"দিনপঞ্জি" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

ত্রিকালদর্শী-বিরল ব্যক্তিত্ব প্রগতিবাদী কথাসাহিত্যিক, সাংবাদিক আবু জাফর শামসুদ্দীনের ২৬তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি


ভাষা সংগ্রামী, প্রগতিবাদী কথাসাহিত্যিক, বহুকাল দর্শী-বিরল ব্যক্তিত্ব সাংবাদিক আবু জাফর শামসুদ্দীন। ধর্ম নিরপেক্ষ, বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও সমাজতান্ত্রিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় বিশ্বাসী একজন প্রগতিশীল লেখক। সাহিত্যচর্চার পাশাপাশি তিনি কর্মজীবনে ছিলেন প্রতিষ্টিত সাংবাদিক। উপন্যাস, ছোট গল্প ও মননশীল প্রবন্ধ লিখে তিনি খ্যাতি অর্জন করেন। ১৯৫২ সালে তিনি ভাষা আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন। সাহিত্য ও সাংবাদিকতায় অবদানের জন্য তিনি বহু পুরস্কার পেয়েছেন। এরমধ্যে সাহিত্যে বাংলা একাডেমী পুরস্কার ও সাংবাদিকতায় অবদান রাখায় ১৯৮৩ সালে একুশে পদক উল্লেখযোগ্য। কীর্তিমান এই গুণী মানুষ ১৯৮৯ সালের আজকের দিনে তি্নি মৃত্যুবরন করেন। আজ তার ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী। প্রগতিবাদী কথাসাহিত্যিক আবু জাফর শামসুদ্দীনের মৃত্যুবার্ষিকীতে গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি।


১৯১১... continue reading

৫৭০

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবসে আমাদের শ্রদ্ধাঞ্জলি


আজ শোকাবহ ১৫ আগস্ট। সপরিবারে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কলঙ্কিত দিন। জাতীয় শোক দিবস। বাঙালির ইতিহাসে কালিমালিপ্ত ১৯৭৫ সালের এই দিনে স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি ও স্বাধীনতা-সংগ্রামের মহানায়ক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কয়েকজন চক্রান্তকারী সেনা সদস্যের হাতে সপরিবারে নিহত হন। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের সময় তাঁর কন্যাদ্বয় বিদেশে অবস্থান করার কারণে বেঁচে গেলেও বঙ্গবন্ধুর তিনজন পুত্রই ঐ রাতে বিপদগামী সামরিক কর্তকর্তাদের হাতে নিহত হন। তাঁর জ্যেষ্ঠ কন্যা বর্তমানে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দ্বায়িত্ব পালন করছেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলনের মহা নায়ক হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাৎ বার্ষিকী আজ। আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী... continue reading

১০৪৪

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বাংলাদেশের প্রথম নারী ব্যারিস্টার এবং মানবাধিকার আন্দোলনের পথিকৃৎ সালমা সোবহানের ৭৮তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা


বাংলাদেশে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার অগ্রদূত এবং তৎকালীন পাকিস্তানের প্রথম মহিলা ব্যারিস্টার সালমা সোবহান। বহু গুণে গুণান্বিত ছিলেন তিনি। ব্যারিস্টার, শিক্ষক, মানবাধিকারকর্মী, সমাজ সংস্কারক এমন অসংখ্য পরিচয়ের ভিড়ে তাঁর সবচেয়ে বড় পরিচয় ছিল, তিনি একজন মানবহিতৈষী ব্যক্তি। মানবাধিকার, গণতন্ত্র, নারীমুক্তি ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করতে হয় তাঁর অবদানকে। চিন্তা- চেতনায় তিনি ছিলেন অত্যান্ত অসামপ্রদায়িক এবং অনুসরণযোগ্য একজন মানুষ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদে দীর্ঘ ১৯ বছর শিক্ষকতা এবং মানবাধিকার সংস্থা আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সালমা সোবহান এদেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য যেমন কাজ করে গেছেন, তেমনি মানবাধিকারের আন্দোলনেও রেখে গেছেন গুরম্নত্বপূর্ণ ভূমিকা। ১৯৮৬ সালে আইন ও... continue reading

