"রসরচনা" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

মোহাম্মদ অয়েজুল হক

৩ বছর আগে লিখেছেন

সে তিনি এবং আমি (প্রতিযোগীতা/ক্যাটাগরি 3 , চতুর্থ পর্ব)

বেশ চমৎকার একটা শিরোনাম লিখেছি। আজকাল নিজের সবকিছুই কেমন চমৎকার মনে হয়। মনে করতে পারেন, আমি আজ ফুটবল খেলেছি অথবা ক্রিকেট কিংবা কোন একটা প্রোগ্রামে গান করেছি বা বক্তব্য দিয়েছি। আমার কাছে মনে হবে সব কিছুই চমৎকার হলো। চমৎকার খেললাম, গান করলাম, চমৎকার বক্তব্য দিলাম…. চমৎকার। সব মিলিয়ে আমি নেতা না হলেও নেতাদের গুনাবলী আমার ভেতর পয়দা হতে শুরু করেছে। নেতাদের সব কিছুই যেমন চমৎকার, সঠিক ও নির্ভুল তেমনি আমারও….!
দলের কথা বলি যে দল যখন ক্ষমতায় যায় তাদের আমলে তাদের দৃষ্টিতে দেশটা চমৎকার চলে। আহা দেশ, এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ চমৎকার চলছে। নেতাদের ভাষায় দেশটা খরস্রোতা নদীর স্রোতের মতো সামনে এগিয়ে... continue reading

৪৫৫

আহসান কবির

৩ বছর আগে লিখেছেন

পুরাণে লিখিত শয়তান নাকি সন্ন্যাসী?

আহসান কবির
হুমায়ূন আহমেদকে নতুন করে মনে পড়ার কারণ হচ্ছে পুলিশ। বাংলাদেশের জনপ্রিয়তম এই লেখকের বাবা ফয়জুর রহমান পুলিশে চাকরি করতেন, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হয়েছিলেন। পুলিশকে নিয়ে সবচেয়ে বেশি প্রচলিত রসিকতা বোধ করি এমন- পুলিশের পোশাকে এত পকেট থাকে কেন? উত্তর হচ্ছে- পাবলিকের টাকা জোর করে ছিনিয়ে নেওয়ার পর সেগুলো রাখার জায়গা করার জন্য।
হুমায়ূন আহমেদ অবশ্যই সেটা জানতেন। এ কারণেই তিনি তার প্রিয় চরিত্র হিমুর হলুদ পাঞ্জাবিতে একটিও পকেট রাখেননি। সাধু পুরুষদের নাকি টাকা লাগে না! এক সময়ে পুলিশ বানান নাকি দুইভাবে লেখা হতো। একটা পুলিশ। কেউ কেউ এটাকে ব্যঙ্গ করে বলতো- পুলিশের পূর্ণরূপ- পুরাণে লিখিত শয়তান! অন্যটা... continue reading

৪৮৯

কাঠ পুতুল

৩ বছর আগে লিখেছেন

থুতু মারি সুশীলদের এই দ্বৈত নীতিকে...

যেসব মেয়েরা সামান্য কিছু টাকার বিনিময়ে দেহ বিক্রি করে সমাজ তাঁদের বলে পতিতা । অপরদিকে, যেসব মেয়েরা হাজার টাকার বিনিময়ে লুকিয়ে দেহ বিক্রি করে সমাজ তাদের বলে সোসাইটি গার্ল । যারা আর একটু বেশী দামে দেহ বিক্রি করে সমাজ তাদের বলে পার্টি গার্ল । 
আর সবচেয়ে ভয়াবহ হচ্ছে তথাকথিত শিক্ষিত মেয়েরা যখন রাস্তা দিয়ে দেহ দেখিয়ে- দেখিয়ে হাঁটে নিউ মার্কেট , KFC, বিভিন্ন পার্কে বয়ফ্রেন্ডের কোলে বসে আড্ডা দেয় মাঝে মাঝে টিপ খায় (কপালের টিপ না), কিস খায় এবং মাঝে মাঝে সেই বয়ফ্রেন্ডের সাথে লিটনের ফ্ল্যাটে যায়, পয়লা বৈশাখে লাল- সাদা শাড়ী পড়ে হাজারটা ছেলের সাথে ডলাডলি করে, পান্তা খায়, আর... continue reading

৬২৬

তামান্না তাবাসসুম

৪ বছর আগে লিখেছেন

আমার সবাই আদর্শ ছাত্র!

