Technology Image

LG Rolly ওয়্যারলেস কীবোর্ড



বর্তমানে সময়ে প্রযুক্তি বাজারে শুধু স্মার্টফোনই বৃদ্ধি পাচ্ছে না, পাশাপাশি স্মার্টফোনের বিভিন্ন রকম এক্সেসরিজের সংখ্যাও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলেই সম্ভবত কোরিয়ান প্রতিষ্ঠান এলজিও পিছিয়ে নেই বিভিন্ন রকম মোবাইল এক্সেসরিজ উদ্ভাবনে। ফলশ্রুতিতে কোরিয়ান এই স্মার্টফোন ম্যানুফ্যাকচারার সম্প্রতি ঘোষণা দিয়েছে চমৎকার একটি ওয়্যারলেস কীবোর্ড প্রযুক্তির যা আমরা এর আগে কখনও দেখিনি। এলজির তৈরি এই এলজি রোলি দেখতে এবং কাজে সত্যিই অসাধারণ।

এলজির তৈরি এই রোলি কীবোর্ডটি আপনি চাইলে ফোল্ড করে একটি ছোট্ট লাঠির মত বস্তুতে রুপান্তরিত করতে পারবেন, ফলে আপনি খুবই সহজে খুব কম জায়গা খরচ করে এমনকি পকেটে ভরেও যেকোন স্থানে নিয়ে যেতে পারবেন এই কী-বোর্ডটি। প্রযুক্তিকে আরও একধাপ বৃদ্ধি করতে এবং আরও কনভেনিয়েন্ট করতে এলজি এই কী-বোর্ডটির সাথে যুক্ত করেছে একটি স্ট্যান্ড যার ফলে যেকোন স্মার্টফোন বা ট্যাবলেট পিসিকে এই কী-বোর্ডটির সাথে সহজেই যুক্ত করা যাবে।

অনেকেই ভাবছেন ছোট আকারের কী-বোর্ডে লিখতে সমস্যা হয় কি না? এলজির ভাষ্যমতে কী-বোর্ডটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ১৭ মিলিমিটারের কী পিচ যেখানে ডেস্কটপের সাধারণ কী-বোর্ডগুলোয় ব্যবহার করা হয়ে থাকে ১৮ মিলি মিটার মাপের কী পিচ। ফলে এটি দিয়ে টাইপ করতে কোন সমস্যাই হবে না বলে এলজি থেকে জানানো হয়েছে।

শুধু যে ডিজাইনের দিক দিয়েই চমৎকার করে তৈরি করা হয়ছে তাও কিন্তু নয়, বরং এতে ব্যবহার করা হয়েছে পলিকার্বনেট এবং এবিএস প্ল্যাস্টিক, ফলে দু-একবার হাত থেকে পড়ে গেলেও সমস্যা হবে না কী-বোর্ডটির।

কী-বোর্ডটিতে ব্যবহার করা হয়েছে নানা রকম প্রযুক্তি। এই কী-বোর্ডটি একই সাথে দুটি ডিভাইসের সাথে যুক্ত হতে সক্ষম এবং এই দুইটি ডিভাইসে ব্যবহার করার জন্য শুধুমাত্র একটি কী-প্রেস করলেই সুইচড হয়ে যাবে। এছাড়াও এলজি কী-বোর্ডটি যে কোন ডিভাইসের সাথে স্বয়ংক্রিয় যুক্ত হতে সক্ষম এবং আপনি যদি সেই ডিভাইসটি বন্ধ করে দিন তবে নির্দিষ্ট সময় পর স্বয়ংক্রিয় ভাবে কী-বোর্ডটিও বন্ধ হয়ে যাবে।
এলজির এই কী-বোর্ডটি একটি AAA ব্যাটারিতে চলে। এবং জেনে অবাক হবেন, এই ব্যাটারিতেই টানা ৩ মাস সাপোর্ট দিয়ে যাবে এই ডিভাইসটি।

নিত্য নতুন প্রযুক্তির এই যুগে এলজির এই রলি কী-বোর্ডটি সম্ভবত নতুন একটি প্রযুক্তির সূচনা করছে মাত্র, দেখা যাক ভবিষ্যতে এই কী-বোর্ড প্রযুক্তিই কোথায় গিয়ে ঠেকে। আর নিত্য নতুন প্রযুক্তি সম্পর্কে জানতে প্রিয় টেকের সাথেই থাকবেন, কেননা নতুন প্রযুক্তি এলেই আমরা আপনাকে জানিয়ে দিব সবার আগে।