"কিশোরসাহিত্য" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

সমুদ্র মিত্র

১ বছর আগে লিখেছেন

Prisoners Youth

Foggy afternoon,
There is no sun light and still,
to see each other's face .
There is no sky and white clouds float yet,
clouds in the sky like a kite in the evening.
And there are some unknown facts
some unknown fear.
Return home when the evening call to prayer.
The unknown night at seven and thirty,
Tunes hearing sorrow and tragedy.
Oil lamp light to illustrate books 
all the unclear face with red light .
There are plenty of iron sheet dabby.
Drawing the morning mist,
Smiley.
Little bushes before the window
There was the sound of crickets.
Some blue light,
burning out.
Remember, the freezing
darkness is... continue reading

১১৪

সমুদ্র মিত্র

১ বছর আগে লিখেছেন

মোঃসরোয়ার জাহান

২ বছর আগে লিখেছেন

বঙ্গবন্ধু, 'তোমার হাসু এখন পুরোটাই বাংলাদেশ !'Bangabandhu, 'Your whole Bangladesh Is Your Hasu now!'

বঙ্গবন্ধু, 
তোমার প্রাণপ্রিয় রেণুর
শেষ মুখটা কি খুব মনে পড়ে এখনো?
তোমার রাসেলের দুস্টমিমাখা আদর
শেখ জামাল ,কামাল, ওদের শেষ মুখটা কি 
খুব মনে পড়ে বন্ধু?
এখনো কি 
তোমার কালো ফ্রেমের চশমা
শাড়ির আঁচল দিয়ে গভীর মমতায় 
মুছে দেয় তোমার প্রিয়তমা রেণু?
তোমার মনে পড়ে হাসুর কথা? সে এখন,
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বর্তমান সভানেত্রী,
বাংলাদেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী।
তোমার অসমাপ্ত 
সোনার বাংলা গড়ছে
দিন রাত তার সবটুকু দিয়ে, 
তুমি নিশ্চয় ভীষণ খুশিতে
দু’চোখ দিয়ে আনন্দ অশ্রু ঝরাও সবার আড়ালে?
তোমার হাসু তোমার রেহেনা এখন 
আমাদের মমতাময়ী মা,
খুব যত্নে বুকে আগলে রেখেছে বাংলাদেশের মানুষকে!
তোমার হাসু এখন বাংলাদেশের  প্রধানমন্ত্রী শুধু নয়
তোমার হাসু এখন,ষোল কোটি বাঙালীর! .
আত্মার আত্মা দেশরত্ন শেখ হাসিনা।
সারা পৃথিবীর 
প্রথম কাতারে দাঁড়ানো নেতা,
তোমার হাসু এখন পুরোটাই বাংলাদেশ ! জয় বাংলা,জয় বঙ্গবন্ধু!!
==========================================
১০-০১-১৭ইং
মোঃ সরোয়ার জাহান,
Md Sarowar Zahan,
কল্যাণপুর,ঢাকা,
বাংলাদেশ।

Bangabandhu, 'Your whole Bangladesh Is  Your Hasu Now!'
By-Md Sarowar Zahan
----------------------------------------
Bangabandhu,
Your beloved wife ‘Renu’
What's the last face-to-remember yet,
You cuddle ‘Rasel’ agile?
Sheikh Jamal, Kamal, the last face they do
Remember your friend too?
Still
Your black-frame glasses
With deep compassion sari-acala by your beloved ‘Renu’
Your beloved Renu delete your sweetheart?
Your ‘Hasu’ do you remember that? Now She Is
The current President Of Bangladesh Awami League,
The Current Prime Minister Of Bangladesh
Your unfinished
Gold Bengali building
With her all day and night,
You surely have built voluntarily
All eyes flick arale with tears of joy?
Your hasu your Rehana now
Our good mothers,
The road is on the care of people!
Now the Prime Minister is not just your hasu,
Your hasu now,Sixteen million Bengalis!
Desaratna spirit, the spirit of the Prime Minister.
Around The World
The first row of the stand,
Your whole Bangladesh Is  Your Hasu Now!
Joy Bangla Joy Bangobondhu!!
=============================
10-01-2017
Md Sarowar Zahan
Kalyanpur, Dhaka, Bangladesh. continue reading