আমরা বাঙালিরা আর যা-ই হই-না-হই সবাই আর্দশ ছাত্র। স্যারের কথার বাইরে জীবনে আমরা এক পা-ও এগোই না। কাসে যার রেজাল্ট যেমনি হোক না কেন, জীবন চলাতে আমরা সবাই স্যারের দেখানো পথেই চলি। তা সে অফিসের বড় সাহেব বা পাড়ার ছিঁচকে চোর যে-ই হোক না কেন। কি বিশ্বাস হচ্ছে না? চলেন তবে প্রমাণ সমেত উপস্থাপন করি: বের হতে-না-হতেই সামনে পড়ল ‘টো টো মকবুল’।
-কিরে তুই সারা দিন আড্ডা, ঘোরাঘুরি আর অন্ন ধ্বংস ছাড়া জীবনে কি কিছুই করবি না? মানলাম তিনবার অঙ্কে ফেল মারছিস, অন্য কিছু তো চেষ্টা করবি, নাকি?
-কস কী মমিন ! স্যারই তো কইছিল যে, ‘তর দ্বারা কিচ্ছু হইব না’। আমি... continue reading

৬২৬

ওয়াহিদ মামুন

৪ বছর আগে লিখেছেন

চাঁদমুখ

কবিরা যে চাঁদের সৌন্দর্যে এত মূগ্ধ হন, এর মধ্যে প্রিয়ার মুখের প্রতিচ্ছবি দেখতে পান, দূরবীক্ষ্ণণের মধ্য দিয়ে দেখলে সে চাঁদের মধ্যে আকর্ষণীয় কোন সৌন্দর্য কিংবা তাতে প্রিয়ার মুখের কোন প্রতিচ্ছবি দেখতে পাওয়া যায় না! চাঁদকে দেখা যায় ঠিক “চৈত্র মাসের ইঁটার খেতের মত”-তবে ইঁটাগুলো আরও অনেক বড় বড়।কবি আর বৈজ্ঞানিকের দেখার চোখই আলাদা! কবি দেখেন সামগ্রিক রূপটি এবং অনুভব করেন তার বাইরের সৌন্দর্য এবং তাও দূর থেকে।“চাঁদেরে কে চায়? জ্যোৎস্না  সবাই যাচে।”-তারাই কবি।কিন্তু বৈজ্ঞানিক বিশ্লেষণ করে দেখলে তার দৈহিক গঠণ এবং সেখানে সে তার কংকাল ছাড়া আর কিছুই পায় না। 
প্রিয়ার যে চাঁদমুখ ও তার অপূর্ব দেহ-বল্লরী তার প্রেমিককে কবি বানায় এবং... continue reading

৬৩৩

রাজীব নূর খান

৪ বছর আগে লিখেছেন

বৃক্ষ কথা

১। শীতকালীন সবজিগুলোর মধ্যে অন্যতম লাউ। লাউ এর ইংরেজি নাম- Bottle gourd। লাউকে আঞ্চলিক ভাষায় কদু বলা হয়। বৈজ্ঞানিক নাম লাজেনারিয়াস। লাউয়ের জন্ম কিন্তু আফ্রিকায়। বর্তমানে সারাবছরই এ সবজিটি পাওয়া যায়।
কোষ্ঠকাঠিন্য, অর্শ, পেট ফাঁপা প্রতিরোধে সহায়ক। চুলের গোড়া শক্ত করে এবং চুল পেকে যাওয়ার হার কমায়। আপনি যদি ওজন কমানোর কথা ভেবে থাকেন তাহলে খাবার তালিকায় লাউ রাখুন। লাউয়ের চেয়ে এর শাক বেশি পুষ্টিকর। লাউয়ের ৯৬% হলো পানি। লাউ খেলে শরীর ঠান্ডা থাকে। নিয়মিত লাউ খাওয়া উচিত।
সব ধরনের মাটিতেই লাউ হয়। ছোটবেলা দাদীকে দেখতাম- কচি লাউ এর উপরের আবরন টা কুচি কুচি করে কেটে দুধ দিয়ে কি... continue reading

৫৫২

মনজুরুল আলম প্রিন্স

৪ বছর আগে লিখেছেন

ঝাটকা ইলিশ মাছের স্বপ্ন (রম্য)

নামঃ         ইলিশ।
ডাক নামঃ     ঝাটকা ইলিশ
বসবাসঃ      সাগরে
ঘরঃ          পানির নিচে
ওস্তাতঃ       বড় ইলিশ
সখঃ          বড় ইলিশ হওয়া
খ্যাতিঃ       জাতিয় মাছ।
শত্রুঃ          মানুষ
প্রিয় মানুষঃ     যারা ইলিশ মাছ খায় না।
প্রিয় আসাঃ      ইলিশ খেকো মানুষের যেন এলার্জি হয়।
অপ্রিয় যায়গাঃ  মানুষের পেট।
ঘৃনা করাঃ      যারা ইলিশ মাছ খেতে পছন্দ করে।
বিরক্তকরঃ      কারেন্ট জাল।
ভালবাসাঃ       সারা দেশে 10 নম্বর মাহা বিপদ সংকেত।
ভাললাগাঃ       জালের ছেঁড়া যায়গা।
প্রিয় আইনঃ      ঝাটকা বাচাঁনো।
শেষ ইচ্ছাঃ      জালের ভিতর বন্দি না হওয়া।
শেষ স্বপ্নঃ       আন্তর্জাতিক মাছ ইলিশ হওয়া।
ভবিষৎ ইচ্ছাঃ   মাছের রাজা হওয়া।
প্রিয়... continue reading

