রুহুল আমিন

৪ বছর আগে লিখেছেন

সখীনামা

'... অবশেষে তাহাদের মাঝে শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরিত হইলো। দীর্ঘ দুইটি রজনীর নিদারুণ কস্টকর প্রতিটি ক্ষণ, তাহাকে যে কি পরিমাণ জ্বালাইয়াছে- সেই কথাটি সখীকে বুঝাইবার  আপ্রাণ প্রয়াস চালাইয়াছিল সে। তবে সখি সেই তাহার বিগত সময়ের বিশ্বাসের উপরেই অটল রহিলো। কিন্ত সখী তাহার সখাকে ও ছাড়িতে নারাজ; একই সাথে বিশ্বাসের রজ্জুটাকে ও।
একি মহাবিপদ হাজির হইয়াছে সখির সামনে?
কিভাবে সে সখা ও তাহার নিজের ভিতরের সখিরুপ কে যাহা সম্পুর্ন দুইটি ভিন্ন মতাদর্শে চালিত হইতেছে, তাহার গতিরোধ করিবেক? কোনোভাবেই সখা ও বুঝিতে চাহিল না। সে সখিকে তিনটি শর্তে আবার কাছে টানিতে ইচ্ছুক। দুইটি শর্ত ইতোমধ্যে সখিকে জানানো হইয়াছে। তিন নাম্বারটি লইয়া সখি একটু মোচরামুচরি করিতে পারে, তাহা সখা আগেই ভাবিয়া লইয়াছে। কিন্তু তাহাদের ভিতরের যত সব ভুল বোঝাবুঝি ই সব চলিয়া যাইতে পারে একমাত্র এই তিন নাম্বার শর্তের পুরোপুরি পালন করার ভিতর দিয়া। ...' [সখিনামা, পৃষ্ঠা- ৭২]
continue reading
Likes Comments
০ Shares