৬৩৩

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতা জগতের এক উজ্জল নক্ষত্র নির্মল কুমার সেন গুপ্তের ৮৫তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা


সূর্য সেনের সহযোগী, আপসহীন সাংবাদিক, মুক্তিযোদ্ধা, সারা জীবন মানুষের জন্য কাজ করে যাওয়া বাম রাজনীতিবিদ নির্মল কুমার সেন গুপ্ত। যিনি নির্মল সেন নামে সমাধিক পরিচিত। একজন সুসাহিত্যিক ও ক্ষুরধার কলামিস্ট হিসেবে নির্মল সেনের ছিল বিপুল জনপ্রিয়তা। সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতা জগতের এক উজ্জল নত্র নির্মল সেনের শৈশবকাল থেকেই লেখালেখির হাত ছিল। নির্মল সেন সাংবাদিক ছিলেন। হ’তে চান নি। হ’য়ে গেছেন। আসলে ছিলেন রাজনীতিক। ছিলেন ছাত্র আন্দোলনে, পরে শ্রমিক আন্দোলনে সক্রিয়। তার চেয়েও বেশি ছিলেন রূপান্তরের রূপকার – সমাজের, দেশের। অষ্টম শ্রেণীতে পড়ার সময় হাতে লেখা ‘কমরেড’ পত্রিকায় তিনি লিখতেন। ১৯৭২-৭৩ সালে নির্মল সেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও ১৯৭৩-৭৮ সাল পর্যন্ত... continue reading

৬২৫

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বাংলা গদ্য সাহিত্যের জনক, সমাজ সংস্কারক ও গদ্যকার ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ১২৪তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি


উনিশ শতকের বিশিষ্ট বাঙালি শিক্ষাবিদ, সমাজ সংস্কারক ও গদ্যকার ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর। যাঁরা অতীতের জড় বাধা লঙ্ঘন করে দেশের চিত্তকে ভবিষ্যতের পরম সার্থকতার দিকে বহন করে নিয়ে যাবার সারথি স্বরূপ, বিদ্যাসাগর সেই মহারথীগণের একজন অগ্রগণ্য ছিলেন। বিবিধ বিষয়ে অগাধ পাণ্ডিত্যের জন্য তিনি প্রথম জীবনেই লাভ করেন বিদ্যাসাগর উপাধি। সংস্কৃত ছাড়াও বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় বিশেষ ব্যুৎপত্তি ছিল তাঁর। ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর সনাতন বিশ্বাসের সমাজ ব্যবস্থায় প্রচলিত বর্ণপ্রথার বিরুদ্ধেও অবস্থান গ্রহণ করেছিলেন। তিনি কুসংস্কার রোধে শুধু জনসচেতনতা তৈরি করেননি, উদাহরণও তৈরি করেছেন। বিধবা নারীর সঙ্গে তিনি ছেলের বিয়ে দিয়েছিলেন। একইসঙ্গে তিনি বাল্যবিবাহের বিপক্ষেও প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছেন। নারী মুক্তির লক্ষ্যে তিনি নারীদের শিক্ষার প্রতি... continue reading

১১২৯

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

দক্ষিণ আফ্রিকার মানুষের মুক্তির অগ্রদূত, বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনের অন্যতম নেতা নেলসন ম্যান্ডেলার ৯৭তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা


