"জীবনচর্চা" বিভাগের পোস্ট ক্রমানুসারে দেখাচ্ছে

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

ফেয়ারনেস ক্রিম ক্ষতিকর!

ফেয়ারনেস ক্রিম ক্ষতিকর!
আমাদের সময়ঃ ৮ম পৃষ্ঠাঃ আয়ু পরমায়ু পাতা
ঢাকাঃ বৃহস্পতিবারঃ ১৫ মে ২০১৪ ইংঃ ১ জৈষ্ঠ ১৪২১ বাঙ্গাব্দঃ বর্ষ ১০, সংখ্যা ৩৭

 
বিস্তারিত দেখতে এখানে ক্লিক করতে পারেন
দৈনিক আমাদের সময়ঃ ৮ম পৃষ্ঠা আয়ু পরমায়ু পাতা
ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৫ মে ২০১৪, ১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২১, বর্ষ ১০ সংখ্যা ৩৭
continue reading

৫৭৭

এই মেঘ এই রোদ্দুর

৫ বছর আগে লিখেছেন

প্রথম রোষ্ট রান্না......... (সাথে রেসিপি)

চাকুরী করার সুবাদে রান্নার ঝামেলা অনেকটাই এড়িয়ে চলি অথবা আমাকে এত বড় দায়িত্ব দেয়া হয় না    । ছোট খাট রান্না করি তাও প্রতিদিন সকাল বেলা । ঈদ কিংবা বিভিন্ন মেহমানদারী করার জন্য আমার শাশুড়ী অথবা ভাসুরের বউ রান্না করে থাকেন । একসাথে বেশী তরকারী রান্না করলে কি হবে না হবে এজন্য শাশুড়ী ভয়ে দেন না রানতে ।
রান্নার অনেক ঝামেলা বাপরে । কি দিয়া কি রান্না করতে হবে । কোন মাছের সাথে কোন সবজি । এসব চিন্তা করলে মাথা ঘুরায় । সকালের রান্নার যোগাড় পাতি শাশুড়ী রাতে বলে দেন । সকালে মেয়েটা কাটাকুটি করে দিলে আমি রান্না করে ফেলি... continue reading

৭৯৯

রাজীব নূর খান

৫ বছর আগে লিখেছেন

চর্চা করে যদি ভাল মানুষ হওয়া যায়, গায়ের রং উজ্জল করতে দোষ কি?

একটা মানুষ তখনই সুন্দর হয় যখন সে সার্বিক ভাবে সুন্দর। শুধু তার গায়ের রং ফর্সা বলে নয়। তার আচার আচরণ, চলন বলন, কথাবার্তা, শিক্ষাদীক্ষা, ধ্যান ধারণা, পোশাক আশাক সব কিছুর সমন্বয়ে একজন পরিপূর্ণ এবং সুন্দর মানুষ হওয়া সম্ভব। “ফর্সা ত্বক সৌন্দর্যের একমাত্র মাপকাঠি নয়”। মনকে ফর্সা করুন আর ব্রেন কে তীক্ষ্ণ করুন, চিন্তা ভাবনা উন্নত করুন, কাজে আসবে। মানুষ মানুষকে চেহারা দিয়ে নয়, তার কাজ দিয়ে মনে রাখে। 'প্রথমে দর্শনধারী তারপর গুণবিচারি' বলে বাংলায় একটা প্রবাদ প্রচলিত আছে।
মেলানিনের মাত্রার তারতম্যের কারণেই মূলতো কারো গায়ের রঙ ফর্সা আর কারো কালো। কেমিক্যাল আমাদের কোমল ত্বকের অনেক ক্ষতি করে। নিজেকে... continue reading

৫৩৩

এই মেঘ এই রোদ্দুর

৫ বছর আগে লিখেছেন

একান্ত অনুভূতি .....১ (মা দিবস)

এক.
বাসায় দরজা নক করতেই তা-মীম বলতেছে শুভ মা দিবস মা,
তারপর আমার হাত ধরে রুমে এসে ড্রয়িং খাতায় আঁকা ছবির সাথে মা আমি তোমাকে ভালবাসি লেখাটা গিফট করে
আর ছোট চায়ের কাপে পানিতে ডুবিয়ে রাখা কতগুলো বাগান বিলাস ফুল উপহার দেয় .........

