Food Image

ভিটামিন সি সমৃদ্ধ জুস

উপকরণঃ
• জাম্বুরা বা কমলার রস- এক কাপ,
• আপেল সিডার ভিনেগার- দুই চামচ,
• মধু- এক চা চামচ ।
প্রণালীঃ
*সব উপকরণ একসাথে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে তৈরি করুন ভিটামিন সি সমৃদ্ধ জুস।
...প্রতিবেলা যে কোন খাবার খাওয়ার আগে এই জুসটি খান। এই জুস খুব দ্রুত ওজন হ্রাস করে ও দেহে ভিটামিন সি এর অভাব জনিত সমস্যা প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। পাশাপাশি দেহের হজম শক্তি বৃদ্ধি করে। এক সপ্তাহ টানা খেলে আপনার ওজন বেশ খানিকটা কমে যাবে।

Continue Reading...
Food Image

খাবারে অতিরিক্ত লবণ কমানোর টিপস

*যে কোন তরকারিতেই লবণ বেশি হলে বেরেশ্তা যোগ করুন। এতে ঝোল ঘন হবে, স্বাদে যোগ হবে বাড়তি মাত্রা, অন্যদিকে লবণটাও কবে আসবে।
*তরকারী বা ডাল থেকে লবণ কমানোর সবচাইতে সহজ উপায় হচ্ছে ময়দা দিয়ে খামির তৈরি করুন। তারপর ছোট ছোট বল আকারে তৈরি করে ঝোল বা ডালের মাঝে ফুটতে দিন। লবণ অনেক পরিমাণে কমে আসবে।
*মাছের তরকারী হলে ডালের বড়ি যোগ করুন। তেলের মাঝে বড়ি হালকা ভেজে তরকারিতে দিয়ে দিন। এতে লবণ যেমন কমবে, স্বাদেও আসবে ভিন্ন মাত্রা।
*সিদ্ধ করা আলু যোগ করুন তরকারী বা ডালে। লবণ কমা পর্যন্ত ফুটিয়ে নিন। তারপর আলুগুলো তুলে ফেলতে পারেন যদি ইচ্ছা হয়।
*সবজি ভাজিতে লবণ বেশি হয়ে গিয়েছে? যোগ করুন অনেকটা কাঁটা পেঁয়াজ ও ধনেপাতা। টমেটো কুচিও দিতে পারেন। তারপর ভালো করে ভেজে নিন আবার। দেখবেন লবণ হয়ে গিয়ে সহনীয় মাত্রায়।
*দোপেয়াজা বা কোন ভুলা খাবারে লবণ বেশি হয়ে গেলে যোগ করুন অল্প টক দই ও চিনি। ভালো করে মিশিয়ে ঢাকনা দিয়ে ১৫/২০ মিনিট দমে রাখুন। লবণ তো কমবেই সাথে খাবারের স্বাদ বাড়বে বহুগুণে।
*রোস্ট, রেজালা ইত্যাদি খাবারে লবণ বেশি হয়ে গেলে যোগ করুন মালাই। ওই একইভাবে দমে দিয়ে রাখুন। লবণ কমে যাবে।
*কাবাব, ভুনা, বা ডাল চচ্চড়ি জাতীয় খাবারে লবণ বেশি হয়ে গেলে যোগ করতে পারেন অল্প লেবুর রস ও সাথে এক চিমটি চিনি। খাবারের লবণকে অনেকটাই কম মনে হবে।
*তন্দুরি চিকেনে লবণ বেশি হয়ে গেছে? সাথে পরিবেশন করুন একটু বেশি মিষ্টি দেয়া রায়তা। দেখবেন, কেউ বেশি লবণ বুঝতেই পারবে না!
*লবণ কমাতে আরেকটি ভীষণ কাজের জিনিস হলো দুধ। দুধ যোগ করলে সেটা স্বাদে কোন হেরফের করবে না। কিন্তু আপনার তরকারির লবণ কমিয়ে দেবে একদম।

