Technology Image

১২ ডলার বেতন পেয়েও সুখী ছিলেন



আলিবাবা'র জ্যাক মা বর্তমানে চীনের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় ধনকুবের। আলিবাবা পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হওয়ার পর তার সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে কয়েকগুণ। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না একসময় তার আয় ছিল খুবই সামান্য। বলার মতো তেমন কোন আয়ই করতেন না তিনি।

১৯৮৮ সালে স্নাতক সম্পন্ন করার পর তিনি স্থানীয় একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি শিক্ষক হিসেবে কাজ করতেন। আর এর জন্য তিনি মাসে আয় করতেন মাত্র ১২ ডলার। তার জীবনকাহিনী নিয়ে নির্মিত 'Crocodile in the Yangtze' নামক ডকুমেন্টারিতে এই তথ্য উঠে এসেছে।

তবে মজার ব্যাপার হল, এই সময়টাকেই তিনি জীবনের সেরা সময় হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন, "আপনার যদি ১০ লাখ ডলারের কম থাকে, তাহলে আপনি টাকা খরচের উপায় বের করতে পারবেন। তবে টাকার অঙ্ক যদি ১০০ কোটি ডলার হয়, তাহলে এই টাকা আপনার না। আমার আজ যে অর্থ রয়েছে, তা আসলে একটা দায়িত্ব। এটা হল আমার উপর মানুষের আস্থা স্বরূপ।" সমাজের জন্য এই টাকা খরচ করা প্রয়োজন বলেও তিনি মনে করছেন বলে জানান।

তবে কোটিপতি হওয়ার যে বিড়ম্বনা, তার ব্যাপারে এর আগেও বলেছিলেন জ্যাক মা।