"নারী" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

চিকিৎসা বিজ্ঞানের অন্যতম পথিকৃৎ ডা.জোহরা বেগম কাজীর ১০২তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা

ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল অব ঢাকা খ্যাত বাংলাদেশের চিকিৎসা বিজ্ঞানের অন্যতম পথিকৃৎ, স্ত্রীরোগ ও ধাত্রীবিদ্যায় বিশেষজ্ঞ অধ্যাপিকা ডা. জোহরা বেগম কাজী। এদেশের বাঙালি মুসলিমদের মাঝে তিনিই সর্বপ্রথম মহিলা চিকিৎসক। তার পুরো জীবনই ছিল আর্তমানবতার সেবায় নিবেদিত। তিনি যখন চিকিৎসক হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেন তখন মেয়েরা নানা রকম অজ্ঞতা আর কুসংস্কারের শিকার ছিল। অসুস্থ মেয়েরা চিকিৎসকের কাছে না যেয়ে স্বেচ্ছায় মৃত্যুকে বরণ করে নিত। কারণ তাদের ধারণা চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার চেয়ে মৃত্যুই ভাল। তখন অপচিকিত্‍সা আর বিনা চিকিৎসায় মারা যেত মেয়েরা। মেয়েদের অধিকাংশ রোগকে জিন-ভূতের আছর বলে মনে করত সবাই। সেসময় মেয়েরা মনে করত বাড়ির বাইরে গিয়ে চিকিৎসা করালে মেয়েদের ইজ্জত থাকেনা। একারণে মেয়েরা... continue reading

৪৯১

মেঘ বলেছে যাব যাব

৫ বছর আগে লিখেছেন

মালালার নোবেল পাওয়া নিয়ে কেন প্রশ্ন উঠছে

আমার যতদূর মনে পড়ে গতবছর যখন বারাক ওবামাকে শান্তি নোবেল দেওয়া হয়েছিল তখন আমরা প্রায় কেউই মেনে নিতে পারিনি। কারণ উনি শান্তি প্রতিষ্ঠা না করেই আগাম পুরস্কার পেয়েছেন যা ছিল হাস্যকর। এবং অনেককেই বলতে শুনেছি, মালালাকে দিলেও তো হত বারাক ওবামাকে কেন দেওয়া হল? কিন্তু এবার দেওয়ার পর শুরু হয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। মালালা ইউসুফজাইয়ের নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ের খবর পত্রিকায় আসার পর থেকেই ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে শুরু হয়েছে নিরন্তর বাণী প্রক্ষেপণের মহড়া। এর মধ্যে আবার কেউ কেউ মালালা সম্বন্ধে একবিন্দু না জেনে তার কাজ কিংবা অবদান সম্বন্ধে জ্ঞান না রেখে গালির তুবড়ি ছোটাচ্ছেন অহর্নিশি– “একটা গুলি খায়াই নোবেল পায়া... continue reading

৫৩৬

ফারজানা মৌরি

৫ বছর আগে লিখেছেন

প্রসংগ : হিজাব কখন ফরজ হয়?

 
কোন বিষয় কারো উপর হঠাৎ চাপিয়ে দিলে তা পালন করা মানুষের জন্য কষ্টকর হয়ে যায়। কিন্তু,পর্যায়ক্রমে চাপিয়ে দিলে আর সেটাকে কষ্টকর মনে হয় না। সেজন্যই ইসলাম বেশ কিছু বিধি বিধানকে পর্যায়ক্রমে ফরজ বা আবশ্যক করে দিয়েছে। মানুষের সমস্যা ও কষ্টের কথা চিন্তা করেই একবারে তা ফরজ করে দেয়নি। তন্মধ্যে হিজাবও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিধান।
অধিকাংশ ওলামায়ে কেরামের মতে হিজাবের প্রথম আয়াত পঞ্চম হিজরীতে খন্দকের যুদ্ধের সময় নাযিল হয়েছে। একবারে হিজাবকে ফরজ করা হয়নি; বরং, ধাপে ধাপে তা ফরজ হয়েছে। প্রথমে মানুষকে হিজাবের অভ্যাস করানোর জন্য সুরা আহযাবের ৫৯ নং আয়াত নাযিল হয়েছে। আল্লাহ তায়ালা বলেন- “হে আমার নবী! আপনার... continue reading

৪৬৯

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

বাংলাদেশের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক ও সমাজকর্মী নীলিমা ইব্রাহিমের ৯৩তম জন্মবার্ষিকীতে শুভেচ্ছা

(বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক ও সমাজকর্মী নীলিমা ইব্রাহিম)
নীলিমা রায় চৌধুরী, আমরা যাঁকে চিনি নীলিমা ইব্রাহিম নামে। বাংলাদেশের বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক ও সমাজকর্মী। নীলিমা ইব্রাহিম নানা পরিচয়ে বিধৃত—শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক, সমাজসেবী, সংস্কৃতিবিদ, সংস্কৃতিসেবী, নারী সংগঠক ও মুক্তবুদ্ধির চিন্তক। কোন পরিচয়ের চেয়ে কোন পরিচয় বড়, সেটা নির্ণয় করা খুবই কঠিন। তাঁর অপরাধ ছিল, তিনি অনেককে পেছনে ফেলে অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছিলেন ব্যক্তিগত জ্ঞান ও প্রজ্ঞাকে সম্বল করে। সত্য ও ন্যায়ের প্রতি স্থির, অবিচল এ মানুষটি দেশ, জাতি, সমাজ, সংস্কৃতি, রাজনীতি ইত্যাদি যাবতীয় ধারণাকে নিজের মতো করে বিশ্লেষণ করেছিলেন। নিজের কণ্ঠকে উচ্চারিত করেছিলেন স্বতন্ত্রভাবে। মহীয়সী এই নারী ১৯২১ সালের আজকের দিনে বাগের হাটের মূলঘর... continue reading

৮১৯

ম. গ. রেজওয়ান

৫ বছর আগে লিখেছেন

হিজাবের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্রে মামলা করে তরুণীর জয় ও যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ বাহিনীতে হিজাব পরা মুসলিম নারী!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিমকোর্ট (স্কটাস) এক তরুণীর হিজাব-সংক্রান্ত মামলা পুনর্বিবেচনা করে জানিয়েছেন, পোশাক বিক্রয়কারী এবারক্রমবি অ্যান্ড ফিচ ওই তরুণীকে হিজাবের কারণে চাকরি না দিয়ে বৈষম্য করেছে। দেশটির ইতিহাসে হিজাব-সংক্রান্ত প্রথম কোনো মামলা দায়ের করেন সামান্তা ইমাম ইলিয়াফ নামের ২০ বছর বয়সী তরুণী।
আদালত একই সঙ্গে ওই প্রতিষ্ঠানকে ধর্মীয় পোশাকের অনুমিত দিয়ে ড্রেস কোড পরিবর্তন করতে বলেছে। এবারক্রমবি অ্যান্ড ফিচ স্টোরস ইনকরপোরেশনে হিজাব পরে সামান্তা ইলিয়াফ ২০০৮ সালে বিক্রয়কর্মী পদে চাকরির মৌখিক পরীক্ষা দিতে গেলে তাকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। অবশ্য এ সময় তার ধর্ম পরিচয় জিজ্ঞাসা করা হয়নি।
এরপর তিনি ইক্যুয়াল এমপ্লয়মেন্ট অপরচুনিটি কমিশনের মাধ্যমে ওই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে বর্ণবৈষম্যের অভিযোগে মামলা... continue reading

৪৪৬

বুলি

৫ বছর আগে লিখেছেন

ঝরে পরা বকুল

মেয়ের পরীক্ষা। অনেকদিন পর স্কুলে গেলাম। যেহুতু অল্প সময়, ভাবলাম কিছুক্ষণ বসে থেকে মেয়েকে নিয়েই বাসায় ফিরি।
 
মুখটা দেখলেই বুঝা যায়, এক কালে তিনি মার মার কাট কাট সুন্দরী ছিলেন। এককালে কেন বলছি, হয়ত বছর সাতে'ক আগেই ছিলেন। বিশাল ভুঁড়ি, দ্বিতীয় চিবুক থাকার পরেও তাঁর রুপের ঝলক চোখে পরে। আরেক টু সামনে যে মহিলাটি বসা, তাঁর চোখ দুটিতে বুদ্ধির ঝিলিক ঠিকরে বেরুচ্ছে। মায়াময় মুখের মেয়েটি একটু পর পর টিস্যু দিয়ে ঘামে ভেজা মুখ মুছে নিচ্ছে। একটু ভালো করে খেয়াল করতেই দেখলাম, এখানে বসে থাকা মহিলাদের বয়স ২৫ থকে ৩৫ এর মধ্যেই বেশি। কেউ তাঁর এক সন্তানকে স্কুলে... continue reading

৬০৩

রাজু আহমেদ

৫ বছর আগে লিখেছেন

নারী ও শিশু পাচার রোধে সচেতনতাই একমাত্র বিকল্প

বাংলাদেশ থেকে প্রত্যহ দুর্নীতি ও অনৈতিকতা ছাড়া সবকিছু পাচার হয়ে যাচ্ছে । মেধাপাচার থেকে শুরু করে নারী ও শিশু পাচার নিত্য নৈমিত্তিককার ব্যাপার । দেশের অগ্রগতিতে যারা অবদান রাখতে সক্ষম তাদের উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিভিন্ন প্রলোভনে দেশের প্রতি দায়বদ্ধতা ভূলে দেশ ছেড়ে ভিনদেশে বিলাসিতা খুঁজতে ব্যস্ত । এই শ্রেণীভূক্তরা কিছু কিছু ক্ষেত্রে সফলতার মুখ দেখলেও অধিকাংশ সময়ে বিদেশে ভিখারী দশায় কাটাতে হয় । কেউ কেউ দালালদের প্রলোভনে আকৃষ্ট হয়ে অবৈধপথে বিদেশে পাড়ি জমায় । কিছু সংখ্যক নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছতে পারলেও অনেকের জীবনে নেমে আসে অনাকাঙ্খিত গন্তব্য । স্বপ্নের পরিসমাপ্তি ঘটায় মৃত্যু । যারা বুক ভরা স্বপ্ন লালন করে বহু কষ্ট-ক্লেশ... continue reading

