরের কথা উল্লেখ করে অর্জুন বলেন, মা শিখিয়েছেন কাউকে অসম্মান না করতে।
হেমামালিনী-ববি-সানি দেওল
বাবা ধর্মেন্দ্রের সঙ্গে ববি আর সানি দেওলের বন্ধুর মতো সম্পর্ক। তবে তারা কখনি তাদের সৎ মা হেমামালিনীকে অসম্মান করেন নি। তাদের সঙ্গে হেমার খুবই ভালো সম্পর্ক রয়েছে।
কারিনা কাপুর খান-সারা-ইব্রাহিম
সাইফ আলী খান যখন বিয়ে করেন অমৃতাকে তখন সাইফ তার স্ত্রীর চেয়ে ১৬ বছরের চেয়ে ছোট ছিল। তাদের ঘরে জন্ম নেয় ইব্রাহিম আর সারা। বিচ্ছেদের পরে সাইফ বিয়ে করেন কারিনাকে। তবে সৎ মা কারিনার সঙ্গে সাইফের আগের ঘরের সন্তানদের বন্ধুর মতো সম্পর্ক।
হেলেন-সালমান খান
সৎ মা হেলেন নিজের মায়ের মতোই দেখেন সালমান। কখনও তার এই মাকে অসম্মান করেন না। হেলেনও সালমানের মতো ছেলে পেয়ে খুবই খুশি। তাই তারা খুব সুখেই আছেন।
শাবানা আজমি-ফারহান আখতার
ফারহান, তার বোন জয়ার সঙ্গে মসৃণ সম্পর্ক শাবানার।...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

বাস্তবেও খুনের সঙ্গে জড়িত যে বলিউড তারকারা

আজকাল পত্রিকা কিংবা টিভি চ্যানেল হয়ে উঠেছে দূর্বিষহ- খুললেই চোখে পড়ে খুনের সংবাদ। যদিও বাস্তব কাহিনি নিয়েই গড়ে ওঠে সিনেমার প্লট, তবে কিছু কিছু খুনের ঘটনা হার মানায় রূপালী পর্দার গল্পকেও। চোখে ঠুলি পরা নাগরিক জীবনেও আঁতকে ওঠে সকলে- এটা কি মানুষের কাজ! স্বার্থ, সম্পর্ক কিংবা মানবিকতা ভুলে বাস্তবের এসব খুনে কাহিনিতে জড়িয়ে আছে মিডিয়ার মানুষজনও। পর্দার অভিনয়কে বাস্তবে এনে হত্যা কিংবা আত্মহত্যায় অভিযুক্ত এমন কিছু ভারতীয় তারকা-
ইন্দ্রানী মুখার্জি: নিজের মেয়ে শিনা হত্যা মামলায় গত ২৫ আগস্ট মুম্বাই পুলিশ গ্রেপ্তার করেছেন স্টার ইন্ডিয়ার সিইও পিটার মুখার্জির স্ত্রী ইন্দ্রানীকে। মায়ের হাতে মেয়ে খুন! এমন ঘটনায় শুধু মিডিয়া নয়, চমকে উঠেছে দেশবাসী। খুনের ভয়াবহতায় আঁতকে উঠেছে বিশ্বের সকল স্বাভাবিক চিন্তার মানুষ। খুনী এই মায়ের জীবনী হার মানাবে কোন অপরাধ বিষয়ক অনুষ্ঠানের ধারণাকেও।
মাত্র ১৬ বছর বয়সে সিদ্ধার্থ দাসের সঙ্গে সম্পর্কে মেয়ে শিনা ও ছেলে মিখায়েলের মা হন ইন্দ্রানী। আসামের বাপের বাড়ি সন্তানদের রেখে ১৯৯০ সালে চলে আসেন কলকাতা। ১৯৯৩ সালে বিয়ে করেন সঞ্জীব খান্নাকে, জন্ম নেয় মেয়ে বিধি। স্বামী সন্তান রেখে ২০০১ সালে উড়াল দেন মুম্বাই, কাজ নেন একটি এইচআর ফার্মে যার ক্লায়েন্ট আম্বানীর রিলায়েন্স গ্রুপ। ২০০২ সালে দেখা পান কোম্পানীর বড়কর্তা পিটার মুখার্জির। পূর্বাভাষ ছাড়াই কলকাতায় ফিরে ডিভোর্স করেন সঞ্জীবকে। ২০০২ সালের নভেম্বরে মেয়েকে সঙ্গে নিয়েই বিয়ে করেন পিটারকে। স্টার ইন্ডিয়ার সিইওর স্ত্রী, হয়ে ওঠেন কোম্পানীর অন্যতম প্রধান ব্যক্তি।
২০০৫ সালে স্বামী পিটারের সঙ্গে প্রেমিকের সন্তান শিনা ও মিখায়েলকে পরিচয় করিয়ে দেন নিজের ছোট ভাই বোন হিসেবে। মুম্বাইয়ের সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজে পড়তে পাঠান তাদের। ২০০৮ সালে দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে সেরা ৫০ ভারতীয় নারী ব্যবসায়ীর মধ্যে নিজের নাম প্রকাশ করান...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