Continue Reading...
Food Image

কোল্ড কফি রেসিপি

উপকরণঃ
• ঠাণ্ডা দুধ- ২ কাপ,
• পানি- ১/২ কাপ,
• কফি পাওডার- ৩ চা চামচ,
• ফ্রেশ ক্রিম - ২ টেবিল চামচ,
• কনডেন্সমিল্ক পরিমান মত,
• চিনি- ১ টেবিল চামচ অথবা আপনার স্বাদ অনুযায়ী,
• বরফ টুকরো বা বরফ কুচি পরিমাণ মত,
• স্বাদ অনুযায়ী পরিমান বাড়ানো কমানো যাবে।
প্রণালিঃ
*কফি পাওডার এবং চিনি ফুটন্ত পানিতে দিন।
*চিনি গলে যাওয়ার পরে চুলা নিভিয়ে ঠাণ্ডা হতে দিন।
*ঠাণ্ডা হলে তাতে একে একে দুধ, ক্রিম ও কনডেন্সমিল্ক দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিয়ে সব শেষে বরফ দিয়ে আর একবার ব্লেন্ড করে নিতে হবে।
*ফেনা উঠলে উপরে ক্রিম ও চকলেট বা শুকনো কফি ছড়িয়ে দিয়ে এই গরমে পরিবেশন করুন মজাদার কোল্ড কফি।

Continue Reading...
Food Image

বার বি কিউ চিকেন রেসিপি

উপকরণঃ
• মুরগী– ১ টি ( ৪/৮ টুকরা করে কাটা ),
• টক দই– ৪ টেবিল চামচ,
• বারবিকিউ সস– ২ চা চামচ,
• গোল মরিচের গুঁড়া– আধা চা চামচ,
• শুকনা মরিচের গুঁড়া– আধা চা চামচ,
• আদা বাটা– ২ চা চামচ,
• রসুন বাটা– ২ চা চামচ,
• তেজ পাতা– ২ টি,
• লবঙ্গ– ২ টি,
• লবন– স্বাদ মতো,
• ধনে পাতা কুচি– পরিমাণ মত,
• জাফরান– এক চিমটি,
প্রনালীঃ
*মুরগী ধুয়ে পরিষ্কার করে পানি ঝরিয়ে রাখুন।
*একটি পাত্রে দই নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন।
*এবার দই এর সাথে বারবিকিউ সস, গোল মরিচের গুঁড়া, শুকনা মরিচের গুঁড়া, আদা বাটা, রসুন বাটা, লবন, তেজপাতা, লবঙ্গ ও সামান্য জাফরান ভাল মতো মিশিয়ে নিন।
*দই এর মিশ্রণের সাথে মুরগীর টুকরা গুলো দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে ম্যারিনেট করে রাখুন কমপক্ষে আধা ঘণ্টা।
*এবার ম্যারিনেট করা মুরগী ওভেনে ২৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ১০ মিনিট গ্রিল করে নিন।
*গ্রিল করার সময় মাঝে মাঝে সামান্য মাখন মুরগীর গায়ে ব্রাশ করে দিন, এতে চিকেনের স্বাদ আরও বেড়ে যাবে।
*এক পিঠ হয়ে গেলে অপর পিঠটাও একই ভাবে আরও ১০ মিনিট গ্রিল করে নিন।
*দুই পিঠ ভাল করে গ্রিল করা হয়ে গেলে ওভেন থেকে বের করে প্লেটে সাজিয়ে ওপরে সামান্য গোল মরিচের গুঁড়ো ও ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে দিন।
...নান রুটি বা গ্রিন সালাদের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।

