Technology Image

প্রযুক্তি পণ্য Pepper



প্রযুক্তির এই পৃথিবীতে রোবটের রেভ্যুলেশন শুরু হয়েছে অনেক আগেই। কিন্তু কেন যেন রোবট মানেই অনেকের কাছে অর্থটা হয়ে দাঁড়িয়েছে 'ডেথ মেশিন' বা এমন কোন মেশিন যা কোন খনিতে কঠিন কাজগুলো সম্পাদন করতে মানুষের পরিবর্তে ব্যবহার করা হয়। এর ব্যতিক্রমও রয়েছে, এবং সেই ব্যতিক্রমের একটি নিয়েই আজকের এই চমৎকার প্রযুক্তি পণ্যের পর্বটি সাজানো হয়েছে।


সফটব্যাঙ্ক করপোরেশন সম্প্রটি ছোট্ট একটি বোট তৈরি করেছে যা তৈরি করা হয়েছে বেশ ফ্রেন্ডলি এবং হেল্পফুল কম্প্যানিয়ন হিসেবে যা কিনা কোন দোকান এবং ঘরেও ব্যবহার করা যাবে। মজার বিষয় হচ্ছে এই বোটটি মানুষের ইমোশন বুঝতে পারে এবং বিভিন্ন ইমোশনাল বিহেভিয়রের পরিবর্তে বিভিন্ন রকম আউটপুট দিতে পারে। চমৎকার এই ফ্রেন্ডলি রোবটটির নাম রাখা হয়েছে Pepper। মজার এই রোবটটি একজন মানুষের মানসিক অবস্থার উপর বিবেচনা করে মানুষটিকে হাগ করতে সক্ষম, তাঁর সাথে হাত মেলাতে সক্ষম এবং অবশ্যই এটি আপনার কিছু প্রশ্নেরও উত্তর দিতে পারবে।

ইমোশন বুঝতে পারা এই রোবটটির মুখ এমন ভাবে তৈরি করা হয়েছে যেন আপনার মনে হয়ে এটি আপনার দিকে সহানুভূতির দৃষ্টিতেই তাকিয়ে আছে। চোখের দিকে তাকিয়ে আপনি অবাক হতে পারেন। চোখ দুটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ক্যামেরার এবং এতে কিছু লাইট ইন্ডিকেটরও রাখা হয়েছে যার মাধ্যমে আপনি রোবটটির স্ট্যাটাস বুঝতে পারবেন। যেমন ধরুন, যখন রোবটটি শুনবে তখন আপনি সবুজ স্ট্যাটাস দেখতে পাবেন, যখন এটি চিন্তা করবে তখন দেখা পাবেন সবুজ সিগন্যালের।


চমৎকার এই রোবটটি আপনার অ্যাসিস্ট্যান্টের কাজও করতে পারবে। আপনার দোকানে বা বাসায় সাহায্য করতে পারবে সহজেই এই ইন্টালিজেন্ট বোটটি। এই রোবটটি দেখে মানুষ এতটাই মুগ্ধ হয়েছিল যে এর ১০০০ ইউনিট বিক্রি হয়েছিল ১ মিনিটের মধ্যেই। তবে সত্যিই যদি বলি, এর মধ্যে এখনো বেশ কিছু বাগ রয়েছে যেগুলো ফিক্স না হলে এটি কিনে আপনি বিরক্তও হতে পারেন। যেমন ধরুন, আপনি যদি সরাসরি এর সামনে না দাঁড়ান তবে এটি আপনাকে দেখতে পারবেনা এবং দেখতে না পারলে আপনার সাথে ইন্টের‍্যাক্টও করতে পারবেনা। এছাড়াও এটি মাঝে মাঝেই অহেতুক কিছু র‍্যানডম টপিক নিয়ে আলচনা করে যা কিছুটা বিরক্তিকর। তবে এই সব বাগগুলো খুব সহজেই ফিক্স করা সম্ভব এবং বাগগুলো ফিক্স করা হলে অবশ্যই এটি হতে পারে আপনার চমৎকার একটি হোম কমপ্যানিয়ন ডিভাইস।