Site maintenance is running; thus you cannot login or sign up! We'll be back soon.
Nokkhotro Banner

সাইয়িদ রফিকুল হক

২ বছর আগে লিখেছেন

রোহিঙ্গানির্যাতন-ইস্যুতে কি বাংলাদেশ ভয়ংকরভাবে অপরাজনীতির ও ষড়যন্ত্রের শিকার হতে যাচ্ছে?

রোহিঙ্গানির্যাতন-ইস্যুতে কি বাংলাদেশ ভয়ংকরভাবে অপরাজনীতির ও ষড়যন্ত্রের শিকার হতে যাচ্ছে?
সাইয়িদ রফিকুল হক
 
রোহিঙ্গা মানেই সবাই ভালোমানুষ নয়—আবার সবাই খারাপও নয়। এরা মুসলমান কিংবা নামধারীমুসলমানও হতে পারে। কিন্তু এদের অনেকেই জঙ্গিতৎপরতার সঙ্গে জড়িত ছিল, আর এখনও আছে। ইতঃপূর্বে দেখা গেছে, তারা নিজেদের শক্তিমত্তারপ্রমাণ দিতে নিরপরাধ বৌদ্ধভিক্ষুদের পর্যন্ত নির্বিচারে হত্যা করেছে, ধর্ষণ করেছে। আর খুনখারাবি, লুটতরাজসহ নানাভাবে অগ্নিসংযোগের মাধ্যমে নিরীহ ও শান্তিপ্রিয় বৌদ্ধসম্প্রদায়ের উপর নির্বিচারে হামলা করেছে।
 
মুসলমানদের মধ্যে কারও-কারও স্বভাব খুব খারাপ। জঙ্গিপনা এদের খুব ভালো লাগে। এরা কোথাও গিয়ে সকলের সঙ্গে মিলেমিশে শান্তিতে বসবাস করতে পারে না। আর এদের কারও কোনো ধর্ম সহ্য হয় না। এরা অন্যকোনো ধর্ম সহ্য করতে... continue reading

১৬০

এম এম মেহেরুল

২ বছর আগে লিখেছেন

নিশি দরবেশ

  উত্থিত দন্ড আর অপরিপক্ক পায়ুপথ,
নিশি দরবেশদের আনাগোনা,
ইশ হুজুর লাগেতো--!
ইয়া-মাবুদ এই অবুঝরে জ্ঞান দান করো।
আর একটু --।
এ কষ্ট তোর জান্নাতে যাবার রাস্তা,
এই অগ্নি পরিক্ষা পাশ করতে পারলে,
তোর জাহান্নামের আগুনের ধার কমবে।
তোর জান্নাতের টিকিট নিশ্চিত--?
নিশি দরবেশ ঘামে চুকচুক।
জান্নাতের টিকিট নিশ্চিত জেনে,
অবুঝ--?
সব দাতে চেপে সহ্য করে।
কামের তাড়নায় নয়,
শুধু জান্নাতের টিকিট হাতে পাবে বলেই তার এতো সহ্যর ধার।
অপেক্ষার প্রহর আর কাটেনা,
 জান্নাতের টিকিট তখনো লুকানো দরবেশের ঢাকনার নিচে।
অবুঝ হতাশ----?
কিন্তু নিশি দরবেশের আনাগোনা থেমে নেই----?
তার হাতে থাকা জান্নাতের টিকিট বিলিয়ে চলে... continue reading

১৭১

শাহআজিজ

২ বছর আগে লিখেছেন

যেভাবে এলো আজকের মিয়ানমার: একটি পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস

বর্তমান সময়ে প্রতিবেশী যে রাষ্ট্রের দ্বারা বাংলাদেশ সবচেয়ে বেশি চাপের মুখে রয়েছে এবং একইসাথে যে দেশটি অদূর ভবিষ্যতে বাংলাদেশের জন্য আরও অগণিত সমস্যা তৈরি করবে সেটি মিয়ানমার। লাখো লাখো রোহিঙ্গা অধিবাসীকে নিজ দেশ ত্যাগ করে বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য করছে সে দেশের সরকার ও সামরিক বাহিনী। এই সমস্যা আজ নতুন নয়। সেই ‘৭০ এর দশক থেকেই রোহিঙ্গাদের উপর অত্যাচার-নির্যাতন চলছে, চলছে বাংলাদেশের সীমান্তে শরণার্থী হয়ে তাদের অনুপ্রবেশ। আর মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, তুরস্কসহ বড় বড় দেশগুলোর তাগাদায় এই উদ্বাস্তু জাতির বাস্তুসংস্থানের একক দায় চেপেছে আজ বাংলাদেশের উপর। চলুন জানা যাক সময়ের সবচেয়ে বড় মূর্তিমান উৎপাত মিয়ানমারের ইতিহাস।
১৯৮৯ সালে দেশটির নাম ইউনিয়ন অব বার্মা... continue reading

