Food Image

কিমা পরোটা


পরোটা খাবারটি সবার বেশ পছন্দ। আর তা যদি হয় কিমা পরোটা, তবে তো আর কথা নেই। সকালের নাস্তায় হোক বা বিকেলের স্ন্যাকের আয়োজনে, সবসময় খাওয়া যায় এই কিমা পরোটা। রেস্তরাঁর মত মজাদার কিমা পরোটা এখন বাসায় বানিয়ে ফেলুন খুব সহজে। আসুন জেনে নিই কিমা পরোটার রেসিপি।

উপকরণ
ডো তৈরি করার জন্য লাগবে-
১ কাপ আটা বা ময়দা
১ চা চামচ তেল
লবণ
পানি
স্টাফিং এর জন্য লাগবে-
৫০০ গ্রাম বা আধা কেজি মাংসের কিমা
৩/৪ চা চামচ মরিচ গুঁড়া
১/২ গুচ্ছ ধনে পাতা কুচি
২টি কাঁচা মরিচ কুচি
১টি পেঁয়াজ কুচি
১টি ছোট টমেটো কুচি
১ চিমটি ধনিয়া গুঁড়া
১/২ চা চামচ গরম মশলা
৪-৬ চা চামচ আদা রসুন বাটা
লবণ স্বাদমত
১ চিমটি হলুদ গুঁড়া

প্রণালী
• -প্রথমে আটা বা ময়দা, তেল, লবণ, ও পানি দিয়ে দো তৈরি করে নিন। ডোটি আধা ঘন্টার জন্য রেখে দিন।
• -চুলায় ফাইপ্যানে তেল দিন।
• -তেলের মধ্যে পেঁয়াজ কুচি, হলুদ গুঁড়া, লবণ, কাঁচা মরিচ কুচি, আদা রসুনের পেষ্ট দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়ুন।
• -তারপর এতে টমেটো কুচি দিয়ে দিন।
• -পেঁয়াজ, টমেটো নরম হয়ে আসলে এতে মাংসের কিমা দিয়ে দিন। কিছুক্ষণ কিমা রান্না করুন।
• -তারপর এতে ধনিয়া গুঁড়া, জিরা গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, গরম মশলা গুঁড়া দিয়ে রান্না করুন।
• -মাংসের পানি দিয়ে কিমা থেকে যে পানি বের হবে তা দিয়ে রান্না করুন। প্রয়োজনে সামান্য পানি দিতে পারেন।
• -কিমা রান্না হয়ে গেলে নামানোর আগে ধনে পাতা কুচি দিয়ে দিন।
• -এবার ডো দিয়ে রুটি তৈরি করে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন রুটির আটা যতটুকু নিবেন কিমার পরিমাণও ততটুকু নিবেন।
• -এবার রুটিটি অল্প করে বেলে নিন।
• -রুটির মাঝখানে কিমাটুকু উঁচু করে দিয়ে দিন। ছড়িয়ে দিবেন না।
• -তারপর রুটির চারপাশ কোণাগুলো কুচি করে মাঝখানে এনে মুখ বন্ধ করে দিন। দেখতে অনেকটা পুটলির মত হবে।
• -এখন এটাকে পরোটার মত করে বেলুন। আস্তে আস্তে বেলবেন যাতে করে কিমা বের না হয়ে যায়।
• -এবার পরোটা অল্প তেলে ভাজুন। ভাজার সময় পরোটাটি কয়েকবার ঘুরাবেন যাতে পরোটার চারপাশ ভালমত ভাজা হয়।
• -ভাজা হয়ে গেলে সস দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার কিমা পরোটা।