Continue Reading...
Food Image

মরিচের আচার

উপকরণঃ
• কাঁচামরিচ- ১০০ গ্রাম (বোটা ছাড়া, মাঝারী আকারের),
• তেঁতুল গোলা পানি- ১ কাপ (মোটামুটি ঘন),
• সরিষা- ১ টেবিল চামচ (বাটা বা আস্ত),
• ধনিয়া গুড়া- ১ টেবিল চামচ,
• পাঁচফোড়ন মেথি সহ– ২ টেবিল চামচ,
• লবণ– ২ চা চামচ,
• আদা বাটা– ১ চা চামচ,
• রসুন বাটা– ২ চা চামচ,
• হলুদ গুঁড়া– ১/২ চা চামচ,
• মরিচ গুঁড়া– ২ চা চামচ,
• চিনি– ১ কাপ,
• সিরকা/ভিনেগার– ১ কাপ,
• রসুন কোয়া– ১৫ থেকে ২০ টি,
• সরিষার তেল– ২ কাপ।
প্রণালীঃ
*প্রথমে মরিচ ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিতে হবে।
*এবার কাটা চামচের মাধ্যমে মরিচ গুলো হালকা ভাবে ছিদ্র করে লবণ হলুদ মাখিয়ে ৩/৪ ঘন্টা রেখে দিতে হবে।
*এরপর সরিষা, ধনে ও পাঁচফোড়ন ভেজে গুঁড়া করে নিতে হবে।
*এবার তেল দিয়ে বাটা মসলা সিরকাসহ কষাতে হবে।
*এখন চিনি, তেঁতুল এর পানি দিয়ে কাঁচামরিচ ও রসুন সিরকা নাড়াচাড়া দিয়ে হালকা ভাবে জ্বাল দিতে হবে। হয়ে গেলে গুঁড়া মসলা দিয়ে ভুনে নামাতে হবে।
*ছড়ানো পাত্রে রেখে দুই-তিন দিন রোদ লাগাতে হবে।
*এরপর শক্ত করে লাগানো যায় এমন ছিপি সহ পরিস্কার একটি বোয়াম বা বোতলে ভরতে হবে তবে বোতলের মধ্যে অবশ্যই মরিচের ওপর পর্যন্ত সরিষার তেল থাকতে হবে। মাঝেমধ্যে রোদে দিতে হবে।
...আপনার স্বাদ ও রুচির উপর ভিত্তি করে উপকরণের পরিমান কমবেশী করতে পারেন।

Continue Reading...
Food Image

হজম শক্তি বাড়ানোর সহজ কিছু উপায়

হজমের সমস্যায় কম বেশি অনেকেই পড়ে থাকেন। অনুষ্ঠান বা নিজের বাড়িতে স্বাভাবিকের চেয়ে একটু বেশি খাবার খেয়ে মাঝে মধ্যেই বিপাকে পড়ে যান ভোজনরসিকরা। খাবার থেকে পাওয়া মজার চেয়ে মাসুল গুনতে হয় অনেক বেশি।
পেট ফুলে যাওয়া, গ্যাসের সমস্যা হওয়া, পেট ব্যথা, বুক ব্যথা, চুকা ঢেকুরসহ নানা সমস্যায় পড়তে হয়। এসব সমস্যা এড়াতে দরকার সামান্য সচেতনতা। তাই…
খাবার বেশি চিবিয়ে খান :
অনেকের অভ্যাস আছে খাবার দুয়েকবার চিবিয়ে গিলে ফেলা। এতে খাবার হজম হতে খুবই সমস্যা হয়। এই কাজটি হজমের সমস্যা বাড়িয়ে তোলে। তাই খাবার খাওয়ার সময় যতো বেশি চিবিয়ে খাওয়া যায় হজমের জন্য ততই ভালো।
ক্যালসিয়ামযুক্ত খাবার গ্রহণ :
আমাদের হজমশক্তি উন্নত করতে ক্যালসিয়াম বিশেষভাবে কার্যকর। ক্যালসিয়াম আমাদের পরিপাকতন্ত্রকে সঠিকভাবে পরিচালনা করতেও বেশ সহায়তা করে।
সংরক্ষিত খাবারকে না বলুন :
টিনজাত বা প্লাস্টিকের প্যাকেটজাত সংরক্ষিত খাবার খেলে হজমে সমস্যা বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা দেয়। কারণ খাবারগুলো যখন প্রসেস করা হয় তখন অনেক কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এসব খাবারে হজমের সমস্যা পাশাপাশি পরিপাকতন্ত্রের কর্মক্ষমতা কমিয়ে দিতে পারে।
গ্রিন টী পানের অভ্যাস:
হজমশক্তি বাড়ানো এবং হজমসংক্রান্ত সমস্যা এড়াতে গ্রিন টী এর তুলনা হয় না। অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ গ্রিন টি হজমশক্তি বাড়ায় এবং আমাদের পরিপাকতন্ত্র সুস্থ রাখতে সহায়তা করে।
ঝাল বা টক খাবার :
মরিচের ক্যাপসাইসিন হজমশক্তি উন্নত করতে অনেক বেশি কার্যকর। খাবারে পরিমিত পরিমাণে ঝাল দিয়ে খেতে পারলে স্বাভাবিকভাবেই হজমের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। তাছাড়া প্রতিবেলা খাওয়া শেষে সামান্য একটু টক জাতীয় কিছু খেতে পারলে হজমে দারুন উপকার পাওয়া সম্ভব। সেজন্য প্রতিবেলা খাওয়া শেষে একটুকরো তেতুল খেতে পারেন।
পর্যাপ্ত শাকসবজি খান :
পরিমিত পরিমাণে শাকসবজি খেলে হজমের সমস্যা আপনাআপনিই কমে আসে। শাকসবজি মানুষের দ্রুত হজম...

