"রাজনীতি" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

গোলাম মোস্তফা

৫ বছর আগে লিখেছেন

নেলসন ম্যান্ডেলার লিগ্যাসি বা সত্যনিষ্ঠতা

    গত ৫ ডিসেম্বর ৯৫ বছর বয়সে নেলসন ম্যান্ডেলা মারা গেলেন। বয়সের হিসেবে এই মৃত্যুকে অকালমৃত্যু বলা যায় না। তবু এই মৃত্যু কেমন এক বিষণœতা নিয়ে আসে ঠিকই। 
বলা হয়, ম্যান্ডেলা ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রতি-বর্ণবাদী বিপ্লবী, ছিলেন রাজনীতিক, দেশের প্রথম কালো রাষ্ট্রপতি ইত্যাদি। বছর খানেকের জন্য জোট নিরপেক্ষ আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদকও হয়েছিলেন। জনহিতৈষী ফিলান্থ্রপিস্ট হিসেবেও নামডাক তাঁর। তবু দক্ষিণ আফ্রিকাকে কেমন করে পাল্টে দেন ম্যান্ডেলাÑ এমন প্রশ্ন তাঁর ক্ষেত্রে চলে না মোটেই। বরং প্রশ্ন হতে পারে যে দেশের অর্থনৈতিক, সামাজিক, পরিবেশ-ধ্বংসকারক ও প্রতি-ইগ্যালিটারিয়ান সামাজিক ব্যবস্থাকে ইতিবাচকভাবে উল্টে দিতে ম্যানুভারের কোন ‘স্পেস’ কি তাঁর ছিল? বা র্বতমানের রাজনৈতিক আগাছার বীজ কি আগেই বপিত... continue reading

৪৮৫

ফাতিন আরফি

৫ বছর আগে লিখেছেন

গোলাম মোস্তফা

৫ বছর আগে লিখেছেন

মুক্তিযুদ্ধার কবরের মাটি পুড়ে বাতাশ ভারি হয় রক্ত পোড়া গন্ধে

 
 
 
 
শত শহীদের বুকের তাজা রক্তে ভেজা
পবিত্র জন্ম ভূমির মাটিতে
আবার ও পরাজিত হায়েনার নগ্ন পদচিহ্ন।
মুক্তিযুদ্ধার কবরের মাটি পুড়ে
বাতাশ ভারি হয়
রক্ত পোড়া গন্ধে।
চারিদিকে সেই পুরনো শকুনের দল
পাগলা কুকুরের মত
মেতে উঠে ধ্বংসের উন্মদনায়।
জননীর চোখের জলে
থোকা থোকা রক্ত জমাট বাঁধে
ইতিহাসের পাতায় পাতায়।
৭১এর পরাজিত হিংস্র দানব
আবারও নখের আচড়ে দাগ কাটে
স্বদেশের জাতীয় পতাকায়।
নরকের নারকীয় আগুনে
ঝলসানো অবুজ শিশু
বীভৎস নারীর নগ্ন শরীর
মানুষ অমানুষের ঘামে ভেজা শ্রম
চেতনার আগুনে চিতা হয়
পিতা পুত্র সন্তান।
তবু নির্লজ্জ বিবেকহীন বিশ্ব মানবতা
দানবের ফাঁসি কাস্টে খোঁজে
মানবিক মানবতা।
 
continue reading

২০ ৬০২

জাওয়াদ আহমেদ অর্ক

৫ বছর আগে লিখেছেন

~ কেন যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইল দুনিয়ার শান্তির জন্য সবচেয়ে বড় হুমকির কারণ -- ১ ~

নোম চমস্কি  
অলটারনেট , সেপ্টেম্বর ৩ , ২০১২ 
আমাদেরকে এই জগত সংসার সম্পর্কে এমনভাবে দেখানো হচ্ছে যে , একজন চাইলেই তার খোলস থেকে বেড়িয়ে এসে কিংবা এই দুনিয়া সম্বন্ধে নতুন করে চিন্তা-ভাবনার পথ অতি সহজে গড়তে পারবেনা । চলেন কিছু ধারণা দেখে আসা যাক।
বর্তমানে ইরানে পূর্বের তুলনায় প্রবল শব্দে যুদ্ধের বাজনা বাজছে।কিন্তুএই ঘটনার উল্টোটাই যদি বাস্তবে ঘটত তা হলে কি হত !!
অর্থাৎ ইরান  তার  মহাশক্তির জোরে ইসরাইলে ধ্বংসাত্মক ও মরণশীল  অস্ত্র নিয়ে নিচুস্তরের যুদ্ধ পরিচালনা করছে।তার(ইরানের) উচ্চপদস্থ রাষ্ট্রপ্রধানেরা উচ্চস্বরে প্রকাশ করছেন যে তারা ইসরাইলের সাথে কোন সমঝোতায় পৌঁছাতে পারছেনা । অন্যদিকে ইসরাইল , কোন প্রকার... continue reading