৩১৩

চারু মান্নান

২ বছর আগে লিখেছেন

কবিতার গায়ে রঙ চরাতে

কবিতার গায়ে রঙ চরাতে

কবি আজ ক্লান্ত, 
ভোতা বোধের বির্মষ যাতনায়
তাইতো আর কবিতা হয়ে উঠে না;

সীমান্তের কাঁটা তারে 
পথ ফুরায় শীর্ণ শ্রান্ত নগ্ন পদযুগল
মৃত্যু ভয়! পুঁজির দাবানলে সব পুড়ে ছাই!
পুঁজির কেতকী মহুয়া নেশা খুনের তান্ডবে মাতে
বর্বর বোমার বর্ষণে,
মায়া মমতা যতো আত্মহননের প্রত্যয় খুঁজে
লজ্জায় বিমর্ষ!
বোধের উঠানে কলঙ্কিত সদ্য খুন  মৃত মাছের মতো
ধুলোয় গড়াগড়ি খায়।

ধুঁয়া ভরা আকাশে,
ধবল ডানার চিল ডেকে ডেকে কেঁদে কেঁদে ফিরে
সভ্য বোধের হিসাব কসে কসে
অভিশাপে গাছের সবুজ পাতা লীন হয়ে
মরে যেতে বসেছে আজ।

২৬, ভাদ্র/১৪২৪/শরৎকাল।
continue reading

১৫৭

রব্বানী চৌধুরী

২ বছর আগে লিখেছেন

শুভ হোক মধ্য শরৎ........................................।

আজ পহেলা আশ্বিন, আশ্বিনের প্রথম দিন, আমাদের প্রাণের ঋতু শরৎ- এর মধ্য কাল, বাংলা মাসের ভাদ্র ও আশ্বিন মিলে আমাদের শরৎ কাল, গতকাল বিদায় নিয়েছে শরৎ এর সঙ্গী ভাদ্র মাস।
ষড় ঋতুর এই দেশে এবার ঋতুতে বেশ বৈচিত্রতা ছিল, চিরাচরিত বিশাল খোলা আকাশের মাঝে খন্ড খন্ড সাদা মেঘের যেমন ভেলা ছিল আবার ছিল শ্রাবণের দিনের মত ঘন কালো মেঘ, অনেক সময় ছিল কড়া রৌদ্র ও ছায়ার খেলা, ছিল এই বৃষ্টি এই রোদ।
শরৎ এর প্রথম ভাগে বর্ষার অনেক বৈশিষ্ট ছিল- কখনও আকাশ ঢেকে ছিল কালো মেঘে, অ-ঝরে বৃষ্টি ধারা, শ্রাবণের দিনের মত, এর পরে ছিল প্রকৃতির নিয়মে মেঘেরা... continue reading

৩৪২

সাইয়িদ রফিকুল হক

২ বছর আগে লিখেছেন

রোহিঙ্গা-ইস্যুতে ইসলামের দেশ সৌদিআরব নীরব কেন?