৫১৩

রাজু আহমেদ

৫ বছর আগে লিখেছেন

ধর্ষণ প্রবনতা মনোবিকৃতির বহিঃপ্রকাশ

মানুষ সৃষ্টিগতভাবেই জৈবিক চাহিদাসম্পন্ন জীব । নির্দিষ্ট বয়সে এসে মানুষের এ প্রেষণার বিকাশ লাভ করে  বিবাহের জন্য রাষ্ট্র কখনো ছেলেদের জন্য এটা ২১ এবং মেয়েদের জন্য ১৮ বছর কিংবা আবার কখনো ছেলেদের জন্য ১৮ এবং মেয়েদের জন্য ১৬ বছর নির্ধারণ করে দিলেও এ নীতি খুব বেশি কাজে আসে না । যারা মানসিকভাবে দূর্বল অর্থ্যাৎ ‍কুপ্রবৃত্তির বশবর্তী হয়ে মনের আকাঙ্খাকে বিবেকের বিচার দ্বারা প্রশমিত করে রাখতে না পারে তাদের দ্বারাই সমাজ বিরোধী কাজ বেশি ঘটে । ধর্ষণও এমন একটি সমাজ, রাষ্ট্র ও ধর্মবিরোধী কাজ যা কোন সুস্থ মানুষ অনুমোদন করে না । তবুও অনেক কড়া নিয়ম-নীতির মধ্যেও এমন অনেক ঘটনা ঘটে... continue reading

৩৯০

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

ডায়ানাঃ প্রিন্সেস অফ ওয়েলস এর ১৭তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি

নান্দনিক সৌন্দর্য আর এক চিলতে লাজুক হাসি দিয়ে যিনি পৃথিবীর সব প্রান্তের মানুষের নজর কেড়েছিলেন তিনি প্রিন্সেস ডায়ানা। পুরো নাম লেডি ডায়ানা ফ্রান্সেস স্পেন্সার। যুবরাজ চার্লসের প্রথম স্ত্রী এবং ১৯৮১ হতে ১৯৯৭ পর্যন্ত যুক্তরাজ্যের যুবরাজ্ঞী। ব্রিটিশ যুবরাজ চার্লসের সাথে বিয়ের পরে তার নাম দেয়া হয় ডায়ানা ফ্রান্সেস মাউন্টব্যাটেন-উইন্ডসর।

১৯৮১ খ্রীস্টাব্দে যুবরাজ চার্লসের বিবাহের পর থেকে ১৯৯৬ খ্রীস্টাব্দে বিবাহ বিচ্ছেদ পর্যন্ত তাঁকে হার রয়াল হাইনেস দি প্রিন্সেস অফ ওয়েল্‌স বলে সম্বোধন করা হত। এর পরে রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের আদেশক্রমে তাঁকে শুধু ডায়ানা, প্রিন্সেস অফ ওয়েল্‌স বলে সম্বোধনের অনুমতি দেয়া হয়। বিংশ শতাব্দীর অন্যতম বিখ্যাত সেলিব্রেটি প্রিন্সেস অফ ওয়েলস... continue reading

৬৬১

রাজু আহমেদ

৫ বছর আগে লিখেছেন

নারীরা ঘরে বাইরে সমানে নির্যাতিত হচ্ছে

দেশের মোট জনগোষ্ঠীর প্রায় অর্ধেক নারী । পুরুষতান্ত্রিক সমাজে নারীরা প্রতিনিয়ত নির্যাতনের শিকার হচ্ছে । আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় দিনে দিনে নারী নির্যাতনের সংখ্যা বেড়ে চলছে । ঘরে কিংবা বাইরে কোথাও নারীর পূর্ণ নিরাপত্তা নাই । একটা সময় ছিল যখন নারীরা মুখ বুঝে সকল নির্যাতন সয়ে যেত কিন্তু এখন নারীদের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি হতে শুরু করেছে । তবুও এ সচেতনতা যথেষ্ট নয় । আজও নির্যাতিত নারীদের বুক ফাটা আর্তনাদে সভ্য সমাজ কেঁপে ওঠে । শিক্ষিত অশিক্ষিত নির্বিশেষে নারীরা নির্যাতনের শিকার হচ্ছে । কখনো পাশবিক নিযাতন আবার কখনো মানসিক । মোটকথা কোন না কোনভাবে নারীকে যেন নির্যাতিত হতেই হবে । সমাজের... continue reading

৪২৬