Food Image

ভর্তা রেসিপি




**টাকি মাছ ভর্তা-

উপকরণঃ

• টাকি মাছ- ২৫০ গ্রাম,
• হলুদ- সামান্য,
• পেঁয়াজ কুচি- আধা কাপ,
• রসুন কুচি- ১ টেবিল চামচ,
• কাঁচামরিচ- ৪-৫টি,
• ধনেপাতা- ১ মুঠো,
• লেবুর খোসা কোরানো- সামান্য,
• সরিষার তেল- ২ টেবিল চামচ,
• লবণ- স্বাদমতো।

প্রণালীঃ

*মাছ, হলুদ ও লবণ দিয়ে সেদ্ধ করে বা ভেঁজে কাঁটা বেছে নিতে হবে।
*এবার কড়াইয়ে তেল, পেঁয়াজ, রসুন ও কাঁচামরিচ দিয়ে ভাজতে হবে। নামানোর কিছুক্ষণ আগে ধনেপাতা কুচি ও লেবুর খোসা দিয়েই নামিয়ে নিন।
*এবার এতে সেদ্ধ বা ভাঁজা মাছ দিয়ে খুব ভালো করে মেখে ভর্তা তৈরি করুন।

**আলুভর্তা-

উপকরণঃ

• আলু- ৫০০ গ্রাম,
• পেঁয়াজ কুঁচি- ২ টেবিল চামচ,
• কাঁচামরিচ কুচি- ১ চা চামচ,
• ধনেপাতা কুচি- ১ চা চমচ,
• সরিষার তেল- ১ টেবিল চামচ,
• লবণ- স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালীঃ

*প্রথমে আলু পরিমাণ মতো পানি দিয়ে সেদ্ধ করে গরম অবস্থায় খোসা ছাড়িয়ে হাত দিয়ে চটকিয়ে নিন।
*এরপর ঠাণ্ডা হয়ে এলে তাতে একে একে পেঁয়াজ কুচি, ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ কুচি, স্বাদ অনুযায়ী লবণ এবং সরিষার তেল দিয়ে ভালো করে একসঙ্গে চটকিয়ে তৈরি করুন আলুভর্তা।


**কালোজিরা ভর্তা-

উপকরণঃ

• কালোজিরা- সিকি কাপ,
• রসুনের কোয়া- ১ টেবিল চামচ,
• কাঁচামরিচ- ৩/৪টি,
• পেঁয়াজ কুচি- ১ টেবিল চামচ,
• লবণ- পরিমাণ মতো,
• সরিষার তেল- ১ টেবিল চামচ।

প্রণালীঃ
*রসুন, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ প্যানে টেলে নিন।
*এরপর তেল বাদে সব উপকরণ পাটায় বেটে নিন।
*এবার বাটা মিশ্রণে তেল দিয়ে মাখিয়ে তৈরি করে নিন কালোজিরা ভর্তা।

**টমেটো ভর্তা-

উপকরণঃ

• টমেটো- আধা কেজি,
• কাঁচা মরিচ- ৫/৬টি,
• লবণ- পরিমাণ মতো,
• পিঁয়াজ কুচি- সিকি কাপ,
• ধনে পাতা কুচি- সিকি কাপ,
• সরিষার তেল- পরিমাণ মতো।

প্রণালীঃ

*টমেটো ধুয়ে পানি ঝড়িয়ে নিন। ফ্রাই প্যানে টমেটোগুলি দিয়ে ঢেকে দিন অল্প আঁচে। ১০/১৫ মিনিট পর উল্টিয়ে দিন। টমেটো সিদ্ধ হয়ে গেলে প্যান থেকে নামিয়ে খোসা ছাড়িয়ে চটকিয়ে নিন।
*এবার পাত্রে পিঁয়াজ কুচি, কাঁচামরিচ কুচি, ধনে পাতা কুচি আর চটকানো টমেটো নিয়ে হাত দিয়ে মাখুন। আধা মাখা হলে তেল দিয়ে ভালভাবে মেখে ভর্তা করে নিন। তৈরি হয়ে গেল চমৎকার টমেটো ভর্তা।

**লাউপাতা/কুমড়া পাতা ভর্তা-

উপকরণঃ

• কচি লাউপাতা/কুমড়া পাতা- ১৫/২০টি,
• ছোট চিংড়ি- ১/২ কাপ,
• পেঁয়াজ- ১/৪ কাপ,
• কাঁচামরিচ- পরিমানমতো,
• রসুন- ১ টেবিল চামচ,
• লবণ- স্বাদমত,
• সরিষার তেল- ১ টেবিল চামচ।

