Site maintenance is running; thus you cannot login or sign up! We'll be back soon.

"রসরচনা" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

আমি কুলাঙ্গার

৫ বছর আগে লিখেছেন

দূরদর্শন এবং ঝিঁ ঝিঁ পোকা (ক্রিকেট) সমাচার-১

বাল্যকাল হইতেই 'দূরদর্শন' নাম্নীয় চৌকোনা একটা বাক্সের প্রতি ছিল সীমাহীন তীব্র কৌতুহল। ইহার ভিতরে মানব-মানবীরা কি সুন্দর করিয়া কথা বলিয়া হাসাহাসি করিত তাহা দেখিতাম আর মুগ্ধ হইয়া যাইতাম। আর ভাবিতাম-"আহা! আমিও যদি ইহার ভিতরে যাইতে পারিতাম কি মজাই না হইত।" আস্তে আস্তে শৈশব পার করিয়া কৈশোরে উপনীত হইলাম। তখন একটু একটু করিয়া বুঝিতে শিখিয়াছি ভদ্রলোকেরা ইহাকে আদর করিয়া 'টেলিভিশন' নামে অভিহিত করিয়া থাকেন।
কৈশোরে আরেকটা জিনিস নিয়া খুব মাতিয়াছিলাম, উহার নাম ক্রিকেট। কি চমৎকার করিয়া একজন ব্যাট নামের একটা কাঠের বস্তু নিয়া মাঠে নামে(পরে জানিয়াছিলাম তাহার নাম ব্যাটসম্যান)। আরেকজন বল নামের একটা গোলাকার বস্তু ব্যাটসম্যানের দিকে ছুঁড়িয়া মারিয়া তাহার... continue reading

৫২২

দেওয়ান কামরুল হাসান রথি

৫ বছর আগে লিখেছেন

ব্রেকিং নিউজ - বাংলাদেশের জায়গাতে জায়গাতে তেলের খনি আবিস্কার হচ্ছে।

আজকের সকাল বেলা আম্মার গালাগালিতে ঘুম ভেঙে গেলো।একদিকে আম্মা ননস্টপ গালি দিয়ে যাচ্ছে আর আমি বালিশ দিয়ে কানচাপা দিয়ে আছি। যাহোক শেষমেশ আর সহ্য হলোনা শখের বিছানা ছেঁড়ে উঠতে হল। ইদানীং আম্মার অনেক অভিযোগ দেরী করে অফিসে যাস কেন? বিয়ে করবি কবে? ৩৫ বছর হয়ে গেলো। আমি কি বাবা নাতি নাতনির মুখ দেখতে পারবোনা অতি সব সাধারণ মেয়েলি কথাবার্তা। আমি বলি সবি হবে আম্মা তবে আস্তে আস্তে। আম্মা তখন দীর্ঘশ্বাস ছেঁড়ে বলে বাবা তখন আমি হয়তো বেঁচে থাকবোনা।

যাহোক ভাই ইদানীং দেরী করে অফিসের যাওয়ার কারন আমি জব ছেঁড়ে দিয়েছি এবং নিজে একটু ব্যাবসা প্রতিষ্ঠান দাঁড়ানোর... continue reading

৪৯৩

Tanzin T Rizon

৫ বছর আগে লিখেছেন

** বৌ এর রচনা

"বৌ" একটিগৃহপালিতমহিলা মানুষ। সংসারে এরা সচরাচর "গিন্নী" নামেওপরিচিত থাকে । এদের অন্য সকল স্বাভাবিকমানুষেরমতই দুটো হাত, দুটো পা, দুটো চোখসহ সবইআছে।তবেজিনগতসূত্রে "চাপা"
নামক একটা বিশেষ জিন এদের শরীরে অধিক পরিমানে থাকে । যার কারনে চাপাবাজিতেএদের মতদ্বিতীয় আর কোন প্রাণী নেই।
পাশেরবাসারভাবীরসাথেননস্টপ চাপাবাজিতেঅতুলনীয়হবার বিশেষ সুনাম
এদের রয়েছে । আরহিন্দিসিরিয়ালএদের কাছেকেএফসিতেগিয়েমুরগীর হাড্ডিচিবানোরচেয়েও অধিকতম উত্তম।
আর স্বামীরসাথেঝগড়াঝাটিতেজয়লাভ নাকরাপর্যন্ত এরা নিরলস ভাবে সংগ্রাম করেযেতে সক্ষম ।
স্বামীএকটুরাতকরেবাসায় ফিরলেহাড়ি–পাতিল সহ
যাআছেসবকিছু আলোরবেগেছুড়েমারতে এদের কোন দ্বিধানেই।
আরকথায়কথায় নানার ধরনের
আল্টিমেটামের সাথে - বাপেরবাড়িচলেযাওয়ার আল্টিমেটামটা থাকেসবসময়ই।
যদিওকিছুদিনপর বাপেরবাড়ীথেকেনিজেরাই নিজ
দায়িত্তে বিরক্তহয়েফিরেআসে।
আসলকারণটাহল, বাপেরবাড়ীতেগিয়ে সঠিক ভাবে কারো কাছে
কোনপাত্তাপায়নাতাই... continue reading

