Entertainment Image

৬০তম ফিল্মফেয়ার আসর মাত করলেন শাহিদ কাপুর ও কাঙ্গানা রানাউত









ছয়টি বিভাগে সেরার খেতাব জিতে এবারের আসরের সবচয়ে বেশি অ্যাওয়ার্ডজয়ী সিনেমায় পরিণত হয়েছে ভিকাস বেহল পরিচালিত ‘কুইন'। পাঁচটি বিভাগে পুরস্কার জিতে ঠিক পেছনেই আছে ভিশাল ভারাদওয়াজের 'হায়দার'।

আসরের সেরা সিনেমা নির্বাচিত হয়েছে 'কুইন'। এ সিনেমার জন্য সেরা পরিচালকের খেতাব জিতেছেন ভিকাস বেহল। সেরা নবাগতা, পাশ্বর্-চরিত্রে সেরা অভিনেত্রীর পর এবার 'কুইন'-এর জন্য সেরা অভিনেত্রীর ফিল্মফেয়ারও ঝুলিতে পুরেছেন জাতীয় পুরস্কারজয়ী অভিনেত্রী কাঙ্গানা রানাউত। এছাড়াও আরও তিনটি বিভাগে পুরস্কার জিতেছে সিনেমাটি।

এদিকে ফিল্মফেয়ার আসরে সেরা নবাগতের খেতাব জিতে ক্যারিয়ার শুরু করলেও ফিল্মফেয়ারে সেরার স্বীকৃতি অধরাই রয়ে গিয়েছিল শাহিদ কাপুরের জন্য। অবশেষে ভিশাল ভারাদওয়াজের ‘হায়দার’ এনে দিল সেরা অভিনেতার ফিল্মফেয়ার। এছাড়াও এ সিনেমার জন্য পার্শ্ব-চরিত্রে সেরা অভিনেত্রীর খেতাব পেয়েছেন টাবু। সেই সঙ্গে পার্শ্ব-চরিত্রে সেরা অভিনেতার পুরস্কারটিও গেছে ‘হায়দার’- এর অভিনেতা কে কে মেননের কাছে।

আলিয়া ভাট-অর্জুন কাপুরের ‘টু স্টেটস’ এবং আমির খানের ‘পিকে’ও বেশ কয়েকটি বিভাগে পুরস্কার জিতেছে। কিন্তু প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার ‘মেরি কম’- এর ভাগ্যে একটিও ফিল্মফেয়ার জোটেনি, যা অনেককেই অবাক করেছে।

তবে 'হাইওয়ে' সিনেমার জন্য আলিয়া ভাটের সমালোচক পুরস্কার জেতাটা ছিল আকাঙ্ক্ষিত।

ফিল্মফেয়ারের আসরে সেরাদের পূর্ণ তালিকাটা দেখে নেওয়া যাক:



সেরা সিনেমা: কুইন

সেরা নির্মাতা: ভিকাস বেহল (কুইন)

সেরা অভিনেতা: শাহিদ কাপুর (হায়দার)

সেরা অভিনেত্রী: কাঙ্গানা রানাউত (কুইন)

পার্শ্ব-চরিত্রে সেরা অভিনেতা: কে কে মেনন (হায়দার)

পার্শ্ব-চরিত্রে সেরা অভিনেত্রী: টাবু (হায়দার)

সেরা নবাগত নির্মাতা: অভিষেক ভারমান (টু স্টেটস)

সেরা অভিনেতা (সমালোচকদের বিচারে): সঞ্জয় মিশ্রা (আঁখো দেখি)

সেরা অভিনেত্রী (সমালোচকদের বিচারে): আলিয়া ভাট (হাইওয়ে)

সেরা সিনেমা (সমালোচকদের বিচারে): আঁখো দেখি (নির্মাতা রজত কাপুর)

সেরা সঙ্গীত পরিচালনা: শংকর-এহসান-লয় (টু স্টেটস)

সেরা গীত: রাশ্মি সিং ‘মুসকুরানে কি ওয়াজাহ’ (সিটি লাইটস)

সেরা নবাগত অভিনেতা: ফাওয়াদ খান (খুবসুরত)

সেরা নবাগতা অভিনেত্রী: কির্তি শ্যানন (হিরোপান্তি)

সেরা গল্প: আঁখো দেখি (রজত কাপুর)

সেরা সংলাপ: অভিজাত জোশি এবং রাজকুমার হিরানি (পিকে)

সেরা চিত্রনাট্য: অভিজাত জোশি এবং রাজকুমার হিরানি (পিকে)

সেরা প্লেব্যাক গায়ক: অংকিত তিওয়ারি ‘তেরি গালিয়া’ (এক ভিলেইন)

সেরা প্লেব্যাক গায়িকা: কানিকা কাপুর ‘বেবি ডল’ (রাগিনি এমএম এস টু)

লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট অ্যাওয়ার্ড: কামিনি কৌশাল

সেরা নৃত্য পরিচালনা: আহমেদ খান ‘জুম্মে কি রাত’ (কিক)

সেরা নেপথ্য সঙ্গীত: আমিত ত্রিভেদি (কুইন)

সেরা অ্যাকশন: শ্যাম কৌশাল (গুন্ডে)

সেরা সম্পাদনা: আভিজিত কোকাটে এবং আনুরাগ কাশ্যাপ (কুইন)

সেরা প্রোডাকশন ডিজাইন: সুব্রত চক্রবর্তী এবং অমিত রায় (হায়দার)

সেরা পোশাক: ডলি আলুওয়ালিয়া (হায়দার)

সেরা সাউন্ড ডিজাইন: আনিলকুমার কোনাকান্ডলা এবং প্রবাল প্রধান (মারদানি)