 

তা-সীন টিচারের কাছে পড়তেছিল। পড়া শেষ হলে সেও ড্রয়িং খাতায় দুইটা লাল জবা ফুল ও শুভ মা দিবস লেখাটি গিফট করে । ছোট ছোট ঘটনা গুলো জীবনে অনেক আনন্দ বয়ে আনে । এসবই তো সুখ । অনুভব করতে শুধু মন লাগে । অনেকের এমন মন নেই । এজন্যই আমি সব দিবসকেই... continue reading

১৪ ৭৫৮

তাপস কিরণ রায়

৫ বছর আগে লিখেছেন

পিরামিডের চিকিৎসা শক্তি-(২)

চারটি কোন থেকে তৈরি পিরামিডের রচনা , তার শিখর কেন্দ্র হল চার কোণের সমষ্টি মিলে একটি কোণ । এই শিখর কোনটি ব্রক্ষ্মাণ্ড কিরণ ও কস্মেটিক রেঞ্জকে টেনে নেয় । ব্রক্ষ্মান্ডীয় কিরণ ১৮৬৩০০ মাইল প্রকাশ গতিতে পৃথিবীর দিকে আসতে থাকে । এই কারণে লঘু তরঙ্গ বিদ্যুৎ চুম্বকীয় বল বাধার দিতে থাকে । এর তরঙ্গ ক্ষমতা বা তরঙ্গ দীর্ঘতা এক মিলি মাইক্রো মিটার থেকে নিয়ে এক শ মিলি মাইক্রো মিটার হতে পারে । পিরামিডের ভিতর এই কিরণ তরঙ্গ তার শিখর দিয়ে প্রবেশ করে । এই তরঙ্গ পিরামিডের ভেতরে প্রবেশ করে তার ভিত্তি ও রিক্ত স্থান পরাবর্তন প্রভাবিত হয়ে এক নতুন উর্জা... continue reading

৫৪৭

শেফালী সোহেল

৫ বছর আগে লিখেছেন

ওজন কমাতে বডি র‍্যাপ

ওজন কমাতে বডি র‍্যাপ
আপনি নিশ্চয় জানেন খাবার কমিয়ে ব্যায়াম বাড়ানো হচ্ছে ওজন কমানোর সবচেয়ে ভাল উপায়। আপনি যদি খুব দ্রুত কয়েক পাউন্ড ওজন কমাতে চান তবে বডি র‍্যাপ করে দেখতে পারেন। আপনি ১০০০ টাকা খরচ করে স্পাতে বডি র‍্যাপ করে ওজন কমাতে পারেন আবার ঘরে বসেও তা করতে পারেন।
 
 
ঘরোয়া পদ্ধতিতে বডি র‍্যাপ:
আপনার যা যা লাগবে:
১. দুইটি প্লাস্টিকের ড্রপ কাপড় অথবা শাওয়ার কার্টেন।
২. কিছু পুরোনো বাথ টাওয়েল বা শীট।
৩. আট কাপ ডিস্টিল্ড ওয়াটার।
৪. দুই কাপ ন্যাচারাল ক্ল্যা।
৫. এক কাপ ইপসম অথবা সী সল্ট।
৬. এক কাপ শুকনো তৃণলতা... continue reading