রোহিঙ্গা-ইস্যুতে ইসলামের দেশ সৌদিআরব নীরব কেন?
সাইয়িদ রফিকুল হক
 
বর্তমানে বাংলাদেশে ছোট-বড় প্রায় সবাইকে রোহিঙ্গানির্যাতনের বিষয়ে যথেষ্ট সরব হতে দেখা গেছে। এটি অবশ্যই ইতিবাচক দিক। যেকোনোস্থানে মানবতাবিরোধী-অপরাধ সংঘটিত হলে আমাদের অবশ্যই সরব হতে হবে। আর এখানে, জাতি-ধর্ম-বর্ণ-গোত্র-নির্বিশেষে সকলের প্রতি সমানদৃষ্টি রাখতে হবে। কোনো ধর্মের প্রতি কিংবা কোনো ধর্মের মানুষের বিরুদ্ধে অবিচার ও অনাচার নিঃসন্দেহে গর্হিত ও মানবতাবিরোধী-অপকর্ম। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশের বেশিরভাগ ‘হুজুগে মুসলমান’ কোথাও কোনো মুসলমান নির্যাতিত হলে শুধু তাদের পক্ষেই কথা বলতে শুনি। এরা কিন্তু জাতি-ধর্ম-বর্ণ-গোত্র-নির্বিশেষে সকল মানুষকে ভালোবাসতে শেখেনি কিংবা এদের প্রতি সহানুভূতিপ্রদর্শন করতে জানে না। এরা সবসময় সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিকোণ থেকে শুধু নিজেদের স্বার্থআদায়ে সচেষ্ট থাকে।
 
সাম্প্রতিককালে... continue reading

১৯১

কাফাশ মুনহামাননা

২ বছর আগে লিখেছেন

দাড়াও মধ্যরাত

দাড়াও মধ্যরাত
উজবুক বাতাসের আগ্রহে
চুমু খাবো প্রেয়সীর সুনিবিড় হাত।
নিশাচর জোনাকির চেরাগে
সরোবরের অতল তার দুটি চোখে
চেয়ে থাকবো একরাশ মুখোমুখি অনুরাগে।
নীরব দরিয়ার নিশ্চুপ সহবাসে
কালোকেশ সুগন্ধি লুটে নেবো তার
অশীতিপর হতে চলা অনুভবের নবান্ন চাষে।
দাড়াও মধ্যরাত
দুঃখের সপ্তাশ্চর্য গুড়িয়ে ফেলে
প্রেয়সীর হৃদয়ে গড়বো সুখের পারিজাত। continue reading

৩৮৯

রজত শুভ্র

২ বছর আগে লিখেছেন

পড়শি যদি আমায় ছুঁত

বৃষ্টিটা আসলো জোরে সোরে। ধরন দেখে মনে হচ্ছে সে পণ করেই এসেছে থামবেনা।কৈশোরর একটা সময় বৃষ্টি ভীতি ছিল খুব। আমরা থাকতাম চুয়েট গেইট এলাকায় একটা টিন শেড ভাড়া বাসায়। বৃষ্টি ভীতি কিভাবে ধরা পড়লো সে ঘটনাটা বলি। সেদিন প্রচণ্ড বৃষ্টি। থেমে থেমে বিকট শব্দেবজ্রপাত। হঠাৎ লক্ষ্য করলাম বিচিত্র কারণে আমার সারা শরীর কাঁপছে । বৃষ্টিরবেগ যত বাড়ছে আমার ভয় বাড়ছিল পাল্লা দিয়ে। আমার শুধু মনে হচ্ছিল মুহূর্তে বাজ পড়ে বাড়ি ঘর পুড়ে যাবে। গল গল করে বানের পানি ঢুকবে ঘরে।ভয়ে আমি কাঁথামুড়ি দিয়ে  গুটিশুটি মেরে খাটে শুয়ে পড়ি। অপেক্ষায় থাকি বৃষ্টি থামার। সেই থেকে ভীতিটা শুরু । ঠিক কতদিন ছিল... continue reading

৩৪১

কাফাশ মুনহামাননা

২ বছর আগে লিখেছেন

সবার কাছে ঋণী

দুঃস্বপ্নের তিমির ঘোরে
পেলাম যখন প্রিয়ার দেখা
এক সমুদ্র খুশির মেঘে
ভাসলো সুখের অমোঘ রেখা।
মুগ্ধ গগন তৃপ্ত পবন
পড়লো রোদের কানাকানি
গাছের আলোয় পাখির চোখে
প্রেমের হলো জানাজানি।
আলস্যতার উঠোন ভেঙে
হাসলো রবি নীলকাজলে
যুগলতারার দিবস খেলায়
ঝরলো শিমুল নদীর জলে।
সবার কাছে ঋণী হলাম
প্রিয়ার ভালবাসা পেতে
অতীত ভুলে অঞ্জলি দেই
ভবিষ্যতে এগিয়ে যেতে। continue reading

