"শিশুতোষ ছড়া" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

ছড়াবাজ

৫ বছর আগে লিখেছেন

দৃশ্যপট: নদী আর মানুষ

লাউ কদু কুমড়া, খোল ভরা নাওরে,
হাটবার ধরতে, কষে তরী বাওরে।
চ্যাং ব্যাঙ ফ্যাল ওরে, পাবদাটা রাখ ঐ,
শুটকিটা কাটে কেরে? সেই নাও সাদা ছই।
এঁকে বেঁকে ঢেউ কাটে, নাও বায় জোরসে,
গাঙ পাড় কাদাময়, বাবু চিৎ পড়ছে।
ঘুরে ঘুরে উড়ে ঐ, সাদা সাদা গাঙচিল,
পিচ্চিটা পাড় থেকে, নৌকায় মারে ঢিল।
ডুব দিয়ে ধরে মাছ, হাঁস পানকৌড়ি,
খায় দাদী ফোকলা, পান ছ্যাঁচা মৌরি।
জর্দার তেষ্টায়, বুড়া খোঁজে কৌটা,
নাইওরে যায় বুঝি, ও পাড়ার বৌটা।
উত্তাল উঠে ঢেউ, পথে নাকি গাঙ্গে,
এলো চুলে হেঁটে যায়, শাড়ি পরা ঢঙ্গে!
সাঁতারের পাল্লায়, ছেলেদের কোলাহল,
আঁড়ে দেখে খোকাহারা, মা'র চোখ টলমল। continue reading

৪৩২

দীপঙ্কর বেরা

৫ বছর আগে লিখেছেন

সেদিন

সেদিন গিয়ে রাস্তা ধরে 
যাই চলে যাই তেপান্তরে 
দেখি সেথায় চুপটি করে 
তারার রাশি ঘরে ঘরে 
জ্বালিয়ে আলো সুন্দরে 
কি যেন কি পারাবারে
পায়ে পায়ে জীবন পারে 
বাঁচার গানে মুখর সুরে 
তালে তালে তাল বিহারে 
       -০-০-০-  continue reading

৫৬১

ছড়াবাজ

৫ বছর আগে লিখেছেন

ইন্টারন্যাশনাল ... ...

জাপানের টয়োটা, স্যামসাং কোরিয়া,
আকুপাংচারে গেল, হংকং মরিয়া।
তাতী বাড়ি বঙ্গে, গার্মেন্ট মসলিন,
সুইস চকোলেট আর, পনিরটা মসৃন।
সন্ত্রাসে ইউএস, সেখানেই বন্দুক,
বার্মায় গেলে পরে, গাঁজা খেয়ে খুব সুখ।
যত বেশি ইতালীয়, গ্যাঞ্জাম ততোধিক,
সাগরের গর্জনে, ডাচ হাসে ফিক ফিক।
ইউকে'র লেখাপড়া, ব্রিটিশরা হারামী,
লুতুপুতু বাবুগণ, করে যায় গোলামী।
পর্তুরা করেছিল, মারামারি সাগরে,
জার্মান মেশিনে, গিয়েছিলো সমরে।
ফরাসীর ভালবাসা, কঙ্গোর হীরাতে,
নেপালের শেরপা, হিমালয় চূড়াতে।
অসভ্য আরবে, মেয়ে মারে পাকিরা,
ফুটবল ব্রাজিলে, চেয়ে দেখে বাকীরা।

===
ইহা যদি পাঠ্যপুস্তকের কোনো ছড়া হইতো তবে পরীক্ষায় প্রশ্ন আসিতো: সমূদ্র গর্জনে ডাচদের দন্ত বিকশিত হাসির রহস্য সংক্ষেপে বর্ণনা কর ...
continue reading

৫৫৮

ছড়াবাজ

৫ বছর আগে লিখেছেন

বানানে হয়রান

বর্ষার ধারাপাতে নামে নাকি বিষ্টি,
কুড়ি নাকি গরল তা, শুনে ভাবি মিষ্টি।
শুনেছি ও বিষখানা, জলে নাকি গলে না,
ভেজালের জয়কারে, খেলে কেউ টলে না।
==
ব্যাখ্যা:
বেশ কিছু জায়গায় বৃষ্টিকে আদর করে বিষ্টি লেখে দেখে মাঝে মাঝে সেটা কোন শব্দের টুইস্ট সেটা চিন্তা করে ধাক্কা খেতে হয়। কাছাকাছি আরও অনেক শব্দ আছে যাদেরকে অপভ্রংশে বিষ্টি বলা যেতে পারে। যেমন:  বিষ্ঠা (পয়ঃবর্জ্য), বিশ (twenty), বিষ (গরল, বিষাক্ত দ্রব্য), বিস্ট (beast, জানোয়ার - নিষ্ঠুরতা বা গোয়ার্তূমী অর্থেও)।
(১৯-মে-২০১৪)
continue reading

৪১৯

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

কাঠালের মর্ম বেদনা (ছড়া)

কাঠালের মর্ম বেদনা
নূর মোহাম্মদ নূরু
আজকে আমি বলবো শুধু কাঠাল নিয়ে কথা
জাতীয় ফল হয়েও যার মনে অনেক ব্যাথা।
ইলিশ বাঘ শাপলা দোয়েল সবই হলো রাজা
কাঠাল শুধু নামে রাজা কাজে অধম প্রজা।

আম লিচু আপেল চেরী দাম অনেক চড়া
তবু তাদের কদর বেশী কাঠালের মন মরা।
পুষ্টি বেশী দামে কম সাইজ ও অনেক বড়
তাকে ছেড়ে অন্যফল তোমরা কেন ধরো?

