Site maintenance is running; thus you cannot login or sign up! We'll be back soon.

"শিশুতোষ ছড়া" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

চারু মান্নান

৬ বছর আগে লিখেছেন

লাল ফড়িং এর ডানায় ভুতু সোনা

ভুতু সোনার পুষি
ডোরা কাটা কালো সাদা
ভুতু সোনার পুষি,
ইঁদুর ধরা কৌশল তাই
যেন বাঘের মাসি।
মাছে ভাতে সতেজ মোরা
তাই পুষিও সহজাত,
কোন কিছুতেই মন ভরে না
খাওয়া পেলে দুধভাত।
মাছের কাঁটা লোভনীয় বটে
গলায় যায়রে বিঁধে,
এনিয়ে বিনিয়ে খাওয়া চাই
লাগলে বেজায় ক্ষিধে।
১৪২০@ ৮ ফাল্গুন, বসন্তকাল।
continue reading

৬১২

তাপস কিরণ রায়

৬ বছর আগে লিখেছেন

বর্ষার রূপ

(ছোটদের এ কবিতাটি আমার তারিখ-৭/৬/১৯৬৬-তে লেখা)  
 
ওই দেখো এলো ভাই ঘন ঘোর বর্ষা,
চাষিদের মনে বুঝি এলো আজ ভরসা।
থেকে-থেকে ডেকে-ডেকে বিদ্যুৎ চমকে--
সকলকে বলে যায় যেন কি ধমকে। 
 
দিন নেই রাত নেই টুপটাপ পড়ে,
শনশন ভনভন--ঝড় কি যে ঝরে !
ব্যাঙগুলো একটানা দিন রাত ডাকে--
জল,জল,আরও জল--ফুর্তিতে হাঁকে। 
 
নীড়ে ফেরা পাখীগুলি ভয়ে জড়সড়,
ঝড় হয়ে হল সারা--বাসা পড়ো পড়ো। 
দুপুরের ফুরসতে ক্ষণেকের রৌদ্র,
মনে হয় যেন আজ এসে গেল ভাদ্র। 
 
সোনা সোনা রোদ ঝরে,ক্ষণেকের তরে,
মিশমিশে কালো মেঘ,আকাশের'পরে। 
এই বুঝি চিরদিন জগতের খেলা,
‘কালো’ আর ‘ভালো’ নিয়ে চলে সারা বেলা।। continue reading

১০ ৪১৫

রোদের ছায়া

৬ বছর আগে লিখেছেন

দেশি ফলে বেশি মজা

পরীক্ষাতে কি ফল হল
ব্যাগের ভিতর থাক
বাংলাদেশের ফলের কথা
এবার বলা যাক
 
গ্রীষ্ম হল ফলের ঝুড়ি
মধুমাস তার নাম
আম পাবে কাঁঠাল লিচু
আরও পাবে জাম
 
বেল, তরমুজ,বাঙ্গি, ফুঁটি
পাকা পেঁপের ভার
গ্রীষ্ম বেজায় কাবু থাকে
কুঁজো থাকে ঘাড়
 
বর্ষা হল রসে ভরা
আনারসের কাল
পেয়ারা আর আমড়া
ছাড়াও পাবে কচি তাল
 
শীতকালটাও ফলের মেলা
কমলা ,ডালিম, আপেল
নানা রকম কুলের সাথে
জলপাই,  কতবেল ।
 
দেশি ফলে আছে নানা
রোগ প্রতিরোধ গুণ
মজার এসব ফল খেয়ে
কাটুক জীবন ।
continue reading

২৩ ৪২৮

তাপস কিরণ রায়

৬ বছর আগে লিখেছেন

তোতন ও প্রজাপতি (শিশুকিশোর কবিতা)

তোতন কি জানে,ফুলের বাগানে
ফুলের কি হয় শোভা !
ফুলের সে মেলা, রঙের সে খেলা,
দেখে হতবাক,বোবা !
 
চামেলি,গোলাপ,জুঁইয়ের ঝাঁপ,
রজনীগন্ধা,গন্ধরাজ,
গেঁদা,দোপাটি,সব পরিপাটী !
মধুপেরা সেজেছে সাজ। 
 
দেখে মুগ্ধ তোতন,জুড়ায় প্রাণ মন,
ছুটে ছুটে দেখে সে বাগান,
মৌমাছি,প্রজাপতি,বড় দুষ্ট মতিগতি,
মুখে লাগা গুন গুন গান !
 