৮৭৯

দেওয়ান কামরুল হাসান রথি

৫ বছর আগে লিখেছেন

চক দিয়া ব্ল্যাকবোর্ডে একটা গুঁতা মার।

অনেক আগের কথা আমি তখন বি.এ.এফ শাহীন কলেজ (কুর্মিটোলা) শাখাতে পড়তাম। তা আমি ছিলাম স্কুল শাখায় শ্রেণী ছিল চতুর্থ। স্কুলে যাতায়তের মাধ্যম ছিল বাস। প্রতিদিন আমাদের বাস ফার্মগেট পুলিশ বক্সের সামনে দিয়ে ঘুরিয়ে যেত, আমরা ঐখান থেকে স্কুলের উদ্দেশে বাসে উঠে পরতাম। মাজেমধ্যে বাস না আসলে এক বন্ধুর সাথে তার বাবার মোটরসাইকেল অথবা লোকাল বাসে করে স্কুলে চলে যেতাম।

বেশীরভাগ সময় আমাদের বাস আসতে দেরী করতো অথবা অনেক সময় আসতোনা তাই সকালের প্রথম ক্লাসে সবসময় আমরা লেট করেই পৌছাতাম। ক্লাসে ঢুকতে ঢুকতে অনেক সময় দেখা যেত ক্লাসের অর্ধেক শেষ হয়ে গেছে। ম্যাডাম খুব রাগারাগি করতো অনেক... continue reading

৪১০

রাজু আহমেদ

৫ বছর আগে লিখেছেন

অনৈতিক অর্জন কি আত্মতৃপ্তি দিতে সক্ষম?

আমেরিকার অন্যতম সফল সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্রাহাম লিংকন তার ছেলেকে শিক্ষকের কাছে পাঠানোর সময় শিক্ষক মহোদয় সমীপে একখান চিরকুট লিখেছিলেন, যে চিঠিখানা পরবর্তীতে ঐতিহাসিক মর্যাদাসম্পন্ন চিঠিতে পরিনত হয়েছিল । আব্রাহাম লিংকন চিঠিখানার একাংশে লিখেছিলেন, “তাকে শেখাবেন পাঁচটি ডলার কুড়িয়ে পাওয়ার চেয়ে একটি উপার্জিত ডলার অধিক মূল্যবান । .......আমার পুত্রকে আরও শেখাবেন বিদ্যালয়ে নকল করে পাশ করার চেয়ে অকৃতকার্য হওয়া অনেক বেশি সম্মান জনক” । আব্রাহাম লিংকনের মত মহান মানসিকতার মানুষ আমাদের দেশে একজনও পাওয়া যাবে কিনা সন্দেহ ? তবে আব্রাহাম লিংকনের মতে অবশ্যই পাওয়া যাবে । কেননা তিনি বলেছেন, “সব মানুষই ন্যায় পরায়ণ নয়, সব মানুষই সত্যনিষ্ঠ নয় । তাকে... continue reading

৪১২

রাজু আহমেদ

৫ বছর আগে লিখেছেন

মুজিব নাকি জিয়া-মূসা নাকি মুহিত

 
  বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি কে ? এ নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে আওয়ামীলীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা এবং বিএনপি চেয়ারম্যান বেগম খালেদা জিয়ার মধ্যে তুমুল বাকযুদ্ধ চলছে । বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা এবং তার দলের নেতা কর্মীরা দাবী করছে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমান । অপরদিকে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া এবং তার দল দাবী করছে জিয়াউর রহমান দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি । এতদিন দেশের মানুষ জানত বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি । কেননা স্বাধীনতা য্দ্ধু চলাকালীন সময়ে যুদ্ধ পরিচালনার সময়ে যে অস্থায়ী সরকার গঠন করা হয়েছিল সেখানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি করা হয়েছিল ।... continue reading

