Entertainment Image

বক্স অফিসে বাহুবলী ঝড়: নয় দিনেই তিনশো কোটি



ছবির টাইটেল কার্ডে নাম নেই রজনীকান্তের। নেই কমল হাসানের নামও। তবু উড়ান থামানো যাচ্ছে না খাঁটি দক্ষিণ ভারতীয় এই ছবিটির।
মুক্তি পাওয়ার ঠিক নয় দিনের মাথায় ৩০০ কোটি টাকা ঝুলিতে। এস এস রাজামৌলী পরিচালিত ‘বাহুবলী’ ছাপিয়ে যাচ্ছে বহু রেকর্ড। বলিউডের বিপণন বিশেষজ্ঞ ত্রিনাথ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, বাহুবলী হল প্রথম কোনও প্রাদেশিক ছবি যা ৩০০ কোটির ক্লাবে নাম লিখিয়ে ফেলল। এর আগে রজনীকান্ত অভিনীত ‘এন্থিরান’ ২৯০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল। আর শনিবার পর্যন্ত ‘বাহুবলী’ তুলেছে ৩০৩ কোটি টাকা। ইদের ছুটিতে সলমন খানের ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ মুক্তি পেলেও রাজামৌলীর দু’শো কোটির মহাকাব্যে তার কোনও প্রভাব পড়েনি বলেই জানাচ্ছেন ফিল্ম পরিবেশকরা।

তামিল, তেলুগু দু’টি ভাষায় তৈরি এই ছবি একই সঙ্গে হিন্দিতেও মুক্তি পেয়েছিল ১০ জুলাই। বিপণন বিশেষজ্ঞেরা জানাচ্ছেন, হিন্দি ‘বাহুবলী’ ইতিমধ্যে ৫০ কোটি টাকা কামিয়ে ফেলেছে। এর আগে হিন্দিতে ডাব করা কোনও ছবি এত টাকা ঝুলিতে পোরেনি বলেই জানাচ্ছেন তারা। বিদেশেও রমরমিয়ে চলছে ছবিটি।

দক্ষিণী তারকা প্রভাস, রানা ডাগ্গুবাতি, অনুষ্কা শেট্টি আর তমান্না ভাটিয়া অভিনীত ‘বাহুবলী’ একটি পৌরাণিক কাহিনি। দুই ভাইয়ের রাজত্ব জয়ের গল্প। স্টার কাস্টে রজনীকান্তের মতো সুপারস্টারের নাম না থাকলেও ছবিটির স্পেশ্যাল এফেক্টস ইতিমধ্যেই দর্শকদের মাথা ঘুরিয়ে দিয়েছে। যার ফল, গত ন’দিন ধরে মাল্টিপ্লেক্সে উপচে পড়া ভিড়।

কিন্তু একটি আদ্যন্ত আঞ্চলিক ছবি কী করে গোটা দেশের মন জয় করতে পারে? ‘বাহুবলী’র ঈর্ষণীয় বক্স অফিস কালেকশন দেখে সব হিসেবই গুলিয়ে যাচ্ছে। রজনী স্যারের 'শিবাজি দ্য বস' বা 'রোবট' ছবির সময়েও প্রশ্নটা উঠেছিল, বলিউডের সিংহাসন কি টলে যাচ্ছে? খান সাহেবদের দাপট কি পিছনে ফেলে দেবে দক্ষিণ ভারত? প্রশ্নটা আবার ঘুরপাক খাচ্ছে। উত্তর ভারতের পরিবেশকরা জানাচ্ছেন, গত দু’দিন ‘বজরঙ্গি ভাইজান’ ছবির চেয়েও এগিয়ে ছিল ‘বাহুবলী’। নয়াদিল্লি, নয়ডা, গাজিয়াবাদের মাল্টিপ্লেক্সে রীতিমতো দাপিয়ে বেড়াচ্ছে এই ছবি। ছবির স্পেশ্যাল এফেক্টস দেখে দর্শক বলছে, 'অ্যাভেঞ্জার্সের জবাব এখন আমাদোর হাতের মুঠোয়।' নয়ডার এক মাল্টিপ্লেক্সের জেনারেল ম্যানেজার, রাকেশ রিকু জানালেন, এই সপ্তাহান্তে ‘বাহুবলী’র আটটা শো-ই প্রায় আশি শতাংশ ভর্তি থেকেছে। ‘বজরঙ্গি ভাইজান’-এর মুক্তির পরও এই সাফল্য অভাবনীয় বলে মনে করছেন তিনি।

অভিনেতা রানা ডাগ্গুবাতির কথায়, 'এই প্রথম কোনও দক্ষিণ ভারতীয় ছবি উত্তরে ভাল ব্যবসা করছে এমন তো নয়। মণিরত্নমের ‘রোজা’ বা রামগোপাল বর্মার ‘শিবা’ তো আগেই এই কাজটা করে ফেলেছে। ‘বাহুবলী’ সেই পথেই হাঁটছে।' উত্তর ভারতে ছবিটি মুক্তির দায়িত্বে রয়েছে ধর্ম প্রো়ডাকশনস। তার সিনিয়র ম্যানেজার বরুণ গুপ্ত বললেন, 'ভারতের তরুণ প্রজন্মের জন্য ‘বাহুবলী’ একটা শিক্ষা। যারা ভাবেন, বাজেট কমের জন্য তারা হলিউড ছুঁতে পারবেন না, তাদের উচিতএই ছবি দেখে শেখা।'