বিশ্বের বর্ণবিদ্বেষ বিরোধী আন্দোলনের প্রবাদপ্রতিম চরিত্র নেলসন রোলিহালালা ম্যান্ডেলাঃ
নেলসন ম্যান্ডেলা দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ প্রেসিডেন্ট। তাঁকে দক্ষিণ আফ্রিকার গণতন্ত্রের জনক বলে বর্ণনা করা হয়। দক্ষিণ আফ্রিকার সংখ্যালঘিষ্ঠ শ্বেতাঙ্গ শাসক গোষ্ঠী যে অমানবিক বর্ণবাদীনীতির মাধ্যমে রাস্ট্র শাসন করেছে, তারই বিরুদ্ধে অবিশ্রান্তভাবে দীর্ঘকাল দুঃসাহসিক সংগ্রাম করেছেন নেলসন ম্যান্ডেলা। তিনি আফ্রিকান ন্যাশনাল কংগ্রেসের সশস্ত্র সংগঠন উমখন্তো উই সিযওয়ের নেতা হিসাবে এই বর্ণবাদ বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় গণতন্ত্রের জনক, কিংবদন্তী নেলসন ম্যান্ডেলা বর্ণবিদ্বেষ বিরোধী আন্দোলনকে নতুন গতি দিয়েছিলেন। দীর্ঘ ২৭ বছর ভয়ঙ্কর রবেন আইল্যান্ডের কাল কুঠরিতে বন্দী দশা কাটান তিনি। তা সত্বেও দমে যায়নি তাঁর আন্দোলন। তাঁর আন্দোলনের জেরেই... continue reading

৭১০

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

আজ ১১ জুলাই, বিশ্ব জনসংখ্যা দিবসঃ নারী ও শিশু সবার আগে বিপদে-দুর্যোগে প্রাধান্য পাবে

আজ বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস। প্রতিবছর ১১ই জুলাই জাতিসংঘের উদ্যোগে সারা বিশ্বে ‘বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস’ পালিত হয়। বাংলাদেশ পৃথিবীর অন্যতম ঘনবসতপূর্ণ দেশ হওয়াতে বিষয়টি এখানে অনেক বেশি প্রাসঙ্গিক। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশের জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনো সেটা উদ্বেগজনক। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসাবমতে প্রতি মিনিটে বিশ্বে ২৫০টি শিশু জন্মগ্রহণ করে আর বাংলাদেশে জন্মগ্রহণ করে ৯টি শিশু। জনসংখ্যা বৃদ্ধির জন্য বাল্যবিবাহকে দায়ী করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক বলেন, দেশে ১৮ বছরে অধিকাংশ মেয়ের বিয়ে হয়ে যায়। ১৯ বছরেই তাঁরা মা হন। এ জন্য জনসংখ্যা যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে, তেমনি অপুষ্টি নিয়ে শিশু জন্ম নিচ্ছে। জনসংখ্যাকে সম্পদ বলা হলেও অতিরিক্ত জনসংখ্যা... continue reading

৭৯৯

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

উনিশ শতকের নব জাগরণের শ্রেষ্ঠ প্রতিভা মাইকেল মধুসূদন দত্তের ১৪২তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি


ঊনবিংশ শতাব্দীর বিশিষ্ট বাঙালি কবি ও নাট্যকার তথা বাংলার নবজাগরণ সাহিত্যের অন্যতম পুরোধা ব্যক্তিত্ব মাইকেল মধুসূদন দত্ত। সমাজ ও সভ্যতার ক্রমবিকাশের সঙ্গে সঙ্গে সাহিত্যের ইতিহাসও তার পটপরিবর্তন করে। এ বদলের পেছনে বিপ্লব একটা অনিবার্য সত্য হিসেবে দেখা দেয়। বাংলার ইতিহাসেও একটা ভাবের বিপ্লব ঘটেছিল ঊনবিংশ শতাব্দীতে। সেই বিপ্লবেরই সোনার ফসল আধুনিক সাহিত্যের স্বর্ণযুগ। যার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে সংঘটিত হয়েছিল এ বিপ্লব। তিনি হলেন মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত আমাদের মধু দা। তার সাহিত্য বোধ ও ইতিহাস বোধের তুলনা হয় না। বাংলা কবিতার প্রথম আধুনিক কবি পুরুষ মাইকেল মধুসূদন দত্তের হাত ধরেই নব্য বাংলার সাহিত্য পূর্ণরূপে আত্ম প্রকাশ করে। বিস্ময়কর প্রতিভার অধিকারী... continue reading