বলিউডি ছবিতে ভাই-বোনের অকৃত্রিম রসায়ন

ভাইয়ের হাতে বোনের রাখি- রাখি পূর্ণিমার এই পূন্য সময়ে ভাইয়ের সুরক্ষা ও মঙ্গল কামনায় রাখি বেঁধে দেয় বোনেরা। ভাই-বোনের সম্পর্কের পবিত্রতা ও গভীরতায় তাই দিনটির গুরুত্ব অপরিসীম।
বলিউডেও বেশ জাঁকজমক করে পালন করা হয় দিনটি। সেলুলয়েডেও ভাই-বোন হিসেবে বন্দি হয়েছেন জনপ্রিয় তারকারা। কিছু কিছু ছবিতে ভাই-বোন হিসেবেই জনপ্রিয় হয়েছেন অনেক তারকা জুটি। ভাই-বোনের এই অকৃত্রিম রসায়নে তেমন ক'জন তারকা-
প্রিয়াঙ্কা চোপড় ও রণবীর সিং: জয়া আখতারের সিনে ভাই-বোন পিগি চপস ও রণবীর। ‘দিল ধরকনে দো’ ছবিতে প্রথমবার ভাই বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তাঁরা। আর তাদের কেমিস্ট্রি নজরে এসেছে দর্শকদের।
করিশ্মা কাপুর ও হৃতিক রোশন: ‘ফিজা’ ছবিতে নায়ক-নায়িকার রসায়ন থেকেও নজর কেড়েছে করিশমা-হৃতিক ভাই-বোনের কেমিস্ট্রি। এই ছবিতে বড় বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন করিশমা কাপুর, যে প্রতি মুহূর্তে তার ভাইকে রক্ষা করতে চায়।
শাহরুখ খান-ঐশ্বরিয়া: ছেলেবেলা থেকে তারা বেস্ট ফ্রেন্ড। সব সময় ঘুরে বেড়ায় ভাইয়ের বাইকের পিছনে। ‘জোশ’ ছবিতে শাহরুখ-ঐশ্বরিয়ার খাট্টি-মিঠি ভাই বোনের সম্পর্ক নজর কাড়ে সিনেপ্রেমীদের।
আরবাজ খান ও কাজল: বোনের জন্য সব কিছু করতে পারে, এমনকি বিয়েও করতে চান না আরবাজ। বোন নয়- যেন নিজের মেয়ে। বড় ভাইয়া আরবাজের সঙ্গে ‘প্যায়ার কিঁয়া তো ডরনা কয়া' ছবিতে কাজলের কেমিস্ট্রি ছিল চোখে পরার মতো।
সঞ্জয় সুরী ও জুহি চাওলা: ‘মাই ব্রাদার নিখিল' ছবিতে জুহি আর সঞ্জয় সুরীর কেমিস্ট্রি ছিল অসাধারন। একজন বোন তার ভাইয়ের জন্য কি করতে পারে আর কি না তাই দেখানো হয়েছে ছবিতে।
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

৪০ বছর পরেও মুখের সংলাপে \'শোলে\'

