"নারী" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

এ. এম. মনোয়ার

৪ বছর আগে লিখেছেন

আন্তর্জাতিক নারী দিবস-২০১৫

নারীদের শ্রম, অধিকার এবং সম্মানকে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্যে সারা বিশ্বব্যাপী ১৯১১ সাল থেকে ৮ মার্চ কে আন্তর্জাতিক নারী দিবস হিসেবে পালন করা হয়। এই নারী দিবসটি পালনের পেছনে রয়েছে নারী শ্রমিকের প্রাপ্য অধিকার আদায়ের এক দীর্ঘ সংগ্রামের ইতিহাস। ১৮৫৭ খ্রিস্টাব্দে নিজেদের অধিকার আদায় এবং কাজের অমানবিক পরিবেশের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের রাস্তায় নেমেছিলেন অসংখ্য সুতা কারখানার নারী শ্রমিক। যাদের উপর সরকারি আইন-শৃংখলা বাহিনীরা অমানবিকভাবে দমন-পীড়ন চালায়। এবং যার কারনেই আজকের নারী দিবস পালন করা। বিবর্তনের হাত ধরে আজ সামাজিক চিন্তাধারার পরিবর্তন হয়েছে। বিভিন্ন দেশে আন্তর্জাতিক নারী দিবস পালনও হচ্ছে কিন্তু, নারীরা কি আজ সত্যিকার অর্থে তাদের... continue reading

৫৭০

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

আর্ন্তজাতিক নারী দিবসে বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সকল নারীদের প্রতি আমাদের গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা

৮ মার্চ, আন্তর্জাতিক নারী দিবস (আদি নাম আন্তর্জাতিক কর্মজীবী নারী দিবস)। সারা বিশ্বব্যাপী নারীরা একটি প্রধান উপলক্ষ্য হিসেবে এই দিবস উদযাপন করে থাকেন। ‘বিশ্বে যা কিছু মহান সৃষ্টি চির কল্যাণকর/ অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর।’ একথা অনস্বীকার্য যে, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আমাদের দেশের নারীর অগ্রগতির জোয়ার দৃশ্যমান। বর্তমানে ১ কোটি ৬৮ লাখ নারী কৃষি, শিল্প ও সেবা—অর্থনীতির বৃহত্তর এই তিন খাতে কাজ করছেন। অর্থনীতিতে নারীর আরেকটি বড় সাফল্য হলো, উৎপাদনব্যবস্থায় নারীর অংশগ্রহণ বেড়েছে। মূলধারার অর্থনীতি হিসেবে স্বীকৃত উৎপাদন খাতের মোট কর্মীর প্রায় অর্ধেকই এখন নারী। এ খাতে ৫০ লাখ ১৫ হাজার নারী-পুরুষ কাজ করেন। তাঁদের মধ্যে নারী ২২... continue reading

৬০৯

সোহেল আহমেদ পরান

৪ বছর আগে লিখেছেন

আন্তর্জাতিক নারী দিবস: সর্বস্তরের নারী ও আমাদের সমাজ

একঃ
নারী ও পুরুষ মানব জাতির দুটি রূপ। সৃষ্টিকর্তা এ পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন। সৃষ্টি করেছেন পৃথিবীর মানুষ, গাছপালা, পশু পাখি, ধূলিকণা, সাগর নদী, পাহাড় পর্বত সব। মানুষকে সৃষ্টি করা হয়েছে সৃষ্টির সেরা জীব হিসেবে। পৃথিবীর চালিকাশক্তির প্রধান ভূমিকায় রেখেছেন মানুষকে মহিয়ান সৃষ্টিকর্তা। মানুষ পৃথিবীতে এসেছে নর এবং নারী হয়ে। ‘আদম’ এবং ‘ঈভ’ মানবজাতির আদি পিতা ও মাতা। সৃষ্টির শুরু থেকেই পৃথিবী চলছে নর তথা পুরুষ ও নারীর যৌথ প্রচেষ্টায়। একা নারী কিংবা একা পুরুষ বড় কিছু করতে পারেনি কখনো। আর তাই আমাদের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম ‘নারী’ কবিতায় বলেছেনঃ “কোন কালে একা হয়নি ক জয়ী পুরুষের তরবারী
প্রেরণা দিয়েছে,... continue reading