প্রণালীঃ

*লাউপাতা ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। এবার বাকি সব উপকরন দিয়ে প্যানে একটু নেড়ে পানি শুকিয়ে নিন।
*পানি শুকিয়ে গেলে নামিয়ে হাতে চটকিয়ে পেস্ট করে নিন। সব শেষে সরিষার তেল মেখে পরিবেশন করুন।

**পেঁপে ভর্তা-

উপকরণঃ

• পেঁপে- আধা কেজি,
• কাঁচা মরিচ- ৩/৪টি,
•পেঁয়াজ- ২/৩টা,
• লবণ- পরিমাণমতো।

প্রণালীঃ

*পেঁপে ছিলে সেদ্ধ করে পানি চিপে ফেলে দিন।
*এবার সেদ্ধ পেঁপে, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ, লবণ, তেল এক সঙ্গে চটকে নিয়ে হাতে মেখে তৈরি করুন পেঁপে ভর্তা।

**বেগুন ভর্তা-

উপকরণঃ

• বেগুন– ৪০০ গ্রাম,
• সরিষার তেল– ১ টেবিল চামচ,
• পেঁয়াজ কুচি– ১/৪ কাপ,
• কাঁচামরিচ– ৪/৫ টা (কুচি করে দিতে পারেন অথবা হাল্কা করে টেলে নিয়ে ভর্তা করে দিতে পারেন),
• ধনিয়াপাতা কুচি- ২ টেবিল চামচ,
• লবণ- স্বাদমতো।

প্রণালীঃ

*বেগুন নরম হওয়া পর্যন্ত পুড়িয়ে নিন। বেগুন পোড়া হয়ে গেলে বেগুনটা ঠান্ডা হতে দিন।
*তারপর পোড়া বেগুনের চামড়া আস্তে আস্তে ছাড়িয়ে নিয়ে ভাল করে ভর্তা করে নিন।
*এরপর পেঁয়াজকুচি, মরিচকুচি, লবণ ও ধনিয়াপাতা কুচি দিয়ে হাতে মেখে ভাল করে মিশিয়ে নিন। তৈরি হয়ে গেল বেগুন ভর্তা।

**চিংড়িভর্তা-

উপকরণঃ

• ছোট চিংড়ি- ২৫০ গ্রাম,
• পেঁয়াজ- ২টি,
• আস্ত রসুন- ২টি,
• শুকনো লাল মরিচ- ৫/৬টি,
• কাঁচামরিচ- ৫/৬টি,
• তেল- পরিমাণ মতো,
• লবণ- স্বাদ অনুযায়ী।

প্রণালীঃ

*প্রথমে চিংড়ি বেছে ভালো করে ধুয়ে নিন। পেঁয়াজ এবং রসুন ছোট ছোট টুকরো করে নিন।
*এখন একটি প্যানে তেল গরম করে তাতে প্রথমে চিংড়ি লবণসহ কিছুক্ষণ ভেজে তাতে টুকরো করা রসুন, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ ও শুকনো মরিচ দিয়ে ভালো করে ভাজা ভাজা করে নামিয়ে শিলপাটায় মিহি করে বেটে তৈরি করে নিন চিংড়িভর্তা।

**সবজি ভর্তা-

উপকরণঃ

• আলু- ২টি,
• মিষ্টি কুমড়া- আধা কাপ,
• ফুল কপি- ১ কাপ,
• ব্রকলি- ১ কাপ,
• বরবটি- ১ কাপ,
• গাজর- ১/২ কাপ,
• লবণ- পরিমাণমতো,
• সরিষার তেল- ১ টেবিল চামচ,
• কাঁচা মরিচ/শুকনা মরিচ ভাজা- ১ টেবিল চামচ,
• পেঁয়াজ কুচি- সিকি কাপ,
• ধনেপাতা কুচি- ৪ টেবিল চামচ।

প্রণালীঃ

*সব সবজি চারকোনা করে কেটে নিন। তারপর সামান্য লবণ দিয়ে সিদ্ধ করে নিন।
*এরপর সবজিগুলো একসঙ্গে চটকিয়ে এতে সরিষার তেল, ভাঁজা মরিচ কুচি, পেঁয়াজ কুচি ও ধনেপাতা কুচি দিয়ে মেখে সবজি ভর্তা তৈরি করুন।

