Lifestyle Image

মুখের দুর্গন্ধে আর নয় বিব্রত




*মুখের দুর্গন্ধ মূলত ব্যাকটেরিয়া থেকে সৃষ্টি হয় যা পানি পানের ফলে দূর করা সম্ভব। তাই পানি পানের পরিমাণ বাড়িয়ে দিন। এছাড়াও প্রতিবার পানি পান করার আগে একটু গার্গল করে নিলেও এই মুখের দুর্গন্ধের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

*দাঁতের ফাঁকে খাবারের কণা থাকার ফলেই মুখে ব্যাকটেরিয়ার উৎপত্তি ঘটে। এতে করে দাঁতের যেমন ক্ষতি হয় মুখের দুর্গন্ধেরও সৃষ্টি ঘটে। নিয়মিত দাঁত পরিষ্কার রাখার মাধ্যমে মুখের দুর্গন্ধ দূর করা সম্ভব। তাই নিয়মিত দাঁত ব্রাশ এবং সেই সাথে ফ্লস করে নিন।

*অনেক সময় নিয়মিত দাঁত ব্রাশ ও ফ্লসের পরও মুখে দুর্গন্ধ হয়ে থাকে। এর কারণ হচ্ছে অপরিষ্কার জিহ্বা। একারণে দাঁত পরিষ্কারের পাশাপাশি জিহ্বা পরিষ্কারের ক্ষেত্রেও সতর্ক থাকা উচিত সকলের।

*বাজারে যে মাউথওয়াশ কিনতে পাওয়া যায় তাতে অ্যালকোহলের পরিমাণ বেশি থাকে। এতে করে দাঁতের ক্ষতির সম্ভাবনা থাকে। তাই প্রাকৃতিক মাউথওয়াশ ব্যবহার করা ভালো। ১ কাপ হালকা গরম পানিতে ১ টেবিল চামচ বেকিং সোডা ও কয়েক ফোঁটা পিপারমিন্ট অয়েল ভালো করে মিশিয়ে মাউথওয়াশ হিসেবে ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন।

*চা/কফিতে প্রচুর পরিমাণে অ্যাসিড থাকে যার কারণে মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। তাই চা/কফির পরিমাণ যতোটা সম্ভব কমিয়ে দেয়া উচিত।

*ধূমপানের ফলে মুখের ভেতরটা একেবারে শুকিয়ে যায় এবং নিকোটিন স্যালাইভার সাথে মিশে মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে। তাই মুখের দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে ধূমপান বন্ধ করে দিন।

...যদি উপরের পদ্ধতিগুলো অবলম্বনের পরও মুখের দুর্গন্ধ থেকে মুক্তি না পান তবে অবশ্যই ডেন্টিস্টের পরামর্শ নিতে হবে।