তোতনের ইচ্ছে, বলো তো কি হচ্ছে ?
ধরবে সে প্রজাপতি,
বারবার ছোটে,পারে না কো মোটে--
ও যে ওড়ে এতিউতি।
 
পাখনায় তার,কত রং বাহার!
সাত রঙা রামধনু,
লাল,নীল,সবুজ,কত যে অবুঝ !
তার সুকোমল তনু ।
 
সে গেলো জিতে,ধরল ও মুঠিতে
সেই প্রজাপতিটিকে ,
সে কি তার আনন্দ,পায়ে নিয়ে ছন্দ,
ছোটে বন্ধুদের দিকে।
 
বন্ধুরা উচ্ছলে,তোতনকে বলে,
মরে গেছে প্রজাপতি,
তোরই এ কাজ,মেরে দিলি আজ,
ও কি করে ছিল ক্ষতি ?
 
তোতন দেখে,একি ! ও পড়ে গেল দেখি !
ও চায়নি মারতে ওকে ,
কেন ও উড়ল না !আকাশটা ঘুরলো না !
কেন ঢলে গেল মৃত্যুর বুকে ?
 
সত্যি হোল তাই, প্রজাপতি নাই,
সে যে একেবারে গেছে মরে,
দু হাত ব্যাপে,মুষ্টি ধরে চেপে,
কি ভুল করেছে ওকে ধরে !  
 
কাঁদে তোতন, কাঁদে ওর মন
সে চায় নি মারতে তাকে,
ও তো জানত না,পায় না সান্ত্বনা ,
আবাধ কান্নায় মুখ ঢাকে ।। continue reading

১৮ ৫০৮

তৌফিক পিয়াস

৬ বছর আগে লিখেছেন

কাব্য লিখার পথে

লিখিতে বসেছি ছড়া,
মাথায় আমার ছন্দ আসে না-
পড়িয়াছে মনে কড়া।
ভাবিয়া ভাবিয়া দিশকুল আমি হারাই নিজের মাঝে,
সকালে বসিয়া সাদা খাতা নিয়ে উঠিলাম সেই সাঁঝে।
ব্যাকুল মনে অবাক হইয়া ভাবিলাম কি করি,
মাকে দেখি, তেড়ে আসিছেন, হাতে নিয়া এক ছড়ি।
"সারা দিন শুধু বসে বসে তুই করলি কিসের কাজ?
বাপের ঘাড়ে বসিয়া থাকিতে সামান্য লাগেনা লাজ?"
আমার মাকে বলি,
"তোমার ছেলে হইবে কবি, দেখিবে জগত সারা।
কবিতা পড়িয়া, মা'র দেখি, সব চুল গুলো হল খাড়া।
"হায়রে প্যাদার বাপ!!!
তোমার ব্যাটারে জন্ম দিয়া করিয়াছি আমি পাপ।"
আব্বা দেখি হ্যাস্ত-ন্যাস্ত
দৌড়ে ঘরে এলেন,
"কি হল? কি হল? কোথায়, কি হল?
কি হল আমার... continue reading

৩৬৬

লিপু রহমান

৬ বছর আগে লিখেছেন

পতাকা

পতাকা
সবুজ রঙে মাঠ হাসে
লাল সূর্য মধ্যে ভাসে
বাংলাদেশের পতাকা
তাকে নিয়ে স্বপ্ন আঁকা ।
 
যুদ্ধ করেছে মুক্তিযোদ্ধা
জীবন দিয়েছে কত বোদ্ধা
সেই লাল সবুজ পতাকার
ছবি এঁকেছে খোকা এবার ।
continue reading

৪৩০

লিপু রহমান

৬ বছর আগে লিখেছেন

ছড়া

       ময়নার রাগ
 
 টিয়ে এবার নাচ শিখবে
   পড়েছে লাল শাড়ি
  খবর শুনে বনের ময়না
   ফিরে এসেছে বাড়ি ।
  নাচের তালে গান গায়
     বন্ধু তাহার আঁখি
 তাই না দেখে রাগ করেছে
    পোষা ময়না পাখি ।
continue reading

৪১৩