আপেল চেরী নামের সাথে নাম মিলিয়ে রাখে
কাঠাল বলে ডাকলে কেউ চোখ রাঙ্গিয়ে থাকে।
কাঠাল পাতা ছাগলের খুবই প্রিয় খাবার
কাঠাল কাঠ ফার্নিসারে ইচেছ তাকে পাবার।

... continue reading

৫৫৯

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

জিপিএ ভাবনা (কবিতা)

জিপিএ ভাবনা
নূর মোহাম্মদ নূরু

হাজার লাখো ছাত্র-ছাত্রী পরীক্ষাতে পাস,
জিপিএর ছড়া ছড়ি ব্যাপক উল্লাস।
হাজার স্কুল পাশ করেছে নিয়ে শত ভাগ,
প্রশ্নবিদ্ধ জিপিএতে বাড়ছে শুধু রাগ।

পিতা মাতা প্রশ্ন খুঁজে পরীক্ষার আগে,
জিপিএটা যদি জোটে ছেলে মেয়ের ভাগে।
জিপিএর মর্যাদা তাই গেছে ক্ষুন্ন হয়ে,
ফাঁস করা প্রশ্নপত্রে পরীক্ষাটা দিয়ে।

আগে ছিলো বিভাগ শ্রেনী এখন তা জিপিএ,
সোনা রূপা মিলে মিশে এক হয়েছে গিয়ে।
তাইতো এখন সোনা রূপা রাংতা দিয়ে মোড়া,
বাজারেতে বিকাচ্ছে তা গাধার দামে ঘোড়া।

এমনি করে দিনে দিনে কমছে শিক্ষার মান,
জিপিএতে... continue reading

৪৭২

চারু মান্নান

৫ বছর আগে লিখেছেন

লাল ফড়িং এর ডানায় ভুতু সোনা

লিচু তলায়
জ্যোৎস্না রাতে লিচু তলায়
শেয়াল মামা ডাকে,
বাদুড়ের ঝাঁক খায়রে লিচু
ঘন্টা বাঁধা ডালে।
ঘন্টা শুনে কাঠ বিড়ালী
লিচু তলায় যায়,
বাদুড়ে খাওয়া নষ্ট লিচু
শেয়াল মামা খায়।
তাই না দেখে কাঠ বিড়ালী
বুকুল গাছের ডালে,
চুপটি করে ঘুমিয়ে থাকে
বকুল ফুলের ঘ্রাণে।
১৪২১@৩ জ্যৈষ্ঠ, গ্রীষ্মকাল।
continue reading

৫৪৬

চারু মান্নান

৫ বছর আগে লিখেছেন

লাল ফড়িং এর ডানায় ভুতু সোনা

ফিরে এসেছে ফলের মাস
ফিরে এসেছে ফলের মাস
লিচু কাঁঠাল আম,
এই গরমে পেকে সারা
শরীরে ঝরে ঘাম।
কাঠ বিড়ালের রাঙা ঠোঁট
পাকা জামের রসে,
কাঁঠাল তলায় শেয়াল মামা
কাঁঠাল খায় বসে।
আম গাছে আম পেকে
করে টস টস,
তাই না দেখে বুদ্ধ কাক
আম বেজায় টক।
১৪২১@১ জ্যৈষ্ঠ, গ্রীষ্মকাল।
continue reading

৪৩৬

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

কবি ভাবনা (ছড়া)

কবি ভাবনা
নূর মোহাম্মদ নূরু

ভাবছি আমি কবি হবো
লিখবো অনেক কাব্য,
ভালো হোক মন্দ হোক
কটু বা সুখ শ্রব্য।

ভুল ত্রুটি অসঙ্গতি
ধরবো তুলে ছড়ায়,
ঘোড়া কোথায় ডিম পেড়েছে
ভূত এলো কোন পাড়ায়।

কোকিল কেন ডিম দিয়েছে
কালো কাকের বাসায়,
বক কেন সাধু সাজে
মাছ ধরিবার আশায়।

এমন করে অনেক গোপন
করে দেবো ফাঁস,
যখন যেথায় দেখতে পাবো
আমার সর্বনাস।

সকল খানে আমার নাম
থাকবে সবার মুখে,
ধন্য আমার কবি হওয়া
কত আশা বুকে।

প্রকাশ কালঃ
ঢাকাঃ ১৩ মে ২০১৪ ইং
continue reading

৪৫১

চারু মান্নান

৫ বছর আগে লিখেছেন

লাল ফড়িং এর ডানায় ভুতু সোনা

ঝড়ের ছবি আঁকে
আকাশ জুড়ে কালো মেঘ
সাদা পাতায় আঁকে,
ঝড় বৃষ্টি ধেয়ে এলো
খেয়া নদীর বাঁকে।
ঝড়ের পরে ঐ গাঁও টায়
চালাঘর যায় উড়ে,
গাছ গাছালির ডাল ভেঙেছে
মেঠো পথ জুড়ে।
বাঁশঝাড় হতে বকের ছানা
কাঁদা জলে ভিজে,
ভুতু সোনা জল রং এ
ঝড়ের ছবি আঁকে।
১৪২১@ ২৬ বৈশাখ, গ্রীষ্মকাল।
continue reading

৫৭৫