অল্প খরচে ঘুরে আসুন মহামায়া লেক, গুলিয়াখালী ও বাশবাড়িয়া সী বীচ Nokkhotro Desk

তবে প্লান করে যদি ট্যুরে যাওয়া যায় তাহলে অল্প সময়ে বেশি স্পট ভ্রমণ যেমন করা যায় তেমনি খরচের পাল্লাও অনেক হালকা হয়ে যায়।
আপনারা চাইলে একদিনে চিটাগাং এর মহাময়া লেক, গুলিয়াখালী ও বাশবাড়িয়া সী বীচ ঘুরে আসতে পারেন অল্প খরচে।

কিভাবে যাবেন
ঢাকা টু ফেনী বাসে চলে আসবেন ফেনীতে ( বিশেষ করে রাত ১১.০০ টা বা ১২.০০ টার গাড়ীতে উঠবেন। ভোর ৫.০০ বা ৬.০০ দিকে নেমে যাবেন। ফেনী থেকে মহিপাল হেটে বা রিকশাতে আসতে পারবেন। মহিপালে চিটাগাং গামী বাস পাবেন বাসে করে মিরসরাই নেমে যাবেন। স্টেশন থেকে একটু হাটলে মহামায়া লেক। লেকে গেলেই দেখেতে পাবেন স্চছ ঠান্ডা পানি আর ছোট ছোট টিলা। যাওয়ার সময় অবশ্যই গোসল করার জামা কাপড় নিয়ে যাবেন কেননা পানি দেখে গোসলের লোভ সামলাতে পারবেন না। সাতার না জানলে শেী দুরে যাবেন না। নৌকা করে ঘুরে দেখতে পারেন পুরো লেকটি। ভেতরে একটি ঝর্ণাও আছে। মহামায়া লেক থেকে কায়ারিং করে সীতাকুন্ড চলে আসতে পারেন ঘন্টা খানেক লাগবে। বেশ মজাও পাবেন। সীতাকুন্ড বাজার থেকে বাসে যেতে পারবেন গুলিয়াখালি সী বীচ। সাগরের নোনা পানি ঝাপাঝাপি দৌড়, সাগর পাড়ের মনোরম দৃশ্য দেখে নয়ন জুড়িয়ে যাবে।
যাইহোক বীচ থেকে আবার চলে আসনু সীতাকুন্ড বাসস্ট্যান্ডে দুপুরের খাবার শেষ করে বাসে করে চলে যেতে পারবেন বাশবাড়িয়া বাস স্টেশনে সেখান থেকে সিএনজি বা অটো করে চলে যেতে পারবেন বীচে। সেখানে সাগরের দৃশ্য কুমিরা ব্রীজ দেখতে পাবেন। বিকাল বেলার অসাধারণ দৃশ্য দেখে মন ভরবে না। দেখার স্বাদ মেটার আগেই সুয্যি মামা বিদায় বলে দিবে আর আপানার ফেরার ঘন্টাও বেজে যাবে।

খরচের হিসাব
ঢাকা টু ফেনী : ৩০০ টাকা বাস ভাড়া
ফেনী টু মিরসরাই : ২০ টাকা বাস বাড়া
কায়ারিং: ১ ঘন্টা: ৩০০ টাকা
মিরসরাই টু সীতাকুন্ডু: ৩০ টাকা
সীতাকুন্ডু টু গুলিয়াখালি সী বীচ ১৫০ টাকা সিএনজি ভাড়া
সীতাকুন্ডু ফিরে আসতে ভাড়া : ১৫০ টাকা সিএনজি
সীতাকুন্ডু টু বাশবাড়িয়া স্টেশন ১৫ টাকা
বাশবাড়িয়া স্টেশন টু সী বীচ ২০ টাকা করে সিএনজিতে
বীচ থেকে স্টেশন ২০ টাকা
বাশবাড়িয়া টু ঢাকা বাস ভাড়া ৪৮০ টাকা
এর ভিতরে সকালের নাস্তা, দুপুরের খাবার, বিকালের নাস্তা সব মিলিয়ে ৪০০ টাকা হলেই যথেষ্ট।
তাহলে মোট খরচ দাড়াবে: ১৮৮৫ টাকা।

মাত্র ২০০০ টাকায় ঘুরে আসতে পারেন এইসব চোখ ধাদানো স্পট থেকে। তাও আবার ১ দিনেই। শুভ হোক আপনাদের ভ্রমণ।
A A