"রাজনীতি" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

মোঃ শরীফ হাসান

৫ বছর আগে লিখেছেন

মানিক’ এর খোঁজে-

মানিক’ এর খোঁজে-
॥ শরীফ হাসান ॥
আগেকার দিনে রাজা বাদশাহ্দের  শখ ছিল ‘মানিক’ (রতœ) সংগ্রহ করা। ভারত বর্ষের বাদশাহ্রা কোহিনূর নামের এক ‘মানিক’ সংগ্রহ করতে পেরেছিলেন। তবে তা বেশী দিন ধরে রাখতে পারেননি। ১৭৫৭ সালে বৃট্রিশ সাম্রাজ্যবাদের নিকট ভারত বর্ষের পরাজয়ের মধ্যে দিয়ে এ কোহিনূর নামের ‘মানিক’ চলে যায় বৃট্রিশ রাজ ভান্ডারে। যা এখন শোভা পাচ্ছে বৃট্রিশ রাণীর মুকুটে।
এরপর  বাংলাদেশের গণতন্ত্রের যুগে আমরা আর এক ‘মানিক’ এর  খোঁজ পাই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে। বড় এক রাজনৈতিক দলের ছাত্র সংগঠনের নেতা। সত্যিই ছাত্র সংগঠনের ‘মানিক’ । মানিক ধর্ষণের  সেঞ্চুরী উৎসব  পালন করেছিল জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে। অনেকে ভাববেন তারপর? তার আর পর নেই। মানিকের কোন শাস্তি... continue reading

৭৮৮

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে ক্ষমতাধর এবং জনপ্রিয় সাবেক রাষ্ট্রপতি জন এফ কেনেডির ৯৭তম জন্মবার্ষিকীতে শুভেচ্ছা

ইতিহাসের সবচেয়ে নমনীয় চরিত্রগুলোর অন্যতম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩৫তম রাষ্ট্রপতি জন ফিট্‌জেরাল্ড কেনেডি বা জন এফ. কেনেডি। তিনি ১৯৬১ সাল থেকে ১৯৬৩ সালে নিহত হওয়ার আগে পর্যন্ত তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব পালন করেন। একজন রোমান ক্যাথলিক হিসেবে কেনেডিই ছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম প্রেসিডেন্ট। পাশাপাশি তিনি কম বয়সে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হওয়ার ক্ষেত্রে দ্বিতীয় অবস্থান অর্জন করেন। সবার প্রিয় রাষ্ট্রপতি এফ কেনেডির মৃত্যু হয়েছে ৫০ বছর আগে, অথচ অনেকের কাছে এখনো তিনি অনুসরণীয় আদর্শ যাঁকে নিয়ে গল্পের শেষ নেই। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে বহু প্রেসিডেন্ট ক্ষমতায় এসেছেন, আবার চলেও গেছেন। খুব কমসংখ্যক প্রেসিডেন্টকেই মানুষ মনে রেখেছে। মনে রাখা প্রেসিডেন্টদের তালিকায় বেশ ওপরের দিকেই ঠাঁই করে... continue reading

৫৯৪

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

প্রখ্যাত বাঙালি সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ ও লেখক বিপিনচন্দ্র পালের ৮২তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি

উপমহাদেশের খ্যাতিমান রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, সাংবাদিক, লেখক ও ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অন্যতম বাগ্মীনেতা বিপিনচন্দ্র পাল। ব্রিটিশ বিরোধী এই বিপ্লবী বিরল প্রতিভার অধিকারী ছিলেন। তিনি একাধারে রাজনীতিবিদ, লেখক, সাংবাদিক ও সমাজ সংস্কারক। উপমহাদেশের রাজনীতিবিদদের মধ্যে তাঁর বাগ্মীতা ছিল অসাধারণ। ১৮৮০ সালে তিনি প্রকাশ করেন সিলেটের প্রথম বাংলা সংবাদপত্র পরিদর্শন। এছাড়া ১৮৮৩ সালে তিনি 'বেঙ্গল পাবলিক অপিনিয়ন' এবং ১৯৯১ সালে 'নিউ ইন্ডিয়া' পত্রিকার সাথে সম্পৃক্ত ছিলেন। বিপিনচন্দ্র ছিলেন চরমপন্থী রাজনীতির অন্যতম প্রধান প্রবক্তা। ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে তিনি অনলবর্ষী বক্তৃতা দিতেন। বিংশ শতাব্দীর প্রথম দশকে বিপিনচন্দ্র পাল তাঁর জ্বালাময়ী বক্তৃতা ও ক্ষুরধার লেখনীর মাধ্যমে দেশবাসীকে জাতীয়তাবাদী ভাবধারায় উদ্দীপ্ত করে জাগিয়ে তোলেন। তাঁর আহবানে হাজার... continue reading

