"সমাজ" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

শফিক সোহাগ

১ বছর আগে লিখেছেন

আজ ঐতিহাসিক ১০ এপ্রিলঃ শফিক সোহাগ

আজ ঐতিহাসিক ১০ এপ্রিল। ১৯৭১ সালের এই দিনে মুক্তির কাণ্ডারি বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদের নেতৃত্বে প্রথম গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার গঠন করা হয় । বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে রাষ্ট্রপতি, সৈয়দ নজরুল ইসলামকে অস্থায়ী রাষ্ট্রপতি এবং তাজউদ্দীন আহমদকে প্রধানমন্ত্রী করে স্বাধীন বাংলাদেশ সরকার গঠন করা হয় । সেদিনই বাংলাদেশ সময় রাত ১০ টায় আকাশবানী কলকাতা রেডিও থেকে তাজউদ্দীন আহমদ জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দেন । তাঁর এই ভাষণে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর বর্বরতার বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাদের অকুতভয় সংগ্রাম এবং স্বাধীন বাংলা সরকার গঠনের কথা । পাক হানাদারদের রুখে দেয়ার জন্য সারা বাংলাদেশের বিভিন্ন অংশে কাকে কোন দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে এবং বিভিন্ন অংশে... continue reading

১০৫

প্রীতীশ বল

১ বছর আগে লিখেছেন

ধ্বংসোন্মুখ আদিবাসী শিক্ষা ও সংস্কৃতি সংরক্ষণ ও বিকাশে নববর্ষের ভাবনা কুমার প্রীতীশ বল

প্রাককথন
সাধারণত বাংলা নববর্ষ আসলে এ জনপদের সচেতনমহল হিসাবে পরিচিত লোকসকল নিজেদের এবং চারপাশের জনগোষ্ঠীর লোকায়ত শিক্ষা ও সংস্কৃতি সংরক্ষণ এবং বিকাশের ভাবনাক্রান্ত হয়ে পড়ে। আমরাও এর বাইরে আসতে না পেরে বহুজাতিক বাংলাদেশে যে ৪৫টি (মতান্তরে ৭৫টি) আদিবাসী জাতিসত্তার লোকসকল বসবাস করে, তাদের রয়েছে বৈচিত্র্যময় ইতিহাস, কৃষ্টি, সংস্কৃতি ও মূল্যবোধ সংরক্ষণ ও বিকাশের ভাবনায় করণীয় নির্ধারণে সচেষ্ট হয়েছি। প্রকৃত সত্য হলো, আমার এবারের নববর্ষের ভাবনা মূলত আদিবাসীদের লোকায়ত শিক্ষা ও সংস্কৃতি সংরক্ষণ এবং বিকাশকে কেন্দ্র করে তাড়িত হয়েছে। কারণ বর্তমানের আকাশ সংস্কৃতির আগ্রাসী থাবায় হারিয়ে যাচ্ছে এসকল বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। আর তাই আদিবাসী জনগোষ্ঠীর অগ্রসরমান অংশ তাদের সাংস্কৃতিক অস্তিত্ব রক্ষার... continue reading

১৮৪

কবীর আলমগীর

২ বছর আগে লিখেছেন

অনলাইন পোর্টালে ভিডিও-অডিও কনটেন্ট অপরিহার্য

বিচ্ছেদের কারণ জানালেন তাহসান-মিথিলা। প্রথম আলো অনলাইন এই নিউজ করেছে একটু এগিয়ে। তা হলে রেগুলার কনটেন্টের পাশাপাশি তারা নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় অডিও-ভিডিও কনটেন্ট দিয়েছে। ব্যবহার করেছে বেশকিছু স্টিল ফটোগ্রাফি। ওই ভিডিও কনটেন্টের একপর্যায়ে ব্যবহার করা হয়েছে মিথিলার অডিও সাক্ষাৎকারও। প্রথম আলোর নিউজরুম থেকে ভয়েস ব্যাকআপও দেওয়া হয়েছে। তার মানে একই নিউজের মধ্যে নানা টেকনিক। ভিডিও, অডিও, রিটেন কনটেন্ট সমানতালে এগিয়েছে।  
অনলাইন পোর্টালের প্রচলিত ধারণা কেবল লিখিত কনটেন্ট দিলেই যথেষ্ট। কিন্তু সময় বদলেছে। পাঠকের রুচি বদলাচ্ছে, তাদের দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টাচ্ছে। ধীরে ধীরে পাল্টাচ্ছে অনলাইনের ক্যারেক্টার।
অনলাইন নিউজ ট্রিটমেন্টের সঙ্গে ভিডিও-অডিও কনটেন্ট একটি অপরিহার্য বিষয়। যে পোর্টাল যত বেশি ভিজুয়াল সিস্টেম অনুসরণ করবে... continue reading

৩২৪

লুৎফুর রহমান পাশা

২ বছর আগে লিখেছেন

এ ভোগান্তির শেষ কোথায়!!

