Sports Image

ক্রিকেট ডনের গল্প



পাকারনা মুশকিল হি
নেহি, না মুমকিন হে”___

একটি বিখ্যাত হিন্দি মুভির ডায়ালগ।
মনে হয় এই ‘ডন’ শব্দটির উৎপত্তি স্যার ডোনাল্ড
জর্জ ব্র্যাডম্যান এর নাম থেকে। আমাদের তরুন ক্রিকেটপ্রেমীদের দুর্ভাগ্য যারা স্যার ডন ব্রাডম্যানের খেলা দেখতে পারিনি।

ক্রিকেটের যদি কোন সর্বোচ্চ প্রভু থেকে থাকে তাহলে সে
‘ডন ব্রাডম্যান’।



১৯০৮ সালের ২২শে আগস্ট নিউ সাউথ ওয়েলসের বাউরালে জন্মগ্রহন করেন এই
সর্বকালের সেরা ব্যাটসম্যান।
তিনি প্রায়শই দ্য ডন নামে অভিহিত হয়ে থাকেন। তিনি ছিলেন একজন
অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার। ডন ব্র্যাডম্যানকে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ ব্যাটসম্যান
বলে অভিহিত করা হয়।
টেস্ট ক্রিকেটে ব্র্যাডম্যানের ৯৯.৯৪ ব্যাটিং গড়কে বড় ধরণের যে কোন খেলাধুলার সব থেকে বড় অর্জন বলে অভিহিত করা হয়।

২৩৪ ফার্স্টক্লাস ম্যাচে ৯৫.১৪ গড়ে ২৮০৬৭ রান এবং ৫২ টেস্ট ম্যাচের ক্যারিয়ারে ৬৯৯৬ রান। গড় ৯৯.৯৪।

১৯ বছর বয়েসে ফার্স্টক্লাস অভিষেকের পর নিউ সাউথ
ওয়েলসের হয়ে ব্যাট হাতে ম্যাচের পর ম্যাচ পারফর্ম করে যাচ্ছিলেন ‘বাউরালের বিস্ময়-বালক’|
অবশেষে সুযোগ এলো জাতীয় দলের হয়ে মাঠে নামার। ডাক
পেলেন ২৮-২৯ মৌসুমের সফরকারী ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের দলে।
ব্রিসবেনের সে টেস্টে অস্ট্রেলিয়া পরাজিত হলো ৬৭৫ রানে। ডন করলেন দু’ইনিংসে ১৮ এবং ১। বাদ পড়লেন দ্বিতীয় টেস্টের দল থেকে। তৃতীয়টেস্টের দলে ডাক পেয়ে করলেন ৭৯ এবং ১১২।

৯২ বছর বয়সে জীবনের সেঞ্চুরি পুরোবার আগেই
ব্রাডম্যান মারা যান ২৫ ফেব্রুয়ারী, ২০০১ তারিখে।

তার আগে ১৯৪৯ সালে অর্জন করলেন সম্মানসুচক
‘নাইটহুড’।