Entertainment Image

বড় হয়ে অভিনয়ে ফিরতে চাইছেন দীপু নাম্বার টু



প্রখ্যাত কল্পবিজ্ঞান রচয়িতা ও সাহিত্যিক মুহম্মদ জাফর ইকবালের কিশোর উপন্যাস ‘দীপু নাম্বার টু’ অবলম্বনে ও বিখ্যাত চলচ্চিত্রকার মোরশেদুল ইসলামের পরিচালনায় ‘দীপু নাম্বার টু’ মুক্তি পায় ১৯৯৬ সালে।

মুক্তির পর থেকে দেশে-বিদেশে তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া এই চলচ্চিত্রে মূলত ফুটে উঠেছে দীপু নামের সপ্তম শ্রেণীতে পড়ুয়া একটি ছেলের জীবনের চাওয়া-পাওয়া, হাসি-কান্না, সুখ-দুঃখের এক অনুপম প্রদর্শনী। দর্শকদের মনের আয়নায় আঁকা দীপুর সাথে খুব বেশী পার্থক্য নেই স্ক্রিনের এই দীপুর। চলচ্চিত্রটির নাম ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন অরুণ সাহা।

১৩ বছর বয়সে ‘দীপু নাম্বার টু” ছবিতে কাজ করার সুযোগ পান দীপু ।চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাওয়ার পর কিশোর অরুনের অনুভূতি জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘তখনকার অনুভূতি অন্য কোন অনুভূতির সঙ্গে তুলনা করার মতো নয়। সব জায়গায় পোস্টারে আমার ছবি দেখে খুব ভালো লাগত। লোকজন আমাকে দীপু নামে ডাকতো, অনেক প্রশংসা বাক্য শুনতাম। চলচ্চিত্রটি জাপানের একটি উৎসবে আমন্ত্রিত হলে জাপানে ভ্রমণেরও সুযোগ হয়। পরবর্তীতে শ্রেষ্ঠ শিশুশিল্পীর ক্যাটাগরিতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাই। সেই সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত থেকে ট্রফি এবং মেডেল নেয়ার স্মৃতি চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।’


সেই দিপু...

তারপর পড়াশোনার কারনে আর তার অভিনয় করা হয়নি। সম্প্রতি জানা যায়, তিনি মিউজিক নিয়েই কাজ করছেন। 'ক্লাসিকাল মিউজিক একাডেমি অফ ঢাকা'র সঙ্গে ২০১১ থেকে যুক্ত হয়। বিটিভিতে 'ঐকতান' এবং 'চির শিল্পের বাড়ি' নামের একটি অনুষ্ঠানের বেশকিছু পর্বে ওয়েস্টার্ন ক্লাসিকাল মিউজিক পরিবেশনায় অংশগ্রহণ করেছেন। ভবিষ্যতে আরও কিছু পর্বে কাজ করবেন।

এছাড়া শিল্পকলা একাডেমী, ছায়ানটসহ বিভিন্ন জায়গায় অর্কেস্ট্রাল মিউজিক পারফর্ম করেছেন। অভিনয়ে ফিরে আসার ব্যাপারে তিনি বলেন, 'প্রত্যেক মানুষের মধ্যেই শিশুসত্তা থাকে। আমার মধ্যেও রয়েছে। এখনও আমি অন্তরে দীপুকে লালন করি। তাই অভিনয় বিষয়টি আমার মধ্যে রয়েই গেছে। অবশ্যই অভিনয়ে ফিরে আসার ইচ্ছা আছে। এখন পরিবেশটা অনেক পরিবর্তন হয়ে গেছে । আমি চাইলেই আসলে হচ্ছেনা । আরও অনেককে চাইতে হবে । শুধু ছবিতে নয় । নাটক কিংবা টেলিফিল্মেও কাজ করার ইচ্ছা আছে ।


এখনকার দিপু যেমন...