Technology Image

সহজ ৪ উপায়ে বাড়িয়ে নিন ওয়াই-ফাইয়ের গতি




ইন্টারনেটে কাঙ্ক্ষিত গতি পাওয়া যাচ্ছে না- অনেককেই এমন অভিযোগ করতে শোনা যায়। এমনকী ওয়াই-ফাই সংযোগে ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রেও নাকি একই অবস্থা। ইন্টারনেট স্পিড নেই। তবে এই সমস্যা থেকে খুব সহজেই মুক্তি মিলতে পারে। এ বিষয়ে সম্প্রতি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কলকাতার জনপ্রিয় একটি অনলাইন পত্রিকা। জেনে নিন ওয়াই-ফাইয়ের গতি বাড়ানোর কয়েকটি সহজ উপায়:

১. রাউটারের লোকেশন পরিবর্তন: ওয়াই-ফাই সংযোগের গতি বাড়ানোর সহজ উপায় হল রাউটারের অবস্থান পরিবর্তন বা অবস্থানের মাঝে সমন্বয় রক্ষা করা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, রাউটার বাড়ির ভেতরে আসা ইন্টারনেট তারের খুব কাছাকাছি রাখা হয়৷ যা উচিত নয়। পাশাপাশি বেশিরভাগ রাউটারের অ্যান্টেনার অবস্থান ঠিক করে রাখা হয় না। ফলে অ্যান্টেনার থেকে সব দিকে সংকেত পাঠানো ও রিসিভ করা সম্ভব হয় না। তাই রাউটারকে এমন স্থানে রাখা উচিত যেখান থেকে রাউটার সবদিকে সংকেত পাঠাতে পারে বা সংকেত রিসিভ করতে পারে।

২. ওয়্যারলেস রাউটারের সামনে একটি উন্নত অ্যান্টেনা যোগ করা: কখনো কখনো রাউটারের অবস্থান পরিবর্তন করে ইন্টারনেটের গতি উন্নত বাড়ানো সম্ভব হয় না। এই ক্ষেত্রে কর্মক্ষমতা বাড়ানোর জন্য অ্যান্টেনা পরিবর্তন করা যেতে পারে। যদি একটি রাউটারের চারপাশে অনেক দেওয়াল বা অনেক বাধা থাকে তবে সেক্ষেত্রে একটি এক্সটারনাল অ্যান্টেনা রাউটারের সামনে বা সঠিকভাবে ব্যবহার করে রাউটারের কার্যক্ষমতা বাড়ানো যেতে পারে। রাউটারের কার্যক্ষমতা বাড়লে তবেই বাড়বে ইন্টারনেটের স্পিড।

৩. একটি ওয়্যারলেস রিপিটার যোগ করা: রাউটারে নেটওয়ার্কের পরিসীমা বাড়াতে একটি ওয়্যারলেস রিপিটারের সাহায্য নিতে পারেন। এই রিপিটার রাউটার ও সংযুক্ত ডিভাইসের মধ্যে একটি সেতু হিসেবে কাজ করবে। বাজারে এমন অনেক ভালো ভালো রিপিটার পেয়ে যাবেন কম দামে।
৪. ব্যাকগ্রাউন্ডের ডাটা ডাউনলোড বন্ধ করতে হবে: একটি ইন্টারনেট নেটওয়ার্কের গতি অনেক সময় ব্যাকগ্রাউন্ডে চলা একাধিক কাজের জন্য স্লো হতে পারে। ব্যবহারকারী কম্পিউটার, ট্যাবলেট বা ফোনের ব্যাকগ্রাউন্ডে যদি একাধিক ট্যাব একসঙ্গে চলতে থাকে তবে ইন্টারনেটের গতি কমতে বাধ্য। তাই ইন্টারনেটের গতি বাড়াতে অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ্লিকেশন বা ট্যাব বন্ধ করলে ইন্টারনেটের স্পিড বাড়বে।