Travel Image

পিনাকল-চুনাপাথর দিয়ে তৈরি অপরূপ সুন্দর পাহাড়




অস্ট্রেলিয়া। সমুদ্রবেষ্টিত এই মহাদেশ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমন্ডিত এক নৈসর্গিক স্থান। আর অস্ট্রেলিয়ারই পশ্চিম অংশে অবস্থিত Cervantes, শহরের Nambung National Park এ রয়েছে এমন কিছু শৃঙ্গ যেগুলোর পুরোটাই চুনাপাথরে তৈরি। আর এগুলোকে ডাকা হয় The Pinnacles নামে।
পিনাকল পাহাড়গুলোর চুনাপাথর কিভাবে এল? এগুলো এসেছে মূলত বিভিন্ন সামুদ্রিক প্রাণীর শক্ত খোলস থেকে। এই খোলসগুলো ভেঙ্গে গিয়ে চুন সমুদ্রের উপকূলের বালিতে ছড়িয়ে পড়ে ও ধীরে ধীরে সেগুলো স্তূপাকারে জমা হতে থাকে। কিভাব এই চুনাপাথরের পাহাড় কিংবা পিনাকল গুলো গঠিত হয়। এটা নিয়ে দ্বিমত আছে। সম্ভাব্য কিছু তত্ত্ব জেনে নেয়া যেতে পারে-
(১) পিনাকলগুলো মূলত বাতাসে উড়ে আসা ধুলো-বালিতে থাকা চুন আর বৃষ্টির পানি স্রোতে তৈরি চুনাপাথরের নরম ভিত্তির উপর তৈরি হয়। এরপর ধীরে ধীরে এই চুনাপাথরগুলো স্তূপীকৃত হতে শুরু করে। এতে মূলত থাকে অম্লীয় মাটি আর হিউমাস। এরপর নরম চুনাপাথরের উপর ক্যালক্রেটের তৈরি শক্ত আবরণ গঠিত হয়। মাঝে মাঝে চুনাপাথরে জন্মানো গাছের মূলের কারণে ক্যালক্রেটে ফাটল দেখা দেয়। ধীরে ধীরে আরো নরম চুনাপাথর এসে বেশ বড়সড় পাহাড়ের মতো হয়ে যায়। এভাবেই পিনাকল গুলো তৈরি হয়।
(২) সমুদ্র উপকূলে বায়ুপ্রবাহের কারণে সমুদ্রের নিচে জমে থাকা তলানি পাথরে পরিণত হয়। আর এ প্রক্রিয়াতে কিছু গাছও এই পাথরগুলোতে জমা হয়ে ক্যালক্রেট তৈরি করে। ক্যালক্রেট হচ্ছে শক্ত পাথরের মত পদার্থ যা মূলত ক্যালসিয়াম কার্বনেট দিয়ে তৈরি।

১৯৬০ সাল পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার সাধারণ মানুষের কাছে পিনাকলের অস্তিত্ব অজানা ছিল। বর্তমানে এই জায়গাটি পর্যটকদের জন্য একটি আকর্ষণীয় স্থান। প্রতি বছর ২ লাখ ৫০ হাজার দর্শনার্থী এই চুনাপাথরের পাহাড় পিনাকলগুলো দেখতে আসেন। পিনাকল দেখতে যাবার সবচেয়ে চমৎকার সময় হচ্ছে আগস্ট থেকে অক্টোবর পর্যন্ত। অস্ট্রেলিয়াতে এসময় বসন্তকাল চলে ও এই এলাকাটিতে সুন্দর সুন্দর বুনোফুল ফুটতে শুরু করে। আর যদি পিনাকলগুলো কিভাবে তৈরি হয় সেটি দেখতে চান তবে আপনাকে যেতে হবে খুব ভোরে ও অথবা শেষ বিকেলে। এসময়টাতে আলো-আঁধারির খেলাতে পিনাকলগুলো হয়ে উঠে বিচিত্র রঙের এক অপরূপ সমাহার।
এখানকার বেশিরভাগ প্রাণীই নিশাচর, তবে ইমু আর ক্যাঙ্গারুর দেখা দিনের বেলাতেও পাওয়া যায়। বেশ কিছু চলচ্চিত্র, টেলিভিশন অনুষ্ঠান ও মিউজিক ভিডিওর শ্যুটিং এই এলাকাতেই হয়েছে।
সামনেই অক্টোবর মাস। সময় থাকলে ঘুরে আসতে পারেন এই পিনাকলগুলোর কাছ থেকে।