৫৭৫

মো: মালেক জোমাদ্দার

৫ বছর আগে লিখেছেন

অনুগল্প:মে দিবসে" বক্তৃতা

অনুগল্প:মে দিবসে" বক্তৃতা এক মন্ত্রী মহোদয় যাবেন "মে দিবসে" বক্তৃতা করতে। শিশুদের / শ্রমিকের অধিকার নিয়ে কথা বলবেন। সমাজের বেশ গন্যমান্য সমাজসেবকরা সেখানে আছেন। অনুষ্ঠানের মধ্যমনি মন্ত্রী মহোদয়। মন্ত্রী সাহেবের ঘুম থেকে উঠতে বেশ দেরি হলো। তাড়াতাড়ি বের হবে, টেবিলে নাস্তা দিতে দেরি দেখে কাজের মেয়েটিকে এক ধমক। জুতো পলিশ নেই কেন কাজের ছেলেটির গালে কষে চড় সাথে সাথে চাকুরি নাই । সব চাকর-বাকর কাপে থরথর। গাড়ির চালক দরজা খুলতে দেরি দেখে রক্ত চক্ষু। এই বুঝি চাকুরি গেল তার। কাজের ছেলেটির যেহেতু চাকুরি নেই সে ও গেল সেই অনুষ্ঠানে। মন্ত্রী মহোদয় বক্তৃতা শুরু করলেন।হাত তালি। স্লোগান, আমার ভাই তোমার... continue reading

৩৬৫

নূর মোহাম্মদ নূরু

৫ বছর আগে লিখেছেন

ফেয়ারনেস ক্রিমের ছোঁয়ার সুন্দরী পরী হতে চাওয়া মেয়েটি কী জানে ফেয়ারনেস ক্রিম কতটা ক্ষতিকর?

সাধারণ মধ্যবিত্ত ঘরের তরুণী, যে নিজের জীবন নিয়ে অনেক স্বপ্ন দেখে। কিন্তু স্বপ্নের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে তার ঈশ্বরপ্রদত্ত গায়ের রঙ। এ নিয়ে সে খুবই হতাশ। অবশেষে কোনো এক বান্ধবীর পরামর্শে একটি ‘জাদুকরি’ রঙ ফর্সাকারী ক্রিমের খোঁজ পেলো। সেই ক্রিম ব্যবহার করে রাতারাতি পাল্টে গেলো তরুণীর ভাগ্য। রাস্তাঘাটের ছেলেরা অবাক হয়ে তার দিকে তাকাতে লাগলো যারা এতদিন তাকে অবজ্ঞা করতো। একদিন তার স্বপ্নের রাজপুত্র ময়ুরপংখি নাও ভিরালো তার ঘাটে। তার পর শুধু আনন্দের গল্প! কালো মেয়েটের ভাগ্য পরিবর্তনের পুরো কৃতিত্ব রঙ ফর্সাকারী ক্রিমের!! সত্যি হোক কিংবা ভ্রান্তি, মানুষ এখন ফরসা ত্বকে মোহগ্রস্ত। ছেলে কিংবা মেয়ের স্বপ্নের রানী বা রাজা কোন... continue reading

৫০৪

salman atif

৫ বছর আগে লিখেছেন

আক্ষেপ

খুব সহজেই আমরা একজনকে নামের উপাধি দিয়ে বসি...।।।
ধীরে ধীরে সেই উপাধি হয়ে যায় তার আসল নাম..।। একটা সময়
সেই মানুষটার আসল নাম আমরা ভুলে যাই..।।
একটু মনে করে দেখেনতো স্কুল..কলেজ বা ইউনিভার্সিটিতে থাকাকালীন সময়ে আপনার কোনো বন্ধুকে "কানা" উপাধি দিয়েছেন কিনা...?!
কারণ সে চোখে কম দেখতো বলে...।।
বা কোনো বান্ধবীকে "শুঁটকি" নামে খেপাতেন কিনা কারণ সে খুব হালকা পাতলা ছিল গড়নে..।।।।
অনেক বছর পর হুট করে রাস্তায় দেখা হয়ে যাওয়া সেই বন্ধুকে দেখেই বলবেন হয়তো.."আরে কানা না..আছস কেমন..?"
বা তাকেই জিজ্ঞেস করবেন.."শুঁটকির খবর জানোস কিছু..পাশ
করার পর আর কোনো খবর নাই ওর".....
উপাধি পাওয়া সেই মানুষগুলো কখনও কিছু বলে না..।।
তাদের... continue reading