৩৮৮

আবোলতাবোল বালক

৫ বছর আগে লিখেছেন

একটি সতর্কীকরণ গল্পঃ {পীর সাহেব}

কিছু দিন আগের কথা।সকাল ১২ টার মত হবে।আমি আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে বসে পত্রিকা পড়ছি।পত্রিকায় ভালো কোন খবরের সন্ধানে এ-পাতা ও-পাতা উলটচ্ছি।আমার কাছে ভালো খবর মানে খুনখারাপির খবর।খুনের ঘটনা যতই নির্মম আমার পড়ার আগ্রহ তত বেশি।তো আমি সেরকম একটা দুটা খবরের জন্যই পত্রিকার পৃষ্ঠা উলটে যাচ্ছি।এমন সময় পীর দরবেশে টাইপের একজন আমার সামনে এসে হাজির।পীর দরবেশ টাইপের বলার কারন আপনাদের আগে ব্যাখ্যা করি-উনার দাঁড়িগোঁফ রবিন্দ্রুনাথের মতো লম্বা,হাতে সাপের মতো বাঁকানো লাঠি,গলায় বড় বড় গুটির ৫-৭ টা তব্জি,শরীর ছেঁড়া বস্তায় জড়ানো।শরীর বস্তা দিয়ে ঢাকা থাকায় আমি মনে মনে পীর সাহেবের নাম দিলাম;বস্তাবাবা।বস্তাবাবা আমার সামনে দাঁড়ীয়ে চোখ বন্ধ করে কি জেনো জপছেন... continue reading

৫৩৫

আহমেদ ইশতিয়াক

৫ বছর আগে লিখেছেন

কাল্পনিক কথোপকথন

গলা ব্যাথার কারণে ইদানিং শুধু জাউ খেতে হয়। জাউ দুই একবেলার জন্যে খুব ভালো খাদ্য। কিন্তু প্রায় প্রতিবেলার জন্যে অখাদ্যের কাছাকাছি। গতকাল রাতে এই অখাদ্য একগাদা খেয়ে ফেলেছি। খাওয়া দাওয়ার পর শুয়ে শুয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের "ছন্দ" বইয়ের পাতা উল্টাচ্ছি। কঠিন বই।

"এক সময়ে জ্যোতিদাদারা দূরদেশে ভ্রমণ করিতে গিয়াছিলেন, তেতালার ছাদের ঘরগুলি শূন্য ছিল। সেই সময় আমি সেই ছাদ ও ঘর অধিকার করিয়া নির্জন দিনগুলি যাপন করিতাম। এইরূপে যখন আপনমনে একা ছিলাম তখন, জানিনা কেমন করিয়া... " এই পর্যন্ত পড়ার পর আমার পেটের ভেতর ভুটভাট শব্দ শুরু হলো। বদহজমের প্রাথমিক লক্ষন। মেজাজটা গেল বিগড়ে।

মেজাজ... continue reading

৬২৩

ইকবাল মাহমুদ ইকু

৫ বছর আগে লিখেছেন

"হিমুর হাতে একটি সাটায়ার"

***এই লিখা কাউকে আঘাত করার জন্য নয়। ইহা একটি সম্পূর্ণ ব্যঙ্গধর্মী রম্য রচনা। এর চরিত্র এবং বিষয় বস্তু সম্পূর্ণ কাল্পনিক। বাস্তবে কারো সাথে মিলে গেলে তা শুধুমাত্র কাকতালীয় বলে গন্য করা হবে।***
"হিমুর হাতে একটি সাটায়ার"
চৈত্র মাসের ঝাঁঝাঁ রোদ, যাত্রা পথের উদ্যেশ্য ফার্মগেট। বাস দেখলেই মনে হয় মানুষের ভারে এই বুঝি উল্টে গেল। কাজেই যেতে হবে হেঁটে হেঁটে। শাহবাগ ক্রস করতে না করতেই দেখি কে যেন আমাকে এক গলি থেকে ডাকছে। 
আরে হিমু ভাই না? হ্যা হিমু ভাই ই তো !
তাকিয়ে দেখি আই মরান। এসেই একটা কদমবুচি করে ফেললো।
আই মরান হথাৎ করেই গম্ভীর মুখে বলল_ হিমু ভাই আপনার সাথে... continue reading

৪৮২

রোদের ছায়া

৫ বছর আগে লিখেছেন

সময়ের অনুকাব্য

১।
সময় নিয়ে বড্ড  আছি বিপদে
কাটছে না যে
ভাবছি এখন কি হবে।
 
২।
সময় যেন বোঝার মতো ভারি
চলছি টেনে
সময় নামের গাড়ি।
 
৩।
দিন কাটে তো রাত কাটে না
রাত কাটলে দিন
কি করা যায়? পরামর্শ  দিন।
৪।
আমার চেয়ে তোমার কাছে
সময় এখন দামি
সময় তোমার বড্ড অনুগামী।
 
continue reading

১৪ ৪৯৮