'কিতনে আদমি থে', 'তেরা কেয়া হোগা কালিয়া' 'ইয়ে হাত হামকো দে দে ঠাকুর', 'তুমহারার নাম কেয়া হ্যায় বাসান্তি?' অথবা 'ইন কুত্তোকো সামনে মাত নাচনা বাসান্তি'- এমন আরও অসংখ্য সংলাপ আজও ঘোরে মানুষের মুখে মুখে। গল্প, গান, চরিত্র এবং সর্বোপরি 'শোলে' ছবিটি ভারতীয় ছবির ইতিহাসে জনপ্রিয়তার মাইলস্টোন। কিন্তু সংলাপ- ৪০ বছর পেরিয়ে গেলেও আজও নতুন, আজও স্বমহিমায় ব্যবহৃত হচ্ছে জীবনের নানা ক্ষেত্রে।
১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট মুক্তি পায় রমেশ সিপ্পী পরিচালিত ছবি 'শোলে'। চিত্রনাট্য এবং কালজয়ী সংলাপ লিখেছেন সেলিম-জাভেদ। ছবির মিউজিক করেছেন রাহুল দেব বর্মন। সঞ্জীব কুমার, অমিতাভ বচ্চন, ধর্মেন্দ্র, জয়া বচ্চন, হেমা মালিনী এবং আমজাদ খান অভিনীত এ ছবির কিছু জনপ্রিয় সংলাপ-
কিতনে আদমি থে....
"তেরা কেয়া হোগা কালিয়া"
"ইয়ে হাত হামকো দে দে ঠাকুর"
হোলি কাব হ্যায়? কাব হ্যায় হোলি???
"শুয়ার কি বাচ্চো"
তুমহারার নাম কেয়া হ্যায় বাসান্তি?
ইতনি সাঁন্নাটা কিউ হ্যায় ভাই?
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

বিয়ে করে শোবিজ থেকে হারিয়ে গেছেন যে নায়িকারা

মাঝে মাঝেই ভক্তদের হৃদয় চুরমার করে খবর বেরোয় প্রিয় নায়িকার বিয়ের খবর। এরপর ভক্তরা আশায় থাকেন আবারো পর্দায় দেখা দিবেন প্রিয় অভিনেত্রী। কিন্তু না, বিয়ে, সংসার আর সন্তান নিয়ে ব্যস্ত হতে হতে একসময় হারিয়ে যান এই তারকারা। হারানো সেই তারকাদের নিয়েই আমাদের এই আয়োজন।
শাবনূর
বিয়ের অনেক আগে থেকেই অভিনয় থেকে দূরে রয়েছেন শাবনূর।সর্বশেষ ২০১৩ সালে মুক্তি পায় শাবনূর অভিনীত ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা। এরপর নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতেও দেখা যায় নি এ নায়িকাকে।আর ছবি মুক্তির কয়েকমাস পরেই ডিসেম্বরের শেষে সন্তান হওয়ার পর থেকে প্রায় দু বছর ছিলেন অভিনয়ের বাইরে।
এদিকে ২০১৫ সালের ১ আগস্ট ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেও ছবিটি ছিলো তিন চার বছর আগের পুরনো ছবি। যার অসমাপ্ত কাজ শেষ করতেই ক্যামেরার সামনে দাড়ান তিনি।আবারো ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে হৈ চৈ ফেললেও তার ঘনিষ্ঠজনরা বলেছেন এটা তার দায়বদ্ধতার জায়গা থেকেই কাজটি করেছেন।যদি তাই হয় তাহলে প্রায় তিন বছর ধরেই নতুন কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হননি শাবনূর। ভবিষ্যতেও ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। ফলে এক হিসেবে হারানো তারকাদের খাতাতেই নাম লেখিয়েছেন এই গুণী অভিনেত্রী।
পূর্ণিমা
বেশ কয়েক বছর আগেই অভিনয় থেকে বিদায় নিয়ে স্বামী সংসার নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন পূর্নিমা।গত বছর এ অভিনেত্রী মা হওয়ার সৌভাগ্য অর্জন করেন। চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যাওয়ার পরও বেশ কিছুদিন শোনা গিয়েছিলো আবারো অভিনয়ে ফিরবেন তিনি।কিন্তু না, ফিরছেন ফিরছেন বলেও তিনি আর আসছেন না রূপালি পর্দায়। এদিকে সন্তান আরশিয়া উমায়জার বয়সও এক বছর পার হয়ে গেল। ফলে পূর্ণিমার ফেরা অনিশ্চয়তাতেই ঘেরা।
সারিকা
জনপ্রিয়তার তুঙ্গে থাকা অবস্থায় হঠাৎ করে নিজের ব্যক্তিগত বিতর্কের কারণে মিডিয়া থেকে ছিটকে পড়েন এই অভিনেত্রী।যতটা অভিনয়ে ফেরার সম্ভাবনা ছিলো তাও শেষ হয়ে যায় গত ১২ আগস্ট...
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