৪১১

রজত শুভ্র

২ বছর আগে লিখেছেন

তটিনী

                                        
“মনসুর, পাঁচ জন লেহ”,ঘাটমাঝি কে যাত্রীর হিসাব বলে সাম্পানের ইঞ্জিনে হ্যান্ডেল লাগিয়ে ঘুরাতে শুরু করে।প্রথম চেষ্টায় ইঞ্জিন ভট ভট শব্দে চালু হয়ে যায়।হাল ধরে বসে পরে হরি।বেশ কয়েকদিন ধরে বৃষ্টি হচ্ছে।ফিনফিনে বৃষ্টি না, ঝুম বৃষ্টি।বর্ষা শুরু হয়নি।তবুও এত বৃষ্টি।কেজানে,বর্ষায় কি হয়।এই কয়দিন বৃষ্টিতে নদীর পানি ঘোলের শরবতের মত ঘোলা হয়ে গেছে। ভাটি অঞ্চল থেকে গাছ বাঁশ এইসব ভেসে আসছে।অনেকে নৌকা নিয়ে ধরছে এইসব। এদের বেশির ভাগ ছোট ছেলে মেয়ে,কিশোর বা কিশোরী। পাহাড়ী নদী। তাই খুভ বেশি বৃষ্টি হলে পাহাড়ী ঢল নামে। সেই ঢলের সাথে উজানের দিকে ভেসে আসে পাহাড়ি গাছ –পালা,বাঁশ,নল-খাগড়া। একবার আস্ত সেগুন গাছ পেয়েছিল হরি। অনেক কষ্টে পাড়ে নিয়ে আসে। সেগুন কাঠের দাম মোটামুটি
অগ্নিমূল্য বলা যায়। কিন্তু পরদিন... continue reading

২৮৯

সাইয়িদ রফিকুল হক

২ বছর আগে লিখেছেন

শেখ মুজিবই বাংলার ইতিহাস

শেখ মুজিবই বাংলার ইতিহাস
সাইয়িদ রফিকুল হক
 
ইতিহাস কথা বলে
শেখ মুজিবের নামে,
ইতিহাসের পৃষ্ঠা ভরে যায়
শেখ মুজিবের নামে,
ইতিহাস সার্থক হয়
শেখ মুজিবের নামে,
ইতিহাস সত্য হয়ে ওঠে
শেখ মুজিবের নামে,
একাত্তরের সাতই মার্চ
শেখ মুজিবই ইতিহাস,
একাত্তরের সাতই মার্চ
বাঙালির মুক্তির ইতিহাস,
একাত্তরের সাতই মার্চ
বাঙালির স্বাধীনতায় বিশ্বাস।
 
ইতিহাস কথা বলে
 শেখ মুজিবের নামে,
বাঙালির ইতিহাস জাগ্রত হয়
 শেখ মুজিবের নামে,
মানুষের ইতিহাস সমৃদ্ধ হয়
 শেখ মুজিবের নামে,
বাংলাদেশের ইতিহাস সার্থক হয়
 শেখ মুজিবের নামে,
বাংলাদেশ আজও ধন্য হয়
শেখ মুজিবের নামে।
 
ইতিহাস কথা বলে
 শেখ মুজিবের নামে,
এই বাংলাদেশ জেগে ওঠে
শেখ মুজিবের নামে,
আজও দেখি তাই—
শেখ মুজিবই বাংলার ইতিহাস।
 
সাইয়িদ রফিকুল হক
মিরপুর, ঢাকা,... continue reading

১৮৫

কাফাশ মুনহামাননা

২ বছর আগে লিখেছেন

ভোরের শিরোনামে

ভোরের শিরোনামে এক সকাল বৃষ্টি
উড়িয়ে দিলাম আজ তোমার নামে অঝোরে
ধূসর আকাশে নিরন্ন স্বপ্নদের আনাগোনা খুব
তোমার ধ্রুপদী চোখে নামার অভিন্ন প্রত্যয়ে
চায়ের কাপে চুমুকে চুমুকে
এক অন্যরকম উষ্ণতার লুকোচুরি।
মেঘের শরীরে আজ কোন বিদ্যুৎ নেই
প্রেমের সুবাস সেও মেখে নিয়েছে গায়ে
এই সময়, এই প্রহর
বিষণ্ন অভিমানগুলো মুক্ত করবার তরে
বৃষ্টির কোমলতায় হৃদয়ে ফোটে প্রেমময় সুবাস
ভালবাসার সুনিবিড় জয়োগানে
এই মেঘ, এই প্রেম
থাকুক তোমার আমার দ্বৈত অধিকারে।
পাতাদের ভেজা বুকে খুশির আবিরে নাচানাচি
প্রিয়তম বৃষ্টির মিলন-সুখের আর্তনাদে
তোমার সম্মতি পেলে
আমিও উপভোগ করতে চাই
এই সকাল, এই বৃষ্টি
আলো-আঁধারির সুনসান অভিসারে
চপল হাওয়ার বিলাসিতা এক্ষণে বড্ড মানানসই
একটু মৃদুসুরে শিহরণ জাগানিয়া... continue reading

