"দিনপঞ্জি" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বাংলাদেশে অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের জনক, শহীদ সাংবাদিক সিরাজুদ্দীন হোসেনের ৮৬তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা

এ দেশের সংবাদপত্র জগতের অন্যতম পুরোধা, মুক্তিযুদ্ধের নির্ভিক সৈনিক শহীদ বুদ্ধিজীবী সিরাজুদ্দীন হোসেন। পাকিস্তান আমলে যে কয়জন সাংবাদিকের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে সাংবাদিকরা ঐক্যবদ্ধ হয়েছিলেন এবং বাঙালী জাতীয়তাবাদী আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছিলেন, সিরাজুদ্দীন হোসেন ছিলেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম। ১৯৫২ সালে দৈনিক আজাদের বার্তা সম্পাদক থাকা অবস্থায় মহান ভাষা আন্দোলনের সপক্ষে তার সাংবাদিকতা বাংলাদেশের সাংবাদিকতা জগতে তার অসাধারণ কীর্তি বলে পরিগণিত। সিরাজুদ্দীন হেসেন ছিলেন দৈনিক ইত্তেফাকের কার্যনির্বাহী ও বার্তা সম্পাদক। ব্রিটিশ আমলের শেষভাগ থেকে শুরু করে তার সাংবাদিকতা জীবন স্বাধীনতা যুদ্ধ পর্যন্ত ব্যপ্ত। এই পুরো সময়কালে দেশের সকল আন্দোলনের সঙ্গে তার ছিল সরাসরি যোগাযোগ। তিনি তার ক্ষুরধার... continue reading

৬৩৬

রাজীব নূর খান

৪ বছর আগে লিখেছেন

কলমের চেয়ে অস্ত্রের শক্তিই বেশি

প্রত্যেকটা মানুষের নিজস্ব মতামত থাকতেই পারে... এটা তার নিজস্ব ব্যাপার। আমাদের কাজ স্রেফ নিজেদের হেফাজত করা, কারন ধর্মের হেফাজত স্বয়ং সৃস্টিকর্তা করেন। প্বিত্র কোরান শরীফে আল্লাহ বলেছেন- কেউ যদি কোন মানুষকে হত্যা করে তবে সে যেন পুরো মানব জাতীকেই হত্যা করলো, সেখানে খোদার দোহাই দিয়ে যারা এমন কাজ গুলো করছে তারা কি সত্যি কোন ধর্ম ধারণ করে? অভিজিৎ রায় ছিলেন একজন বিজ্ঞানমনষ্ক, যুক্তিবাদী, মুক্তমনা মানুষ।
ব্লগেও বাক স্বাধীনতা নেই । আমাদের প্রিয় জন্মভূমির ভবিষ্যৎ নিকষ কালো অন্ধকার। এ দেশে কোন মুক্তচিন্তার মানুষ টিকে থাকতে পারবে না। এই মৃত্যু উপত্যকাই এখন আমার দেশ। এখানকার সবকিছু নষ্টদের অধিকারে চলে গিয়েছে। সবকিছু... continue reading

৩৫৪

রাজীব নূর খান

৪ বছর আগে লিখেছেন

দেশটাকে পঙ্গু করে লাভ টা কি ভাই?

কোনো ব্যক্তিকে খুন করার অধিকার কারো নেই। দোষী হলেও দায়িত্বটা আপনার নয়। ব্লগার হত্যার ব্যাপারটা বাংলাদেশে আস্তে আস্তে অনেক প্রকট হচ্ছে। মুক্তমনা'রা কলম দিয়ে লিখেছে, এগুলোর জবাবও উচিত কলম দিয়ে দেওয়া, চাপাতি দিয়ে নয়। যে লেখাটা ভাল লাগবে না, সেটা বর্জন করলেই হয়। যারা চটি গল্প গুলো লেখে- সেগুলো অবশ্যই ইসলাম বিরোধী তাদের জন্য তো কেউ চাপাতি হাতে নেয় না। অভিজিৎ কিন্তু শুধু লিখেছে, কাউকে শারীরিক ভাবে আঘাত করেনি, তা যত খারাপ লেখাই হোক। তার লেখা আপনার ভালো না লাগতেই পারে। সেক্ষেত্রে তার লেখা না পড়লেই পারেন। অথবা তার চেয়েও ১০০ গুন কঠিন ভাষায় তার প্রতিবাদ করতে পারেন। কিন্তু... continue reading