চারিদিকে রাস্তা ঘাটের বেহাল দশা। যেমন ভাঙ্গা তেমনি অনিরাপদ। এরপরও ভাবতেই ভালো লাগে আমরা পৃথিবীর সবচেয়ে দামী রাস্তায় চলি। সারাবছর কাজ চলে। ধুলা বালিতে, কাদা বৃষ্টি হলে পানিতে সয়লাব। বারোমাসি সাইনবোর্ড লাগানোই থাকে রাস্তার উন্নয়ন কাজ চলছে সাময়িক অসুবিধার জন্য আমরা দুঃখিত।
রাস্তা গাড়ীর চলাচলের জন্য নহে। কারো পকেট উন্নয়নের জন্যই। তারপরও দয়া করে দুঃখ প্রকাশের জন্য কৃতজ্ঞতা জানানো উচিত।
গত ১৪৬ দিনে সড়ক দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা ১৩২৩ জন। এই মৃত্যুর মিছিল থামছেনা। এই নিয়ে সড়ক বিভাগ রাস্ট্রের কারো কোন মাথাব্যথা নেই।
দুর্ঘটনার লোকজনকে সহযোগিতার পরিবর্তে লুটপাট করছে একদল লোক। আমরা গেলো গেলো বলে চিতকার করছি। অথচ... continue reading

২৫৪

শফিক সোহাগ

২ বছর আগে লিখেছেন

মুজিবনগর সরকার, মুক্তিযুদ্ধ এবং প্রিয় স্বাধীনতা

আজ ১৭ এপ্রিল, ঐতিহাসিক মুজিবনগর সরকার দিবস । ১৭ এপ্রিল-মুজিবনগর সরকার-মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীনতা প্রত্যেকেই একে অপরের সাথে ওতপ্রোতভাবে জড়িত । এদিনই আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু হয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের । যার নায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আস্থাভাজন সহকর্মী সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ, এম মনসুর আলী এবং এ.এইচ.এম কামরুজ্জামান । বাংলাদেশের জন্ম থেকে অদ্যবদি পর্যন্ত যতগুলো সরকার গঠন হয়েছে তন্মধ্যে এই মুজিবনগর সরকারই সবচেয়ে বেশি সফল ও সার্থক সরকার । মাত্র ৯ মাসে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন করে সশস্ত্র যুদ্ধ পরিচালনা করা, নিজস্ব মুদ্রার প্রচলন, বিভিন্ন রাষ্ট্রের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক স্থাপন, স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে বিভিন্ন রাষ্ট্রের কাছ থেকে স্বীকৃতি... continue reading

২৯৪

লিপু রহমান

২ বছর আগে লিখেছেন

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা

মুক্তিযুদ্ধের বিষয়ে আমরা কম বেশি জানলেও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিষয়ে খুব একটা জানি না। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করতে হবে- এমন কথা আমরা প্রায়ই শুনি। কেউ কেউ বুঝি কিন্তুই বেশির ভাগই বুঝি না। বুঝলেও বলতে পারি না কিংবা অন্যকে বোঝাতে পারি না। কথায় আছে সহজ বিষয়কে যায় না সহজে বোঝা। তাহলে প্রশ্ন এসে যায়- যা সহজে বোঝা যায় না তা সহজ হয় কিভাবে?তা হলো শুনতে শুনতে সহজ,কিন্তু তার অর্থ জানার চেষ্টা করা হয়নি। অনেকটা আজান শোনার মতো। প্রতিদিন শুনতে শুনতে তা সহজ মনে হয় কিন্তু তার অর্থ জানার জন্য কেউ চেষ্টা করেছে বলে মনে হয় না। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিষয়টিও তেমনি সহজ... continue reading

২৮৩

সাইয়িদ রফিকুল হক

২ বছর আগে লিখেছেন

পাকিস্তানে ছিল এক জিন্না। আর এখন স্বাধীনবাংলাদেশে অসংখ্য জিন্না!