৬৯৫

জাওয়াদ আহমেদ অর্ক

৫ বছর আগে লিখেছেন

~ ভারতের নির্বাচন, কর্পোরেট নিয়ন্ত্রণ এবং নরেন্দ্র মোদীর জয় ~

৩০ মার্চ  ২০১৪ জর্জিয়া স্ট্রেইটে ভারতের প্রখ্যাত লেখিকা অরুন্ধতী রায়  এর একটি সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়। আমেরিকার ভ্যানকুভারে এপ্রিলের ১ তারিখে একটি পাবলিক লেকচার দেওয়ার জন্য নিউইয়র্কে অবস্থান করছিলেন তিনি। নিউইয়র্ক থেকে টেলিফোনে সাক্ষাৎকারটি দেন তিনি। সাক্ষাৎকারে ভারতের নির্বাচন, কর্পোরেটদের নিয়ন্ত্রণ, প্রধান দুই দলের রাজনীতি, ভারতে ধনী-গরীবের অসমতা, দলগুলির রাজনৈতিক কৌশল, আন্না হাজারে, ভারতের এলিটদের অসমতা নিয়ে কথা না বলা ইত্যাদি বিষয়ে কথা বলেন। তাঁর কথায় ভারতের রাজনীতির অনেক গুরুত্বপূর্ণ দিক উঠে এসেছে। অরুন্ধতী রায় মনে করেন, ভারতের কর্পোরেট শক্তি চায় নরেন্দ্র মোদীকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে দেখতে। তিনি মনে করেন, নরেন্দ্র মোদী প্রধানমন্ত্রী হলে ভারতের গ্রামের গরীব জনগোষ্ঠীর উপর সেনাবাহিনী ছেড়ে দিবেন।


... continue reading

৪৪৩

মাহমুদ আশিক

৫ বছর আগে লিখেছেন

হ্যামিলনের বাশিওয়ালা (দেশীয় ভার্সন)

কোন ক্লাসে পড়ি মনে নাই। শুধু এই টুকু মনে আছে আমার সেই সময়টা আমার সোনালী যুগের। হ্যামিলনের বাশিওয়ালা নামক এক চরিত্রের সাথে পরিচিত হয়েছিলাম। লম্বা আল্লাখেল্লা পড়া, কাধে ইয়া বড় ঝুলন্ত ব্যাগ। বাশি বাজানোর সেই জাদুকর লোকটাকে এখনো দেখতে পেলাম না। শুধু তার কথা ভেবেই যাচ্ছি।
হ্যামিলিনের বাঁশিওয়ালার (Rattenfänger von Hameln)গল্পটি পৃথিবী বিখ্যাত।আজ থেকে প্রায় ৭০০ বছরের বেশি আগে জার্মানির ছোট্ট শহর হ্যামিলিনে ঘটেছিল বিখ্যাত এ ঘটনাটি। 
অনেক অনেক বছর আগে হলেও আমাদের দেশে এই চরিত্রটি অদৃশ্যভাবে এখনো বর্তমান। আমাদের দেশীয় এই বাশিওয়ালা খুব সহজেই আমাদেরকে তার বাশির সুরে মন্ত্রমুগ্ধ করতে পারছে এবং আগামীতেও পারবে। তার মায়াবী বাশির সুরে হোক না তা... continue reading

৪১৯

রাজু আহমেদ

৫ বছর আগে লিখেছেন

ও বঙ্গমাতা ! তোমার আর কত লাশ চাই ?

 
‘জন্মিলে মরিতে হইবে’ নীতিতে এগুচ্ছে বাংলাদেশ । ভূল ক্রমেও একবার জন্ম গ্রহন করিয়া বসিলে অবশ্যই তাকে মৃত্যুর স্বাদ আস্বাদন করিতে হইবে । কেউ যদি ইচ্ছা করিয়া দু’চার দিন বেশি বাঁচিতে চায় তবে তাকে স্মরণ করাইয়া দিতে হইবে ক্ষণজন্মা কবি সুকান্তের অমর কবিতা থেকে দু’ছত্র । যেখানে কবি বলিয়াছেন ‘এসেছে নতুন শিশু, তাকে ছেড়ে দিতে হবে স্থান, জীর্ণ পৃথিবীতে ব্যর্থ, মৃত্যু আর ধ্বংসস্তূপ-পিঠে চলে যেতে হবে আমাদের’ । সুকান্ত তার এ কবিতার চরণ যে প্রেক্ষাপটে লিখুক না কেন বাঙালীদের একাংশ কবিতার বাহ্যিক আদেশানুযায়ী তাদের দায়িত্ব পালন করিয়া চলিছে । কেউ মরতে একটু দেরী করিলে তাকে জোড় করিয়া মারাই যেন তাহাদের দায়িত্ব... continue reading