১৭ ৭১৪

এই মেঘ এই রোদ্দুর

৪ বছর আগে লিখেছেন

বস ও পিএ (রম্য, পর্ব-৪, ক্যাটাগরি-২)

বস অফিসে নাই........
একটু আরাম করে নেই
বাপরে একটা বস পাইছে হাড়ে হাড্ডিতে বজ্জাত
সারাদিন তার পিছে পিছে দৌঁড়াইতেই হয়
বেটা নিজে কিছুই করতে চায় না
সব আমারে দিয়া করায়......
আরে বলি-------- তোর কি হাত পাও আল্লাহ দেয় নাই
বেটা খচ্চর
সারাদিন গাঁ ঘেষে দাঁড়িয়ে থাকে বদের হাড্ডি।
নিজের স্বার্থের জন্য বেটার সাথে একটু অভিনয় করতেই হয়। খাতিরধারি না করলে আবার চাকরী থাইকা নট কইরা
দিবো নাইলে :( উফসসসসস
আজ একটু সুযোগ পাইছি একটু আরাম করে নেই গড়ড়ড়ড়ড়  
  যাউগ্গা মিটিং টা সাড়তে দেরী হইয়া গেলগা
গিয়াই অমিত্রার হাতের এক কাপ কফি খাওয়া যাবে
বেচারী সারাদিন আমার জন্য ব্যাকূল থাকে
কিন্তু মাঝে মাঝে মনে হয়... continue reading

৭৭৭

kowsar gazi

৪ বছর আগে লিখেছেন

বিঞপ্তি

.....একটি জরুরী প্রেমিকা নিয়োগবিজ্ঞপ্তিঃ একটা গার্লফ্রেন্ড চাই।শিক্ষাগত যোগ্যতাঃ JSCপাশ, S.S.C. অধ্যয়নরতহলে চলবে, তবে,S.S.C. পাশ হলে আবেদন না করারজন্য অনুরোধ করা গেল। উচ্চতাঃ ৫.২"ফিট এর বেশি , এরবেশি হলেওচলবে ওজনঃ সর্ব্বোচ্চ ৪০- ৪৫ কেজি।গায়েররং: উজ্জল শ্যাম হলে ভাল হয়,কাল হলেও চলবে। ফর্সা মেয়েদেরআবেদন করার দরকার নেই।মনমানসিকতাঃ মেয়েরমনমানসিকতা অনেক উচ্চ লেভেলেরহতে হবে।৪২০মেয়েরা দয়া করে আবেদনকরবেনা। ৪২০মেয়েদের সাথে প্রেমকরার চেয়ে সিংগেল থাকা অনেকভাল। বয়স : 15 -.এরবেশি গ্রহনযোগ্য নয়। বেতন ওসুযোগসুবিধাঃ বেতন নাই,তবে মাঝেমাঝে বেড়াতে যাওয়া মানে ডেটিং,আইসক্রিম, আচার, চটপটি,ফুচকা ইত্যাদি খাওয়া ফ্রী। তবে, সবসময়আমি এসব খরচ করতে পারবনা।মাঝেমাঝে ও নিজেও খরচ করতে হবে।পদের সংখ্যাঃ মাত্র একটি।অভিজ্ঞতাঃ এইটা থাকলে আরআবেদন করার দরকার নাই. continue reading

৬১৯

এই মেঘ এই রোদ্দুর

৪ বছর আগে লিখেছেন

স্বপ্ন তো স্বপ্নই (প্রতিযোগিতা ২০১৫, ক্যাটাগরি-২, ছোট গল্প অথবা রম্য)

তিনি গভীর ঘুমে স্বপ্ন দেখতে লাগলেন। বিন্দু বিন্দু ঘাম সারা মুখ জুড়ে। শ্বাস প্রশ্বাস চলছে দ্রুত। হয়তো তিনি কোন দু:স্বপ্ন দেখছেন। বিকট চিৎকারে তার ঘুম ভেঙ্গে গেলো।  
তিনি বসে ভাবছেন, আজিব নারীস্থান গ্রহের যা অবস্থা সুস্বপ্ন দেখার জু আছে নাকি? দিনে দিনে আজিব পুরুষ নারী এলিয়েনগুলো অযথাই ক্ষমতা নিয়ে ক্ষেপে উঠেছে। আরে বাবা.... তোদের কি কোন কিছুর অভাব আছে। এই গ্রহের কত জমি বিনা পয়সায় তোদের নামে করে দিয়েছি। তোদের নিজেদের টিভি চ্যানেল, দৈনিক খবরের কাগজ, টেন্ডারবাজি সব জায়গাতেই তো তোরা প্রথম হয়ে দাঁড়িয়ে আছিস। শালারা এখন লাগছে আরো খাওয়ার ধান্ধায়। বিনাকারণে রক্তপাত ঘটাচ্ছে। এদেরকে লাই দিয়ে দিয়ে... continue reading

১৬ ৬৪১