নিজের অভ্যাসে ক্ষতি হচ্ছে ত্বকের Nokkhotro Desk

নিজের অভ্যাসে ক্ষতি হচ্ছে ত্বকের



হট শাওয়ার:
সারাদিনের ক্লান্তি শেষে অনেকেই হট শাওয়ার নিয়ে থাকেন। সাময়িকভাবে হট শাওয়ার ক্লান্তি দুর করলেও এটা ত্বকের জন্য খুবই ক্ষতিকর। কেননা হট শাওয়ার ত্বকে রুক্ষ ও শুষ্ক করে ফলে ত্বকের উজ্জলতা কমে যায়। বিভিন্ন ধরনের চর্ম রোগ হতে পারে।

স্ক্রাবিং:

ত্বকের ময়লা বা মরা চামড়া দুর করার জন্য স্ক্রাব ব্যবহার করা হয়। স্ক্রাব এর উপাদান গুলো একটু শক্ত প্রকৃতির হয়। ফলে নিয়মিত স্ক্রাবিং করলে ত্বকের নরম টিস্যু ছিড়ে যেতে পারে। এতে ত্বকে র‌্যাশ উঠতে পারে বা অন্যান্য চর্ম রোগও ওদখা দিতে পারে। সপ্তাহে ২ বারের বেশী স্ক্রাব করা উচিৎ নয়।

মেকআপ তুলতে ভুলে যাওয়া:

বেশিরভাগ মানুষ বিশেষ করে মেয়েরা কোথাও ঘুরতে গেলে বা পার্টিতে গেলে সাধারণত ভারি মেকআপ করে থাকে। প্রোগাম শেষে বাড়িতে ফিরে আলসেমির কারণে মেকআপ তুলেন না। এত করে ত্বকের মারাত্মক ক্ষতি হয়। মেকআপের ক্যামিকেল ত্বকের ছিদ্র গুলো বড় করে দেয় এবং মেকআপের উপাদান গুলো ছিদ্র দিয়ে ঢুকে যায়। এতে ত্বকে ব্রণ উঠে, ত্বকের উজ্জ্বলকারী কোষগুলোকে নষ্ট করে দেয়। ফলে তকে কালো দাগ মেছতা পড়ে।

সানস্ক্রিন না ব্যবহার করা:

অনেক শুধু গরমকালে বা বেশী রোদে গেলে সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন, এটা ভুল। আপনাকে প্রতিদিন সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে হবে। কেননা সানস্ক্রিন শুধু সুর্যের অতিবেগুনী রশ্মি থেকে নয় ধুলোবালির হাত থেকেও পর্দার মতো ত্বককে রক্ষা করে।

আঙ্গুল দিয়ে ব্রণ খোচানো:

ব্রণ সহসাই হয়ে থাকে। ব্রণ হলে অনেকেই হাত দিয়ে টিপে, খোচায়। এতে করে ত্বকে ইনফেকশন করে। আরও বেশী ব্রণ উঠে এবং ত্বকের বেশী ক্ষতি করে।

প্রসাধণী বার বার বদলানো:

বাজরে হাজার ধরনের ত্বকের প্রসাধনী আছে। নিজের ত্বককে আরও লাবণ্যময়ি দেখাতে বাজারে নতুন আসা প্রসাধনী অনেকেই ব্যবহার করে থাকেন। এত করে ত্বকে প্র
A A