Technology Image

ললিপপ ভার্সনের কিছু কমন সমস্যা এবং সমাধান



যদিও অ্যান্ড্রয়েডের নতুন ভার্সন অ্যান্ড্রয়েড ৬.০ মার্শম্যালো চলে এসেছে অ্যান্ড্রয়েডের জগতে তবে এখনও কিন্তু অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ ললিপপের বিভিন্ন আপডেট পাচ্ছে অনেক ডিভাইসই। তাছাড়া, বর্তমানের অনেক ডিভাইসই মার্শম্যালোর এই আপডেট পাবেনা ফলে সেই ডিভাইসগুলোতে ললিপপ আপডেট আসতেই থাকবে। মজার বিষয় হচ্ছে, আযন্ড্রয়েড ৫.০ এবং ৬.০ এর মধ্যে কিছুটা জলদিই করেছিল আর ফলে ললিপপে থেকে গিয়েছে বেশ কিছু কমন ল্যাগ যা নিয়েই আজ মূলত আলোচনা করব। চলুন তাহলে, কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।

ল্যাগ এবং অ্যাপলিকেশন ক্র্যাশ সমস্যা
এই সমস্যাটিকে ললিপপের সবচাইতে বড় সমস্যাগুলোর একটি হিসেবেই বিবেচনা করা হয়। ললিপপে রয়েছে মেমরি লিকের সমস্যা যা ল্যাগ এবং ক্র্যাশিং এর পেছনে কাজ করে থাকে মূলত। এই সমস্যার কারণে স্মার্টফোনের ক্লোজড অ্যাপগুলো হঠাত ব্যাকগ্রাউন্ডে রান হয়ে যেতে পারে, অ্যাপলিকেশন নেভিগেট করার সময় আপনি ল্যাগ অনুভব করতে পারেন এবং এমনকি চলতে চলতে হঠাত করে কোন অ্যাপলিকেশন কোন প্রকার ওয়ার্নিং ছাড়াই বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমনকি অনেকের এমনও সমস্যা হয়েছে যে হোমস্ক্রিনে ফিরে আসার পরই প্রথমবার হোমস্ক্রিনের আইকনগুলো উধাও হয়ে যায় এবং পরে ফিরে আসে।

তবে হাই এন্ড ডিভাইসগুলোতে হার্ডওয়্যার অনেক ভালো ব্যবহার করার কারণে বেশিরভাগ ব্যবহারকারী হয়তো এসকল সমস্যা কখনোই ফেস করেননি, সমস্যাগুলো বেশি হয়ে থাকে মিড রেঞ্জা বা লো-এন্ড ডিভাইসগুলোতেই।

এই সমস্যাটি থেকে সাময়িকভাবে মুক্তি পেতে আপনি আপনার ডিভাইসটিকে রিবুট করে দেখতে পারেন। তবে এই সমস্যা আবার ফিরে আসবে কেননা গুগল থেকে এই সমস্যাটির জন্য এখন পর্যন্ত কোন প্রকার প্যাচ ছাড়া হয়নি।

তবে অনেক ব্যবহারকারীই জানিয়েছেন গুগলের অ্যাপ সার্চ ডাটা মুছে দেয়ার পর তারা এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেয়েছিলেন। আপনিও চেষ্টা করে দেখতে পারেন। এর জন্য আপনাকে Settings > Apps > All এ গিয়ে Google ট্যাপ করে ‘Clear Data’ অপশনে ট্যাপ করতে হবে।


খারাপ পারফর্মেন্স
আপনি যদি আপনার ডিভাইসটি বেশ খানিকটা সময় ধরে ব্যবহার করে থাকেন যেমন, আপনি আপনার স্মার্টফোনটি অ্যান্ড্রয়েড ৪.০ ভার্সন থেকে ব্যবহার শুরু করেছিলেন এবং পরবর্তিতে অ্যান্ড্রয়েড ৫.০ আপডেট করেছেন, এক্ষেত্রে আপনি নিশ্চয়ই পারফর্মেন্সে কিছুটা হলেও দূর্বলতা লক্ষ্য করেছিলেন? আসলে এই সমস্যাটি খুবই সাধারণ একটি সমস্যা। আপনি যদি আপনার স্মার্টফোনটিকে কোন প্রকার ক্লিন ইন্সটল না করেই আপডেটের পর আপডেট দিতে থাকেন তবে স্মার্টফোনের পারফর্মেন্সে এরকম সমস্যা দেখা যায়।


এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে প্রথমে খেয়াল করুন আপনি যে অ্যাপলিকেশনগুলো ব্যবহার করছেন তা ললিপপের আপনার ভার্সনের সাথে কম্প্যাটিবল কিনা। না হলে আপডেট করে নিন বা আন-ইন্সটল করে এর কোন অলটারনেটিভ অ্যাপলিকেশন ব্যবহার করুন।এছাড়াও আপনি বেশি পরিমাণে উইগেট ব্যবহার করে থাকলে সেই উইগেটগুলো ডিঅ্যাকটিভেট করুন। এরপরেও যদি সমস্যার সমাধান না হয় তবে ফ্যাক্টোরি রিসেট দিন। ফ্যাক্টোরি রিসেট দেয়ার পর এই সমস্যা সমাধান হয়ে যাবে সহজেই।

