ঈদের ঝুঁট-ঝামেলায় গৃহিণীদের হাতের যত্ন Nokkhotro Desk

feature-image

কোরবানির ঈদে যত ঝড় ঝাপটা যায় নারীদের হাতের ওপর দিয়ে। প্রচুর পরিমাণে কাঁচা মাংস কাটাকুটি তো আছেই, সেই সাথে মাংস রান্না করার কাজটাও তাদেরই সামলাতে হয়। এসব করতে গিয়ে হাতের বারোটা বেজে গেলে কী করবেন? জেনে নিন ভীষণ দরকারি কিছু টিপস।

১) কাঁচা মাংস কাটার পর সাবধানতা
কাঁচা মাংস কাটাকুটি শেষে পুরো ঘর পরিষ্কার তো করবেনই, সেই সাথে নিজের হাতটাও পরিষ্কার করা চাই খুব ভালো করে। নয়তো খাবারে খুব বাজে জীবাণু চলে যেতে পারে। কাঁচা মাংস কাটার পর হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে নেওয়া আবশ্যক। কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। এরপর হাত শুকিয়ে নেবেন ভালো করে। এর জন্য অ্যান্টিসেপ্টিক সাবান ব্যবহারের দরকার নেই, সাধারণ সাবানেই চলবে। অ্যান্টিসেপ্টিক সাবান হাতের ত্বককে আরও রুক্ষ করে দেবে।

২) হলুদের দাগ দূর
মাংস সংরক্ষণ এবং রান্নার জন্য হলুদ প্রচুর ব্যবহার হয়। বেশি সময় ধরে হাতে হলুদ মেখে থাকলে পরে সেটা তুলতে সমস্যা হয়। হাত এবং নখ হলদে হয়ে থাকলে খুব বাজে দেখা যায়। এর জন্য প্রথমে সাবান দিয়ে তোলার চেষ্টা করুন। কাজ না হলে এক টুকরো লেবু ঘষে নিন হাতে, এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতেও যদি কাজ না হয়, তবে চিনির সাথে কিছুটা পানি অথবা অলিভ অয়েল মিশিয়ে হাতের ত্বক ম্যাসাজ করুন। হলুদের রঙ উঠে আসবে। এই অলিভ অয়েল এবং সুগার স্ক্রাবটি ত্বকে কোমলতা ফিরিয়ে আনতেও ভীষণ কার্যকরী।

৩) হাতের ত্বকের যত্ন
মুখটা দেখতে খুব সুন্দর লাগছে অথচ হাত রুক্ষ বিবর্ণ, কেমন বেমানান লাগবে ভাবুন তো! এর জন্য হাতের যত্ন নেওয়াটা খুব জরুরী। ঈদের ধকল যাবার পর হাতের ত্বক ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। হাতের ত্বকের জন্য তৈরি করে ফেলতে পারেন দারুণ সহজ একটি মাস্ক, আলু এবং দুধ ব্যবহার করে। এর জন্য দরকার হবে ২/৩টি আলু। এগুলোকে পানিতে সেদ্ধ করে নিন। এরপর গরম থাকতেই দুধের সাথে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। হালকা উষ্ণ পেস্টটি হাতে লাগিয়ে নিন। ঠাণ্ডা হয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন। এরপর নিজের পছন্দের লোশন বা ক্রিম ম্যাসাজ করে নিন হাতে। আর যদি সময় পান তবে ঘরে বসে নিজেই মেনিকিওর করে নিতে পারেন।
A A