Lifestyle Image

ভালোবাসুন তাকেই



*মানসিকতার পরীক্ষা-
আপনি কি যখন আপনার ভালোবাসার মানুষটির সবচাইতে প্রয়োজন তখনই তাকে পাশে পেয়ে যান? আপনার সব মানসিক বিষয় না হলেও কিছু বিষয় তিনি না বলতেই বুঝে যান? তাহলে কিন্তু তিনি ইতোমধ্যেই তার পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে গিয়েছেন। দুজনের মানসিকতার মিল ভালোবাসার সম্পর্কের জন্য অত্যন্ত জরুরী তা ভুলবেন না একেবারেই।

*সম্মানের পরীক্ষা-
একজন প্রেমিক/প্রেমিকা হিসেবে নয় আপনি দেখুন আপনার ভালোবাসার মানুষটি একজনকে মানুষ হিসেবে কতোটা সম্মান করতে পারেন। তার এই অপর মানুষটির প্রতি সম্মান কতোটা তা দেখেই বুঝতে পারবেন তিনি আসলেই কোন ধরণের মানসিকতার মানুষ।

*জ্ঞানের পরীক্ষা-
না এটি পড়ালেখা বিষয়ক কোনো পরীক্ষা নয়। আপনার সঙ্গী ভালোবাসা আসলে কি তা জানেন কিনা একটু বুঝে নিন। তিনি কি জানেন, ভালোবাসার মূল ভিত্তি কি? তিনি কি জানেন ভালোবাসার মূল অর্থ? যিনি সত্যিকারের ভালোবাসা কি তা জানেন তিনিই সত্যিকারের ভালোবাসতে জানেন।

*আত্মত্যাগের পরীক্ষা-
তিনি আপনার জন্য আসলেই কতোটা ছাড় দিতে পারেন দেখুন তো। ছাড় দু পক্ষকেই দিতে হয় তা সকলেই জানেন। কিন্তু তার ভালোবাসার গভীরতা কতোখানি তা দেখার জন্য আপনি নাহয় তার আত্মত্যাগের একটি পরীক্ষাই নিয়ে নিন। তিনি আপনার জন্য কি ছেড়ে দিতে পারেন তা বুঝে নিন। কারণ মুখে বড় বড় কথা বললেও বাস্তবে অনেক সময় তা সম্ভব করতে দেখা যায় না অনেককেই।

*ক্ষমা করার পরীক্ষা-
যিনি ভালোবাসতে জানেন তিনি তার ভালোবাসার মানুষটিকে ক্ষমা করে দিতেও জানেন। কারণ ভালোবাসা আসলেই অনেক মহান এবং মানুষ অনেক ভুলই করে থাকে। তবে হ্যাঁ, ভুলটি যদি হয় ধোঁকা দেয়া তাহলে একটু ভাববারই বিষয়। এই ভুলটি বাদে দেখুন তো তিনি আপনার কোন ভুলগুলো ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখেন।

*ধৈর্য পরীক্ষা-
সবচাইতে শান্ত মানুষটিরও একটি সীমা রয়েছে ধৈর্য ধারণের। ধৈর্য কিন্তু মানুষের অনেক বড় একটি গুণ। ধৈর্য দিয়েই বিবেচনা করা যায় মানুষটির ভবিষ্যৎ আচার আচরণ এবং অন্যান্য মানসিক বিষয়াদি বিশেষ করে তা যদি হয় ভালোবাসার ক্ষেত্রে। তাই সঙ্গীর এই পরীক্ষাটিও নিয়ে নিন।