Food Image

মুগ ডাল দিয়ে তৈরি করুন সুস্বাদু দোসা



ঢাকার বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে মানুষের খুব পছন্দের একটি আইটেম হলো মাসালা দোসা। সাউথ ইন্ডিয়ান এই খাবারটি সচরাচর কেউ বাড়িতে তৈরি করার কথা ভাবেন না, আর তাই রেস্টুরেন্টে তা এতো জনপ্রিয়। কিন্তু দেখে যতই কঠিন মনে হোক না কেন, দোসা তৈরি কিন্তু বেশ সহজ। দৈনন্দিন ব্যবহারের মুগ ডাল দিয়েই তৈরি করে ফেলতে পারেন চমৎকার দোসা, আর চমকে দিতে পারেন অতিথিদের।

এই দোসা তৈরিতে মূলত ব্যবহার করা হয় কাঁচা অর্থাৎ সবুজ মুগ ডাল। কিন্তু এটা না পেলে আপনি সাধারণ মুগ ডাল দিয়েও কাজ চালাতে পারেন। দেখে নিন বিভিন্ন উপকরণ এবং তার পরিমাণ:
১) আধা কাপ মুগ ডাল (৪ ঘন্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখা)
২) দুই টেবিল চামচ চালের গুঁড়া
৩) ধনেপাতা কুচি
৪) লবণ স্বাদমতো
৫) দুইটি কাঁচামরিচ, কুচি করা
৬) একটি পেঁয়াজ, কুচি করা
৭) তেল

প্রস্তুত প্রণালী:
- ৪-৫ ঘন্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখার পর মুগ ডাল ধুয়ে পানিটুকু ছেঁকে ফেলে দিন। ডালের সবুজ খোসাগুলো ওপরের দিকে ভেসে উঠবে, এগুলোকে উঠিয়ে ফেলে দিন। তবে অল্প কিছু খোসা রেখে দিন যাতে দোসা সুন্দর সবুজ একটা রঙ পায়।
- এরপর দোসার জন্য ব্যাটার তৈরি করতে হবে, এর জন্য প্রস্তুত করুন আপনার ব্লেন্ডারের গ্রাইন্ডারটিকে। গ্রাইন্ডারে কাঁচামরিচ কুচি, পেঁয়াজ কুচি, ধনেপাতা কুচি এবং কিছুটা মুগ ডাল দিয়ে গ্রাইন্ড করে নিন। এরপর পেস্ট হয়ে জায়গা কমে এলে বাকিটুকু দিয়ে দিন। এই পেস্ট একেবারে মসৃণ হবে না, আঙুলের মাঝে নিলে কিছুটা দানাদার মনে হবে।
- এই মিশ্রণ একটি পাত্রে নিয়ে যোগ করুন দুই টেবিল চামচ চালের গুঁড়া, লবণ এবং আধা চা চামচ তেল। ভালোভাবে মিশিয়ে ব্যাটার তৈরি করে নিন।
- ব্যাটারের সাথে আধা কাপের মতো পানি মিশিয়ে নিন যাতে একে সহজে ছড়ানো যায়।
- একটি চ্যাপ্টা ননস্টিক প্যান (তাওয়ার মতো) চুলায় গরম করে নিন। এরপর একে আঁচ থেকে নামিয়ে এর ওপর এক চামচ ব্যাটার ঢেলে দিন। চামচ দিয়ে গোল করে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ছড়িয়ে দিন ব্যাটারটুকু।
- রুটির আকৃতিতে ব্যাটার ছড়িয়ে দিয়ে আবার প্যানটিকে চুলায় দিন। মাঝারি আঁচে রান্না হতে দিন।
- ওপরের পানি শুকিয়ে এলে ব্রাশ দিয়ে কিছুটা তেল দিয়ে দিতে পারেন ওপরে।
- একটি চামচ দিয়ে ব্যাটার আরো একটু ছড়িয়ে দিন যাতে কাঁচা থেকে না যায়।
- সবদিক রান্না হয়ে এলে কাঠের চামচ দিয়ে রোল করে প্যান থেকে উঠিয়ে আনুন দোসাটিকে।
- প্রতিটি দোসা তৈরির শেষে তাওয়া বা প্যানে লেগে থাকা ব্যাটার পরিষ্কার করে ফেলুন, নয়তো নিচে ধরে দোসা নষ্ট হয়ে যাবে।
ব্যাস, হয়ে গেলো মজাদার মুগ ডালের দোসা। এবার পছন্দসই কারী সহকারে অতিথিদের পরিবেশ করুন। পরিবারের সবার জন্যও তৈরি করে নিতে পারেন এই দোসা।