Technology Image

জ্যাক মা আলিবাবা




চীনের ই-কমার্স জায়ান্ট আলিবাবা'র প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা আলিবাবা প্রতিষ্ঠার আগে চাকরির জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছিলেন। কিন্তু কেএফসিসহ ৩০টি প্রতিষ্ঠানে চেষ্টা করেও কোন চাকরি জোগাড় করতে পারেননি তিনি। সম্প্রতি মার্কিন সাংবাদিক চার্লি রোজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের জীবনের এমনই কিছু কঠিন বাস্তবতার কথা তুলে ধরেন তিনি।

কলেজের এনট্রান্স পরীক্ষায় তিনবার অকৃতকার্য হয়েছিলেন তিনি। একবার অকৃতকার্য হওয়ার পর তিনি ভিন্ন ভিন্ন ৩০টি প্রতিষ্ঠানে চাকরির জন্য আবেদন করেন। কিন্তু সবগুলো প্রতিষ্ঠানই তাকে হতাশ করে।

"আমি পুলিশে চাকরির জন্যও চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু আমাকে সেখানেও অনুপযুক্ত ঘোষণা করা হয়েছিল। পরবর্তীতে আমাদের এখানে যখন কেএফসি চালু হয়, তখন আমি সেখানেও চাকরি নেওয়ার চেষ্টা করি। আমরা একসাথে ২৪ জন চাকরির জন্য আবেদন করেছিলাম। আমি ছাড়া বাকি ২৩ জনেরই সেখানে চাকরি হয়েছিল। আমিই একমাত্র ব্যক্তি যার..."

পরবর্তীতে ১৯৯৮ সালে আলিবাবা প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। কিন্তু সে সময় তাকে নানা বাধার সম্মুখীন হতে হয়েছিল। প্রতিষ্ঠার পর তিন বছর কোন লাভের মুখ দেখতে ব্যর্থ হয় তার প্রতিষ্ঠান। সবচেয়ে বড় সমস্যা ছিল লেনদেন করা নিয়ে।

লেনদেনের সমস্যা দূর করতে তিনি আলিপে চালুর সিদ্ধান্ত নেন। এর মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ক্রেতা-বিক্রেতাদের জন্য লেনদেন আরও সহজ করতে চেয়েছিলেন তিনি। তখন অনেকেই জ্যাক মা'র আলিপে চালুর সিদ্ধান্তকে ভুল বলে মনে করেছিলেন।

তবে খুব দ্রুতই অবস্থার পরিবর্তন ঘটতে থাকে। বর্তমানে প্রতিদিন আলিবাবা ব্যবহার করেন ১০০ মিলিয়ন ব্যবহারকারী। আর আলিপের বর্তমান গ্রাহক ৮০০ মিলিয়নেরও বেশি। আর সব মিলিয়ে জ্যাক মা'র সম্পদের পরিমাণ ২০৪০ কোটি ডলারেরও বেশি।