ওয়াই-ফাই কানেক্টিভিডি
প্রতিটি আপডেটের পর বেশ কিছু ওয়াই-ফাই রিলেটেড সমস্যার দেখা দেয়। যেমন ধরুন, উইক সিগন্যাল বা কানেকশন না পাওয়া। এক্ষেত্রে সমস্যাটি ব্যখ্যা না করে আমি সল্যিশনে চলে যাচ্ছি। এরকম সমস্যার সম্মুখীন হলে প্রথমেই পূর্বের নেটওয়ার্কটি রিমোভ করে পুনরায় কানেক্ট করতে চেষ্টা করুন। যদি তাও না হয় তবে আপনি ফ্যাক্টোরি রিসেট দিয়ে দেখতে পারেন। যদি রিসেটের পরেও সমস্যার সমাধান না হয় তবে পূর্বের ভার্সনে ডাউনগ্রেড করে ফেলুন।


ব্লুটুথ কাজ না করা
৫.০ আপডেটটির পর কিছু ব্যবহারকারীরা ব্লুটুথের সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন। অনেকেই পূর্বের পেয়ারড ডিভাইসগুলোর সাথে ফাইল ট্র্যান্সফার করতে পারলেও নতুন ডিভাইসের সাথে পেয়ার করতে পারেননি। এমনও রিপোর্ট অনেকে করেছেন যে ব্লুটুথের কিছু ফিচার আর কাজই করছেনা। অনেকেই বলেছেন পেয়ারড ডিভাইসগুলো বার বার ডিসকানেক্ট হচ্ছে এবং রিকানেক্ট হচ্ছে।

এই সমস্যাগুলো থেকে মুক্তি পেতে খুব বেশি কিছু করার ক্ষমতা আসলে আমদের হাতে নেই। তবে আপনি যদি এই সমস্যার সম্মুখীন হয়ে থাকেন তবে সবগুলো ডিভাইস আন-পেয়ার করে প্রথম থেকে আবার শুরু করুন, তবে এর আগে একবার ফ্যাক্টোরি রিসেট দিয়ে নিবেন। আশা করি ফ্যাক্টরি রিসেট দিলে সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে, আর নইলে যদি ব্লুটুথ ফিচারটি এতটাই প্রয়োজনীয় হয় আপনার জন্য তাহলে ডাউনগ্রেড করুন।

নোটঃ ব্লুটুথের ফার্মওয়্যার খুঁজে দেখতে পারেন। নতুন বা আপগ্রেডেড ফার্মওয়্যার ইন্সটলের মাধ্যমেও এই সমস্যাটি দূর করা সম্ভব।
ব্যাটারি সমস্যা

এই সমস্যাটি নিয়ে সর্বপ্রথমে আলোচনা করা উচিৎ ছিল, কেননা ললিপপের প্রধান সমস্যা হিসেবে ব্যাটারির সমস্যাটিকেই ধরেন অনেকে। সমস্যাটি দুই ধরণের হতে পারে।
আপডেটের পর হয় আপনার স্মার্টফোনে চার্জ হতে স্বাভাবিকের চাইতে বেশি সময় লাগছে।
আপডেতের পর স্বাভাবিকের চাইতে দ্রুত চার্জ ফুরিয়ে যাচ্ছে।

গুগলের মতে এই সমস্যাটির সমাধান অ্যান্ড্রয়েড ৫.০.১ ভার্সনে দিয়ে দেয়া হয়েছে তবে এখনোও বেশিরভাগ অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারী এই সমস্যা নিয়েই আছেন।

খাতা-কলমের হিসেব অনুযায়ী ললিপপে ইম্প্রুভড ব্যাটারি ফিচার থাকার কথা ছিল, কিন্তু এই ক্ষেত্রে উল্টোটা হয়ে গিয়েছে। এই সমস্যা থেকে শতভাগ রক্ষা পাবার কোন উপায় আমার জানা নেই তবে ব্রাইটনেস কম রেখে, পাওয়ার সেভার মোড ব্যবহার করলে, প্রয়োজনের পর অ্যারোপ্লেন মোড ব্যবহার করলে এই সমস্যা থেকে কিছুটা হলেও মুক্তি পাওয়া যায়, তবে খুবই সামান্য পরিমাণে।

ইউটিউব এবং ভিডিও প্লেব্যাক ইস্যু
অ্যান্ড্রয়েডে আরও একটি সমস্যা দেখা যায় তা হচ্ছে ভিডিও প্লেব্যাক ইস্যু। ভিডিও এবং অডিওর সিনক্রোনাইজেশন সমস্যা এই ভিডিও প্লে-ব্যাক ইস্যুর মধ্যে অন্যতম। যাই হোক, এই সমস্যাটি একবারে দূর করা যাবেনা তবে আপনি ক্যাশ ক্লিয়ার করে কিছুদিনের জন্য এই সমস্যাটি থেকে মুক্ত থাকতে পারবেন। ইউটিউবের জন্য সেটিংস > অ্যাপ থেকে ইউটিউবে ট্যাপ করে ক্যাশ ক্লিয়ার করে দিতে হবে। আর অনান্য ভিডিও প্লে-ব্যাকের জন্য ক্লিন মাস্টারের মাধ্যমে সকল ক্যাশ ক্লিন করে নিলেই হয়ে যাবে।


এই ছিল ললিপপের কিছু কমন সমস্যা এবং সমাধান।