Health Image

ধূমপানে পুরুষের হাড়ে দুর্বলতা বাড়ে



প্রচলিত ধারণায় নারীদেরই অস্টিওপোরোসিস বা হাড়ের দুর্বলতার বড় শিকার বলে মনে করা হয়। কিন্তু পুরুষেরাও এই ঝুঁকিতে থাকেন। আর সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, ধূমপান পুরুষদের হাড়ের দুর্বলতা এবং মেরুদণ্ড ভাঙার ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। ইন্দো এশিয়ান নিউজ নিউইয়র্ক থেকে এ খবর জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের চিকিৎসাবিষয়ক নির্দেশনায় এখন নারী ধূমপায়ীদের অস্টিওপোরোসিস পরীক্ষার কথা বলা হলেও পুরুষ ধূমপায়ীদের ক্ষেত্রে তা বলা হয় না। কিন্তু দেশটির ন্যাশনাল জুইশ হেলথ হাসপাতালের এই গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নারীদের পাশাপাশি পুরুষদেরও এই পরীক্ষা করানো প্রয়োজন।

গবেষণায় দেখা গেছে, ধূমপানের ইতিহাস এবং ক্রনিক অসস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজিজ (সিওপিডি) নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই হাড়ে দুর্বলতার জন্য ঝুঁকি হিসেবে কাজ করে।

ন্যাশনাল জুইশ হেলথের গবেষক এলিজাবেথ রেগান বলেন, ‘আমাদের গবেষণায় বলা হয়েছে, বর্তমান ও সাবেক ধূমপায়ী নারী-পুরুষ সবারই অস্টিওপোরোসিস পরীক্ষা করানো প্রয়োজন।’ তিনি আরও বলেন, ‘এই পরীক্ষায় ধূমপানের ইতিহাস আছে, এমন পুরুষদের অন্তর্ভুক্ত করা এবং এর চিকিৎসা করানো হয়তো হাড়ভাঙা রোধে সহায়ক হতে পারে।’

গবেষকেরা ৪৫ থেকে ৮০ বছর বয়সী ৩ হাজার ৩২১ জন বর্তমান ও সাবেক ধূমপায়ীর স্বাস্থ্য তথ্য পর্যালোচনা করেন। এতে দেখা গেছে, ৫৫ শতাংশ পুরুষেরই ‘লো বোন ডেনসিটি’ সমস্যা আছে এবং এই সমস্যায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের ৬০ শতাংশই মেরুদণ্ডে ভাঙার সমস্যায় পড়েছেন। গবেষণা প্রতিবেদনটি অ্যানালস অব দ্য আমেরিকান থোরাসিক সোসাইটির সাময়িকীতে প্রকাশিত হয়েছে।