৫১২

রাজু আহমেদ

৪ বছর আগে লিখেছেন

সমঅধিকার নয় বরং নারীর অধিকার নিশ্চিত করা জরুরী

আল্লামা রুমির ভাষায়, ‘নারী বিধাতার ছায়া, সে নহে কামিনী/নহে সে যে সৃষ্ট, তারে স্রষ্টা অনুমানী’ । মানব সভ্যতার সূচনা লগ্ন থেকেই নারী মহিয়সী, নারী জয়তু, নারী বসুন্ধরা, মা-জান্নাত ইত্যাদি লাখো উচ্চতর সম্মানসূচক শব্দে-বাক্যে কিংবা বাণীতে নারী সংজ্ঞায়িত হচ্ছে । অজ্ঞতার অন্ধকারে পুরুষ কর্তৃক নারী জাতিকে কখনো কখনো অবহেলা করা হয়েছে তবে শিক্ষার আলোকিত শিখা নারীকে তার সম্মানজনক স্থানে আসীন করতে খুব বেশি সময় নেয়নি । নারীকে ঘরকুনো স্বভাবে আবদ্ধ রাখতে পুরুষের পুরুষতান্ত্রিক মনোভাব যতটুকু দায়ী তার চেয়ে ঢের বেশি দায়ী সমাজ সৃষ্ট কু-প্রথা । যদিও সামাজিক প্রথা মানুষের সৃষ্টি তবুও সে মানুষ শুধু পুরুষের মধ্য থেকেই নয় বরং নারীর অংশগ্রহনেই তা... continue reading

৭৬০

নাজনীন পলি

৪ বছর আগে লিখেছেন

কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি

আপনাদের ব্লগে একজন পাঠক কি ধরণের মন্তব্য লিখতে পারে । আমার জানা মতে ব্লগে লেখা কেমন হয়েছে , ভুল ধরিয়ে দেখা এবং কিভাবে লিখলে গল্পটা আরও ভালো হত বা কোন অংশ বাদ দিলে ভালো হত পর্যন্তই লেখা যায় । 
কিন্তু আমাকে উদ্দেশ্য করে কিছু বললে আমি নারী বলে , আমার সুন্দর ঠোঁট আছে বলে আমি প্রশংসা পাই , লেখাতে লাইক পাই এ ধরণের মন্তব্য কেন আসবে ? ব্লগে লেখা দিয়েছি বলে নিশ্চয় অপমানিত হতে পারি না । 
আপনাদের কি এসবের বিরুদ্ধে কিছুই করার নাই ?  continue reading

১৯ ৪৬১

রাজু আহমেদ

৪ বছর আগে লিখেছেন

মা তুমিও বধূ ছিলে, বধূ তুমিও মা হবে

পৃথিবীর ইতিহাসে যে সকল যুদ্ধে অস্ত্র ব্যবহৃত হয়েছে তার প্রতিটির সমাপ্তি ঘটেছে । কৌশল ও অস্ত্রের শক্তির কাছে একপক্ষ বিজয়ী হয়েছে এবং অন্যপক্ষ বিজিতের গ্লানি বহন করেছে । এ সকল যুদ্ধে কোটি কোটি মানুষের জীবনহানি, লাখ লাখ কোটি টাকার সম্পদ বিনষ্ট কিংবা বছরের পর বছরব্যাপী মূল্যবান সময় ব্যয় হলেও একটি সময়ে সকল দ্বন্দ্বের পরিসমাপ্তি হয়েছে । ইতিহাসের সর্ববৃহৎ দু’টো বিশ্বযুদ্ধও থেমে গেছে । শত্রু মিত্রে পরিণত হয়েছে আবার মিত্র শত্রুতে রুপ নিয়েছে । আচক্রবালভাবেই দু’চিরশত্রুর মধ্যকার কোন লড়াইও কখনো চিরস্থায়ী রূপ লাভ করেনি আবার করবেও না কভূ । তবে পৃথিবীর ইতিহাসে একটি মাত্র লড়াই কোনদিন শেষ হবে বলে মনে হয়না ।... continue reading

৪৪৮

রাজু আহমেদ

৪ বছর আগে লিখেছেন

নামে বেনামে চলছে যৌতুকের আদান প্রদান

নারী পুরুষের সম্পর্কের সবচেয়ে দৃঢ় বন্ধন সৃষ্টি হয় বিবাহের মাধ্যমে । অনেক রক্তের সম্পর্কের চেয়েও এ সম্পর্ক গভীর হয় বললেও অতিরঞ্জিত করা হবে বলে মনে হয়না । বৈবাহিক বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার মাধ্যমে নারী পুরুষের মধ্যে সৃষ্টি হয় সু-গভীর আত্মীক সম্পর্ক । যে সম্পর্ক বলে বোঝানোর বিষয় নয় বরং উপলব্ধির বিষয় । ভিন্ন পরিবেশে বেড়ে ওঠা একটি ছেলে অন্য পরিবেশের একটি মেয়ের সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে এতটা আপন হওয়া সত্যিই বিস্ময়ের বিষয় । দেশের সীমানা, জাতির পরিচয় কিংবা ধর্মের বাধা পেড়িয়েও এ সম্পর্ক তৈরি হয় । সম্পূর্ণ অচেনা দু’জন নারী পুরুষও বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে মূহুর্তের মধ্যে চির আপন হয়ে... continue reading

