Lifestyle Image

ফলের খোসার ব্যবহার




*বাসার যে কোনো জায়গার দুর্গন্ধ কমাতে কমলার খোসা টুকরো করে অথবা শুকিয়ে গুঁড়ো করে সেই জায়গা গুলোতে রেখে দিন। যেমন ময়লা ফেলে দেয়ার আগ পর্যন্ত ময়লার বালতি বা ব্যাগের উপর কমলার খোসা রেখে দিতে পারেন।

*মশার কামড় থেকে রক্ষা পেতে কমলার খোসার ভেতরের অংশ হাতে পায়ে ঘষে নিন।

*পিঁপড়া এবং বিড়ালকে দূর করতে দরজার আশে পাশে বা খাবারেরে কাছে কমলার খোসা রেখে দিন।

*কমলার খোসা দিয়ে ঘষে রান্নাঘরের বিভিন্ন জিনিস থেকে পানির দাগ দূর করতে পারেন।

*দাঁতের হলদেটে ভাব দূর করতে কলার খোসার ভেতরের দিকটা দাঁতে ঘষে নিন। এভাবে ১ থেকে ২ সপ্তাহ ব্যবহার করতে হবে।

*ত্বকের যত্নেও কলার খোসা ব্যবহার করতে পারেন। ত্বকের বলিরেখা কমানোর জন্য একটি ডিমের কুসুমের সাথে কলার খোসা ব্লেন্ডারে মিশিয়ে নিন ভালো ভাবে। তারপর তা মুখে ১০ মিনিটের জন্য রেখে ধুয়ে ফেলুন।

*দ্রুত ব্রণের ঝামেলা থেকে মুক্তি পেতে চাইলে প্রতিদিন তার উপর কলার খোসা কিছুক্ষণের জন্য মাসাজ করুন।

*খুশকি দূর করতে পেঁপের খোসা ফেলে না দিয়ে ছোট ছোট টুকরো করে ভিনেগারে ভিজিয়ে রাখুন কয়েক সপ্তাহের জন্য। এরপর খোসা গুলো ফেলে দিন এবং চুল শ্যাম্পু করার ২০/২৫ মিনিট আগে এই ভিনেগারের সাথে একটু লেবুর রস মিশিয়ে মাথায় মাসাজ করুন।

*নখের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করতে নখে লেবুর খোসা ঘষতে পারেন।

*পা পরিষ্কার করতে আনারসের খোসা কেটে ব্লেন্ডারে অল্প পানির সাথে ব্লেন্ড করে নিন। এরপর পা এর উপর মাসাজ করে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।