৫৬২

মোঃ মাতীন পাগলা

৫ বছর আগে লিখেছেন

কার্ল হাইনরিশ মার্ক্স (কার্ল মার্ক্স)

সংক্ষিপ্তজীবনীঃ
(৫মে১৮১৮ - ১৪মার্চ১৮৮৩)কার্লমার্ক্সপ্রুশিয়াসম্রাজ্যেরনিম্নরাইনপ্রদেশেরঅন্তর্গত Trier নামকস্থানেএকইহুদিপরিবারেজন্মগ্রহণকরেন।পরিবারেরনয়সন্তানেরমধ্যেতিনিছিলেনতৃতীয়।বাবাহাইনরিশমার্ক্সএমনএকবংশেরলোকযেবংশেরপূর্বপুরুষেরারাব্বিছিলেন।অবশ্যতাদেরমধ্যেঅতিবর্তীঈশ্বরবাদএবংআলোকময়তারযুগেরপ্রভাবলক্ষ্যকরাযায়।তাদেরঅনেকেইভলতেয়ারওরুসোরমতদার্শনিকদেরপ্রশংসাকরতেন।জন্মেরসময়হাইনরিশমার্ক্সেরনামছিল Herschel Mordechai, তারবাবারনাম Levy Mordechai (১৭৪৩-১৮০৪) এবংমা'রনাম Eva Lwow (১৭৫৩-১৮২৩)।ইহুদিপরিবারেইহাইনরিশেরজন্ম, কিন্তুধর্মেরকারণেআইনঅনুশীলনেবাধাগ্রস্তহওয়ায়তিনিইহুদিধর্মত্যাগকরেলুথারীয়মতবাদেদীক্ষানেন।লুথারীয়ধর্মতখনপ্রুশীয়সাম্রাজ্যেররাষ্ট্রীয়প্রোটেস্ট্যান্টধর্মছিল, তাইসেইরোমানক্যাথলিকসংখ্যাগরিষ্ঠরাষ্ট্রেলুথারীয়সংখ্যালঘুহিসেবেবিভিন্নসুযোগসুবিধালাভেরআশায়ইতিনিএভাবেধর্মান্তরিতহয়েছিলেন।কার্লমার্ক্সেরমা'রনাম Henriette née Pressburg (১৭৮৮-১৮৬৩)।তিনিশিল্পপতি Gerard Philips ও Anton Philips এরমাতামহ (আপননন) এবং Barent-Cohen পরিবারেরউত্তরসূরী। Henriette এরবাবারনাম Isaac Heijmans Presburg (১৭৪৭-১৮৩২) এবংমা'রনাম Nanette Salomon Barent-Cohen (১৭৬৪-১৮৩৩)। Nanette এরবাবাছিলেন Salomon David Barent-Cohen (মৃ. ১৮০৭) এবংমাছিলেন Sara Brandes।এইসালোমোনওসারাআবারবিবাহসূত্রে Nathan Mayer Rothschild এরস্ত্রীরচাচা-চাচীছিলেন।শিক্ষাঃকার্লমার্ক্স১৩বছরবয়সপর্যন্তবাড়িতেইপড়াশোনাকরেন।বাল্যপাঠশেষে Trier Gymnasium এভর্তিহন, ১৭বছরবয়সেসেখানথেকেস্নাতকহন।এরপরইউনিভার্সিটিঅফবন-এআইনবিষয়েপড়াশোনাশুরুকরেন।তারইচ্ছাছিলসাহিত্যওদর্শননিয়েপড়া, কিন্তুতারবাবামনেকরতেনকার্লস্কলারহিসেবেনিজেকেপ্রস্তুতকরতেপারবেনা।কিছুদিনেরমধ্যেইতারবাবাতাকেবার্লিনের Humboldt-Universität এবদলিকরিয়েদেন।