**পালংশাক ভর্তা-

উপকরনঃ
• পালংশাক- ২০০ গ্রাম,
• কাঁচা মরিচ/শুকনা মরিচ ভাজা- ৫/৬ টি,
• পেয়াজ কুচি- ২ টেবিল চামচ,
• লবণ ও সরিষার তেল- পরিমান মত।

প্রনালীঃ

*প্রথমে পালংশাক ভাল করে ধুয়ে বড় করে কেটে যে কোন পাত্রে সিদ্ধ করে নিন।
*শাক সিদ্ধ হয়ে গেলে পেয়াজ কুচি, মরিচ ও লবণ দিয়ে হাতে চটকিয়ে মিহি করুন। তারপর সরিষার তেল দিয়ে মাখিয়ে পরিবেশন করুন।

**শিম ভর্তা-

উপকরণঃ

• শিম- আধা কেজি,
• সরিষার তেল- ৩ টেবিল চামচ,
• শুকনা মরিচ পোড়ানো বা ভাঁজা- ৫/৬টা,
• পিঁয়াজ কুচি- আধা কাপ,
• লবণ- পরিমাণমতো।

প্রণালীঃ

*শিম কেটে ধুয়ে পানি দিয়ে সেদ্ধ করে পানি শুকান।
*এবার পাত্রে তেল দিয়ে পিঁয়াজ কুচি অল্প ভেঁজে এবং মরিচ ভেঁজে নামিয়ে রাখুন।
*তারপর পাত্রে পিঁয়াজ ভাজা, শুকনা মরিচ, লবণ হাত দিয়ে মেখে তার সঙ্গে শিম দিয়ে আবার মাখুন ভালোভাবে। ব্যাস হয়ে গেল মজাদার শিম ভর্তা।

**ডাল ভর্তা-

উপকরণঃ

• ডাল- ১ কাপ,
• পানি- ৩ থেকে সাড়ে ৩ কাপ,
• রসুন কুচি- আধা চামচ,
• পেঁয়াজ কুচি- ১ চা চামচ,
• লবণ- আধা চা চামচ,
• কাঁচামরিচ ফালি- ২টি,
• তেল- ১ চা চামচ।

প্রণালী:

*সব উপকরণ দিয়ে ডাল সিদ্ধ করতে হবে। ঘন থকথকে হলে নামিয়ে নিতে হবে।
*এবার পেঁয়াজ গোল করে কাটা- ২ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ- পরিমাণমতো, লবণ- পরিমাণমতো, সরষের তেল- ২ টেবিল চামচ নিয়ে সব উপকরনের সাথে ডাল দিয়ে হাতে মাখে ভর্তা তৈরি করুন।

**ধনিয়া ভর্তা-

উপকরণঃ

• গোটা ধনিয়া- আধা কাপ,
• বড় রসুন- ১টি,
• শুকনো মরিচ- ৫/৬টি,
• লবণ- স্বাদ অনুযায়ী,
• সরিষার তেল- পরিমাণমতো।

প্রণালীঃ

*প্রথমে ধনিয়া কিছুক্ষণ পানিতে ভিজিয়ে রেখে দিন। তারপর ধনিয়া ভালো করে ধুয়ে নিয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন।
*এবার পাটায় ধনিয়া, রসুন, লাল মরিচ ও লবণসহ বেটে নিয়ে তাতে সরিষার তেল মিশিয়ে পরিবেশন করুন।

**ডিম-আলু ভর্তা-

উপকরণঃ

• সেদ্ধ ডিম- ১টি,
• সেদ্ধ আলু- ৪টি মাঝারি,
• তেলে ভাজা শুকনো মরিচ- ২/৩টি,
• পেঁয়াজ বেরেস্তা- ১ টেবিল চামচ,
• তেল- ১ চা চামচ,
• লবণ- স্বাদমতো।

প্রণালীঃ

*ডিম, আলু সেদ্ধ করার পর চটকিয়ে নিন।
*পেঁয়াজ এবং মরিচ ভেঁজে তুলে রাখুন।
*এবার চটকানো আলু-ডিম, ভাঁজা পিঁয়াজ-মরিচ এবং পরিমাণ মতো তেল ও লবন নিয়ে একসঙ্গে ভালোভাবে মেখে তৈরি করুন ডিম-আলু ভর্তা।