৪৪৫

ফাতিন আরফি

৫ বছর আগে লিখেছেন

আজ ২১ ডিসেম্বর, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিকাল ৩ টায় স্বরচিত রাজনৈতিক কবিতা পাঠের আসর

“চলুন কবিতায় মুক্তির মিছিলে” এক ঝাঁক তরুণ কবিদের উদ্যোগে ব্যতিক্রমধর্মী কবিতা পাঠের আসর। দেশের বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে কবিদের চেতনালব্ধ কবিতাগুলো কেবল ডায়েরি বন্দি না রেখে চলুন, রাজনৈতিক ব্যক্তিদের দিন বদলের দাবী শুনিয়ে দেই আমাদের বজ্র নিনাদে। কবিদেরকে বজ্রকন্ঠে তার প্রতিবাদ জানাতে আজ ২১ ডিসেম্বর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জাতীয়ভাবে আয়োজন করা হয়েছে স্বরচিত রাজনৈতিক কবিতা আবৃত্তির আসর।
 
যে কবিতাগুলো সামগ্রিক এবং বিশেষ কোন দল বা ব্যক্তিকে সমর্থন অথবা ইঙ্গিত করে লেখা নয়, সে সকল লেখা নিয়ে “Literature With Poetry” গ্রুপের ব্যনারে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।
 
অনুষ্ঠানের প্রাথমিক প্রস্তুতি সভা গত ১৩ ডিসেম্বর ছবির হাট প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে উপস্থিত কবিদেরকে... continue reading

৪৭২

আবু সাঈদ চৌধুরী

৫ বছর আগে লিখেছেন

নিজেকেও এখন আর ক্ষমা করতে পারিনা ।

চারিদিকে এমন কেন হচ্ছে, তবে কি আবার আমরা যুদ্ধের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি ? রাজনৈতিক দোলাচলে আজ দেশটা শেষের কিনারায় এসে দাড়িয়েঁছে । মুক্তিযুদ্ধের সময়ের সাথে অমিল কোথায় ? দেশের সাধারন মানুষের ঘরবাড়ি পুড়ে দেওয়া, মানুষের দেহ ঝলসে দেওয়া, লুটপাট, ব্যবসা বন্ধ করে দেওয়া সবই আবার শুরু হয়েছে । মানুষের জীবন আজ নিরাপত্তাহীন । একদিকে সরকার বলছে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে অন্যদিকে অস্বাভাবিকতা আমরা মেনে নিতে বাধ্য হচ্ছি । এমন করে জীবন কিভাবে চলে ? আমরা কি আবার সেই অন্ধকারে ফিরে যাচ্ছি না !
একটি সম্ভাবনাময় দেশ এই বাংলাদেশ । কি নেই আমার এ দেশে । সবচেয়ে বড় সম্পদ জনশক্তি দিয়ে... continue reading

৩৮৭

বাংলা নিউজ

৫ বছর আগে লিখেছেন

বিরোধীদলীয় নেত্রী এতদিনে মাঠে নামছেন

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের দাবিতে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের টানা হরতাল অবরোধে ঢাকার বাইরে আন্দোলন জোরদার হলেও রাজধানীতে মাঠে পাওয়া যাচ্ছে না দলের শীর্ষ নেতাদের। সরকারের প্রতি প্রবল হুঙ্কার তুলে অন্দোলনের কঠোর কর্মসূচি দিলেও রাজপথে তাদের অনুপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। এ নিয়ে চরম ক্ষুব্ধ সারাদেশের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। শীর্ষ নেতাদের এমন আচরণে ক্ষুব্ধ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া নিজেও। তাই নেতাদের উপর ভরসা না রেখে শিগগিরই মাঠে নামার পরিকল্পনা করছেন দলের হাইকমান্ড।
গত ২৫ অক্টোবরের পর থেকে সরকারের বিরুদ্ধে কঠোর কর্মসূচি পালন করে আসছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোট। বিগত সময়ের আন্দোলন কর্মসূচিতে ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতে স্থানীয় নেতারা রাজপথে থাকলেও বেশিরভাগ অঞ্চলে... continue reading