৩৫১

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

৫২' এর ভাষা আন্দোলনের চেতনা ও আমাদের প্রাপ্তি

শোকে বিহবল. গৌরবদীপ্ত বাঙালীর জীবনে অনন্য দিন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আজ। মায়ের ভাষায় কথা বলার অধিকার আদায়ে বুকের রক্ত ঢেলে গৌরব অর্জনের দিন ২১ ফেব্রুয়ারি। ১৯৫২ সালের রক্তঝরা ভাষা আন্দোলনের মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠিত একুশ এখনো সকল গনতান্ত্রিক আন্দোলনে শক্তি ও প্রেরণার উৎস। তবে এটা অত্যন্ত দুঃখের বিষয় যে সঠিক পদক্ষেপ আর যথাযথ উদ্যোগের অভাবে এখনা সর্বস্তরে বাংলা ভাষার সঠিক ব্যবহার ও মর্যদা নিশ্চিত করা যায়নি। তাইতে ভাষা আন্দোলনের ৬২ বছর পরেও আদালতসহ সর্বস্তরে বাংলা ভাষা প্রচলন আইন কার্যকর চেয়ে হাইকোর্টে রিট করতে হয়। গত বছর ১৬ ফেব্রুয়ারি আদালতে রিট আবেদনটি দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এ্যাডভোকেট ড. মোঃ ইউনুছ... continue reading

১১৩৩

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বিংশ শতাব্দীর অন্যতম আধুনিক বাংলার প্রধান কবি জীবানানন্দ দাশের ১১৬তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা

বিংশ শতাব্দীর আধুনিক বাংলার অন্যতম প্রধান কবি জীবানানন্দ দাশ। তিনি বাংলা কাব্যে আধুনিকতার পথিকৃতদের মধ্যে অগ্রগণ্য এবং রবীন্দ্র-পরবর্তীকালে বাংলা ভাষার প্রধান কবি হিসাবে সর্বসাধারণ্যে স্বীকৃত। জীবদ্দশায় অসাধারণ কবি হিসেবে পরিচিতি থাকলেও তিনি খ্যাতি অর্জন করে উঠতে পারেননি। এর জন্য তার প্রচারবিমুখতাও দায়ী; তিনি ছিলেন বিবরবাসী মানুষ। মর্মগত, সুমিত, নিরাবেগ ও সুস্থির গদ্যরীতির জন্যে তিনি বিশিষ্ট। গ্রামবাংলার ঐতিহ্যময় প্রকৃতি তাঁর কাব্যে রূপময় হয়ে উঠেছে। আধুনিক নাগরিক জীবনের হতাশা, নিঃসঙ্গতা, বিষাদ ও সংশয়ের চিত্র তাঁর কবিতায় দীপ্যমান। স্বচ্ছ, সুন্দর, শান্ত ও স্নিগ্ধ রোমান্টিক কবিতার স্রষ্টা হিসেবে তিনি স্মরণীয় ও বরণীয়। তাঁর নিসর্গ বিষয়ক কবিতা ষাটের দশকে বাঙালির জাতিসত্তা বিকাশের আন্দোলনে ও... continue reading