৮৩২

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বিশ্বের শীর্ষ ১০ জন অসীম সাহসী রমণীদের একজন হিসেবে চিহ্নিত ঝাঁসির রাণী লক্ষ্মী বাঈয়ের ১৫৭তম মৃত্যুবার্ষিকীতে শ্রদ্ধাঞ্জলি

ভারতবর্ষের ইতিহাসে বিপ্লবী নেতা এবং ব্রিটিশ শাসনামলে ১৮৫৭ সালের ভারতীয় বিদ্রোহের অন্যতম পথিকৃত হিসেবে চিরস্মরণীয় ব্যক্তিত্ব ঝাঁসির রাণী লক্ষ্মী বাঈ। অন্যায়-অবিচার আর বঞ্চনার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো এক হিন্দু নারীর অসাধারণ প্রতীক হয়ে আছেন ঐতিহাসিক নারী চরিত্র ঝাঁসির রানি লক্ষ্মীবাঈ। সর্বসাধারণের কাছে তিনি ঝাঁসীর রাণী বা ঝাঁসী কি রাণী হিসেবেও ব্যাপকভাবে পরিচিত। ব্রিটিশ শাসনামলে ভারতবর্ষের ইতিহাসে তিনিই ছিলেন মোটামুটি প্রথম সফল নারী যোদ্ধা। সিনেমার কাহিনীর মতই টানটান উত্তেজনায় ভরপুর এই মহিয়সী নারীর বীরত্বগাঁথা। শাসনকাজ পরিচালনা করতে গিয়ে লক্ষ্মীবাঈ উপলব্ধি করেন এ দেশে ব্রিটিশদের অন্যায়মূলক ঔপনিবেশিক শাসন-শোষণের কঠিন চাপ। প্রতিবাদী হয়ে ওঠেন তিনি। একজন অতি সাধারণ মেয়ে মানু থেকে হয়ে ওঠেন... continue reading

৯৮৩

নূর মোহাম্মদ নূরু

৪ বছর আগে লিখেছেন

বাংলা সাহিত্যের জনপ্রিয় ঔপন্যাসিক ডাঃ নিহাররঞ্জন গুপ্তের ১৯৪তম জন্মবার্ষিকীতে ফুলেল শুভেচ্ছা

বাংলাদেশী জন্মোদ্ভূত ভারতীয় বাঙালি লেখক ডাঃ নীহাররঞ্জন গুপ্ত।ডাঃ নিহাররঞ্জন ছিলেন জনপ্রিয় রহস্য কাহিনীকার এবং চিকিৎসক। তিনি বিখ্যাত গোয়েন্দা চরিত্র কিরীটি রায়ের স্রষ্টা হিসেবে উপমহাদেশে স্মরণীয় হয়ে আছেন। বড়দের ও ছোটদের উপযোগী - উভয় ধরনের গোয়েন্দা উপন্যাস রচনায় সবিশেষ পারঙ্গমতা প্রদর্শন করেছেন নীহাররঞ্জন। ১৯১১ সালের আজকের দিনে বাংলাদেশের যশোহর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন ডাঃ নীহাররঞ্জন গুপ্ত । জনপ্রিয় এই লেখকের ১০৪তম জন্মদিন আজ। জন্মদিনে তাঁকে স্মরণ করছি গভীর শ্রদ্ধা ও ফুলেল শুভেচ্ছায়।
ঔপন্যাসিক ডাক্তার নীহাররঞ্জন গুপ্ত ১৯১১ সালের ৬ই জুন তৎকালীন যশোহরের লোহাগড়া উপজেলার ইটনায় জন্মগ্রহণ করেন। ইটনার বর্তমান অবস্থানঃ নড়াইল>লোহাগড়া>ইতনা গ্রাম (মহাময়া মট)। দূরত্বঃ লোহাগড়া হতে আনুমানিক ১০ কি: মি: যাতায়াতের... continue reading

৪৩৩