ছয় জুটিতে ছয় নাটক

নাট্যকার ও পরিচালক বদরুল আনাম সৌদ। আসছে পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে এসএ টিভির জন্য তিনি লিখেছেন ছয়টি নাটক, যার সবগুলোর গল্পই একটি নির্দিষ্ট বিষয় নিয়ে লেখা। জনপ্রিয় ১২ জন অভিনেতা ও অভিনেত্রীদের নিয়ে ছয়টি জুটি করে তাদের দেখতে পাবেন দর্শক।
জুটি গুলো হলো আফজাল হোসেন-সাদিয়া ইসলাম মৌ, সুবর্ণা মুস্তাফা-জীতু আহসান, রাইসুল ইসলাম আসাদ-সানজিদা প্রীতি, শম্পা রেজা-রিয়াজ, তারিক আনাম খান-তারিন, সারা যাকের-ইরেশ যাকের—এই ১২ জন শিল্পীকে নিয়ে তৈরি হচ্ছে ছয়টি নাটক।
নাটকগুলো পরিচালনা করবেন ছয়জন নির্মাতা। আরিফ খানের পরিচালনায় তৈরি হবে ‘অপরিচিত এক রাত’, রহমতুল্লাহ তুহিনের পরিচালনায় ‘মেঘের ওপার’, নাহিদ আহমেদ পরিচালনা করবেন ‘গোলমেলে, সকাল আহমেদের পরিচালনায় ‘হবে ছুটি’, মুনতাসির বিপন পরিচালনা করবেন ‘চরিত্রটি কাল্পনিক’ এবং যুবরাজ খান নির্মাণ করবেন ‘একটি অপরাধ এবং এক নিখোঁজ মানুষ’।
ছয়টি নাটক নিয়ে এর রচয়িতা বদরুল আনাম সৌদ বলেন, ‘ছয়টি ভিন্ন ধাঁচের গল্প নিয়েই নাটক গুলো দেখতে পাবে দর্শক। সবগুলো গল্পে থাকছে লাভ, কমেডি ও সাসপ্নেস।’
ইতিমধ্যেই আরিফ খান পরিচালিত নাটকটির দৃশ্যধারণ শুরু হয়ে গেছে। আর একদিন দৃশ্যধারণ করলেই শেষ হয়ে যাবে। এখন চলছে তুহিন পরিচালিত নাটকটির কাজ, যাতে অভিনয় করছেন সুবর্ণা ও জীতু। বাকি নাটক গুলোর দৃশ্যধারণ পর্যায়ক্রমে শুরু হবে।
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

প্লাস্টিক সার্জারির কল্যানে তারকাদের সুন্দর হাসি

হলিউড তারকা বলে কথা- পায়ের নখ থেকে চুল পর্যন্ত ধরা পরে ক্যামেরার লেন্সে। রূপ, আকর্ষন, আবেদনের পাশাপাশি হাসিটাও হতে হয় ভূবন ভোলানো। কিন্তু প্রকৃতি প্রদত্ত হাসি যদি মনোপূত না হয়! দুশ্চিন্তার অবকাশ নেই- প্রযুক্তির এ যুগে তারা বিপুল পরিমাণ অর্থের বিনিময়ে করে নেন প্লাস্টিক সার্জারি।
তাদের হাসিতে কাঁপে ভক্তের হৃদয়- তবে ব্রিটনি স্পেয়ার্স, লিন্ডসে লোহান, মাইলি সাইরাস, ক্রিস্টেন ডান্সট, সিলেন ডিওন, শ্যারেল কোল, ক্যাথরিন জেটা জোন্স, ভিক্টোরিয়া বেকহামের হাসিটা কিন্তু প্লাস্টিক। অর্থাৎ সার্জারির সাহায্যেই পাল্টে ফেলেছেন মুখের গড়ন, বদলে গেছে হাসি।
শুধু নারীরা নয়- হলিউডের মাচো নায়কদের মধ্যেও অনেকে হাসির সৌন্দর্য্য রক্ষায় খরচ করেছেন বিপুল অর্থ। যেমন- মাইক টাইসন, নিকোলাস কেজ, টম ক্রুজ, জিম ক্যারি, বেন অ্যাফ্লেক, জর্জ ক্লুনি।
[…]

