আমির আসহাব .

৩ বছর আগে লিখেছেন

আমির আসহাব-এর গল্পগ্রন্থঃ ছোট্টমণির খেলনাপাতি

অমর একুশে গ্রন্থমেলা-২০১৬ এ শিশু প্রকাশ (স্টল নাম্বার-৬০২, অবস্থানঃ সোহরাওয়ার্দীউদ্যানে ঢুকেই প্রথমদিকে) থেকে প্রকাশিতঃ

গল্পের বইঃ ছোট্টমণির খেলনাপাতি (শিশুতোষ)
প্রকাশকঃ ফারজানা কাইয়ুম
প্রচ্ছদ ও অলংকরণঃ মনিরুজ্জামান পলাশ
মূল্যঃ ৮০ টাকা মাত্র।
continue reading
Likes Comments
০ Shares

Comments (1)

  • - মাসুম বাদল

    ভাললাগা জানালাম... emoticons

    • - গোখরা নাগ

      খুব ভাল লাগল ... 

    - রচনা পারভিন

    ভালো লাগলো emoticons

আমির আসহাব .

৪ বছর আগে লিখেছেন

গোপনের গহীনে

গোপনের গহীনে স্পন্দন ছিলনা
মোহ ছিলনা, ছিলনা ভালোবাসার মতো অসুখী অশ্রু,
পরাজয় ছিলনা বলেই জয়ছিল অবহেলিত
মুক্তির মন্ত্রে স্বপথের গান ছিল প্রিয় প্রতিজ্ঞায়।
টগবগে জলে বাতাস ঘোলাটে হলে স্বপ্নরা আশান্বিত হতো
আকাশ নেমে আসত নিচে-
আদিম আদমের ছলে গলে গলে রেখে যাওয়া প্রাণে
আদ্যচিহ্ন স্পষ্ট হতে হতে রচে যেত চন্দ্র, সূর্য, নক্ষত্রের পৃথিবী।
যেভাবে যেতে হয়, যেভাবে যাওয়া যায়
অপেক্ষার অর্বুদ সময় স্বপ্ন বুনে বুনে
প্রত্যাশারা ঘুরেছে নেতানো লাউয়ের সাদা ফুলে
মিহি-রোদ, রঙ ধনুর রঙে
এবং ভরা জ্যোস্নায় স্নিগ্ধতার শিকল ছিড়ে আকাশের উদাসী গগনে।
জাগবার ইচ্ছে যখন আকন্ঠ আকড়ে ধরেছে, তখন
দিশেহারা ধানের মাঠে শামুকের চোখে
দোয়েলের উড়ে যাওয়া কাগজের খামে
এবং গ্রহে নক্ষত্রে বুকে সবিস্তার সকারের গোপন নথিতে
জন্মের আগেই মৃত্যূর ইতিহাস লিখে গৌরবের গাছ হয়েছি।
আবার যেতে যেতে মৃত্যুর উপযোগী হতে
সবুজ সীমানা ঘিরে বইছে আষাঢ়ের ঢল,
সব কোলাহল তেড়ে আসে আকারের আহ্লাদে
অথচ একদিন গোপনের গহীনে স্পন্দন ছিলনা
মোহ ছিলনা, ছিলনা ভালোবাসার মতো অসুখী অশ্রু
পরাজয় ছিলনা বলেই জয়ছিল অবহেলিত। continue reading
Likes Comments
০ Shares

Comments (3)

  • - আমির ইশতিয়াক

    শান্তির মা মরে গেছে।

    • - এনামুল হক মানিক

      ঠিক বলেছেন ভাই। শান্তির মা মরে গেছে।

    - আলমগীর সরকার লিটন

    হু মানিক দা ঠিক বলেছেন

    শান্তি কি ভাই গাছে ধরে ?

    শান্তি থাকে নিথর পথে

    কে ভাই সাথে যাবে

    শুভ কামনা দাদা

     

    • - এনামুল হক মানিক

      ধন্যবাদ লিটন ভাই। ভালো থাকুন।

    - এই মেঘ এই রোদ্দুর

    হুম শান্তি গাছে ধরে না

     

    সুন্দর লেখা

    • - এনামুল হক মানিক

      ঠিক বলেছেন শান্তি গাছে ধরেনা। শান্তি গাছে ধরার জিনিস নয়।

      শুভেচ্ছা নিরন্তর।

    Load more comments...

আমির আসহাব .