৪০৭

কাফাশ মুনহামাননা

২ বছর আগে লিখেছেন

আমাদের গাঁয়ে আছে

আমাদের গাঁয়ে আছে শাপলার বিল
যেখানে সকাল ভোরে
পাখিদের গান ধরে
সূর্যের আলোকণা করে ঝিলমিল
দূর থেকে চেয়ে হাসে আকাশের নীল।
আমাদের গাঁয়ে আছে সবুজের বান
যেখানে শ্যামল ছায়া
বিছিয়ে আদর মায়া
পথিকের ক্লান্তি করে অবসান
রাখালের বাঁশি সুরে জুড়ায় পরান।
আমাদের গাঁয়ে আছে জোছনার রাত
যেখানে জোনাক পাখি
দীপ জ্বেলে থাকি থাকি
লুকোচুরি খেলে খেলে আনে সুপ্রভাত
আমাদের গ্রাম যেনো রূপ-পারিজাত। continue reading

১৮৯

সমুদ্র মিত্র

৪ বছর আগে লিখেছেন

অলস কাব্যের ঘুমের পর্ব

আমি ঘুমিয়ে পরার আগে কয়েক ঘণ্টা চোখ বন্ধ করে শুয়ে থাকি,
আমি ঘুম ভেঙে যাবার পরও ঘন্টাখানিক শুয়ে থাকি ।
চোখ বন্ধ করে ভাবতে থাকি,
বিছানার এপাশ ফিরি, ওপাশ ফিরি।
আমার ঘুম ভেঙে ওঠবার খুব বেশি তাড়ানেই,
হাতে অনেক সময় নিয়ে ঘুমুতে যাই
অনেক সময় আছে ঘুম থেকে ওঠে বিশ্রাম নেবার ।
তাই ঘুমিয়ে আছি,ওঠছি না ।
 আমার জীবনের কোন ব্যাস্ততা নেই,
জীবনকে যাপন করছি একুশ বছর ধরে।
আমার সময়েরাও ততটা ব্যাস্ত নয়
দিন হলেও তা ফুরুতে চায়না,
রাত হলেও তা ফুরায় না ।
আমার চিন্তারা কিছুটা ব্যাস্ত,
তাঁর অপেক্ষা আছে হয়তো কারোর, continue reading

৫৬৮

চারু মান্নান

৪ বছর আগে লিখেছেন

রাখাল ছেলের স্বপ্ন ভ্রম

রাখাল ছেলের স্বপ্ন ভ্রম
দ্বিপ্রহরে রাখাল ছেলে ঘুমের ঘোরে
স্বপ্ন দেখে ধুলায় গড়াগড়ি; বট বৃক্ষের ছায়াতলে
রাজকন্যা পঙ্খীরাজে এলো উড়ে; ময়ূরকণ্ঠী রাজকন্যা গান ধরেছে
পদ্মদীঘির দক্ষিণ পাড়ে বসে।
পদ্মদীঘির পদ্ম পাতায় বসে
মৎস্যকুমারী গা এলিয়ে শরীর পোড়া রোদে; রাজকন্যার প্রাণের সখী হেসে
হাসের ছানার জলকেলির মত্ততা লোভে; উদল শরীর জলের ছায়ায়
জলছবির সেই বিদ্রুপ আঁকে চোখের কোণে।
সখী সনে রাজকন্যা দীঘির জলে
কোমর জলে নেমে হাতে জল ভরে; জল কেলির জলের ঢেউয়ে
রাজকন্যার শরীর নেচে উঠে; ভেজা কেশে যেন মেঘের অঙ্গ মেখে
রাজ কন্যা পঙ্খীরাজে উঠে যায় হারিয়ে তেপান্তরের মাঠে।
রাখাল ছেলের ঘুমের ঘোর
স্বপ্ন দেখা রাজকন্যার স্বপ্ন গেল টুটে;... continue reading

৬৩৬

চারু মান্নান

৪ বছর আগে লিখেছেন

পাখির ঝাঁক যাচ্ছে উড়ে

পাখির ঝাঁক যাচ্ছে উড়ে
দিগন্তে ঐ আকাশ পথে
পাখির ঝাঁক যাচ্ছে উড়ে
বাড়ি ঘরের নারে বালাই
ইচ্ছ মতো ঘুরে বেড়াই।
বিলে ঝিলে গা জুড়িয়ে
হেমন্তের ঐ রৌদ্র হাসে
সাঁঝের গায়ে কুয়াশা মেখে
পথে ঘাটে ধুঁয়া উড়ে।
পানকৌড়ি ভুলে যায়রে
সাঁঝ ঘনালে মনে পরে
মাছের নেশায় ডুব সাঁতারে
ভেজা গায়ে বাবলার ডালে।
১৪২১/১৭ অগ্রহায়ণ/হেমন্তকাল।
continue reading

