লোডিং ...
Site maintenance is running; thus you cannot login or sign up! We'll be back soon.
Entertainment

স্যার ক্রিস্টোফার লি’র মহাপ্রয়াণ Nokkhotro Desk

feature-image

কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেতা স্যার ক্রিস্টোফার লি’র প্রয়ানে বিশ্ব চলচ্চিত্রাঙ্গনে চলছে শোকের মাতম। শ্রদ্ধা আর স্মরণে তাঁর চলচ্চিত্র যাত্রা ও অবদান সম্পর্কে স্মৃতি রোমন্থন করছেন বিশ্বের বড় বড় তারকা শিল্পীরা।

জানা গেছে, ১১ জুন বৃহস্পতিবার মহান এই অভিনেতা মৃত্যু বরণ করেন। হলিউডের বিখ্যাত ‘লর্ড অফ দ্য রিং’ সিরিজের সারুয়ান চরিত্রের জন্য এই জনপ্রিয় খ্যাতিমান প্রবীন অভিনেতার মৃত্যুতে শোকে মূহ্যমান হলিউডসহ পৃথিবীর সকল চলচ্চিত্র চলচ্চিত্র ইন্ডাস্ট্রির তারকারা।

স্যার ক্রিস্টোফার লি’র মৃত্যুতে শোক জানিয়ে আরেক মহা তারকা স্যার রজার মোর ব্যথিত কণ্ঠে বন্ধু হারানোর কথা বললেন, ‘পুরনো বন্ধুরা যখন হারিয়ে যায়, তখন তা ভয়াবহ ব্যাপার।ক্রিস্টোফার লি আমার তেমনি একজন পুরনো বন্ধু। যার সাথে আমার প্রথম সাক্ষাৎ হয়েছিলো ১৯৪৮ সালে।’

ক্রিস্টোফার লি‘র মৃত্যুতে আবেগাপ্লুত বলিউড সুপারস্টার বিগ বি অমিতাভ বচ্চনও। তিনি ক্রিস্টোফার লি’র সাথে কাটানো সময়ের স্মৃতি রুমন্থন করে তার ব্লগে লিখেন, ‘বেশ কিছুদিন দিন আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতার জুরি সদস্য হিসেবে আমার আমন্ত্রণ ছিলো। সেখানে প্রধান বিচারক হিসেবে আমাদের সাথে ছিলেন স্যার ক্রিস্টোফার লি।ওই প্রতিযোগিতায় আমি তাঁর সাথে কিছু স্মরণীয় মুহূর্ত কাটানোর সৌভাগ্য অর্জন করেছিলাম। তাঁর সাহচর্য অসাধারণ।যা কখনো ভোলার নয়।

উল্লেখ্য,স্যার ক্রিস্টোফার লি-র জন্ম লন্ডনে ১৯২২ সালের ২৭ মে৷ তাঁর বাবা ছিলেন ব্রিটিশ সামরিক বাহিনীর অফিসার৷ লি যখন ছোট, তাঁর মা-বাবার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়ে যায়৷ মা এস্টেলা মারি কারান্ডিনি পরে বিবাহ করেন জেমস বন্ড স্রষ্টা ইয়ান ফ্লেমিংয়ের কাকা হারকোর্ট রোজকে৷ দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় লি রয়্যাল এয়ার ফোর্সে যোগ দেন৷ এক তুতো ভাইয়ের পরামর্শে ১৯৪৭ সালে অভিনয় জগতে প্রবেশ করেন৷

১৯৫৮ সালে 'ড্রাকুলা 'তে নামভূমিকায় অভিনয় করে তিনি বিপুল জনপ্রিয়তা লাভ করেন৷ এর পর ১৯৭৬ সাল পর্যন্ত 'ড্রাকুলা' সিরিজের আরও আটটি ছবিতে অভিনয় করেন৷ লি-র অবশ্য 'হরর' শব্দটি অপছন্দ ছিল৷ তিনি বলতেন, 'আমি ফ্যান্টাসি ছবিতে অভিনয় করি৷ রোম্যান্টিক নায়ক নয়, আমি চরিত্রাভিনেতা হওয়ারই স্বপ্ন দেখতাম৷'

সাড়ে ছ'ফুট উচ্চতা এবং ভারী কণ্ঠস্বরের জন্য লি বিখ্যাত ছিলেন৷ জীবনের শেষ দিন পর্যন্ত তিনি প্রথিতযশা পরিচালকদের সঙ্গে কাজ করে গিয়েছেন৷ এর মধ্যে রয়েছে জেমস বন্ড সিরিজের 'ম্যান উইথ দ্য গোল্ডেন গান', 'শার্লক হোমস অ্যান্ড দ্য ডেডলি নেকলেস', 'স্টার ওয়ার্স' সিরিজের দ্বিতীয় ও তৃতীয় ছবি, লর্ড অফ দ্য রিংস ট্রিলজি এবং 'জিন্নাহ'৷ নব্বইয়ে পৌঁছে লি অভিনয় করেন মার্টিন স্করসেসিস 'হিউগো' এবং টিম বার্টনের 'ডার্ক শ্যাডোজ'-এ।
A A