যেভাবে নিজেই নষ্ট করে ফেলছেন শখের গহনা Nokkhotro Desk

feature-image

শিরোনাম পড়ে চমকে গিয়েছেন? ভাবছেন এ কি করে সম্ভব। আপনার গয়নাগুলোকে হয়তো আপনি সত্যিই ভীষণ ভালোবাসেন। কিন্তু আপনার সামান্য অযত্ন কিংবা সামান্য খামখেয়ালিপনাই কিন্তু আপনার প্রিয় গয়না ধ্বংসের কারন হয়ে দাঁড়াতে পারে। আপনার করা কোন কাজগুলো, গয়নার জন্য ক্ষতিকর আসুন জেনে নেওয়া যাক।

১। সবসময়ই গয়না পরে থাকাঃ
সব গয়না সবসময় না পরা হলেও কিছু গয়না বিশেষ করে ছোটবেলায় উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া চেইন বা এংগেজমেন্ট রিং সবসময় পরে থাকেন অনেকে। অথচ সবসময় গয়না পরে থাকা গয়না ধ্বংসের অন্যতম প্রধান কারন। ঘুমানোর সময়, থালা বাসন ধোয়ার সময়, রঙ দিয়ে কাজ করার সময় অবশ্যই আপনার গয়না বা রিং খুলে রাখুন।

২। গোসল বা সাঁতার কাটার সময় গয়না পরে থাকাঃ
পানিকে একপ্রকার গয়নার শত্রু বলা চলে। আর তাই গোসল বা সাঁতার কাটার সময় গয়না পরে থাকবেন না। যে কোন মৌল দ্বারা গঠিত গয়না ই পানির আঁচে নষ্ট হয়ে যায় আর সে পানি যদি লবণাক্ত বা ক্লোরিনযুক্ত তাহলে তো কথাই নেই!

৩। আল্ট্রাসোনিক মেশিন দিয়ে গয়না পরিষ্কার করাঃ
নিঃসন্দেহে আল্ট্রাসোনিক মেশিন খুব ভালো পরিষ্কারক। কেননা এটি আপনার গয়নাকে খুব ভালো পরিষ্কার করে। কিন্তু এই আল্ট্রাসোনিক মেশিন আপনার গয়নার জন্য মোটেও ভালো নয়। বিশেষ করে মুক্তো, কোরাল, ওপাল ইত্যাদি নরম জাতীয় পাথরগুলোকে আল্ট্রাসোনিক মেশিন থেকে দূরে রাখুন।

৪। পরিষ্কারক সল্যুশনে বেশীক্ষণ ভিজিয়ে রাখাঃ
গয়না পরিষ্কার করার জন্য অনেকসময় সল্যুশন ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এসব সল্যুশনে গয়না বেশিক্ষন ভিজিয়ে রাখা গয়নার ক্ষতির কারন হয়ে দাঁড়ায়। এমনকি সোনা বা রুপার গয়নার ও ক্ষতির কারন হতে পারে এই সল্যুশন। তাই যত দ্রুত সম্ভব সেগুলোকে পরিষ্কার করে ফেলুন আর সল্যুশন থেকে তুলে ফেলুন।

৫। পাথরে চাপ দিয়ে আংটি খোলাঃ
বেশিরভাগ মানুষই এই সাধারণ ভুলটি করে থাকেন। হাতের আংটি খোলার সময় আংটির পাথরে চাপ দিয়ে খুলতে চেষ্টা করেন। বিশেষ করে যখন আংটি খোলা বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে যায়। এই কাজ করা থেকে বিরত থাকুন। আপনার প্রিয় রিং ধ্বংসের কারন হয়ে দাঁড়াতে পারে এই কাজটি।
গয়না ব্যবহারে অবশ্যই সাবধানতা অবলম্বন করা উচিৎ। আপনার ছোটখাটো ভুলে যেন আপনার পরিহিত গয়না ধ্বংস বা নষ্ট না হয় সেদিক খেয়াল রাখার দায়িত্বও কিন্তু আপনারই।
A A