৫৪০

‍মোঃ মোসাদ্দেক হোসেন

৪ বছর আগে লিখেছেন

রামসাগর

রামসাগর
-মোঃ মোসাদ্দেক হোসেন
 
ইতিহাসে ঠায় নিয়েছে
কথা রামসাগরের
প্রজাদেরই কষ্টে রাজা
পেত ব্যথা ঢের।
 
বৃষ্টিহীনে রাজ্যখানা
দু্র্ভিক্ষতে পড়ে
রাজা রামনাথ করতে লাঘব
ওঠে নড়ে চড়ে।
 
সতেরশ পঞ্চাশেতে
শুরু করে খনন
পঞ্চান্নতে হলে শেষে
রাজা দেখে স্বপন।
 
রাজকুমারে দিলে জীবন
ভরবে দীঘি জলে
নয়ত শূণ্য  রবে এমন
যুগান্তরে কালে।
 
তাইতো রাজা করে হুকুম
রাজকুমারে প্রতি
পিতাকে সে শ্রদ্ধা জানায়
দিতে জীবন ব্রতী।
 
তৈরি হলো দীঘি মাঝে
বাড়ি রাজকুমারের
নিদ্রাগেলে পুরো দীঘি
জলেতে ভরে ঢের।
 
ঘটল সলিলে সমাধি
ভরল জল... continue reading

৮৪৯

সুলতানা সাদিয়া

৫ বছর আগে লিখেছেন

মিশুক(শেষাংশ)

(পূর্ব হতে)
অথচ বাবা মিশুকের ভীষণ বন্ধু। বাবা মিশুকের সাথে কখনোই জোরে কথা বলে না। সব সময় ডাকবে, আমার আব্বুনি। মাও নাকি ওকে ডাকতো আব্বুনি। মায়ের কথা মনে পড়তেই এ্যালবামটার কথা মনে পড়ে। আর  সেই সময়  একবার এ্যালবামটা দেখা চাই’ই ওর।
মিশুক টেবিলের ড্রয়ারের ভেতর হাতড়ে অবাক হয়ে যায়। কোথায় গেল এ্যালবামটা? মায়ের ছবির এ্যালবাম। মিশুকের সবচেয়ে প্রিয় জিনিস। রোজ একবার না দেখলে মায়ের ছবি, মিশুক ছটফট করে। মিশুক যখন তিন বছরের তখন মা অনেক দূরে চলে গেছে। দাদী বলতো, মা আকাশের তারা হয়ে গেছে। এখন মিশুক আর ছোটটি নয়। সে রীতিমত ফাইভে পড়ুয়া ছেলে। ছোটবেলায় দাদীর কোলে তারা দেখতে... continue reading

১৫ ৮৪৫

সুলতানা সাদিয়া

৫ বছর আগে লিখেছেন

মিশুক (পর্ব-১)

ফরিদ স্যার মাত্র চলে গেলেন। সপ্তাহে পাঁচদিন বাসায় এসে মিশুককে পড়িয়ে যান স্যার। দরজা লাগিয়ে এসে টেবিলের এলোমেলো বইগুলো গোছাতে গোছাতে মিশুকের ক্ষুধা পেয়ে যায়। ফুপিকে বললেই এক মগ দুধ আর টোস্ট নিয়ে আসবে। মিশুকের এখন দুধ খেতে ইচ্ছে হচ্ছে না। আর এই শীতের মধ্যে ফুপি মজা করে কম্বলের মধ্যে ঢুকে সিরিয়াল দেখছে। এই সময় ফুপিকে ওর কষ্ট দিতে খারাপ লাগে। ফুপি দৌড়ে ওভেনে দুধের মগ দিয়ে দিবে ঠিকই তবে ফুপির কয়েকটা সিন মিস হবে। মিশুক অবশ্য কাউকেই কষ্ট দিতে চায় না। সবাই ওকে বলে, গুড বয়।
মিশুক আসলেই গুড বয়। মিশুক নিজেই ওর পড়ার টেবিল, আলনা আর ছোট্ট... continue reading

২৪ ৮০৬