৪০০

কবির তালুকদার।

৪ বছর আগে লিখেছেন

হিজাব।

আজ আমি আপনাদের সাথে আমার হিজাব শুরু করার আগের ও পরের জীবনের কথাশুনাতে চাই। আমি ২০ বছর বয়সী একজন মুসলিম মেয়ে যার জন্ম আরব উপসাগরীয়এলাকায়-ইসলামের আদি জন্মভূমিতে।আমি বিশ্বাস করতাম হিজাব তেমন কোনগুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়।যদিও আমার মা হিজাব পড়তেন, তিনি আমাকে বা আমারবোনকে তা পড়ার ব্যাপারে জোর করেন নি। তিনি মনে করতেন কাজটা স্বতঃপ্রণোদিতহয়ে করা উচিত, নতুবা তার আওতার বাইরে চলে গেলেই আমরা হিজাব পড়া ছেড়েদিব। আমি মনে করি ধারণাটা কিছু মাত্রায় সঠিক।
অথবা আমরা যখন বড় হব তখন হিজাব পড়াটাকে আমাদের কাছে খুব কঠিন মনে হবে।কারণ সারাজীবন ধরে একটি বিষয়ে অভ্যস্ত হওয়া আর তারপর হঠাৎ করে সেটা বদলেফেলা খুব... continue reading

৫২৫

রাজু আহমেদ

৪ বছর আগে লিখেছেন

পাকিস্তানের এ ক্ষত কোন দিন শুকাবে না

পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতা অর্জন করে যখন আমাদের বিজয় উৎসবের ৪৩তম বার্ষিকি পালন করছি ঠিক সেই ১৬ ডিসেম্বর পাকিস্তানের পেশোয়ার শহরের সেনাবাহিনী পরিচালিত আর্মি পাবলিক স্কুলে বর্বর তালেবান হামলায় পৃথিবীর বৃন্ত থেকে ঝড়ে গেল ১৩৫ জন শিক্ষার্থীর জীবনসহ দেড় শতাধিক মানুষের তরতাজা প্রাণ । যে মাসে পাকিস্তানের ১৭ বছর বয়সী মালালা পৃথিবীর সবচেয়ে মূল্যবান পুরস্কার আলফ্রেড নোবেল প্রবর্তিত নোবেল পুরস্কার গ্রহন করল সে মাসেই তার বয়সী কিংবা তার থেকে কম বয়সী ১৩৫ জন শিক্ষার্থীর জীবন কেঁড়ে নিল পাকিস্তানের উগ্রপন্থি তালেবান গোষ্ঠী । মাত্র ৬ জনের একটি দল মুহুর্তের হামলায় নিভিয়ে দিল মালালার উত্তরসূরীদের সকল স্বপ্ন । পেশোয়ারের এ ট্র্যাজেডী প্রকাশ... continue reading

৪৪৬

রাজু আহমেদ

৪ বছর আগে লিখেছেন

মানবাধিকার সনদ ও প্রেক্ষিত বাংলাদেশ

জাতিসংঘের নির্দেশনায় বিশ্বের সকল দেশে প্রতিবছর ১০ ডিসেম্বর পালন করা হয় মানবাধিকার দিবস । ১৯৪৮ সালের ১০ ডিসেম্বর প্যারিসে অনুষ্ঠিত জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে মানবাধিকার সনদ ঘোষিত হওয়ার পর থেকে প্রতি বছর নির্ধারিত তারিখে এ দিবসটি উদযাপন করা হচ্ছে । এছাড়াও, ‘সার্বজনীন মানব অধিকার সংক্রান্ত ঘোষণাকে’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এ তারিখকে নির্ধারণ করা হয়েছে । সার্বজনীন মানবাধিকার ঘোষণা ছিল দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পরবর্তী নবরূপে সৃষ্ট জাতিসংঘের অন্যতম বৃহৎ অর্জন । সার্বজনীন ঘোষণাপত্রের মূখবন্ধে বলা আছে, ‘যেহেতু মানব পরিবারের সকল সদস্যের সহজাত মর‌্যাদা ও সম-অবিচ্ছেদ্য অধিকার সমূহের স্বীকৃতি বিশ্বে স্বাধীনতা, ন্যায়-বিচার ও শান্তির ভিত্তি; যেহেতু মানবিক অধিকার সমূহের প্রতি অবজ্ঞা ও ঘৃণা মানবজাতির বিবেকের পক্ষে... continue reading

৪৪৩