৪৩১

ঘাস ফুল

৫ বছর আগে লিখেছেন

কালের প্রতিবিম্ব

দেশের বর্তমান প্রেক্ষাপটের জন্য আমরা কেউ বিএনপিকে আবার কেউ আওয়ামীলীগকে আবার কেউ দেই দু’টোকেই দোষ দিচ্ছি।এটা ইদা আমাদের সহজা তপ্রবৃত্তি তেপরিণ তহয়েছে। এতে করে আমাদের সমস্যার মূলে যাওয়া হয়না।তাই সমস্যাগুলো স্থায়ী হয়ে আমাদের মাঝে নিজেদের আসন পাকাপোক্ত করে নিচ্ছে দিনের পর দিন।
তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে আমরা তিনটা নির্বাচন দেখলাম।এর সফলতা এবং বিফলতা নিয়ে কথা বলতে গেলে অনেক কিছু বলতে হবে, যা হয়তো এখানে বলেই শেষ করা যাবেনা।তবে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের তৃতীয়বারের বেলায় জনগণ সুখে থাকলেও আমাদের রাজনীতিবিদরা সুখে ছিলেন না। তারপরও একদল তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা চাচ্ছেন, যারা এর জন্মটাই স্বীকার করতে চান নাই। আবার একদল এটাকে সংবিধান থেকে বিতাড়িত করেছেন,... continue reading

১৫ ৪৫৬

গোলাম মোস্তফা

৫ বছর আগে লিখেছেন

গণতন্ত্র মানে গণশৌচাগার

 
 
 
 
স্বদেশের গণতন্ত্র মানে গণশৌচাগার
যার যেমন ইচ্ছে তেমন করে 
মল মূত্র ত্যাগ করছে।
আর আমরা কতিপয় সাধারণ মানুষ 
নিয়মতান্ত্রিক নিরেপেক্ষতার সন্ধিক্ষণে 
গণতন্ত্রের বদহজম করছি।
যার যে কথা বলার নয় 
সে তা বলছে 
যার যে কথা বলার 
সে তা বলছে না। 
যার যে কাজ করার 
সে তা করছে না 
যার যে কাজ না করার কথা 
সে তা অনায়েসে করছে ।
চারিদিকে পরাধীনতার নামে 
স্বাধীনতার চর্চায় মগ্ন সমগ্র জাতি। 
এখানে গণতন্ত্র মানে 
পুঁজিবাদী ক্ষমতাধর ধনকুবদের 
নিশ্চিত নিরাপত্তার স্বর্গবাস।
দলীয় পৃষ্টপোষকতায় রাতের আঁধারে 
আঙুল ফুলে কলা গাছ।
এখানে গণতন্ত্র মানে 
হত দরিদ্র শ্রমজীবি ও মধ্যবৃত্তের 
নিশ্চিত নিরাপত্তাহীনতায় নরক বাস। 
শোষকের কালো চশমার আড়ালে 
রাতের আঁধারে ভিক্ষাবৃত্তির বেশ। continue reading

১৫ ৪৬৫

জাওয়াদ আহমেদ অর্ক

৫ বছর আগে লিখেছেন

~ * ~ আমরা সবাই সংগ্রামী ~ * ~

রাষ্ট্রের অভ্যন্তরীণ অন্যায়-অবিচার বিরুদ্ধে এবং জন মানুষের সমতার জন্য যুদ্ধে লিপ্ত মানুষের এই সংগ্রামী আন্দোলনকে আজ বিশ্ব-জনতা অভিবাদন জানায়।
মঙ্গলবার সকালে পুলিশ যুকোটি পার্ক নিস্তব্ধ করে দিলেও সংগ্রামী মানুষ আজকে আবার দলে দলে ছুটে আসছে।একটা ব্যাপার পুলিশের জানা দরকার এই আন্দোলন , শাসন ব্যবস্থা দখল করার জন্য নয়। আমরা আমাদের অধিকার ও ন্যায়বিচার এর জন্য সংগ্রাম করছি।আমাদের এই ন্যায়বিচারের দাবি শুধু যুক্তরাষ্ট্রের জন্য নয় বরঞ্চ সারা পৃথিবীর সকল মানুষের জন্য ।
১৭ সেপ্টেম্বর, যুক্তরাষ্ট্রের  সাম্রাজ্যবাদের বিরুদ্ধে এই  বিপ্লবী আন্দোলনে আপনারা একটি নতুন কল্পনা ও একটি নব্য রাজনৈতিক ভাষা অর্জন করেছেন ।আপনারাপ্রচলিত গঠনতন্ত্রের ভেতরে থেকেও এক নতুন অধিকার আদায়ের স্বপ্ন... continue reading

১৪ ৫১২