**পটোল খোসা ভর্তা-

উপকরণঃ

• পটোলের খোসা- ১ কাপ,
• সরষে বাটা- ১ চা চামচ,
• রসুন- ১ কোয়া ভাজা,
• শুকনো মরিচ- ২/৩টি,
• পেঁয়াজ কুচি- ১ টেবিল চামচ,
• সেদ্ধ চিংড়ি মাছ- ৪/৫টি (ইচ্ছা),
• লবণ- স্বাদমতো।

প্রণালীঃ

*পটোলের খোসা ছাড়িয়ে ১ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে সেদ্ধ করে নিন।
*তারপর সরষে, রসুন, শুকনো মরিচ, লবণ ও সেদ্ধ চিংড়ি মাছ দিয়ে শিলপাটায় বেটে নিতে হবে।
*সবশেষে পেঁয়াজকুচি দিয়ে মাখিয়ে পরিবেশন করুন পটোলের খোসা ভর্তা।


**ইলিশ-কচুশাক ভর্তা-

উপকরণঃ

• কচু শাক- ২৫০ গ্রাম,
• ইলিশ মাছের মাথা- ১টি,
• লেবুর খোসার কুচি- ১ চা চামচ,
• কাসুন্দি- ১ টেবিল চামচ,
• কাঁচামরিচ- ৪/৫টি,
• রসুন কোয়া- ৪টি,
• পেঁয়াজ কুচি- ১ টেবিল চামচ,
• সরষের তেল- ১ টেবিল চামচ,
• লবণ- স্বাদমতো,
• লেবুর রস- ১ টেবিল চামচ।

প্রণালীঃ

*কচুর পাতা গোটা অবস্থায় ধুয়ে নিতে হবে।
*এবার মাছের মাথার সঙ্গে পেঁয়াজ বাদে সব উপকরণ একসঙ্গে মাখিয়ে নিন।
*তারপর মাছের মাথাটা কচু পাতা দিয়ে গোল (রোল) করে পেঁচিয়ে সুতা দিয়ে বেঁধে নিতে হবে।
*এবার বসানো ভাতের ওপর অথবা ভাপে সেদ্ধ করে নিতে হবে।
*সেদ্ধ হয়ে গেলে নামিয়ে প্রথমে মাছের মাথাটা তারপর শাক পাটায় বেটে মিশিয়ে নিন।
*এরপর কাঁচা পেঁয়াজ কুচি দিয়ে ভালো করে মেখে গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন।

**কাঁচকলা-ইলিশ ভর্তা-

উপকরণঃ

• কাঁচকলা- ২টি (মাঝারি),
• ভাজা ইলিশ মাছ- ২ টুকরা (কাঁটা ছাড়ানো),
• শুকনো মরিচ ভাজা- ২টি,
• কাঁচামরিচ কুচি- ২টি,
• পেঁয়াজ কুচি- ১ টেবিল চামচ,
• সরিষার তেল- ২ চা চামচ,
• লবণ স্বাদ মতো।

প্রণালীঃ

*কাঁচকলা ডুবো পানিতে সেদ্ধ করুন। তারপর কলার খোসা ছাড়িয়ে চটকে রাখুন।
*এবার ইলিশ মাছ, পেঁয়াজ, কাঁচামরিচ, লবণ ও তেল একসঙ্গে মাখুন। মাখা হলে কাঁচকলা দিয়ে ভালো করে মেখে গরম গরম পরিবেশন করুন।

**ঢেঁড়স ভর্তা-

উপকরণঃ

• ঢেঁড়স- ১ কাপ,
• পেঁয়াজ- ২টি,
• কাঁচা মরিচ- ৬টি,
• লবণ- পরিমাণমতো,
• তেল- ২ টেবিল চামচ,
• রসুন- ৫ কোয়া,
• ধনেপাতা- ৩ টেবিল চামচ।

প্রণালীঃ

*প্রথমে ঢেঁড়স ধুয়ে সেদ্ধ করুন।
*তারপর কড়াইতে তেল গরম হলে ঢেঁড়স, পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ, রসুন, ধনেপাতা দিয়ে ভালোমতো ভাজুন।
*ঠাণ্ডা হলে পাটায় বেটে নিন। তৈরি হয়ে গেল মজাদার ঢেঁড়শ ভর্তা।

...গরম ভাতের সাথে হরেক রকমের ভর্তা শুনেই জিভে পানি চলে আসে। এই ভর্তাগুলো সুস্বাদু তো বটেই, সাথে স্বাস্থ্যকরও।