Health Image

প্লাস্টিকের বোতলের ওষুধে মৃত্যুর ঝুঁকি




আপনি কি জানেন, এক বোতল ওষুধ কিনে আনা মানে মৃত্যুর দিকে একধাপ এগিয়ে যাওয়া? বিশেষ করে মহিলাদের কাছে ওই ওষুধ এতটাই মারাত্মক যে, ধীরে ধীরে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। এমনই আশঙ্কা করছেন ভারতীয় ডাক্তাররা।

দীর্ঘ গবেষণার পর সম্প্রতি একটি রিপোর্টে রীতিমতো চিন্তায় পড়ে গিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়। এ বছর থেকেই প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করতে চলেছে ভারত।

বর্তমানে ভারতে যে কোনও তরল ওষুধই বিক্রি হয় প্লাস্টিকের বোতলে। চিকিত্ৎকরা জানাচ্ছেন, এই প্লাস্টিক বোতলগুলি খুবই ক্ষতিকারক। বোতলগুলিতে তরল ওষুধ সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করছে মহিলা ও শিশুদের।



অধ্যাপক সীমস সিংহলের কথায়, ‘প্লাস্টিকের বোতলের একটি দীর্ঘমেয়াদী পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে। এই বোতলগুলির জেরে মহিলাদের প্রজনন ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। একই সঙ্গে বাড়ছে বন্ধ্যাত্ব, মানসিক ভারসাম্যহীন শিশুর জন্ম ইত্যাদি।’

শুধু প্রজনন ক্ষমতাই নয়, প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধে স্তন ক্যান্সারের প্রবণতা বেড়ে গিয়েছে বলেও জানাচ্ছেন চিকিত্ৎকরা। চিকিত্ৎকরা সম্মিলীত ভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন, অবিলম্বে ওষুধ বিক্রিতে প্লাস্টিকের বোতল বন্ধ করা হোক। সেই আবেদন মেনে পয়লা মার্চ থেকেই প্লাস্টিকের বোতলে ওষুধ বিক্রি বন্ধ করে দিচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়।