নারীর আচরণ Nokkhotro Desk

feature-image

আসুন জেনে নেয়া যাক পরিবারের অন্যান্য সদস্যকে খুশী করার কিছু সহজ কৌশল। যার মাধ্যমে আপনি হয়ে উঠতে পারেন সবার ভালোবাসার পাত্রী-

•নিজের শ্বশুরবাড়ির সম্পর্কে অন্যের কাছে কথা বলবেন না। আপনি হয়তো বলবেন একভাবে তাদের কাছে পৌঁছাবে অন্যভাবে। এতে করে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হবে। আপনি তাদের অপছন্দের পাত্রে পরিণত হবেন।

•সবার সঙ্গে ভালো যোগাযোগ রাখুন। কাজটি করতে পারলে শ্বশুর বাড়িতে আপনি সকলের মন খুব সহজেই জয় করে নিতে পারবেন।

•আপনার কাছে যদি কোনো বিষয় খটকা লেগে থাকে, তবে তা সরাসরি বলে পরিস্কার করে নিন। সরাসরি বললে অনেকে অনেক কিছু মনে করতে পারে। কিন্তু সব বিষয়ে পরিস্কার থাকা ভবিষ্যতের জন্য ভালো।

•সবার সঙ্গে মন পরিষ্কার করে কথা বলুন। এতে শ্বশুরবাড়ির মানুষ জন আপনার গতিবিধি বুঝতে পারবে। তাদের মনের ভুল ধারণা দূর হবে।

•কোন কিছু নিয়েই অহংকার করবেন না। হতে পারেন আপনি অনেক শিক্ষিত সুন্দরী বা ধনী পরিবারের মেয়ে। কিন্তু শ্বশুরবাড়িতে সবার মন জয় করুন বিনয়ী হয়ে। বিনয় এমন একটা গুণ যাতে কেউ হিংসা করতে পারেনা।

•অনুষ্ঠান কিংবা উৎসবে সবার পছন্দ অনুযায়ী উপহার দিতে একেবারেই ভুল করবেন না। উপহার এমন একটি জিনিস যা সব বয়সের মানুষের মন জয় করার জন্য যথেষ্ট।

•কারো কাছ থেকে একটু উপকার পেলেও তাক খুশী করার চেষ্টা করুন। সুযোগ পেলেই তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করুন । এতে করে তার মনে আপনি জায়গা করে নিতে পারবেন খুব সহজে।

•স্বামী-স্ত্রী দুজন দুজনকে মন থেকে ভালোবাসুন , একে অপরের মনের চাওয়া গুলো গুরুত্ব দিয়ে পুরণ করুন।

•মানুষ তাকেই মনে রাখে, পছন্দ করে- যিনি বিপদের সময় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়। শ্বশুরবাড়িতে কারো বিপদে আপদে অবশ্যই দ্রুত সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন।

…সংসার সুখময় করতে নারীর ভুমিকা অপরিসীম। নিজে সুখী থাকুন, সঙ্গে সবাইকে সুখী রাখুন আপনার আচরণে।


A A