৬৫১

তানিয়া তাবাসসুম

৪ বছর আগে লিখেছেন

এলোমেলো ভাবনা - ১৭.০২.১৫ ইং

শুনছিলাম কবিগুরুর 'বঁধু কোন আলো লাগলো চোখে' গানটি।
একটি গান সুরের ইন্দ্রজালিক মুর্ছনায় আমাকে এভাবে বেদনায় ভারাক্রান্ত করবে কখনো ভাবি নাই।
একজন মানুষ এতো আবেগ কিভাবে ধরে রাখে? কিভাবে এতো চরম অনুভূতি দিয়ে অপরের হৃদয়ে নাড়া দিতে পারে?
অনেক ভেবেছি। আজো ভাবলাম। ভেবে ভাবনার সীমাহীন বিস্তীর্ণ পারাপারকে পেরিয়ে আরো দূরে চলে গেলাম।
কিন্তু আমার আর ফেরা হল না। আমি না পারছিলাম সামনে যেতে। না পিছিয়ে আসতে।
একটি নির্দিষ্ট যায়গায় আটকে থেকে আমার কানে ভেসে আসছিল সেই অমীয় সুধাবানী-
'অস্ফুট মঞ্জুরি কুঞ্জ বনে
সঙ্গীত শূণ্য বিষণ্ণ মনে'
বিষন্নতার বেলাভূমে আমি এক ক্লান্ত পথিক হেঁটে হেঁটে পাড়ি দিতে চাইলাম দুস্তর পারাবার! continue reading

৪৭৭

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

১৪ ফেব্রুয়ারি Valentine Day বা বিশ্ব ভালোবাসা দিবসঃ ভালোবাসার জয়গানে মুখরিত হোক আমাদের চারিদিক

আজ ১৪ ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বা Valentine Day। প্রতি বছর একযোগে সারা বিশ্বে এই দিবসটি পালন করা হয়। পৃথিবী যুদ্ধের নয়, বিচ্ছেদের নয়, সহিংসতার নয়, ভালোবাসারই জয় হয়েছে সবসময় এমন চিরন্তন প্রেমের মহিমায় সারাবিশ্বে পালিত হবে দিবসটি। পৃথিবীতে যতগুলো বিশেষ দিবস রয়েছে তার মধ্যে তরুণ-তরুণীদের নিকট এই দিনটি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ঋতুরাজ বসন্তের ১ম দিনের রেশ কাটতে না কাটতেই এই দিনটি আমাদের সামনে হাজির হয়। আজ আমরা যে ভালোবাসা দিবস পালন করছি এর পেছনে অনেক ইতিহাস রয়েছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে মত পার্থক্যও রয়েছে। এ ইতিহাসটির বয়স সতের শত সাঁইত্রিশ বছর হলেও ‘বিশ্ব ভালবাসা দিবস’ নামে এর চর্চা শুরু হয়... continue reading

১৩১৮

জাকিয়া জেসমিন যূথী

৪ বছর আগে লিখেছেন

বই আলোচনাঃ প্রেতসাধক নিশি মিয়া

বইমেলা মানেই নতুনদের বই।
নিজের বই।
বন্ধুর বই।
প্রিয়জনের বই।
 
এবারে বইমেলায় প্রথম দিন না গিয়ে প্রথম শুক্রবার যাওয়ার ইচ্ছে জমিয়ে রেখেছিলাম। তবু তৃতীয় সন্ধ্যায় উদ্দেশ্য না থাকলেও অন্য একটা কাজে বইমেলায় যাওয়া হয়েছিলো। বাসা থেকে বের হবার আগেই তা জানা হয়েছিলো বলেই ক্যামেরাটাও ব্যাগে পুরে নিয়েছি। যেহেতু প্রথম আগমন তাই সেদিন শুধু ঘুরে ঘুরে স্টল পরিদর্শন করাই মূখ্য। এভাবে অন্যপ্রকাশ, ভাষাচিত্র, জ্যোতিপ্রকাশ, গাজী প্রকাশনী, জাগৃতি, শ্রাবণ স্টলকে সরিয়ে প্রিয়মুখ প্রকাশনী খুঁজছিলাম। কারণ ওখানে ‘ প্রেতসাধক নিশিমিয়া’ নামের একটা বই বেরুচ্ছে। এর প্রচ্ছদ ও প্রকাশ কাহিনী অনেকবার ফেসবুকে চোখে পরেছে। যদিও ভৌতিক কোন গল্প পাঠে আমি সেরকম... continue reading

