Beauty Image

সুন্দর চুলধারী হওয়ার জন্য ছয়টি পরামর্শ



নারী-পুরুষ সবার ই চুল পড়া ও চুল উঠে যাওয়া নিয়ে চিন্তার অন্ত নেই।
স্বাভাবিকভাবে একটি চুল দুই থেকে চার বছর পর্যন্ত বাড়তে থাকে। এরপর বৃদ্ধি কমে যায় এবং কয়েক দিনের মধ্যে এমনিতেই পড়ে যায়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দীর্ঘ ও সুন্দর চুলধারী হওয়া সহজ নয়, এর জন্য একটু খাটনি করতে হয়।
চুল বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ অনুযায়ী চুলের ভালো বৃদ্ধি ও সুস্থতা নিশ্চিত করতে ঠাণ্ডা জলে ধোয়াসহ খাদ্যে প্রোটিন রাখা এবং প্রতিদিনই তেল মালিশ করা আবশ্যক।

সুন্দর চুলধারী হওয়ার জন্য আপনাকে ছয়টি পরামর্শ মেনে চলতে হবেঃ

চুলে তেল ব্যবহার করুনঃ
অনেকেই গরমে মাথায় তেল ব্যবহার করতে চান না। তবে চুলকে সুস্থ ও মোহনীয় করতে অবশ্যই সপ্তাহে অন্তত দুইবার তেল মালিশ করতে হবে। এতে চুল পড়া বন্ধের পাশাপাশি পুষ্টি নিশ্চিত করে।

চুল ব্রাশ করুনঃ
নিয়মিত আপনার চুল ব্রাশ করুন। এতে মাথায় রক্তসঞ্চালন বাড়বে। যা চুলের গ্রন্থিকোষের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। অবশ্যই ঘুমুতে যাওয়ার কমপক্ষে ১০ মিনিট আগেও চুল আঁছড়াতে হবে।

চুল পরিষ্কারে ঠাণ্ডা পানিঃ
চুলকে সুন্দর ও সতেজ রাখতে শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার ব্যবহারের পর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মাথা ধুয়ে নিতে হবে। এতে মাথায় চুলের গোড়ায় রক্তসঞ্চালন প্রক্রিয়া উন্নত হবে।

মাথা ম্যাসাজ করুনঃ
বিভিন্ন সময় মানসিক চাপ ও দুশ্চিন্তা দূর করতে মাথায় ম্যাসাজ করতে পারেন। এতে উদ্বেগ আর মানসিক চাপ থেকে আরাম পাওয়া যাবে। মাথার খুলিতে পুষ্টি জমার পাশাপাশি ম্যাসাজে বাড়বে আপনার চুল। প্রতি সপ্তাহে বাড়িতে অন্তত একবার মাথায় ম্যাসাজ করতে পারেন অথবা প্রতি ১৫ দিন পরপর বিশেষজ্ঞের দ্বারস্থ হোন।

আমিষযুক্ত খাবার খানঃ
সুন্দর,মজবুত ও সুস্থ চুল নিশ্চিত করতে প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করন। আমিষযুক্ত খাবার চুলের জন্য খুবই উপকারী। এর মধ্যে মাছ, মাংস এবং শিম জাতীয় খাবার থাকতে পারে। এতে রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি পায় এবং চুলের গোড়া মজবুত করবে।

প্রতি রাতেই বেণী করুণঃ
নারীদের প্রতি রাতে চুল বেণী করে ঘুমাতে যাওয়া উচিত। এতে চুলের মাথা ফেটে যাওয়া থেকে রক্ষা পাবে। বেণী করলে রুক্ষতা থেকে মুক্তি মেলে চুলের।