সেসময়মার্ক্সজীবননিয়েকবিতাওপ্রবন্ধলিখতেন, তারলেখারভাষাছিলবাবারকাছথেকেপাওয়াধর্মতাত্ত্বিকতথাঅতিবর্তীঈশ্বরবাদেরভাষা।এসময়ইতরুণহেগেলিয়ানদেরনাস্তিকতাবাদগ্রহণকরেন।১৮৪১সালেপিএইচডিডিগ্রিলাভকরেন।তারপিএইচডিঅভিসন্দর্ভেরবিষয়ছিল "The Difference Between the Democritean and Epicurean Philosophy of Nature" (প্রকৃতিসম্বন্ধেদেমোক্রিতোসীয়ওএপিকুরোসীয়দর্শনেরমধ্যেপার্থক্য)।উল্লেখ্য, পিএইচডিঅভিসন্দর্ভতিনিবার্লিনেরবিশ্ববিদ্যালয়েজমানাদিয়েইউনিভার্সিটিঅফজেনা-তেজমাদেন।কারণতরুণহেগেলিয়ানর‌্যাডিকেলহওয়ারকারণেবার্লিনেতারভাবমূর্তিভালছিলনা।তরুণহেগেলিয়ানমার্ক্সঃবার্লিনেরবিশ্ববিদ্যালয়েদুটিভাগছিল।তরুণহেগেলিয়ান, দার্শনিকছাত্রএবংলুটভিগফয়ারবাখওব্রুনোবাউয়ার-কেকেন্দ্রকরেগঠিতসাংবাদিকসমাজছিলবামপন্থী।আরশিক্ষকসমাজছিলজিডব্লিউএফহেগেল।এইদুটিভাগছিলপরস্পরবিরোধী।হেগেলেরঅধিবিদ্যাগতঅনুমিতিগুলোরসমালোচনাকরলেওবামপন্থীরাপ্রতিষ্ঠিতধর্মওরাজনীতিরকঠোরসমালোচনারজন্যহেগেলেরদ্বান্দ্বিকপদ্ধতিইঅনুসরণকরতো।কিছুতরুণহেগেলিয়ানএরিস্টটল-উত্তরদর্শনেরসাথেহেগেল-উত্তরদর্শনেরসাদৃশ্যতুলেধরেন।যেমন, মাক্সস্টির্নারতার Der Einzige und sein Eigenthum (১৮৪৪) বইয়েফয়ারবাখওবাউয়ারেরসমালোচনাকরেন, বিমূর্তধারণাগুলোরদ্ব্যর্থতাবোধকহেত্বাভাস (reification) চর্চারজন্যতাদেরকেধার্মিকব্যক্তিবলেআখ্যায়িতকরেন।মার্ক্সএইবইপড়েমুগ্ধহয়েফয়ারবাখেরবস্তুবাদত্যাগকরেন।এইরূপতাত্ত্বিকবিরতি (epistemological break) ঐতিহাসিকবস্তুবাদবিষয়েতারধারণারভিত্তিরচনায়যথেষ্টসাহায্যকরে।এইনতুনধারণারমাধ্যমেতিনিস্টির্নারেরওবিরোধিতাকরেন।এবিষয়েএকটিবইওলিখেনযারনাম Die Deutsche Ideologie (১৮৪৫)।অবশ্য১৯৩২সালেরআগেএইবইপ্রকাশেরমুখদেখেনি।প্যারিসওব্রাসেল্‌সঃ১৮৪৩সালেরঅক্টোবরমাসেরশেষেরদিকেমার্ক্সপ্যারিসেআসেন।এশহরতখনজার্মান, ব্রিটিশ, পোলীয়ওইতালীয়বিপ্লবীদেরসদরদফতরহয়েউঠেছিল।তিনিপ্যারিসেগিয়েছিলেনমূলতজার্মানবিপ্লবী Arnold Ruge এরসাথে... continue reading

৪২৫