Lifestyle Image

পছন্দের আয়না দিয়ে সাজিয়ে নিন আপনার শখের ঘর



দিনের শুরুটা হয় আয়নাতে নিজের মুখখানা দেখে। আয়না দেখতে ভালবাসে না এমন মানুষের দেখা মেলা ভার! কারণে-অকারণে কমবেশি আমরা সবাই আয়না দেখতে পছন্দ করি। আয়না এখন শুধু মুখ দেখার কাজে ব্যবহৃত হয় না, ঘর সাজাতেও এটি অনেক বেশি ব্যবহৃত হয়। শুধু আয়না দিয়ে ঘরে নিয়ে আসতে পারেন নান্দনিক ছোঁয়া। 

ঘর সাজাতে আয়না
-একটি সুন্দর আয়না সঠিকভাবে বসাতে পারলে সম্পূর্ণ ঘরের চেহারাটাই পরিবর্তিত হয়ে যায়। কিন্তু এই কাজটি এতটা সহজ নয়। খুব সাবধানে, যত্ন করে বাজাই করতে হয় আয়নার ডিজাইন। আর খুব সতর্কতার সাথে আয়না দিয়ে ঘর সাজাতে হয়।
-আয়নার ব্যবহার হতে পারে আপনার বাড়ির প্রবেশমুখে। প্রবেশমুখের ফাঁকা জায়গাতে দরজার বিপরীত দেয়ালে মাটির টেরাকোটার বা রট আয়রনের আয়না ঝুলিয়ে রাখতে পারেন।
-এছাড়া আপনার ড্রয়িংরুমটা যদি ছোট হয় তবে তার দেয়ালে ঝুলিয়ে দিতে পারেন একটা বড় আয়না। এই আয়নায় আপনার ছোট ঘরটিকে আরও বড় দেখাবে।
-লম্বা, গোলাকার কিংবা চার-কোণ আকৃতির যে কোন ধরণের আয়না ব্যবহার করেন না কেন তা যেন কারুকার্যময় হয়। এতে আপনার ঘরের চেহারায় যেমন আভিজাত্য আসবে, তেমনি অতিথিরাও আপনার রুচির পরিচয় পাবেন।
-আপনি চাইলে বসার ঘরের সিলিংয়ে আয়নার ব্যবহার করার ক্ষেত্রে সিমেন্টের তৈরি অ্যান্টিকের নকশায় কারুকার্যময় আয়না তৈরি করে তা স্থায়ীভাবে বসিয়ে দিন সিলিংয়ের মধ্যবর্তী স্থানে। বসার ঘর ছাড়াও খাওয়ার ঘর, শোবার ঘর, সাজঘরে আয়নার ব্যবহার করে নিয়ে আসতে পারেন অভিনব সজ্জা।
-স্নানঘরটি বেশ ছোট হলে এতে একটা দেয়ালজোড়া বড় আয়না বসিয়ে দিতে পারেন। স্নানঘরের পরিসর বড় দেখাবে।
-শোবার ঘরে ড্রেসিং টেবিল রাখেন। আপনি চাইলে একটু ভিন্নতা আনতে পারেন বড় ফ্রেমে আয়না বানিয়ে দেয়ালে সাঁটিয়ে দিয়ে। খাটের সঙ্গেও অনেকে আয়না সাজাতে পছন্দ করেন। জানালার বিপরীতে আয়না সাজিয়ে রাখলে ঘর অনেকটা উজ্জ্বল দেখাবে। এছাড়া ঘরের প্যাসেজের দুই পাশে সাজিয়ে রাখতে পারেন ছোট ছোট আয়না। এটি দেখতে অনেকটা ছবির ফ্রেমের মত দেখাবে।

কেমন আয়নার কেমন দাম
বাজার ঘুরলে দেখতে পাওয়া যায় বিভিন্ন আকৃতির আয়না। গোল, ওভাল, লম্বা ফ্রেমের আয়না বেশি দেখতে পাওয়া যায়। এসব আয়নার ফ্রেমে লতাপাতার নকশা আর জিওম্যাট্রিক নকশা বেশি থাকে।এসব আয়নার দাম পড়বে ২৫০ থেকে ৩ হাজার টাকা। যদি নিজে পছন্দ মত আয়না তৈরি করে নিতে চান তার জন্য আপনাকে বাড়তি ৩০০ থেকে ৮০০ টাকা গুনতে হবে। আপনি কোন আয়নাটি ব্যবহার করবেন তা নির্ভর করে আপনার পছন্দের ওপর। আপনি চাইলে কাঠের ওপর খোদাই করে নকশা বা ফুল, পাখি, মাছ কিংবা নানা রকম পৌরাণিক ফর্মে তৈরি করা আয়না ব্যবহার করতে পারেন। তবে এই সকল আয়নার দাম একটু বেশি পড়বে। ১০০০ টাকা থেকে ১০০০০ টাকাও হতে পারে এইসব আয়নার।
আপনি চাইলে টেরাকোটার আয়না দিয়েও ঘর সাজাতে পারেন। এই আয়নাগুলো পোড়ামাটির রঙে এবং বিভিন্ন রঙ দিয়ে নকশা করা হয়ে থাকে। এইসব নান্দনিক নকশা করা এসব আয়না পাওয়া যাবে ৩৫০ থেকে ১ হাজার টাকার মধ্যে। এছাড়া মেটালের ফ্রেম করা আয়না পাবেন বিভিন্ন মেটালিক রঙে রাঙা বিভিন্ন নকশা করা আয়না। এগুলো দাম পড়তে পারে ৪০০ থেকে ১ হাজার ২০০ টাকার মধ্যে। এছাড়া বেতের ফ্রেমের আয়নাও পাওয়া যায়।

কোথায় পাবেন
খুব নান্দনিক ডিজাইনের কাঠের আয়না পাবেন আড়ং, বসুন্ধরা সিটির নিচতলা ও ৬ তলার কিছু দোকানে। এছাড়া আসাদ গেটের আইডিয়াস, গুলশানের ডিসিসি মার্কেট, নিউ মার্কেট এও এসব আয়নার দেখা পাওয়া যাবে। শিশু একাডেমির সামনের ফুটপাতে, ধানমন্ডির ফুটপাতে আজিজ সুপার মার্কেটের ভার্টিক্যালে পাবেন মাটির টেরাকোটার সব আয়না।