Travel Image

চীনের আশ্চর্য মেইথজিসান কেইভ মন্দির



চীনের উত্তর পশ্চিমে গানসু প্রদেশে বিখ্যাত সিল্ক রোডের কাছে একটি বৌদ্ধ মন্দির রয়েছে। মন্দিরটি মেইথজিসান কেইভ নামে পরিচিত। মন্দিরটি পাহাড়ের গুহায় অবস্থিত। তিয়ানশুই শহরের মেইথজিসার পাহাড়ের গায়ে ১৯৪ টি গুহা তৈরি করে এই বুদ্ধ কমপ্লেক্সটি নির্মান করা হয়। এখানে রয়েছে ৭২০০ টি বুদ্ধ মূর্তি। আর ১০০০ মিটার দেয়াল জুড়ে রয়েছে নানারকম দেয়ালচিত্র। এই গুহামন্দিরটি খুব একটা পরিচিত নয়। কম লোকই জানে এ বিষয়ে। বুদ্ধ ধর্ম যাজকরা এখানে বাস করতে পছন্দ করেন। নীরবে ঈশ্বরের প্রার্থনা করেন, তপস্যা করেন।

এই সম্পর্কে ইতিহাসে খুব একটা তথ্য পাওয়া যায় না। কারা এটা নির্মান করেছিলেন, কোন যুগে, কখন এটি নির্মান হয়, তার সম্পর্কেও বিস্তারিত ধারণা পাওয়া যায় না খুব একটা। তবে এখান থেকে উদ্ধার করা সামগ্রী, পেইন্টিংস ও ক্যালিওগ্রাফি থেকে ধারণা করা হয় চতুর্থ শতাব্দী থেকে এখানে বুদ্ধ ধর্মগুরুরা নীরবে ধর্মচর্চা করার জন্য এই স্থানটিকে বেছে নেয়।

১৯৫৩-৫৪ সালে বেইজিং এর প্রত্নতাত্ত্বিকরা এটিকে আবিষ্কার করে। এখানে তাংহোঙ্গা ও হুয়ানগাঙ্গ নামক দুই ধর্ম যাজকের আত্মজীবনী পাওয়া গেছে। গুহার ভেতরের সবচেয়ে বড় বুদ্ধ মূর্তির উচ্চতা ১৬ ফুটেরও বেশি।

আর বাইরের মূর্তিগুলোর উচ্চতা প্রায় ৫০ ফুটের মতো।

মুর্তিগুলোর কাছে যাবার পাহাড়ের গা ঘেষে ঘোরানো সিড়িগুলো আগে কাঠের ছিল, পরে নিরাপত্তার জন্য ওগুলোতে ধাতব সাপোর্ট দেয়া হয়। বৌদ্ধ সন্যাসীরা অনেকেই সেখানে এখনো থাকেন, ধর্মচর্চা করেন।