Technology Image

বিজ্ঞানের অবাক করা কিছু তথ্য

সরীসৃপ এর ডিম ফুটে ছেলে হবে না মেয়ে হবে তা কিন্তু তার ক্রোমজম এর উপর নির্ভর করে না।এটি নির্ধারিত হয় বাসার তাপমাত্রার উপর। বাসার তাপমাত্রা যদি ৯০-৯৩ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড হয় তবে সেটি একটি ছেলে হবে আর বাসার তাপমাত্রা যদি ৮২-৮৬ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড হয় তবে সেই ডিম ফুটে মেয়ে বাচ্চা হবে।



পৃথিবীর সব সাগরে যে পরিমান লবন আছে তা দিয়ে পৃথিবীকে ৫০০ ফুট উচু পুরু লবনের স্তুপ দিয়ে ঢেকে ফেলা যাবে!



একজন মানুষ প্রতিদিন যে পরিমান বাতাস শ্বাস হিসাবে গ্রহন করে তা দিয়ে একটি বা দুটি নয় ১০০০ টি বেলুন অনায়াসে ফোলানো সম্বব!!!



অলিম্পাস মনস হল মঙ্গলের উচ্ছতম পাহার ।যার উচ্চতা প্রায় ১৫ মাইল। যেটি কিনা আমাদের পৃথিবীর সব চেয়ে উচু পর্বত শৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্ট এর থেকে ও ৩ গুন উচু!!!



আকাশে যে বিজলি চমকায় তার গর দৈর্ঘ্য ১ কিঃ মিঃ।আর এই ১ কিঃ মিঃ দৈর্ঘ্য এর বিজলীর চমকে যে পরিমান বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয় তা দিয়ে প্রায় ১০০০০০০ বাতি জালান যাবে!!!



শুক্র গ্রহের আকাশে বৎসরে মাত্র ২ বার সূর্য ওঠে!



কানের কাছে মশা যে গুন গুন করে গান গায় সেজন্য মশার মুখে কোন শব্দ হয় না। এটি তার ডানায় হয়।কারন মশা উড়ার সময় প্রতি সেকেন্ডে ৫০০ বার ডানা ঝাপটায়!



জোনাকির শরীরের মোট শক্তির শতকরা ৯৫ ভাগই খরচ হয় রাতের বেলা আলো জালাতে গিয়ে!



আমাদের শরিরে যে পরিমান চর্বি জমা আছে টা দিয়ে প্রায় ৭৬ টি মোমবাতি বানান যাবে।



পৃথিবীতে একমাত্র প্রানি মানুষ, যে ই শুধু হাসতে পারে। আর কোন প্রানির হাসার ক্ষমতা নেই!