৪ বছর আগে লিখেছেন

পাতার গায়ে গাছের ভোর

প্রতিদিন সূর্য ওঠে সূর্য অস্ত যায়
প্রতিটি প্রাণি জন্মের পর থেকে অপেক্ষা করে মৃত্যুর
মৃত্যুরা অপেক্ষা করে এক একটি সু-সম সময়ের,
আবার মৃত্যুকেই অনাকাঙ্ক্ষিত ভেবে- গুণে গুণে পার হয় দিন মাস বছর..।
আলোর পিছনে আলেয়া আদিগন্ত কাল হতে
কখনো আঁধারে ডুবে যায় আলো, কখনো আঁধার আলোয় খুঁজে নেয় আশ্রয়
রাতের আকাশে চাঁদ হাসে, তারা হাসে, হাসে অমাবস্যার কুটিল চক্র।
মিথ্যেরাও সত্যের খোলসে সতত সুন্দর হলে
কম-কে বেশি বেশি-কে কম বলা যায়,
কখনো আলোই হয়ে ওঠে আলোর প্রতিদ্বন্ধী
জীবনই হয়ে ওঠে ধ্বংসের কারণ।
প্রতিটি সকালের মানে বুঝলেই ভালো থাকা যায়
দেশকে ভালোবাসা যায়,
দেশের প্রতিটি পরিবার এক একটি গাছ
প্রতিটি গাছে অসংখ্য পাতা
পাতার গায়ে গাছের ভোর, প্রাণির প্রাণ
এবং সোনালি বিবেক….।
(২৪.০২.২০১৫ইং)
 
আপডেট, চলছে………..
continue reading
Likes Comments
০ Shares

আমির আসহাব .

৪ বছর আগে লিখেছেন

আরেকটা ফাল্গুন আমাকে দাও

অপেক্ষা করো আর একটা দিন
আর একটা রাত,
অপেক্ষার অবসরে একগুচ্ছ আধাঁরে দাঁড়াও
প্রত্যাশিত লোকারণ্য বনে
ক্রমে ক্রমিক পায়ে হাঁটছি সবুজ মেঠোপথে
দিগ্বিদিক জরা জীর্ণ, আশার বসতি কমি
এরেম খেলায় মাতছে সবে এই নির্ভৃতে
গ্রীষ্ম -শীতে উসবো নিতে,
আরেকটা ফাল্গুন আমাকে দাও
দিচ্ছি কথা- পৌছে যাব
নব অরুণ গান শোনাব
অপেক্ষার একগুচ্ছ আধাঁরে দাঁড়াও
আরেকটা ফাল্গুন আমাকে দাও...।
continue reading
Likes Comments
০ Shares

আমির আসহাব .

৪ বছর আগে লিখেছেন

শীত আসে শীত আনা হয়

কখনো শীত আসে, কখনো আনা হয়
যখন শীতকে ডেকে আনা হয়,
যখন শীতের হাতে দেওয়া হয় পথের পাথেয়
তখন প্রত্যাশারা ঘুরে ফিরে ফাঁসপ্রশ্নের দ্বারে দ্বারে
পথ শিশুরা নির্বোধে হয়ে যায় মমি
সবুজ সবুজ গাছগুলো দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে ঘুমায়
নীল জলের হাঙরেরা চলে আসে তেরশ নদীর বুকে..।
প্রতিটি দিনের মানে যখন কালক্ষেপণ
প্রত্যুষের প্রত্যাশা যখন বেঁচে থাকা
তখন বেসুরের বেতাল বাঁশি, ক্রমে ক্রমেই থেমে আসে
ক্ষণে ক্ষণের দু-একটা ঘেউ ঘেউয়ে এ ঘুম ভাঙ্গে না।
যখন কুয়াশায় মুড়িয়ে আসে পৃথিবী
কাঠ-পুড়া ধোঁয়ায় ছেঁয়ে যায় আকাশের নীল
ডান হাত দেখেনা বামেরে,
তখন দুড়-ম শব্দের গভীরতা কতটা ভয়াবহ?
কতটা স্বপ্ন থাকলে দুপদাপে আবাল বৃদ্ধ আসে শহরের প্রানে
কতটা হতাশ হলে গড়ে তুলে নিজ নিজ পৃথক পাহাড়?
        (৬/১২/২০১৪ইং, রাত-২টা) continue reading
Likes Comments
০ Shares
Load more writings...