Entertainment Image
Entertainment Image

কোথায় আছেন কেমন আছেন লাক্স সুন্দরীরা

বিশ্বের সুন্দরীদের নিয়ে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয় ‘বিশ্ব সুন্দরী প্রতিযোগিতা’। বাংলাদেশেও সুন্দরীদের নিয়ে বিভিন্ন ধরনের প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হচ্ছে ‘লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার’ প্রতিযোগিতাটি। চ্যানেল আই ও ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেড এর যৌথ আয়োজনে এই প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়। ২০০৫ সাল থেকে এই প্রতিযোগিতা শুরু হয়। মাঝখানে ২০০৭ সালে এই প্রতিযোগিতাটি অনুষ্ঠিত হয়নি।
বিশ্বের অন্যান্য দেশের সুন্দরী প্রতিযোগিতার মতো এই প্রতিযোগিতায়ও শুধুমাত্র বাহ্যিক সৌন্দর্য এর মাপকাঠিতে বিজয়ী নির্বাচন করা হয় না। পাশাপাশি অন্যান্য গুণও এখানে বিবেচনা করা হয়।
এই চলচ্চিত্রে যে সেরার মুকুটটি অর্জন করেন তিনি একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের সুযোগের পাশাপাশি পুরস্কার হিসেবে পান একটি ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি ও অভিনয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য আন্তর্জাতিক স্কলারশিপ। প্রতিযোগিতার সেরা পাঁচ জনের জন্যও রয়েছে পুরস্কার।
এই প্রতিযোগিতাটির প্রাথমিক পর্যায় শুরু হয় দেশের বিভাগগুলোতে। সেখান থেকে ইয়েস কার্ড প্রাপ্তদের নিয়ে ঢাকায় অনুষ্ঠিত হয় দ্বিতীয় পর্যায়ের প্রতিযোগিতা। সর্বশেষ বা চূড়ান্ত পর্যায়ে সেরা ১০ জনকে নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় মূল প্রতিযোগিতা।
২০০৫ সালে প্রথমবার বিজয়ীর মুকুট পরেন শানারৈ দেবী শানু। ২০০৬ সালে জাকিয়া বারী মম, ২০০৭ সালে বিদ্যা সিনহা সাহা মীম, ২০০৮ সালে চৈতি, ২০০৯ সালে মেহজাবিন ও ২০১০ সালে শিরোপা জিতেন মাহবুবা ইসলাম রাখি। ২০১১ সালে এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়নি। ২০১২ সালে সেরা সুন্দরীর মুকুটটি জয় করেন সামিয়া সাঈদ। ২০১৩ সালে এই প্রতিযোগিতাটি হয়নি। এরপর ২০১৪ সালে সেরা সুন্দরী হন নাদিয়া আফরিন মীম।
শানারৈ দেবী শানু: লাক্স-চ্যানেল আই সুপার স্টার এর প্রথম অর্থাৎ ২০০৫ এর সেরা সুন্দরী নির্বাচিত হয়েছিলেন শানারৈ দেবী শানু। সিলেট শানুর জন্মশহর। এই এলাকার ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী মণিপুরী মেয়ে তিনি।
২০০৯ সালের ২৭ ডিসেম্বর পরিবারের অমতে ৫ বছরের পুরনো প্রেমিক শান্তুনু বিশ্বাসকে বিয়ে করেন শানু। শানুর...
[…]