পাকিস্তানে ছিল এক জিন্না। আর এখন স্বাধীনবাংলাদেশে অসংখ্য জিন্না!
সাইয়িদ রফিকুল হক
এখন বাংলাভাষার অনেক শত্রুও লোকদেখানো ও স্বার্থসিদ্ধির-আনুষ্ঠানিক ভাষাপ্রেম দেখানোর জন্য শহীদমিনারে গিয়ে বেদীতে ফুল দেয়। তারপর ছবি তুলে কিংবা বিশাল একটা ভিডিও করে বাসায় ফিরে আসে। তারপর এগুলো দিয়ে ব্যবসা করে খায়। অনেক ভণ্ড এখন শহীদমিনারে গিয়ে ফুল দিচ্ছে। অথচ, এদের মনের মধ্যে বাংলাভাষার প্রতি সামান্যতম শ্রদ্ধাবোধ নাই। এদের মনে যদি বাংলাভাষার প্রতি সামান্যতম শ্রদ্ধাবোধ থাকতো—তাহলে, বাংলাভাষা কি এতোদিনেও বাংলাদেশে উপেক্ষিত থাকতো?
পাকিস্তানীজালিমগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াইসংগ্রাম করে আমরা ১৯৫২ সালে বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা হিসাবে সুপ্রতিষ্ঠিত করেছি। এখানে, আমরা মানে—আমাদের পূর্বপুরুষ—শহীদ রফিক, বরকত, জব্বার, সালাম শফিউর প্রমুখ। ভাষাআন্দোলনের ৬৫ বছর পার... continue reading

২৫৬

এ.টি. নূর শেখ লিটা

২ বছর আগে লিখেছেন

সমাজ!!!

একজন মানুষ, ধনী কিংবা গরীব, ছোট অথবা বড় হতে পারে কিন্তু অনুভূতি প্রত্যেকের সমান।
আজ যারা অট্টালিকায় বাস করছে কিংবা বিএমডব্লিউতে ঘুরে বেড়াচ্ছে, অপমানবোধ কিংবা খারাপ লাগার অনুভূতি কেবল তাদের জন্যেই নির্দিষ্ট নয়। যারা দু'বেলা ঠিকভাবে খেতে পায় না, যাদের মাথা গোঁজার মত একটা ছাউনি নেই, এই খারাপ লাগার অনুভূতিটা তাদের মাঝেও সমানভাবেই কাজ করে। কারন সৃষ্টির এই শুরু থেকেই প্রত্যেক মানুষের মাঝেই অনুভব করার ক্ষমতা আল্লাহ দিয়ে দিয়েছেন, যার কাছে কেউ ছোট অথবা বড় নয় বরং সবাই সমান। কিন্তু নিজেকে অতিরিক্ত সামাজিকভাবে উপস্থাপন করতে গিয়ে এই সত্যতা আমরা প্রায়ই ভুলে যাই।
এটা খুবই সহজ, ভিক্ষা... continue reading

৩১৫

Juwel Mahmud

২ বছর আগে লিখেছেন

কিছু বাস্তবতাঃ

ঘটনা ১ :-
তিন তারকা হোটেলে ৪০,০০০/- টাকা খরচ করে
পার্টি
দিয়েও লজ্জ্বায় বন্ধুদের সামনে যেতে পারছে
না ধনী বাবার একমাত্র ছেলেটা। আর মাত্র
২০,০০০/- টাকা থাকলেই সে পাঁচতারা হোটেলে
যেতে পারতো এবং পার্টিটা আরও জম্পেস হতো।
আজ তার মতো অসুখী এই দুনিয়ায় কেউ নাই।
.
ঘটনা ২ :-
অনেকদিন পর রিকশাচালক মজিদ ভাই আজ ১০০/- টাকায়
মাছ কিনেছেন। আজ তিনি মজা করে খেলেন
পরিবারকে নিয়ে।আর তৃপ্তির ঢেকুর তুলে
বললেন, "আহ.... আল্লাহ খাওয়াইছে ।"
.
ঘটনা ৩ :-
গ্রাম থেকে আসা গরিব ঘরের ছেলেটা ব্যাচেলর
থাকে শহরে। রাতে মনে মনে... continue reading

২৯৩

লিপু রহমান

২ বছর আগে লিখেছেন

বিজয় দিবস

বিজয় দিবস। নয় মাসের যুদ্ধ শেষে  স্বাধীন বাংলাদেশের আকাশে বিজয়ের রঙ ছড়িয়ে পড়ে। বাঙালির হাজার বছরের গ্লানি মোচনের দিন এই ১৬ই ডিসেম্বর | জাতির মুক্তির দিন। এই দিনে বাঙালি জাতি পায় লাল-সবুজের পতাকা,জাতীয় সংগীত ও মানচিত্র। এই দিনে পৃথিবীর মানচিত্রে জন্ম নেয় 'স্বাধীন বাংলাদেশ’ নামে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র। ১৯৭১ সালে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ও আহবানে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত হয়েছে আমাদের বিজয়। তাই তো দিনটি জাতির কাছে অবারিত রঙিন আকাশ ছোঁয়ার দিন।
   
কোন গোষ্ঠি পরাধীন থাকলে সে গোষ্ঠি মরিয়া হয়ে ওঠে স্বাধীনতার জন্য। কোন গোষ্ঠি বেঁচে থাকার মৌলিক শর্তই হলো স্বাধীনতা| আর... continue reading

৩১৮