Continue Reading...
Food Image

থাই স্যুপ রেসিপি

উপকরণঃ
• চিকেন স্টক- ৪/৫ কাপ,
• তেল- ১ টেবিল চামচ,
• মুরগির মাংস চিকন লম্বাটে করে কাটা- আধা কাপ,
• খোসা ছাড়ানো চিংড়ি মাছ- আধা কাপ,
• ডিমের কুসুম- ২ টি,
• চিলি সস- ৩/৪ টেবিল চামচ,
• টমেটো সস- ২ টেবিল চামচ,
• সয়াসস- ১ টেবিল চামচ,
• কাঁচামরিচ ফালি- ৭/৮ টি,
• কর্নফ্লাওয়ার- ২ টেবিল চামচ,
• টেস্টিং সল্ট- ১ চা চামচ,
• লেবুর রস- ১ চা চামচ,
• লেমন গ্রাস/থাইল গ্রাস- ৪/৫ টি,
• চিনি- ১ চা চামচ,
• লবণ- স্বাদমতো।
প্রণালীঃ
*মুরগীর মাংসের হাড় নিয়ে ১০-১২ কাপ পানিতে একটু লবণ দিয়ে সিদ্ধ করতে থাকুন। পানি শুকিয়ে অর্ধেক হলে চিকেন স্টক তৈরি হয়ে যাবে। এরপর ছেঁকে নিয়ে চিকেন স্টক চুলায় বসিয়ে দিন।
*চিকেন স্টকে মাংস, চিংড়ি মাছ, লেমন/থাই গ্রাস, সয়াসস, চিলি সস, টমেটো সস, লবণ, চিনি ও টেস্টিং সল্ট দিয়ে দিন ও নেড়ে মিশিয়ে নিন ভালো করে।
*ডিমের কুসুম একটি বাটিতে নিয়ে ভালো করে ফেটিয়ে নিন এবং স্টকে ডিম দিয়ে ভালো করে নেড়ে দিন যাতে পুরোপুরি মিশে যায়।
*মাংস ও চিংড়ি সেদ্ধ হওয়া পর্যন্ত অল্প আঁচে স্টক জ্বাল দিতে থাকুন। সেদ্ধ হয়ে গেলে আধা কাপ পানিতে কর্ণ ফ্লাওয়ার গুলিয়ে স্টকে দিয়ে দিন।
*খুব দ্রুত ও ঘন ঘন নাড়তে নেড়ে কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে নিন। নতুবা কর্ন ফ্লাওয়ার দলা ধরে যাবে।
*২-৩ মিনিট নেড়ে ঘন হয়ে এলে এতে লেবুর রস ও কাঁচা মরিচ ফালি দিয়ে একটু নেড়ে নিন।
*লবণের স্বাদ বুঝে নিন এবং এরপর চুলা থাকে নামিয়ে নিন। ব্যস, এবার গরম গরম স্পাইসি থাই স্যুপের মজা নিন হালকা এই শীতে।