৪২৪

bb.com uy ij

৫ বছর আগে লিখেছেন

banglarmatiteettuogoomhuotta

banglarmatiteettuogoomhuotta kenuo  tahuole ke  bangladesher manuosser  jibuoner  kuonuo molluo naiye tader kasse
naki  tara suodoo amader balad kete  chaiy
tahuole buolok bage buory  balad debbuo tuboo bangla suokol
balou manuoss gooluke  muoktie  dey tara abung ekti
suostuo suomaj ophar  deyjenuo tara
continue reading

৪১৬

bb.com uy ij

৫ বছর আগে লিখেছেন

minememuhanugor

ami balobassi  anarsuonar bangladeshke  kintuo suonarbangladesh ke eydesher onek  sutruo  asse
jaranake muon  deye baluobassena tari  desser  buoro
suotro
continue reading

৫২০

মোঃ শরীফ হাসান

৫ বছর আগে লিখেছেন

দেশ নিয়ে স্বপ্ন আমরাই পারি পরাশক্তি হয়ে বিশ্ব জয় করতে

দেশ নিয়েস্ব প্ন
আমরাইপারি পরাশক্তি হয়ে বিশ্ব জয় করতে
॥শরীফ হাসান॥
বিশ্ব জয়ের কৌশল একেক সময় একেক ধরণের ছিল।বিশ্বজয়ের জন্য হালাকু খান, চেঙ্গিস খান আর আলেকজান্ডাররা গড়ে তুলেছিল বিশাল সৈন্য বাহিনী।কোন দেশের সেনা বাহিনীর প্রতিরোধ গুঁড়িয়ে দিয়ে, বেশ সহজেই দখল করে নিত অন্যদের ভূ-খণ্ড।এরপর  সেখানে চলতো সীমাহীন লুণ্ঠণ।যাতারা লুণ্ঠণ করে নিয়ে যেতে পারতোনা; তা ধ্বংস করে দিয়ে যেত।তখকার দিনে বিজিতদের হত্যা করা বিজয়ীদের একধরণের অধিকারের পর্যায়ে ছিল।
এরপর বিশ্ব জয়ের কৌশল কিছুটা পাল্টালো।বিশ্ব জয়ের নাটাই রইলই উরোপে আর ঘুড়ি এলো এশিয়া, আফ্রিকা আর ল্যাটিন আমেরিকার দেশে দেশে। যাকে রাষ্ট্র বিজ্ঞানের পরিভাষায় বলা হলো ‘কলোনিয়ালিজম’ বা ‘ঔপনিবেশবাদ’।এপর্যায়ে এশিয়া আফ্রিকা আর... continue reading

১০১৩

মোঃ শরীফ হাসান

৫ বছর আগে লিখেছেন

দেশনিয়েস্বপ্ন আমরাইপারিপরাশক্তিহয়েবিশ্বজয়করতে

দেশনিয়েস্বপ্ন
আমরাইপারিপরাশক্তিহয়েবিশ্বজয়করতে
॥শরীফহাসান॥
বিশ্বজয়েরকৌশলএকেকসময়একেকধরণেরছিল।বিশ্বজয়েরজন্যহালাকুখান, চেঙ্গিসখানআরআলেকজান্ডাররাগড়েতুলেছিলবিশালসৈন্যবাহিনী।কোনদেশেরসেনাবাহিনীরপ্রতিরোধগুঁড়িয়েদিয়ে, বেশসহজেইদখলকরেনিতঅন্যদেরভূ-খণ্ড।এরপর  সেখানেচলতোসীমাহীনলুণ্ঠণ।যাতারালুণ্ঠণকরেনিয়েযেতেপারতোনা; তাধ্বংসকরেদিয়েযেত।তখকারদিনেবিজিতদেরহত্যাকরাবিজয়ীদেরএকধরণেরঅধিকারেরপর্যায়েছিল।
এরপরবিশ্বজয়েরকৌশলকিছুটাপাল্টালো।বিশ্বজয়েরনাটাইরইলইউরোপেআরঘুড়িএলোএশিয়া, আফ্রিকাআরল্যাটিনআমেরিকারদেশেদেশে।যাকেরাষ্ট্রবিজ্ঞানেরপরিভাষায়বলাহলো ‘কলোনিয়ালিজম’ বা ‘ঔপনিবেশবাদ’।এপর্যায়েএশিয়াআফ্রিকাআরল্যাটিনআমেরিকার  পরাজিতরাষ্ট্রগুলোথেকেসম্পদপাচারহতেথাকলোইউরোপেরদেশগুলোতে।এবিশ্বজয়েরলড়াইয়েইউরোপেরদেশগুলোরমধ্যেজার্মানীবেশপিছিয়েছিল।তারাবিশ্বজয়ের ‘সর্টকাট’ বা ‘সংক্ষিপ্ত’ পথধরলো।তারাএশিয়াআফ্রিকাবাল্যাটিনআমেরিকায়যাবারপরিবর্তেইউরোপের ‘নাটাইধারী’ দেশগুলোদখলকরতেচাইলো।চললোদ্বিতীয়বিশ্বযুদ্ধ।ফলাফল- নাটাইধারীদেশগুলোর  হাতেনাটাইরইলঠিকই; কিন্তুঘুড়ি ‘বাকাট্টা’ হয়েগেল।প্রায়সবদেশইকলোনিয়ালিজমেরহাতথেকেবেরহয়েগেল।
 
