Lifestyle Image

বাথরুমের টাইলস পরিষ্কার করার দারুণ কার্যকরী কিছু উপায়



বাড়ির সবচেয়ে বেশি নোংরা হয় যে জায়গাটি সেটি হল বাথরুম। আজকাল বাথরুমে টাইলস ব্যবহার করা হয়। টাইলসের সবচেয়ে বড় সুবিধা হল এতে মোজাইকের মত দাগ পরার আশংকা থাকে না। তবে টাইলস পরিষ্কার করাও বেশ ঝামেলার। এই টাইলস পরিষ্কার করার সহজ কিছু উপায় আছে।

১। বাথরুম পরিষ্কার করার আগে একটি শুকনো কাপড় দিয়ে বাথরুমটি মুছে ফেলুন। বাথরুমের মেঝে, দেওয়াল সব জায়গা এমনভাবে মুছুন যাতে বাথরুম শুকিয়ে যায়। এটি বাথরুমের বাড়তি ময়লা ও তলানি পরিষ্কার করতে সাহায্য করবে।
২। টাইলসের ওপর যেন পানি জমে না থাকে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।
৩। তারপর ডিটারজেন্ট পাউডার বা টয়লেট ক্লিনার বা টাইলস ক্লিনার সারা মেঝেতে ছিটিয়ে দিন। খেয়াল রাখবেন খুব বেশি পরিমাণে যেন না হয়। এভাবে ৩০ মিনিট রেখে দিন।
৪। এখন একটি শক্ত ব্রাশ দিয়ে মেঝে ঘষুন। টাইলসের জোড়া লাগানো স্থানের কোনায় কোনায় ময়লা জমে কালচে দাগ পড়ে, সে স্থানগুলো টুথব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করুন।
৫। ভাল করে পরিষ্কার করা হয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
৬। তেল, চর্বিজাতীয় দাগ পড়ে টাইলস যেন নষ্ট না হয়, সে জন্য যেসব স্থানে দাগ পড়বে সঙ্গে সঙ্গে তা সাবানের পানি দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।
৭। ১ কাপ ভিনেগারের সাথে ৫ কাপ পানি মিশিয়ে নিন। এবার এটি একটি স্প্রে বোতলে ভরে ফেলুন। তারপর এটি টাইলসের ওপর স্প্রে করে দিন। এভাবে ১০-১৫ মিনিট রেখে দিন। দেখবেন সব ময়লা উঠে গেছে টাইলস থেকে। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
৮। বেকিং সোডা দিয়েও টাইলসের ময়লা পরিষ্কার করা যায়। একটি কাপড়ে বা স্পঞ্জে বেকিং সোডা নিন। তারপর সেটি দিয়ে টাইলসে ঘষুন। এটি টাইলসের ময়লা পরিষ্কার করার সাথে সাথে টাইলসকে ঝকঝকে করতে সাহায্য করবে।
৯। এছাড়া বেকিং সোডা এবং ব্লিচ দিয়েও বাথরুমের টাইলস পরিষ্কার করতে পারেন। ৩/৪ কাপ বেকিং সোডা, ১/৪ কাপ ব্লিচ পানিতে ভাল করে মিশিয়ে নিন। এবার এই পেষ্ট টাইলেসের ওপর লাগান। ৫-১০ মিনিট পর একটি ব্রাশ দিয়ে টাইলস ঘষুন। তারপর আরও ৫-১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। পানি দিয়ে ভাল করে টাইলস ধুয়ে ফেলুন।
১০। ভিনেগার এবং বেকিং সোডা পানির সাথে মিশিয়ে নিন। এটি টাইলসের ওপর স্প্রে করুন। ভিনেগার বাথরুমের ময়লা পরিষ্কার করবে আর বেকিং সোডা বাথরুমের দুর্গন্ধ ও জীবাণু দূর করে দিবে।