২১৮

সাইয়িদ রফিকুল হক

২ বছর আগে লিখেছেন

ঘাতক সরে যাও আমাদের পিতার সমাধি থেকে

ঘাতক সরে যাও আমাদের পিতার সমাধি থেকে
সাইয়িদ রফিকুল হক
 
ফুলে-ফুলে ঢেকে আছে
আজ পিতার সমাধি,
ফুলের ছড়াছড়ি চারপাশে,
শুধু ফুল আর ফুল
আজ আমাদের পিতার সমাধিতে!
আর ফুল হাতেই দাঁড়িয়ে আছে
এই বাংলার ঘাতক ক’জন,
ওরাও এসেছে পিতার সমাধিতে,
হোক না কুলাঙ্গার,
তবুও এসেছে পিতার সমাধিতে!
 
স্বার্থের বেড়াজালে আটকে পড়ে
কাঁপছে পাপীর দেহ থরথর,
ফুল হাতে এসেছে তবুও পিতার সমাধিতে,
অথচ পিতার ঘাতকদের সঙ্গে
সবসময় চলছে এদের ব্যবসায়িক লেনদেন!
এরা আমাদের জনকের নাম মুখে আনে
স্বার্থের নেশায়—আর অসংখ্য লোভে,
আমাদের জাতির জনকের স্বপ্নগুলো
মুছে দিতে চায় অচেনা প্রেমিকগুলো,
আর এরাই এখন ভিড় করেছে
আমাদের পিতার সমাধিস্থলে।
 
আমাদের জনকের জন্ম না হলে
আমরা পেতাম না নিজেদের পরিচিতি,
আর বিশ্ব... continue reading

১৭৬

ওয়াসীম সোবাহান চৌধুরী

২ বছর আগে লিখেছেন

শেখ কামালের তথাকথিত ব্যাংক ডাকাতি

প্রধানমন্ত্রীর ছেলের টাকার জন্য ব্যাংক ডাকাতির প্রয়োজন হয় না এবং ব্যাংক ডাকাতি করবার অভিপ্রায় থাকলে কেউ কেন্দ্রীয় ব্যাংককে হানা দেয় না কিন্তু গুজব হিসেবে এটা বেশ মুখরোচক যে বঙ্গবন্ধুর ছেলে শেখ কামাল ব্যাংক ডাকাতির চেষ্টা করেছেন। আর  যুদ্ধ পরবর্তী দেশে নানা অনিয়ম, আনাচার, অন্যায়ের পিঠে চড়ে যখন এমন গুজব ছড়ায় তখন এর মাত্রা বেগ পায় বিদ্যুতের।
বাংলাদেশের প্রথম বিরোধীদল জাসদ আর বাংলাদেশের প্রথম গেরিলা দল সিরাজ সিকদারের সর্বহারা পার্টি। স্বাধীনতার কিছুদিন পর থেকেই এরা সরকার বিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত হয়, দুই দলের কাছেই ছিল অস্ত্র, দুই দলের মধ্যে ছিল মুজিব ঘৃণার বীজ। হত্যা, ডাকাতি আর অস্ত্রের ঝনঝনানি দিয়ে অস্তিত্ব জানান... continue reading

১৯৩

ফাইছুল আলম নাছিম

২ বছর আগে লিখেছেন

দেয়ালে বন্দী মানবতা

মানুষের কত রূপ দেখেছি
কত দেখেছি রঙ,
নানান কিছু মুখে লাগিয়ে 
সেজে আছে যেন সঙ । 
মুখ যে তার ঢাকা থাকে মুখোশের আড়ালে
অন্তর ঢাকা আছে অদৃশ্য খেয়ালে, 
মনটাকে চেপে রাখে না জানি কোন হেয়ালে ?
মানবতা বন্দী আজ চারিপাশের দেওয়ালে ।
continue reading

২২৮
ব্লগের গতিশীল/ট্রেন্ডিং বিভাগসমূহ