দ্বিতীযবিশ্বযুদ্ধেরপরবিশ্বজয়েশুরুহলআরএকলড়াই।বিশ্বেরএকঅংশচলেগেলআমেরিকানব্লকেএবংঅপরঅংশ  সোভিয়েতব্লকে।কোনদেশইআরস্বাধীনভাবেটিকেথাকতেপারলোনা।এব্লকটিকিয়েরাখারজন্যচললোবিশ্বেঅস্ত্রপ্রতিযোগিতা।কেকারচেয়েসংখ্যায়বেশীআরকার্যকরঅস্ত্রবানাতেপারে ! ৯০এরদশকেসোভিয়েতইউনিয়নভেঙ্গেযাবারপরবিশ্বেরসবক্ষমতাচলে  গেলআমেরিকারকাছে।এখনবিশ্বজয়েরএকমাত্রপরাশক্তিহলোআমেরিকা।আরতারথেকেঅনেকপিছিয়েরয়েছেকার্যকরীওবহনযোগ্যসরঞ্জামসহ৩৭হাজারপারমাণবিকবোমানিয়েপ্রস্তুতরাশিয়া।সেক্ষেত্রেচীনেরঅবস্থাআরোআরোঅনেকদূরে।
 
এতক্ষণআমরাযেবিশ্বজয়েরবর্ণনাতুলেধরলাম, আসলেকিতারাবিশ্বজয়করতেপেরেছিলবাপারছে? আমরাবললোনা।কিছুসময়েরজন্যহয়তোতারা  কোনভু-খণ্ডদখলেরাখতেপেরেছিল; কিন্তুসেইভূ-খণ্ডেরমানুষেরমনকিতারাজয়করতেপেরেছিল? নিশ্চয়ইনা।ভূ-খণ্ডআরমানুষদুটোনিয়েইদেশ।কিছুসময়েরজন্যকোনভূ-খণ্ডজয়করাকোনক্রমেইদেশজয়বাবিশ্বজয়েরপর্যায়েপড়েনা। 
 
শিরোনামেবলেছিলামপরাশক্তিরকথা।পরাশক্তিবললেহয়তোঅনেকেইবিশ্বকেধ্বংসকরারক্ষেত্রেকেকতোটাশক্তিঅর্জনকরেছেতাবুঝাবে।কিন্তুবিপরীতভাবেআমরাবলতেচাই, বিশ্বকেগড়েতোলারক্ষেত্রেযেঅনেকশক্তিঅর্জনকরেছে, তাকেকিপরাশক্তিবলাযায়না? সেক্ষেত্রেবাংলাদেশকোনঅবস্থাতেই  পিছিয়েনেই।এবারএকেএকেবলিআমাদেরপরাশক্তিহয়েআত্মপ্রকাশেরকথা।
বহুবছরবিশ্বেরবুকেসর্বোচ্চভবনহিসেবেটিকেছিলআমেরিকারশিকাগোশহরের ‘সিয়ার্সটাওয়ার’।এভবনেরস্ট্রাকচারালইঞ্জিনিয়ারছিলেনফজলুররহমানখানসংক্ষেপেএফআরখান।তাকেবিশ্বেরমানুষচিনেস্ট্রাকচারালইঞ্জিনিয়ারেরআইনস্টাইনহিসেবে।তিনিবাংলাদেশেরইসন্তান।কোন  শক্তিপ্রয়োগেনয়- এভবনটিযেসড়কেদাঁড়িয়েআছেতারনামএফআররহমানসড়ক।আমেরিকারমানুষেরভালবাসানিয়েইএসড়কেটিকেআছেএফআরখানেরধাতবভাস্কর্য।
 