১৬ ৭৯০

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

রুশ সাহিত্যের জনক, রাশিয়ার প্রধান জাতীয় কবি আলেক্সান্দর পুশকিনের ১৭৮তম মৃত্যুবার্ষিকীেত শ্রদ্ধাঞ্জলি

আধুনিক রুশ সাহিত্যের স্থপতি কবি আলেকজান্ডার পুশকিন। পুরো নাম আলেক্সজান্ডার সের্গেয়েভিচ পুশকিন। যিনি রাশিয়ার সেক্সপিয়ার নামে খ্যাত। অকালে মারা গেলেও পুশকিন আজো আধুনিক রুশসাহিত্যের জনক বলে স্বীকৃত। ভাষার উপর আশ্চর্য দক্ষতা, প্রাঞ্জলতা ও গভীরতা ছিলো তাঁর সাহিত্যের মূল বৈশিষ্ট্য। পুশকিন রাশিয়ান রোমান্টিজম এর প্রদর্শক হিসাবে স্বীকৃত এবং প্রেম বিষয়ক কবি হিসাবে জগদ্বিখ্যাত। সমসাময়িককালে তিনি শুধু রাশিয়ান হিসাবেই নয়, বরং সমগ্র পৃথিবীতে অত্যন্ত শক্তিমান কবি হিসাবে স্বীকৃত। মূলতঃ কবি হলেও তিনি নাটক, গল্প, মহাকাব্য, উপন্যাসও লিখেছেন। তাঁর বিখ্যাত উপন্যাসের নাম ‘ইয়েভেজেনি ওনেজিন’। পুশকিনের ‘ম্যাসেজ অব ইউরোপ’,‘রুসলাম অ্যান্ড লুদমান’ উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ। আলেকজান্ডার পুশকিনের বড় বৈশিষ্ট্য ছিলো বিশ্বসাহিত্যের উপর তাঁর প্রচন্ড দখল। মাত্র ৩৮ বছর বয়সে... continue reading

৬১৩

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বাংলাদেশের কমিউনিস্ট আন্দোলনের অন্যতম নেতা কমরেড অনিল মুখার্জির ৩৩তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি

জাতীয় মুক্তি আন্দোলন তথা মুক্তিযুদ্ধ ও গণতান্ত্রিক সংগ্রামের বিশিষ্ট সংগঠক কমরেড অনিল মুখার্জি। বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির অন্যতম স্থপতি, শ্রমিক আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব অ্নিল মুখার্জি ব্রিটিশদের শোষণ ও নির্যাতন থেকে দেশকে মুক্ত করার জন্য একের পর এক আন্দোলন সংগ্রাম চালিয়ে ছিনিয়ে আনেন স্বাধীনতার সূর্য। স্কুল জীবনেই তিনি জন রীডের সোভিয়েত সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের উপর রচিত 'দুনিয়া কাঁপানো দশ দিন' পড়ে ব্যাপকভাবে আলোড়িত হন। ১৯৩০ সালে কলেজের ছাত্র থাকাবস্থায় কংগ্রেসের আইন অমান্য আন্দোলনে অংশগ্রহন করেন তিনি। সেই আন্দোলনেই প্রথম গ্রেফতার হন। গ্রেফতারের পর ব্রিটিশ সরকার প্রথমে তাঁকে মেদিনীপুর ও হিজলি জেলে আটক করে রাখে। পরে তাঁকে আন্দামান জেলে নির্বাসিত করা হয়। আন্দামানে থাকাকালীন সময়ে... continue reading

৪২৬