Continue Reading...
Food Image

থাই ফিশ ফিলেট রেসিপি

উপকরণঃ
• কাটাছাড়া মাছের ফিলেট– ৪ পিস,
• ফেটানো ডিম– ২ টি,
• ব্রেড ক্রাম্ব– ১ প্যাকেট,
• লেবুর রস– ২ চা চামচ,
• চিলি সস– ২ চা চামচ,
• অয়েস্টার সস– ১ চা চামচ,
• সয়া সস– ২ চা চামচ,
• তেল বা বাটার– পরিমাণমতো,
• লবণ– স্বাদমতো,
• গোলমরিচ গুঁড়ো– ঝাল বুঝে পরিমাণ মত।
প্রণালীঃ
*মাছের পেট কেটে নাড়িভুঁড়ি ফেলে দিন। এরপর মাথা ও লেজ কেটে শুধু মাঝের অংশ রাখুন। এরপর মাঝের অংশটুকু নিয়ে মাঝামাঝি অর্থাৎ মেরুদণ্ডের দিক থেকে দুখন্ড করে ফেলুন। মেরুদণ্ডের কাঁটা ফেলে শুধুমাত্র দুই পাশের মাংসল অংশটি নিন। এগুলো দুই খণ্ড করে ফিলেট তৈরি করুন।
*মাছের ফিলেটগুলোতে সয়া সস, চিলি সস, অয়েস্টার সস, লেবুর রস, গোলমরিচ গুঁড়ো ও লবণ দিয়ে ভালো করে মাখিয়ে মেরিনেট করে রাখুন ১৫-২০ মিনিট।
*একটি ছড়ানো প্লেটে ব্রেড ক্রাম্ব রাখুন। একটি পাত্রে ডিম ফেটিয়ে নিন।
*একটি প্যানে বাটার দিয়ে গলিয়ে নিন। সাধারণ মাছ ভাজার জন্য যতোটা তেল ব্যবহার করেন ততোটা তেল বা বাটার হলেই যথেষ্ট।
*এরপর মেরিনেট করে রাখা মাছের ফিলেটগুলো একটি একটি করে ফেটানো ডিমে ডুবিয়ে নিয়ে ব্রেড ক্রাম্বে গড়িয়ে নিন এবং প্যানে দিয়ে লালচে বাদামী করে ভেজে তুলুন।
*যেকোন সসের সাথে গরম গরম পরিবেশন করুন।

Continue Reading...
Food Image

ভেজিটেবল পোলাও রেসিপি

উপকরণঃ
• পোলাও এর চাল- আধাকেজি,
• ফুলকপি কুচি- এককাপ,
• গাজর কুচি- আধাকাপ,
• আলু কুচি- আধাকাপ,
• মটরশুটি- আধাকাপ,
• বরবটি ছোট টুকরা করা- ১ টেবিল চামচ,
• আদা বাটা- ১ চা চামচ,
• রসুন বাটা- ১ চা চামচ,
• জিরা বাটা- ১ চা চামচ,
• পেঁয়াজ বাটা- ১ টেবিল চামচ,
• পোস্তদানা বাটা- ১ টেবিল চামচ,
• লবঙ্গ- ৩টি,
• দারচিনি- ৪ টুকরা,
• তেজপাতা- ২টি,
• এলাচ- ৬টি,
• লেবুর রস- ১ টেবিল চামচ,
• কাঁচামরিচ- ১২টি,
• সয়াবিন তেল- আধা কাপ,
• সবিষার তেল- ১ টেবিল,
• ঘি- ২ টেবিল চামচ,
• লবণ- পরিমাণ মতো।
প্রণালীঃ
* প্রথমে পরিস্কার হাড়িতে লবণ দিয়ে পানি ফুটাতে হবে। এরপর ফুটন্ত পানিতে সবজিগুলো আলাদা আলাদা আধা সেদ্ধ করে নিতে হবে।
* এরপর চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন।
* এবার অন্য একটি হাড়িতে তেল গরম করে তাতে গরম মসলা ও তেজপাতা দিয়ে অন্য সকল বাটা মসলা ভুনা করে তাতে পানি ঝরানো চাল দিয়ে ৫ মিনিট নাড়াচাড়া করতে হবে।
* এরপর পরিমান মত পানি ও লেবুর রস দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। পানি শুকিয়ে এলে কাঁচামরিচ দিয়ে ৫ থেকে ৭ মিনিট অল্প তাপে রাখতে হবে।
* এখন সেদ্ধ সবজি দিয়ে, সবজির ওপর ঘি ও সরিষার তেল দিয়ে ১০ থেকে ১৫ মিনিট দমে রাখতে হয়।
...তৈরি হয়ে গেলো মজাদার ভেজিটেবল পোলাও। কাবাব, ভুনা মাংস, সালাদ ও লেবু দিয়ে পরিবেশন করুন।

Continue Reading...