প্রায়প্রতিদিনইসংবাদমাধ্যমেআমরাবোমায়গুঁড়িয়েযেতেদেখিকোন  নাকোনইরাকেরভবন।বাংলাদেশেবোমাতৈরীরকেনকারখানানেই।আমাদেরধারণাএদেশেবোমাতৈরীরকোনবিশেষজ্ঞওনেই।সেহিসেবেআমরানিশ্চিতভাবেবলতেপারি -এধ্বংসযজ্ঞেরপিছনেআমাদেরকোনহাতনেই।কিন্তুএকথাটিহয়তোবিশ্বেরঅল্পসংখ্যকমানুষইজানেযে- ইরাকেরযেভবনগুলোধ্বংসহয়েগেল, তারবেশীরভাগইবাংলাদেশীদেরহাতেগড়া।বিশ্বেরম্যাগাস্ট্রাকচার ‘পামআইল্যাণ্ড’ বা  ‘বুর্জদুবাই’ যাইবলিনাকেনযাদেরআমরাপরাশক্তিরদেশবলিতাদেরহাতআরঘামেরতুলনায়বাংলাদেশীরা  সেখানেএগিয়েআছেঅনেকবেশী।
 
নিউজিল্যাণ্ডেরএকটিফলহচ্ছেকিউই।২০১২সালেএফলচাষকরেদেশটিআয়করেছিল১হাজার৩শতকোটিডলার।কিন্তুছত্রাকআক্রমণেরকারণে২০১৩সালেএফলথেকেআয়অর্ধেককমেগেছে।অনেকচেষ্টাকরেওনিউজিল্যাণ্ডসরকারএসমস্যাসমাধানেরকোনকুলকিনারাকরতেপারেনি।তাই  তারাদ্বারস্থহচ্ছেবাংলাদেশের।নিউজিল্যাণ্ডেরমতউন্নতদেশওআজবাঙালীর  জ্ঞানধারবাভাড়াকরতেচায়।কারণখুবইসহজ- বাংলাদেশেরবিজ্ঞানীমাকসুদুলআলমওতাঁরদল২০১২সালেইছত্রাকেরজীবনরহস্যউন্মোচনকরতেপেরেছেন।তাইসেদেশেরসরকারওকৃষকরাআশাকরছেনবাংলাদেশেরবিজ্ঞানীদেরদ্বারাতারাছত্রাকসমস্যারসমাধানকরতেপারবেন।
 
অন্যদিকেদ্বীপমানেইঝড়আরবন্যারসাথেসংগ্রামকরা।আমেরিকারউত্তরওপ্রশান্তমহাসাগরীয়দ্বীপপুঞ্জবাসীরক্ষেত্রেও  এরব্যাতিক্রমনয়।অন্যান্যদ্বীপবাসীরমতোএদেরওপেশামাছধরাআরকৃষিকাজকরা।ঝড়এদেরমাছধরারনৌকাডুবিয়েদেয়, আরবন্যায়তলিয়েযায়ক্ষেতেরফসল।কিন্তুক্ষুদ্রদ্বীপগুয়াম, মাইক্রোনেশিয়া, মার্শালআইল্যাণ্ড, সামোয়া, হাওয়াইদ্বীপবাসীরা৬মাসআগেইজানতেপারেবন্যারপূর্বাভাস।তাইসহজেইরক্ষাকরতেপারেন- তাদেরজীবন, মাছধরারনৌকা-সরঞ্জামওতাদেরজমিরফসল।আরএপূর্বাভাসটিদিয়েথাকেনবাংলাদেশেরবিজ্ঞানীরাশেদচৌধুরী।
 
৯০এরদশকেসোভিয়েতবিপর্যয়েরপররাশিয়াসমাজতন্ত্রেরবিকল্পনিয়েঅনেকগবেষণাকরেছে।বেশিরভাগগবেষণারফলাফলহচ্ছে- সমাজতন্ত্রেরবিকল্পহচ্ছেসমাজতন্ত্র।অন্যদিকেপুঁজিবাদেরবিকল্পখুঁজতেগিয়েআমেরিকা  আবিস্কারকরেছেনতুনএকটিপন্থাতাহলো- ‘সামাজিকব্যবসা’ বা ‘মাইক্রোক্রেডিট’।এতত্ত্বেরজনকড.... continue reading

৪৩৮